আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

হবিগঞ্জে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত ৩০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে বৃহস্পতিবার দুপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালেহ আহমেদ বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে মাধবপুর থেকে সিলেটগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে মহাসড়কের নুরপুর এলাকায় সিলেট থেকে কুমিল্লাগামী অপর একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ বাধলে একটি বাস উল্টে খাদে পড়ে যায়। এতে অন্তত ৩০ যাত্রী গুরুতর আহত হয়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। গুরুতর আহত অবস্থায় ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ওসি আরও জানান, সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



ইউক্রেনে মার্কিন সহায়তায় ১২ রুশ জেনারেলকে হত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৫৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মার্কিন গোয়েন্দা তথ্য ব্যবহার করে ইউক্রেনীয়রা রুশ জেনারেলদের হত্যা করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানিয়েছে ঊর্ধ্বতন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা। সম্প্রতি নিউইয়র্ক টাইমসের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমনটা জানানো হয়। ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে এ পর্যন্ত ১২ জন জেনারেলকে হত্যা করেছে তারা। বিষয়টি অবাক করেছে সামরিক বিশেষজ্ঞদের। যুদ্ধ যখন চলছে তখন যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়ান জেনারেলদের টার্গেটে পরিণত করতে সহায়তা দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, রাশিয়ান সামরিক সদর দফতরের অবস্থান এবং টেলিফোন নজরদারি ব্যবহার করে প্রথমে ইউক্রেনীয়দের জানায় মার্কিনিরা। এসব তথ্য পর্যালোচনা করে রাশিয়ার ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তাদের অবস্থান নিশ্চিত করা হয়। পরে চিহ্নিত এসব জেনারেলদের ওপর হামলা করে ইউক্রেনীয়রা।

তবে এখন পর্যন্ত কতজন রাশিয়ান জেনারেলকে হত্যা করা হয়েছে তা নিশ্চিত করে জানায়নি যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সহায়তা ইউক্রেন যুদ্ধে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। প্রতিনিয়ত তারা নতুন নতুন টার্গেট চিহ্নিত করছে।

এদিকে ইউক্রেনে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের আনুষ্ঠানিক যুদ্ধ ঘোষণার জল্পনা উড়িয়ে দিয়েছে রাশিয়া। কয়েকদিন ধরে পশ্চিমা কর্মকর্তা ও বিশ্লেষকরা বলে আসছিলেন, আগামী ৯ মে ইউক্রেনে আনুষ্ঠানিক যুদ্ধ ঘোষণা করতে পারেন পুতিন। খবর রয়টার্সের।

বুধবার (০৪ মে) এক বিবৃতিতে পশ্চিমাদের এ বক্তব্যকে বাজে কথা বলে উড়িয়ে দিয়েছে মস্কো। প্রতিবছর ৯ মেকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে রাশিয়ার বিজয় দিবস হিসেবে উদ্‌যাপন করে মস্কো।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। যুদ্ধ বলার পরিবর্তে একে 'বিশেষ সামরিক অভিযান বলে অভিহিত করেন পুতিন। কিন্তু পশ্চিমা রাজনীতিকরা বলেন, পুতিন আগামী সোমবার (৯ মে) ইউক্রেনের বিরুদ্ধে পুরোদস্তুর যুদ্ধ ঘোষণা কিংবা জয় ঘোষণা করতে পারেন অথবা দুটোই করতে পারেন।

বুধবার বিষয়টি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে রুশ প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ক্রেমলিন মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, এটা বাজে কথা।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়নের বিজয় দিবস ৯ মে। ১৯৪৫ সালের এ দিনে জার্মান একনায়ক অ্যাডলফ হিটলারের নাৎসি বাহিনীর পরাজয় ঘটে। তারপর থেকেই দিনটিকে বিজয় দিবস হিসেবে স্মরণ করে আসছে রাশিয়া।

প্রতিবছর এ দিনটি মস্কোয় ব্যাপক সামরিক কুচকাওয়াজ ও রুশ বিপ্লবের নেতা ভ্লাদিমির লেনিনের সমাধিতে পুস্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে পালন করা হয়। পশ্চিমা কর্মকর্তারা মনে করেন, দিনটির প্রতীকী তাৎপর্যকে কাজে লাগিয়ে ইউক্রেনে সামরিক অর্জন অথবা সর্বাত্মক যুদ্ধ কিংবা দুটোই ঘোষণা করতে পারেন পুতিন।


