আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

কুষ্টিয়ায় পুকুর থেকে অজ্ঞাত মহিলার লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ অক্টোবর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৬ অক্টোবর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
রফিকুল ইসলাম, কুষ্টিয়া

Image

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল ইউনিয়নের স্কুলপাড়া ভাটার পুকুরে ভাসমান এক অজ্ঞাত মহিলা (৩৫)'র মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৬ অক্টোবর) সকালের দিকে এলাকার ভাটার পুকুরে থেকে ভাসমান উক্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, শুক্রবার (৬ অক্টোবর) সকালের দিকে কুষ্টিয়ার বটতৈল ইউনিয়নের ভাটার পুকুরে ভাসমান অবস্থায় এক অজ্ঞাত মহিলার লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরবর্তীতে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে। মরদেহের শরীর ও মুখ ফুলে বীভৎস হয়ে যাওয়ায় মুখ দেখে এখন পর্যন্ত কেউ শনাক্ত করতে পারেনি। শরীরে থাকা পোশাক দেখে লাশের পরিবার স্বজনরা লাশ সনাক্ত করতে পারবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত তার নাম পরিচয় জানা যায়নি। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছেন।

লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান।


আরও খবর



‘অপতথ্য রুখতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ’

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ এ আরাফাত বলেছেন, অপতথ্য মানবসমাজকে বিরাট ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছে। প্রযুক্তি ব্যবহার করে এগুলো করা হচ্ছে। এসব অপতথ্য রুখতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ।

রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) রাষ্ট্রদূত চার্লস হোয়াইটলির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যপ্রতিমন্ত্রী বলেন, অপতথ্যের কারণে পশ্চিমারা এবং আমরা সবাই ক্ষতিগ্রস্ত। আমাদের মধ্যে সেই আলাপই হয়েছে। এ নিয়ে নৈতিকভাবে আমরা একমত আছি। পশ্চিমারা বিভিন্ন ধরনের আইন করছেন। সেই আইনের খসড়া, আইন প্রণয়নের বিষয়গুলো আমাদের শেয়ার করবেন। বিশ্বজুড়ে অপতথ্যের এই উদ্বেগটা আছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের যেমন আছে, তেমনই আমাদেরও আছে। সে ক্ষেত্রে আমরা কীভাবে পরস্পরকে সহায়তা করতে পারি তা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, মূলত আজ আমরা ডিজইনফরমেশন ও মিসইনফরমেশন নিয়ে আলোচনা করেছি, কীভাবে ইনক্লুসিভ (অন্তর্ভুক্তিমূলক) একটি ব্যবস্থার মাধ্যমে এটার বিরুদ্ধে আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যেতে পারি।

তিনি বলেন, নতুন একটা সমস্যা তৈরি হয়েছে, সেটা নিয়ে তারাও চিন্তা করছেন, আমরাও করছি। এখানে আমরা অংশীদার হচ্ছি। পরস্পরকে সহযোগিতা করে বৈশ্বিকভাবে আমরা এর একটা সুরাহা করতে পারি কি না; সেই আলাপ হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, যুদ্ধ-বিগ্রহে সাংবাদিকদের ঝুঁকির মধ্যে পড়া, সেটা তো আছেই। বৈশ্বিক দৃষ্টিকোণ থেকে সেগুলো নিয়ে একটা আলাপ হয়েছে। ইউরোপেও বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জ আছে বলে রাষ্ট্রদূত বলেছেন। আমাদের দেশেও কোথায় কোথায় আমরা ইমপ্রুভ করতে পারি, সেটা নিয়ে আলাপ হয়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে ওপেন করে দেয়া হয়েছে, গণমাধ্যমের বিস্তৃতি ঘটেছে। এই উদার করতে এমনও হয়েছে, গণমাধ্যমের মধ্যেও একটা ইনডিসিপ্লিন হয়ে গেছে। এটা আমরা বলছি না, গণমাধ্যমকর্মী হিসেবে আপনারাই বলছেন।

পেশাদার সাংবাদিকরাই বলছেন যে এটাকে রেগুলেশন, ডিসিপ্লিনে আনা দরকার। আপনারাই বলছেন একটু রেগুলেট করতে হবে। এগুলো নিয়েও আলোচনা হয়েছে। আমরা একটি স্বাস্থ্যকর পরিবেশ চাই। গণতন্ত্র হচ্ছে আইনের শাসন। স্বাধীনতার নামে আমরা তো জঙ্গল বানিয়ে ফেলতে পারি না।


আরও খবর



সংরক্ষিত ৫০ নারী আসনের ভোট ১৪ মার্চ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত ৫০টি নারী আসনে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৪ মার্চ। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সংরক্ষিত নারী আসনে ভোটের এ তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

