আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

জয়পুরহাটে দুই যুগ ধরে পরিত্যক্ত সরকারি কর্মকর্তাদের বাসভবন

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৬ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
সুজন কুমার মন্ডল, জয়পুরহাট

Image

জয়পুরহাট কালেক্টর চত্বরে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ১৯৮০ সালে নির্মাণ করা হয় দুটি ভবন। গণপূর্ত বিভাগের তত্ত্বাবধানে প্রায় দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত তিনতলা ভবনে রয়েছে ১২টি ফ্ল্যাট। কয়েক বছর পর থেকে ভবন দুটিতে আর কোনো কর্মকর্তাকে থাকতে দেখা যায়নি। প্রায় দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে ভবন দুটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। বছরের পর বছর জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে থাকা ভবন পরিণত হয়েছে ভুতুড়ে বাড়িতে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, মাদকসেবীসহ বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপের অভয়ারণ্য সরকারি এ বাসভবন। এটা এখন শহরবাসীর জন্য আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভবন দুটি সংস্কার করে বসবাস উপযোগী করার দাবি তাদের।

জয়পুরহাট গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ড. ফারজানা আকতার বলেন, অনেক বছর ধরে ভবন দুটি অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা পেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সরেজমিন দেখা গেছে, ভবন দুটির দরজা-জানালা চুরি হয়ে গেছে। আগাছা-লতাপাতায় জনশূন্য ভবন দুটিতে এখন সাপ আর পোকামাকড়ের বাস।

স্থানীয় বাসিন্দা সবুজ, আতিক, বাবুসহ অনেকে জানান, ভবন দুটি দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত থাকায় আগাছা জন্ম নিয়েছে। ময়লা-আবর্জনায় মরিচা ধরে নষ্ট হচ্ছে ভবন। চুরি হয়ে যাচ্ছে লোহার জানালা-দরজাসহ অন্যান্য সামগ্রী। দিনে ও রাতে মাদকসেবীদের আনাগোনাসহ চলে অসামাজিক কার্যকলাপ। নিরাপদে চলাফেরা করা যায় না।

জয়পুরহাট জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ভবন দুটি পরিত্যক্ত থাকায় অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ আমার কাছে আসে। ভবন দুটি সংস্কার করলে সরকার রাজস্ব পাবে, পাশাপাশি এলাকার পরিবেশও ভালো হবে।

নিউজ ট্যাগ: জয়পুরহাট

আরও খবর



লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল থেকে পাঁচ দালাল আটক

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

Image

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীদের দালাল চক্রের হাতে জিম্মি হয়ে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালের হয়ে দালালরা রোগীদের সদর হাসপাতাল থেকে ভাগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন।

দালালদের এমন উৎপাতের কারণে বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) হাসপাতাল প্রাঙ্গণ থেকে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) লক্ষ্মীপুর কার্যালয়ের সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ৯ জনকে আটক করে।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের সোপর্দ করা হয়।এদের মধ্যে ৫ জন দোষী সাবস্ত হওয়ায় তাদের প্রত্যেকের ১০ দিন করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক। তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ওমর ফারুক (২৭), আমিনুল (২৩), রহমান আল আজাদ (৩৭), সুজন (২৩) ও আকরাম হোসেন (২৭)।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ক্যথোয়াইপ্রু মারমা।

তিনি বলেন, ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে ৫ জন দোষী সাবস্ত হয়েছে। তারা নিজেদের দোষ স্বীকার করেছে। তাদের প্রত্যেকের ১০ দিন করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, প্রান্তিক জনগণ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে এসে এদের হাতে বিভিন্ন ভাবে হয়রানির শিকার হতে হয়। যা আইনত অপরাধ।