আরও খবর



মানিকগঞ্জে হত্যার দায়ে ২ জনের ফাঁসি, ৪ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ১৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানিকগঞ্জে প্রাইভেট কারচালক জাহাঙ্গীর আলম হত্যা মামলায় দুইজনের মৃত্যুদণ্ড ও চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ মে) দুপুর ৩টার দিকে মানিকগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক উৎপল ভট্টাচার্য্য এ রায় ঘোষণা করেন। একইসাথে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

নিহত জাহাঙ্গীর আলম ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের ঘোষেবের এলাকার মুকলেসুর রহমানের ছেলে। তিনি পেশায় প্রাইভেট কারচালক ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্তরা হলেন ওমর হোসেন সাইফুল (পলাতক) ও আরিফুজ্জামান সজীব (পলাতক)। যাবজ্জীবন প্রাপ্তরা হলেন আব্দুল্লাহ আল মামুন, ফরহাদ হোসেন, মো. আলী সীমান্ত (পলাতক) ও আজিম খান। এদের প্রত্যেকের বাড়ি টাঙ্গাইলের নাগরপুরে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১১ সালের ২৮ জানুয়ারি মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার কুসন্ডা এলাকায় প্রাইভেট কারচালক জাহাঙ্গীর আলমকে শ্বাসরোধে হত্যা করে গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায় আসামিরা। খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

ঘটনার রাতে ঘিওর থানার এসআই লুৎফর রহমান বাদী হয়ে অজ্ঞাত নামা একটি হত্যা মামলা করেন। পরে এ ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলার তদন্তকর্মকর্তা ঘিওর থানার এসআই এনামুল হক চৌধুরী ২০১২ সালের ২৬ ফ্রেরুয়ারি ৬ জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দালিখ করেন। ১৬ জনের স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে তিনজন আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করেন আদালত।


আরও খবর



জনগণেরও প্রশ্ন বিএনপি আসলে কী চায়: কাদের

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেছেন, বিএনপি আসলে কী চায়? তারা একবার তত্বাবধায়ক সরকার, কখনো নিরপেক্ষ আবার কখনো চায় জাতীয় সরকার। রোববার (১৫ মে) রাজধানীর সংসদ ভবন এলাকায় নিজের সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে বিএনপি নেতাদের কাছে এমন প্রশ্ন রাখেন।

তিনি বলেন, এটা এখন জনগণেরও প্রশ্ন, বিএনপি আসলে কী চায়? যা তারা নিজেরাও জানে না।

জনগণ বিএনপি নেতাদের দিকে তাকিয়ে আছে- মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের পাল্টা প্রশ্ন করে বলেন, আসলে জনগণ তাকিয়ে নেই, জনগণ ভালো করেই জানেন, যে দলের নেতারা চাতক পাখির মতো তাকিয়ে থাকে টেমস নদীর ওপার থেকে নির্দেশনা আসার জন্য।

যারা আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ, এমনকি দলের চেয়ারপারসনের মুক্তির জন্য একটা মিছিলও বের করতে পারেনি, সেই দলের দিকে জনগণের তাকিয়ে থেকে লাভ নেই বলেও মনে করেন ওবায়দুল কাদের।

বিএনপি নেতাদের একেক সময় একেক রকম চাওয়া দেখে জনগণ আজ বিভ্রান্ত উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নেতিবাচক রাজনীতি করতে করতে বিএনপি এখন খাদের কিনারায়।

দেশ ও জাতি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে-বিএনপি মহাসচিবের এমন মন্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আসলে দেশ ও জাতি নয়, ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে বিএনপি।

দেশ কোন পথে যাবে, তার ফয়সালা নাকি রাজপথে হবে-বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিদেশে গোপন ষড়যন্ত্র বাদ দিয়ে বিএনপি রাজপথে আসুক ভালো কথা, তাদের যে কোন শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচিকে আমরা স্বাগত জানাই।

তিনি হুঁশিয়ার করে বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আন্দোলনের নামে যদি আবারও জ্বালাও-পোড়াও করা হয়, আগুন সন্ত্রাস চালানো হয়, পেট্রোল বোমা মেরে নিরীহ মানুষ পুড়িয়ে মারা হয়, সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলা চালানো হয়, সর্বোপরি বিএনপি যদি দেশকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাবার অপচেষ্টা করে; তাহলে জনগণের জানমাল রক্ষায় দেশবাসীকে সাথে নিয়ে সমুচিত জবাব দেওয়া হবে।