এদিন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালের সভাপতিত্বে কমিশন বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে তফসিল ঘোষণা করেন ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম।

জানা গেছে, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ১৪ দলের শরিকদের সঙ্গে জোটবদ্ধ হয়ে সংসদে সংরক্ষিত ৫০টি নারী আসনের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। তাদের সঙ্গে স্বতন্ত্র এমপিদের সমর্থন থাকতে পারে।

বিদ্যমান আইন অনুযায়ী, সরাসরি ভোটে জয়ী দলগুলোর আসন সংখ্যার অনুপাতে নারী আসন বণ্টন করা হয়। সংসদের সাধারণ আসনে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা সংরক্ষিত আসনের নির্বাচনের ভোটার হন।

আইন অনুযায়ী সাধারণ নির্বাচনের ফলাফলের গেজেট প্রকাশের ৯০ দিনের মধ্যে সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে হবে। গত ৭ জানুয়ারি ভোটের পর ৯ জানুয়ারি গেজেট প্রকাশ হয়েছে। এ হিসাবে ইসির আগামী ৭ এপ্রিলের মধ্যে সংরক্ষিত নারী আসনের ভোট অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। যদিও তফসিল অনুযায়ী তার তিন সপ্তাহ আগেই ভোটগ্রহণের দিন ঠিক করেছে কমিশন।

গত ৭ জানুয়ারি ২৯৯টি আসনে অনুষ্ঠিত দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ২২৩টি, জাতীয় পার্টি ১১টি, জাসদ ১টি, ওয়ার্কার্স পার্টি ১টি, কল্যাণ পার্টি ১টি এবং স্বতন্ত্র ৬২টি আসনে জয় পেয়েছে। নির্বাচনের আগে প্রার্থীর মৃত্যু হওয়ায় নওগাঁ-২ আসনের ভোট স্থগিত করা হয়। ওই আসনে ভোট হবে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি।

আনুপাতিক প্রতিনিধিত্ব পদ্ধতিতে এবার জাসদ ও ওয়ার্কার্স পার্টির দুজনসহ আওয়ামী লীগ ৩৮টি, জাতীয় পার্টি দুটি, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জোটভুক্ত হয়ে ১০টি সংরক্ষিত আসন পেতে পারে।


আরও খবর



উত্তর আমেরিকার ‘কিনোয়া’ মিরসরাইয়ে

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ফিরোজ মাহমুদ, মিরসরাই (চট্টগ্রাম)

Image

উত্তর আমেরিকার ফসল কিনোয়া এবারই প্রথম চাষ হয়েছে চট্টগ্রামে। মিরসরাই উপজেলা কৃষি অফিসের সহযোগিতায় ২৪ শতক জমিতে প্রথমবারের মতো সম্ভাবনার এ ফসল চাষ করেছেন কৃষক দীলিপ নাথ। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ঘরে উঠবে তাঁর স্বপ্নের ফসল। অন্যান্য ফসলের তুলনায় স্বল্প সময়, খরচ আর পরিশ্রমের হওয়ায় আবারো চাষের লক্ষ্যে এগুচ্ছেন তিনি। তাঁর দেখাদেখি আরো অনেক কৃষক আগ্রহী হয়েছেন শস্যদানা কিনোয়া চাষে।

মঘাদিয়া ইউনিয়নের তিনঘড়িয়াটোলা এলাকার কৃষক দীলিপ নাথ। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা প্রতাপ চন্দ্র রায়ের সঙ্গে আলাপচারিতায় প্রথম জানতে পারেন বিদেশি এই ফসল সম্পর্কে। শুনে মনে কিছুটা সংশয় কাজ করলেও শেষমেশ নেমে পড়েন ফসল ফলাতে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার সহযোগিতায় বীজ সংগ্রহ করা হয় বাংলাদেশে কিনোয়ার নতুন বীজ উদ্ভাবক শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) কৃষিতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক পরিমল কান্তি বিশ্বাসের কাছ থেকে। ১৭ ডিসেম্বর তিনি বীজ আবাদ করেন। ৪ থেকে ৫ দিনের মধ্যে চারা গজিয়ে এখন ফসল ঘরে উঠার অপেক্ষায়।

গতকাল সরেজমিন দেখতে আসেন কিনোয়ার নতুন বীজ উদ্ভাবক শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) কৃষিতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক পরিমল কান্তি বিশ্বাস।