নিউজ ট্যাগ: লক্ষ্মীপুর

আরও খবর



বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পরিবার কল্যাণ সংঘ কর্তৃক ভোলায় জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম পরিচালনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পরিবার কল্যাণ সংঘ কর্তৃক ভোলায় জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম পরিচালনা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি ) বিকালে কোস্ট গার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার খন্দকার মুনিফ তকি এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পরিবার কল্যাণ সংঘ (সিজিএডব্লিউএ) ২০০২ সালে যাত্রা শুরুর পর হতে বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক ও সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এরই অংশ হিসেবে প্রতিবছরের ন্যায় এবছরও ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ তারিখ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড দক্ষিণ জোন অধীনস্থ বিসিজি বেইস ভোলা সিজিএফডব্লিউএ প্রাঙ্গনে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পরিবার কল্যাণ সংঘের প্রেসিডেন্ট শারমীন এরশাদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে গরীব, দুস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে ভ্যান গাড়ি, সেলাই মেশিন এবং অসহায় ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে আর্থিক অনুদান প্রদান করেন। এছাড়াও গরীব ও অসহায় নারীদের স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে কোস্ট গার্ড কর্তৃক আয়োজিত নকশি কাঁথা, আলপনা এবং মৃৎ শিল্প প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর কার্যক্রম অবলোকন করেন। তিনি আরও বলেন, উক্ত কার্যক্রমে কোস্ট গার্ড দক্ষিণ জোনের পরিবার কল্যাণ সংঘের চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



রমজানকে সামনে রেখে চট্টগ্রামে বাজার মনিটরিং শুরু

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

চট্টগ্রামের বৃহত্তম পাইকারি ও খুচরা বাজার রিয়াজুদ্দিন বাজারে পবিত্র রমজানকে সামনে রেখে অভিযান শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। শনিবার রিয়াজুদ্দিন বাজারে বাজার মনিটরিং শুরু করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব প্রতীক দত্ত।

এসময় সাথে ছিলেন কৃষি বিপণন কর্মকর্তা মোর্শেদ কাদের এবং কোতোয়ালি থানা পুলিশের একটি দল। বাজারে মূল্য তালিকা না থাকা, ক্রয় বিক্রয় রশিদ না থাকাসহ বিভিন্ন অসংগতি পায় অভিযান পরিচালনাকারী দল। প্রথম দিন কোন জরিমানা ছাড়াই বাজার মনিটরিং শেষ হয়।

অভিযান শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্ত বলেন, বাজারে পিয়াজ আলুসহ সবজীর বাজার মোটামুটি সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে। খেজুর এবং ফলের দাম একটু বাড়তি রয়েছে। যদি কেউ বেশী মজুদ করে অথবা যেকোনো অসাধু উপায়ে দাম বাড়াতে চান তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলো তৎপর রয়েছে। তথ্য পাওয়া মাত্রই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম এর জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান বলেন, পবিত্র রমজানে কোন অসাধু কারসাজি যেন না হয় সে বিষয়ে আমরা সতর্ক রয়েছি। পণ্যের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে কেউ অসাধু উপায়ে মুনাফা লাভ করতে পারবে না। বাজারে আমাদের কঠোর নজরদারি অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদিহীন এক যুগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

নান্দনিক অভিনয় গুণে একজন ভার্সেটাইল অভিনয়শিল্পী হয়ে উঠেছিলেন হুমায়ুন ফরীদি। পর্দায় তার অভিনয়ে বারবরই মুগ্ধ হতো দর্শকরা। জায়গা করে নিয়েছিলেন কোটি বাঙালির হৃদয়ে। কিন্তু হঠাৎ করেই ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি না ফেরার দেশে পাড়ি জমান কিংবদন্তি এই অভিনেতা।

এ অভিনেতার মৃত্যু যেমন ইন্ডাস্ট্রিতে শূন্যতা তৈরি করেছে, তেমনি শূন্যতা তৈরি হয়েছে ভক্তহৃদয়ে। তাদের হৃদয় আজও চির অমলিন। আর প্রিয় এই সহকর্মী ও তারকার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সোশ্যাল মিডিয়া এবং বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছেন সবাই।

হুমায়ুন ফরীদির অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল মঞ্চ থেকে। তারপর টেলিভিশন নাটক ও চলচ্চিত্রে দ্যুতি ছড়িয়েছেন। নব্বইয়ের দশকে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমাগুলো হলো দহন, বীর পুরুষ, লড়াকু, বিশ্বপ্রেমিক, দুর্জয়, আনন্দ অশ্রু, আসামী বধূ, প্রাণের চেয়ে প্রিয়, কখনো মেঘ কখনো বৃষ্টি, ভণ্ড, ব্যাচেলর, শ্যামল ছায়া ও মেহেরজান প্রভৃতি।

এ অভিনেতা তার সৃজনশীল কর্মযজ্ঞের জন্য স্বীকৃতিস্বরূপ মাতৃত্ব সিনেমার জন্য ২০০৪ সালে সেরা অভিনেতা শাখায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। এছাড়া নাট্যাঙ্গনে অসামান্য অবদানের জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠানের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে সম্মাননা প্রদান করেন হুমায়ন ফরীদিকে।