মির্জা ফখরুল তার বক্তব‌্য বিকৃত করে প্রচার করছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, তাদের নেতা তারেক রহমান দণ্ডিত, পলাতক আসামি, অর্থপাচারের অভিযোগে ২২ হাজার কোটি টাকা বাংলাদেশ থেকে পাচার করেছে। এফবিআই তদন্ত করে তা খুঁজে পেয়েছ এবং বাংলাদেশের আদালতে সাক্ষ্য দিয়ে গেছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে প্রশ্ন রেখে বলেন, তাহলে নিজেদের এতো ধোঁয়া তুলসীপাতা ভাবার কোন কারণ আছে কী? তা আপনার (মির্জা ফখরুল) কাছে জানতে চাই।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বৌদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।


আরও খবর



চালের চেয়ে ময়দার দাম বেশি

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে আটা-ময়দার দাম। সাত-আট মাস ধরে এ দুটি পণ্যের দাম বাড়তির দিকে। টিসিবির দেওয়া তথ্যমতে, খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ময়দার (প্যাকেট) দাম এখন ৭০ টাকার বেশি। আর খোলা আটার দাম ৪৬ টাকার বেশি। ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই আটা-ময়দার দাম অব্যাহতভাবে বাড়তে থাকে। সম্প্রতি ভারত থেকে গম আমদানি বন্ধের খবরে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে দেশের আটা-ময়দার বাজারে। ময়দার দাম এখন চালকেও ছাড়িয়ে গেছে। যদিও এ সপ্তাহে নতুন করে বেড়েছে চালের দামও। অর্থাৎ আগের সপ্তাহের ৪৪ টাকা কেজি দরের মোটা চাল এক টাকা বেড়ে এখন ৪৫ টাকায় এবং ৫৫ টাকা কেজি দরের মাঝারি মানের চালের দাম ৫৬ টাকায় গিয়ে ঠেকেছে। সরকারের বিপণন সংস্থা টিসিবির তথ্য এটি। সংস্থাটির হিসাবে, গত এক মাসে ৩১ শতাংশ বেড়েছে খোলা আটার দাম। আর গত এক বছরে খোলা ময়দার দাম বেড়েছে ৬০ শতাংশের বেশি।

টিসিবির হিসাবে, বাজারের সবচেয়ে ভালো চালের দাম এখন ৬৮ টাকা কেজি। কিন্তু খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ময়দার (প্যাকেট) দাম এখন ৭০ টাকার বেশি। টিসিবি বলছে, এখনও ৪৫ টাকা কেজি দরে মোটা চাল বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু ৫৫ টাকার নিচে ময়দা পাওয়ার সুযোগ নেই। এমনকি ক্রেতাদের প্রতিকেজি খোলা আটা কিনতে এখন খরচ পড়ছে ৫০ টাকার বেশি। টিসিবির হিসাবে, সবচেয়ে কম দামি খোলা আটার দামও এখন ৪৬ টাকার বেশি। সরকারের তথ্য অনুযায়ী, গত এক বছরে খোলা ময়দার দাম বেড়েছে কেজিতে ৬০ শতাংশ। অর্থাৎ গত বছরে যে ময়দা ৩৬ টাকা কেজিতে পাওয়া যেত, এখন সেই ময়দা ক্রেতাদের কিনতে হচ্ছে ৬৫ টাকা কেজি দরে। আর এক বছরে প্যাকেট ময়দার দাম বেড়েছে ৫৩ শতাংশ। অর্থাৎ গতবারের এই সময়ে ৪৫ টাকা কেজি প্যাকেট ময়দা এখন ৬৮ থেকে ৭০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।

টিসিবি বলছে, গত এক বছরে খোলা আটার দাম বেড়েছে ৫৪ শতাংশ। অর্থাৎ গতবারের এই সময়ে ৩২ টাকা কেজি খোলা আটা এখন ৫০ টাকা কেজিতে কিনতে হচ্ছে।