কৃষক দিলীপ নাথ বলেন, কিনোয়া সম্পর্কে জানতাম না। তাই ফলনের ব্যাপারে শুরুতে কিছুটা ভয় কাজ করেছে। তবে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কিনোয়া নিয়ে যে সম্ভাবনার পথ দেখিয়েছেন তাতে আমি পুরোপুরি আশ্বস্ত হয়ে ২৪ শতক জমিতে কিনোয়া চাষ করি। এখন পুরো ক্ষেতে ফসলে ভরপুর। আনন্দ লাগছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ফসল ঘরে তুলতে পারবো। আশা করছি ভালো দাম পাবো।

২৪ শতকে ১৪ হাজার টাকা খরচ পড়েছে। দুই থেকে তিন মণ ফসল উঠার সম্ভাবনা’— বলেন কৃষক দীলিপ নাথ।

উপজেলা কৃষি অফিস জানায়, চট্টগ্রামে এই প্রথম হলেও দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে কিনোয়ার চাষ শুরু হয়েছে। পরীক্ষামূলকভাবে প্রথমবারের মতো ২৪ শতক জমিতে চাষ করা হয়েছে। বাংলাদেশে এখনো পরিচিতি না পেলেও এই সফলের বেশ চাহিদা রয়েছে ইউরোপ আমেরিকায়। বাংলাদেশের সুপারশপগুলোতেও বাজার গড়ে উঠছে বিদেশি এই ফসলের। কেজি প্রতি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

রান্না করলে এই কিনোয়াবীজ প্রায় চারগুণ ফুলেফেঁপে ওঠে এবং কিছুটা স্বচ্ছ দানাদার আকৃতি ধারণ করে। মৃদু স্বাদের কিনোয়া একেবারে গলে যায় না এবং কিছুটা চিবিয়ে খেতে হয়।

সুপারফুড নামে পরিচিত পাওয়া কিনোয়ায় রয়েছে হাইপ্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল, আয়রন ও এন্টিঅক্সিডেন্ট। তবে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য বেশ উপকারী। তাই বৈশ্বিক বাজারে এর জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার প্রতাপ চন্দ্র রায় বলেন, কিনোয়া উত্তর আমেরিকার ফসল। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক পরিমল কান্তি বিশ্বাস স্যার বাংলাদেশে সর্ব প্রথম কিনোয়া নিয়ে কাজ করছেন। স্যারের কাছ থেকে বীজগুলো সংগ্রহ করেছি। পরীক্ষামূলকভাবে প্রথমবারের মতো চাষ করে আশাব্যঞ্জক ফলাফল পাওয়া গেছে। ধীরে ধীরে চাষের পরিমাণ বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রতাপ চন্দ্র রায় বলেন, অপরিচিত ফসল হওয়ায় এখনো স্থানীয় বাজার গড়ে উঠেনি তবে ডা. জাহাঙ্গীর কবিরসহ বেশ কয়েকটি সুপারশপ বিদেশ থেকে আমদানি করে বিক্রি করছে। দিলীপ নাথের ফসল অগ্রিম বুকিং দিয়ে রেখেছেন ঢাকার বেশ কয়েকজন। হারবেস্ট/হারভেস্ট করলেই তা ক্রেতার কাছে পৌঁছে যাবে।


আরও খবর



শরীর নিয়ে কটাক্ষ পরিচালকের, জবাবে যা বলেন ম্রুনাল ঠাকুর

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ম্রুণাল ঠাকুর। দক্ষিণী সিনেমা সীতা রামম থেকে হাই নান্নার মতো জনপ্রিয় সিনেমা দিয়ে দর্শক থেকে সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তবে নিজের শারীরিক গড়ন নিয়ে ক্যারিয়ারে কিছু ঘটনার সম্মুখীন হতে হয়েছে অভিনেত্রীকে। এমন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ে এবার মুখ খুললেন তিনি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বডি শেমিং নিয়ে কথা বলেছেন ম্রুণাল। তিনি জানান, এক পরিচালক একবার মুখের ওপর তাঁকে বলেন, সে দেখতে একটুও সেক্সি নয়। অভিনেত্রী তখন পালটা জানতে চান, মন্তব্যটি কি তাঁর অভিনীত চরিত্রটির জন্য নাকি পরিচালক বাস্তব জীবনে ম্রুণালকে দেখে এ মন্তব্য করেছেন।

ম্রুণালের প্রশ্নে পরিচালক তখন জবাব দেন, হ্যাঁ, খুব সেক্সি একটা চরিত্র। তুমি তো এর ধারেকাছেও নেই। ম্রুনাল ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী নন, পরিচালককে তখন লুক টেস্ট নেওয়ার কথা বলেন অভিনেত্রী। ফটোশুটের শুরুতে ফটোগ্রাফারও অপমান করেন ম্রুণালকে। বলে ওঠেন, এই গেঁয়ো মেয়েটা কে? মুখে জবাব দেননি ম্রুনাল, জবাব দিয়েছেন কাজে। পরে মত বদলে ক্ষমা চান ওই ফটোগ্রাফার। ম্রুণালের কথায়, অভিনেতা হিসেবে জরুরি হল ন্যাচারাল থাকা। হাসিমুখে তিনি বলেন, যখন সেক্সি কথাটা বলা হয়, আর সেটা যদি আমি ভাবি, তাহলে আমার পায়ের মরা চামড়াও তখন সেক্সি লাগবে।

