আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

জাফলংয়ে পর্যটকদের উপর হামলার ঘটনায় আটক ২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেটের গোয়াইনঘাট পর্যটন এলাকা জাফলংয়ে পর্যটকদের উপর হামলা চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসনের নিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবকরা। এতে নারী শিশুসহ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, গোয়াইনঘাটের পন্নগ্রামের মৃত রাখালচন্দ্রের পুত্র লক্ষ্মণচন্দ্র দাস (২১) ও ইসলামপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার পুত্র মো. সেলিম আহমেদ (২১)। আটক অন্য তিনজনের ক্ষেত্রে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কিনা যাচাই করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে জাফলং পর্যটন কেন্দ্রে টিকিট কেনাকে কেন্দ্র করে পর্যটকদের সঙ্গে স্বেচ্ছাসেবকদের বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে স্বেচ্ছাসেবকরা পর্যটকদের ওপর চড়াও হলে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, টিকিট কেনার সময় পর্যটকদের সঙ্গে টিকিট কাউন্টারে কর্তব্যরতদের বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে কাউন্টারে থাকা স্বেচ্ছাসেবকরা লাঠি দিয়ে পর্যটকদের পেটাতে শুরু করে। তখন সেখানে থাকা একজন তরুণী ও শিশু হামলার শিকার হন। এ ঘটনায় ৫ জন আহত হয়েছেন। ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পেলে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

ভিডিওতে দেখা যায়, স্বেচ্ছাসেবক লেখা নীল ইউনিফর্ম পরা ৩ জন হাতে লাঠি নিয়ে একদল পর্যটককে বেধড়ক পেটাচ্ছেন। এ সময় কয়েকজন নারী পর্যটক তাদের থামাতে গিয়ে লাঞ্ছিত হন।

জানা যায়, ২০২১ সাল থেকে পর্যটন কেন্দ্রে সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জাফলংয়ে প্রবেশের ক্ষেত্রে পর্যটকদের ১০ টাকা প্রবেশ ফি নির্ধারণ করে দেয় প্রশাসন। এর আগে পর্যটকদের সেখানে টিকিট কেটে প্রবেশ করতে হতো না। যে কারণে পর্যটকরা জাফলং বেড়াতে এসে টিকিট কাটতে হবে শুনে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন।

গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তাহমিলুর রহমান বলেন, টিকিট কাউন্টারের দায়িত্বে থাকা স্বেচ্ছাসেবকদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি থেকে এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার সূত্রপাত। যেহেতু হামলাকারীরা আমাদের নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবক, তাই আমি দায় নিচ্ছি।

ট্যুরিস্ট পুলিশের জাফলং-এর ইনচার্জ মো. রতন শেখ বলেন, জাফলং-এ পানিতে পড়ে একজন পর্যটক নিখোঁজ হয়েছেন, এমন সংবাদে আমরা অন্যদিকে ব্যস্ত ছিলাম। এই সুযোগে পর্যটকদের উপর হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনা যাই হোক আমরা ব্যবস্থা নেব।

সিলেট জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন, জাফলং পর্যটনকেন্দ্রে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ডিবি পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও পুলিশ রয়েছে। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। এ ঘটনায় ২ জনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে বলেও জানান তিনি। 


আরও খবর



সিলেটে জামায়াত-পুলিশ সংঘর্ষ, ওসিসহ আহত ৫

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেটের জেলরোডে জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে দুই পুলিশ সদস্যসহ আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৭ই মে) দুপুর ২টার দিকে এ সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশ জামায়াত-শিবিরের দুই নেতাকর্মীকে আটক করে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, দুপুর ২টায় বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী বন্দর বাজার ওরিয়েন্টাল মার্কেটের সামনে থেকে গণকমিশন কর্তৃক ধর্মব্যবসায়ী হিসেবে ১১৬ জন আলেমের তালিকা প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে নগরের জেলরোড পয়েন্টে এক সমাবেশে মিলিত হয়।

এ সময় তারা রাস্তা অবরোধ করে সরকার বিরোধী স্লোগান দিতে থাকে। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাদের ধাওয়া করলে সংঘর্ষ শুরু হয়।