হুমায়ুন ফরীদির জন্ম ঢাকায় ১৯৫২ সালের ২৯ মে। ছেলেবেলায়ই হাতেখড়ি অভিনয়ে। ক্রমে সেটিই হয়ে ওঠে জীবনের ধ্যানজ্ঞান। শুধু খল চরিত্র নয়, নানা নিরীক্ষাধর্মী চরিত্রেও অভিনয়ের মুন্সিয়ানায় মুগ্ধ করেছেন দর্শকহৃদয়। কীর্তিমান এই অভিনয়শিল্পী রূপালি পর্দায় বর্ণিল আলো ছড়ালেও সাদামাটা জীবনেই খুঁজেছেন আশ্রয়।

নিউজ ট্যাগ: হুমায়ুন ফরীদি

আরও খবর



নতুন শিক্ষা পদ্ধতিতে মেধাবী জাতি তৈরি হবে: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী আশা প্রকাশ করে বলেছেন, নতুন শিক্ষা পদ্ধতিতে মেধাবী একটি জাতি তৈরি হবে। তিনি বলেছেন, নতুন শিক্ষাব্যবস্থা পরিবর্তনের কোনো পরিকল্পনা নেই। তবে নতুন পদ্ধতি আরো কার্যকরভাবে বাস্তবায়ন করার বিষয়ে শিক্ষা বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ তথ্য জানান তিনি।

জাসদের সংসদ সদস্য এ কে এম রেজাউল করিম তানসেনের প্রশ্নের লিখিত জবাবে শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যে শিক্ষা পদ্ধতি চালু হচ্ছে, তাতে মেধাবী জাতি তৈরি হবে। নতুন শিক্ষাব্যবস্থা মূলত নতুন শিক্ষাক্রমের ওপর ভিত্তি করে পরিচালিত হচ্ছে, যা আমাদের আগামী প্রজন্মকে প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে টিকে থাকার সঙ্গে সঙ্গে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব, বিশ্বায়ন, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলা এবং মধ্যম আয়ের দেশ থেকে উন্নত দেশে রূপান্তরের পথকে সুগম করবে।

একই প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, অতীতে মুখস্থনির্ভর ও সনদসর্বস্ব শিক্ষাব্যবস্থা থেকে বের হয়ে বর্তমানে যোগ্যতাভিত্তিক শিক্ষাব্যবস্থার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা যুগের চ্যালেঞ্জগুলোকে আরো কার্যকরভাবে মোকাবেলা করতে পারবে। শিক্ষার্থীরা মেধাশূন্য নয়, নতুন শিক্ষাব্যবস্থায় শিক্ষার্থীরা আরো দক্ষ ও যোগ্য হয়ে উঠবে।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য মশিউর রহমান সজলের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, নতুন শিক্ষাক্রমে পরীক্ষা নেই, তেমন নয়। আগের মুখস্থনির্ভর ও সনদসর্বস্ব শিক্ষাব্যবস্থা থেকে বের হয়ে আসার জন্য নতুন শিক্ষাব্যবস্থা ও মূল্যায়ন পদ্ধতি চালু হয়েছে, যা প্রচলিত পরীক্ষার ধারণা থেকে ভিন্ন। ফলে আগের মতো মুখস্থনির্ভর পরীক্ষা না থাকার কারণে অনেকেই নতুন পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেই বলে মনে করছেন।

নতুন শিক্ষাক্রমে ধারাবাহিক ও সামষ্টিক মূল্যায়নের সমন্বয়ে একটি আধুনিক কার্যকরী মূল্যায়ন পদ্ধতি চালু করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এখানে লিখিত মূল্যায়নের পাশাপাশি সমস্যা সমাধান, একক কাজ, দলীয় কাজের মূল্যায়ন করা হচ্ছে।

উপস্থাপন ও যোগাযোগ সক্ষমতা, সহযোগিতা, নেতৃত্ব, অর্জিত জ্ঞানের প্রয়োগ ইত্যাদি পর্যবেক্ষণসহ আরো নানা উপায়ে শিখন মূল্যায়ন করা হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী জানান, সরকার গত ১৫ বছরে ৮২৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সরকারীকরণ করছে। এর মধ্যে ৫৪টি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ৩৭৪টি কলেজ, ৩৪৭টি স্কুল এবং ৪৯টি কারিগরি।

একই দলের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের প্রশ্নের জবাবে মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, জেএসসি এবং পিএসসি সমাপনী পরীক্ষা পুনরায় চালু করার কোনো পরিকল্পনা বর্তমান সরকারের নেই।


আরও খবর