যৌন আবেদন ব্যাপারটা সবার কাছে সমান নয় জানান অভিনেত্রী। ম্রুনাল যোগ করেন, আমি একবার একটা গান করেছিলাম। সেখানে লোকজন বলছিল আমাকে ওজন কমাতে হবে। আমি পালটা বলি, আমার থাই মোটা এবং সেটা একান্ত আমার নিজের। সেটা নিয়ে যদি আমার কোনও সমস্যা না হয়, তাহলে আপনাদের সমস্যাটা কোথায়?

উল্লেখ্য, ২০২৩ সালে একাধিক কাজে দেখা গেছে ম্রুণালকে। এ বছরই বিজয় দেবেরাকোন্ডা এবং পরিচালক পরশুরাম পেটলার সঙ্গে ফ্যামিলি স্টারে অভিনয় করবেন তিনি। এ ছাড়াও সামনে তাঁকে পূজা মেরি জান সিনেমায়ও দেখা যাবে।


আরও খবর



শহীদ-কৃতির যে ছবিতে উত্তাল ভারতের বক্স অফিস

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

মুক্তির শুরু থেকেই বক্স অফিসে বেশ সাড়া ফেলছে শহীদ কাপুর ও কৃতি শ্যানন অভিনীত সিনেমা তেরি বাতোঁ মে অ্যায়সি উলঝা জিয়া। শুধু বক্স অফিসে চমক নয়, আয়ের পাশাপাশি সমালোচক ও দর্শকদের কাছে ছবিটি ব্যাপক প্রশংসা পাচ্ছে।

অল্প বাজেটের এআই নারী ও ইঞ্জিনিয়ারের প্রেম নিয়ে রোবটিক্স কাহিনী নির্ভর ছবিটিকে ঘিরে রীতিমত উত্তাল এখন ভারতের বক্স অফিস।

বলিউড মুভি রিভিউজ বলছে, মুক্তির তিন দিনে ক্রমাগতই বেড়ে চলেছে শহীদ-কৃতির নতুন এই ছবির আয়।

মুক্তির প্রথম দিনে শুধু ভারতে ৮৫ কোটি রুপি বাজেটের ছবিটির আয় যেখানে ৭.০২ কোটি রুপি ছবি, সেখানে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিনে যেটি বেড়ে যথাক্রমে ১০.৫ ও ১১.৫৯ কোটি রুপি। ফলে তিন দিনে এখন পর্যন্ত ছবিটির আয় দাঁড়িয়েছে ২৯.১১ কোটি রুপি!

এছাড়াও ভারতের পাশাপাশি বিশ্বব্যাপীও ছবিটির আয় বেশ সন্তোষজনক। জানা গেছে, তিন দিনে বিশ্বব্যাপী ছবিটি আয় করেছে ৫৫ কোটি রুপির বেশি! সেই সঙ্গে চলতি বছর মুক্তি প্রাপ্ত প্রথম দিনের সর্বোচ্চ আয়ের দিক থেকেও ভারতীয় সিনেমা হিসেবে ছবিটি দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে।

এদিকে ছবিটি নিয়ে এক্সে এক পোস্ট দেন সিনেমা বাণিজ্য বিশ্লেষক রমেশ বালা। ছবিতে কৃতির অভিনয়ের প্রশংসা করে তিনি লিখেছেন, ছবিটিতে কৃতির অভিনয় এককথায় অসাধারণ। রোবোট হিসেবে তার অভিব্যক্তিগুলো একেবারেই নিখুঁত।

এ ছাড়া সিনেমা বিশ্লেষকেরা বলছেন, ভালোবাসা দিবসের আগের দিনও ভালো ব্যবসা করবে রোবট আর মানুষের ভালোবাসার ছবিটি। আর ভ্যালেন্টাইন ডেতে বক্স অফিসে ঝড় তুলবে তেরে বাতোঁ মে অ্যায়সি উলঝা জিয়া

ছবিটি পরিচালনা করেছেন অমিত যোশি ও আরাধনা শাহ। সায়েন্স ফিকশন রোমান্টিক কমেডি ঘরানার ছবি এটি। ছবিতে শহীদ ও কৃতি ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন ধর্মেন্দ্র ও ডিম্পল কাপাডিয়া।


আরও খবর