রাজধানীর খুচরা বাজারে দেখা গেছে, আটা ও ময়দায় মানভেদে দুই থেকে চার টাকা পর্যন্ত বাড়ছে। আর এক মাসের ব্যবধানে তা কেজিতে ১০ টাকা ছাড়িয়েছে। সয়াবিন তেল নিয়ে ভোগান্তির মধ্যেই আটা, ময়দার এই দাম বৃদ্ধিতে শঙ্কিত ভোক্তারা। বিশেষ করে বিপাকে পড়েছেন স্বল্প আয়ের মানুষ।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, দেশে বছরে ৭৫ লাখ টন গমের চাহিদা রয়েছে। এরমধ্যে ১১ লাখ টন গম দেশে উৎপাদিত হয়। বাকিটা আমদানি করা হয়। আমদানির বড় অংশ আসতো রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে। বাকিটা ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়াসহ আটটি দেশ থেকে আমদানি করা হতো। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) তথ্য অনুযায়ী, গত ২০১৯-২০ অর্থবছরে রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে দেশে মোট গম আমদানির ৬৩ শতাংশ, কানাডা থেকে ১৮ শতাংশ ও বাকিটা অন্যান্য দেশ থেকে আমদানি করা হয়। তবে গত ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ভারত থেকে গম আমদানি বেড়েছে। এই সময়ে মোট গম আমদানির ৪৫ শতাংশ রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে, কানাডা থেকে ২৩ শতাংশ, ভারত থেকে ১৭ শতাংশ আমদানি করা হয়। বাকিটা অন্য দেশগুলো থেকে আমদানি করা হয়।

জানা গেছে, গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর দেশ দুটি থেকে আর গম আমদানি করা যায়নি। এরপর দেশের ব্যবসায়ীরা গম আমদানিতে ভারতমুখী হয়। কিন্তু এখন ভারতও গম রফতানি বন্ধ করেছে। যদিও বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ভারত গম রফতানি বন্ধের ঘোষণা দিলেও চিন্তার কোনও কারণ নেই। সরকার আরও পাঁচটি দেশ থেকে গম আমদানির পথ খুঁজছে। ইতোমধ্যে কানাডার হাইকমিশনারের সঙ্গে গম আমদানির বিষয়ে কথা হয়েছে। এ ছাড়া ভারতও গম দেবে। তাই গম নিয়ে কোনও সমস্যা হবে না।

উল্লেখ্য, চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে গত ১ জুলাই থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সময়ে মোট ৫৫ লাখ ৪৬ হাজার টন গম আমদানি করেছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে গত ১ মার্চ থেকে ১২ মে পর্যন্ত গম আমদানি হয়েছে ৬ লাখ ৮৭ হাজার টন। বর্তমানে সরকারের কাছে মজুত আছে ১ লাখ ১২ হাজার টন গম।

বাড়ছে রসুনের দাম: অস্বাভাবিক দাম বাড়ার তালিকায় রয়েছে রসুন। টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, গত এক সপ্তাহে দেশি রসুনের দাম বেড়েছে ১৬ শতাংশ। ব্যবসায়ীরা বলছেন, আগের সপ্তাহ থেকে এই পণ্যটির দাম অস্বাভাবিক বেড়েছে। নতুন করে দেশি রসুনের দাম বেড়েছে কেজিতে ৩০ টাকার মতো। অর্থাৎ গত সপ্তাহে যে রসুন ৯০ টাকা কেজি দরে পাওয়া যেত, এখন সেই রসুন কিনতে হচ্ছে ১২০ টাকা দিয়ে। দেশি রসুনের পাশাপাশি আমদানি করা রসুনের দামও বেড়েছে কেজিতে ২০ টাকার মতো। অর্থাৎ গত সপ্তাহে বিক্রি হওয়া ১৪০ টাকা কেজি দরের রসুন এখন বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা কেজি দরে।

বেড়েছে ডিমের দাম: গত সপ্তাহের পর এ সপ্তাহেও বেড়েছে ডিমের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে ফার্মের মুরগির ডিমের দাম ডজনে ১০ টাকা বেড়েছে। এখন এক ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিল ১১০ টাকা।