সংঘর্ষকালে জামায়াত-শিবিরের নেতা কর্মীরা বিপুল পরিমাণ ইট-পাটকেল পুলিশের ওপর নিক্ষেপ করে ও লাটিসোটা নিয়ে আক্রমণ করে। এ সময় তারা পুলিশের একটি মোটরসাইকেল ও কয়েকটি দোকান ভাঙচুর করে।

এতে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলী মাহমুদসহ আরও এক পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন। আহত পুলিশ কর্মকর্তাদের সিলেট এম এ জি ওসমানী হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ বলেন, এই ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে এবং আটকদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা রুজু করা হবে।


আরও খবর



মানিকগঞ্জে বাড়ি থেকে মা ও দুই মেয়ের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৬৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বালিয়াখোড়া ইউনিয়নের আঙ্গারপাড়া গ্রামে আসাদুর রহমান রুবেল (৪০) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে স্ত্রী ও দুই মেয়েকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর রুবেল ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে গাড়ির নিচে পড়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা তাকে পুলিশে সোপর্দ করেন। ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বিপ্লব জানান, রবিবার (৮ মে) ভোর ৫টার দিকে স্থানীয়রা ঘরে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

নিহতরা হলেন রুবেলের স্ত্রী লাভলী আক্তার (৩৫), বড় মেয়ে বানিয়াজুরী সরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছোঁয়া (১৬) এবং ছোট মেয়ে স্থানীয় বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী কথা (১২)।

অভিযুক্ত আসাদুর রহমান রুবেল উপজেলার আঙ্গারপাড়া গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে। উপজেলার বানিয়াজুরী বাসস্ট্যান্ডে প্যারামেডিক দন্ত চিকিৎসক হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ কাজ করে আসছেন।

নিহতদের স্বজন, লাভলীর ভাই মো. আলম ও স্থানীয়রা জানান, রুবেল ও লাভলীর ভালোবাসার বিয়ে। পনেরো বছর যাবৎ রুবেল আঙ্গারপাড়া গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করছেন। কিন্তু বেশ কিছুদিন যাবৎ তিনি ঋণগ্রস্ত হয়ে মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েন। নানান টানাপোড়েনের জন্য তাদের সংসারে পারিবারিক কলহ চলছিল। পরে কলহ আরও বাড়তে থাকে। শনিবার দিবাগত রাতে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে তাদের ধারণা। স্থানীয় বালিয়াখোড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল খান বলেন, রুবেল অনেক টাকা ঋণগ্রস্ত হয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। এ জন্য এমন ঘটনা ঘটাতে পারে।

হত্যাকাণ্ড প্রসঙ্গে ঘিওর থানার ওসি জানান, রবিবার ভোর রাতের কোনও এক সময় তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে পারিবারিক কলহের জের ধরে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে প্রাথমিকভাবে এটাই মনে হচ্ছে।

এদিকে, শিবালয় সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার নুরজাহান লাবণি মাসহ দুই মেয়ে হত্যাকাণ্ড নিয়ে সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে এসেছে। তদন্ত চলছে। তদন্তের পর হত্যার কারণ জানা যাবে।


আরও খবর



দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ২০ মে

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৬৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ঘোষিত সময়সূচি অনুসারে আগামী ২০ মে থেকে দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু হবে। তথ্য সংগ্রহ ও সুপারভাইজার কর্তৃক যাচাই কার্যক্রম ২০ মে থেকে পরবর্তী ৩ সপ্তাহ পর্যন্ত অথবা শুরুর তারিখের পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

ইসি সূত্র জানায়, প্রথম ধাপে ১৪০ উপজেলায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ছবি তোলা ও ভোটার নিবন্ধনের কার্যক্রম চলবে।

অবশিষ্ট উপজেলা সমূহের সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার স্থানীয়ভাবে তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধন কার্যক্রমের সময়সূচি নির্ধারণ করবেন।

এবার ভোটার হালনাগাদ কার্যক্রমে ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে যাদের জন্ম তাদের এবং বিগত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে যারা বাদ পড়েছেন তাদেরও নিবন্ধনের জন্য তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব এস এম আসাদুজ্জামান বাসসকে বলেন, বয়স ১৮ না হলেও জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়া হবে। যাদের বয়স ১৮ হয়নি, তাদের বয়স ১৮ বছর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভোটার তালিকায় তাদের নাম যুক্ত হয়ে যাবে।