সয়াবিন ও পেঁয়াজ: এদিকে খোলা সয়াবিন তেল গত সপ্তাহের মতো প্রতি লিটার বিক্রি হচ্ছে ২২০ থেকে ২৫০ টাকা। পাম অয়েল বিক্রি হচ্ছে ১৯৫ থেকে ২০০ টাকা। আর বোতলের পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৯৮০ থেকে ৯৮৫ টাকা। তবে গত সপ্তাহের তুলনায় পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমেছে। গত সপ্তাহে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া পেঁয়াজ এখন ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাংসের দাম: এদিকে ঈদের আগে কেজি ৭০০ টাকায় উঠে যাওয়া গরুর মাংসের দামে কোনও পরিবর্তন আসেনি। বেশিরভাগ ব্যবসায়ী গরুর মাংসের কেজি ৭০০ টাকা দরে বিক্রি করছেন। তবে বেশ কিছু মহল্লার সাপ্তাহিক ব্যবসায়ীরা গরুর মাংসের কেজি বিক্রি করছেন ৭২০ টাকা কেজি দরে। গরুর মাংস বাড়তি দামে বিক্রি হলেও ব্রয়লার মুরগির দাম কিছুটা কমেছে। ব্রয়লার মুরগির দাম কমে এখন ১৬৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে, যা গত সপ্তাহে ছিল ১৭০ টাকা। আর ঈদের আগে ছিল ১৮০ থেকে ১৮৫ টাকা। সোনালি মুরগির কেজি আগের মতোই ৩০০ থেকে ৩৪০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

মাছের দাম: গত সপ্তাহের মতো রুই মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা। শোল মাছের কেজি ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা। কৈ মাছের কেজি ২০০ থেকে ২৩০ টাকা। পাবদার কেজি ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা। এক কেজি ওজনের ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে এক হাজার ৩০০ থেকে এক হাজার ৬০০ টাকায়। ৫০০-৬০০ গ্রামের ইলিশের কেজি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে। তেলাপিয়া, পাঙাশ মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা। শিং মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৪৬০ টাকা।

কয়েকটি সবজির কেজি ১০০ টাকা: খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, ঈদের পর থেকেই কাঁচা সবজিসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দাম বেশি। এরপর আবার বৃষ্টির কারণেও বাজারে তেমন সবজি আসছে না। ঢাকায় আনার পথে বৃষ্টির পানিতে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। যে কারণে প্রতিকেজি সবজিতে ১৫-২০ টাকা দাম বেড়েছে খুচরা বাজারে। এরমধ্যে তিনটি সবজির কেজি এখন ১০০ টাকা ছাড়িয়ে গেছে। এছাড়া আরও কয়েকটি সবজির কেজি ১০০ টাকার কাছাকাছি। বাকি সবজিগুলোর দামও বেশ চড়া। ৫০ টাকার নিচে হাতে গোনা দুই-একটি সবজি পাওয়া যাচ্ছে।

রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ব্যবসায়ীরা এখন সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রি করছেন গাজর। এই সবজিটির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা। এক সপ্তাহ আগে গাজরের কেজি ছিল ৭০ টাকা। গত সপ্তাহে ৭০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া বরবটির দাম বেড়ে এখন ১০০ টাকা। কাঁকরোলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা করে। এক সপ্তাহ আগে এই সবজিটির কেজি ৬০ টাকার মধ্যে ছিল। এছাড়া করলা ও বেগুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা। কাঁচা পেঁপের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা। কাঁচা কলার হালি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা। টমেটোর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা। ঢেঁড়স ও পটলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা। ঝিঙে ও চিচিঙ্গার কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা।

নিউজ ট্যাগ: আটা-ময়দা

আরও খবর



দেশের সব বিমানবন্দরে বিটিভি প্রদর্শনের নির্দেশ

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের সব আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরগুলোতে বিটিভি, বিটিভি ওয়ার্ল্ড, সংসদ বিটিভি ও বিটিভি চট্টগ্রাম প্রদর্শনের নির্দেশ দিয়েছে সরকার।  এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইন অনুযায়ী আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরে সরকারি টেলিভিশন চ্যানেল প্রথমে রেখে সম্প্রচার নিশ্চিতকরণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

জানা গেছে, দেশের বিমানবন্দরগুলোতে সরকারি চ্যানেল সম্প্রচার না হওয়ার অভিযোগ সম্প্রতি বিটিভির পরিদর্শন দলের মাধ্যমে তদন্ত করা হয়। তদন্ত দল হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে গিয়ে দেখে, সেখানে টিভিতে মাত্র ১৪টি চ্যানেল সম্প্রচার হচ্ছে। এসব চ্যানেলের মধ্যে সরকারি কোনো চ্যানেল নেই। তদন্ত দল দায়িত্বরতদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারে, কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুসারে চ্যানেল নির্বাচন করা হয়।

এর পর দেশের অন্যান্য বিমানবন্দরে বিটিভির সব চ্যানেল সম্প্রচার নিশ্চিত করতে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় গত ৪ এপ্রিল বিমান সচিবকে চিঠি দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিমান মন্ত্রণালয় গত ১২ মে বেবিচকের চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছে।


আরও খবর