সূত্র জানায়, প্রথম ধাপে ১৪০ উপজেলায় জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য তথ্য সংগ্রহ শুরু হবে আগামী ২০ মে। এসব উপজেলায় তথ্য সংগ্রহ চলবে ৯ জুন পর্যন্ত। এরপর ১০ জুন থেকে শুরু হবে তাদের নিবন্ধন কার্যক্রম। ২১ জুলাইয়ের মধ্যে এই ধাপের নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হবে।

এরপর ধাপে ধাপে দেশের বাকি উপজেলাগুলোতেও ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধনের কার্যক্রম চলবে এ বছরের ২০ নভেম্বর পর্যন্ত।

ইসি সূত্র জানায়, এবার নির্বাচন কমিশন নিয়োজিত তথ্য সংগ্রহকারীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারের তথ্য নেওয়ার পর সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট কেন্দ্রে গিয়ে আঙুলের ছাপ, চোখের আইরিশ ও ছবি তুলে নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন। এই কর্মসূচিতে ভোটার তালিকা থেকে মৃত ভোটারের নাম কেটে দেয়া হবে এবং আবাসস্থল পরিবর্তনের কারণে ভোটার এলাকা স্থানান্তরের বিষয়েও কার্যক্রম চলবে।


আরও খবর



অপচয় করা যাবে না, সাশ্রয়ী হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৩২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকারি-বেসরকারি সকল খাতে, সকল বিষয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে। বিদ্যুৎ-পানি থেকে শুরু করে সকল খাতে অপচয় করা যাবে না বলে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় মঙ্গলবার (১৭ মে) ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরের জন্য ২ লাখ ৪৬ হাজার ৬৬ কোটি টাকার ব্যয় সম্বলিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া স্বায়ত্বশাসিত সংস্থা বা করপোরেশনের প্রায় ৯ হাজার ১৩০ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদিত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ও এনইসি'র চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষ এবং সচিবালয়স্থ মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এডিপি অনুমোদনের সময় প্রধানমন্ত্রী ওই নির্দেশনা দেন।

প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এনইসি সভায় আরো একটা বিষয় গুরুত্ব পেয়েছে সেটা হলো অপচয় রোধ করতে হবে। এটা ভয়ের কোনো ব্যাপার নেই। জনগণের অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে। পিএম কিছু নির্দেশনা দিয়েছেন সরকারি-বেসরকারি খাতে সাশ্রয়ী হতে হবে। পানি ও বিদ্যুতে সাশ্রয়ী হতে হবে। প্রধানমন্ত্রী ভ্রমণের বিষয়ে নির্বাহী আদেশ দিয়েছেন। সুতরাং সকল বিষয়ে সাশ্রীয় হতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর  অনুশাসন তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, সকলকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে অপচয় করা যাবে না। কোনো মতেই অপচয় করা যাবে না। এটা ভয়ের কোনো বার্তা নয়। কারণ সম্পদ সবারই সীমিত। অহেতুক সম্পদ অপচয় করার মানে নেই।   শুধু অপচয় রোধ নয়,  জনগণের জন্য দেশের জন্য প্রকল্প আগে নিতে হবে।   ব্যয়ে ঘাটতি সবার থাকবে অফুরন্ত সম্পদ কারও নেই। গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প আগে নিতে হবে। অহেতুক বাড়াবাড়ি করা যাবে না বলে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর



যে কারণে শনিবার ব্যাংক খোলা থাকবে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী শনিবার (২১ মে) দেশে কার্যরত তফসিলি ব্যাংক খোলা থাকবে। ওই দিন হজ কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের শাখা ও উপশাখা সারাদিন খোলা রাখতে হবে। এমনই একটি নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

মঙ্গলবার (১৭ মে) কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিমন থেকে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। নির্দেশনাটি দেশে কার্যরত সকল তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট পাঠানো হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সুষ্ঠুভাবে হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে হজ কার্যক্রমের সাথে সংশ্লিষ্ট আপনাদের ব্যাংকের শাখা, উপশাখাসমূহ পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ পূর্বক আগামী ২১ মে সাপ্তাহিক ছুটির দিন পূর্ণ দিবস খোলার রাখার বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করা হলো।

ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে জনস্বার্থে এ নির্দেশনা জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।


আরও খবর