আজঃ শনিবার ১৫ জুন ২০২৪
শিরোনাম

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা নিয়ে যা বললেন সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশের সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল (অব.) আজিজ আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের ওপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটি।

সোমবার (২০ মে) দিবাগত রাতে ইউনাইটেড স্টেট ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেটর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এ ঘটনার পর নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সাবেক এই সেনাপ্রধান। তিনি বলেন, ২০২১ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি আল জাজিরায় অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস ম্যান নামক একটি নাটক মঞ্চস্থ হয়েছিল। তার সাথে এই নিষেধাজ্ঞা সম্পৃক্ত ওতোপ্রতোভাবে। অভিযোগ দুইটা একই, কিন্তু এখানে বিস্তারিত বলা হয়নি।

প্রথম অভিযোগ হল- আমি আমার ভাইকে বাংলাদেশের যে আইন আছে, তার (ভাই) অপরাধ কর্মকাণ্ড থেকে সে যেন এড়িয়ে চলতে পারে; সেজন্য আমি আমার পদ-পদবি ব্যবহার করে তাকে সহযোগিতা করে আমি করাপসন করেছি। এর উত্তর হলো- আমার সেই ভাই, আমি জেনারেল হওয়ার অনেক আগেই বিদেশে গেছে। সে নিশ্চয়ই বৈধ পাসপোর্ট নিয়েই বিদেশে গেছে। তার চলে যাওয়া বা দেশের প্রচলিত আইন ফাঁকি দেয়ার ব্যাপারে আমি আমার পদ-পদবি ব্যবহার করেছি এই অভিযোগটা আমি মেনে নিচ্ছি না। মেনে নিতে পারি না, এটা সঠিক নয়।

দ্বিতীয়ত, আমি আমার ভাইকে সামরিক কন্ট্রাক্ট দিয়ে আমি ঘুষ নিয়েছি। আমি আরেকটা দুর্নীতি করেছি। এখানে যে ইকুয়েপ্টের কথা বলা হচ্ছে, আমি এটা পরে বলতে চাই, আমি চার বছর বিজিবি থাকাকালীন এবং তিন বছর সেনাপ্রধান থাকাকালীন কেউ যদি একটা প্রমাণ দিতে পারে যে, আমি আমার কোনো ভাইকে বা কোনো আত্মীয়কে বিজিবি বা সেনাবাহিনীতে কোনো কন্ট্রাক্ট দিয়েছি। তাহলে আমি যেকোনো কনসেকুয়েন্স মেনে নিতে প্রস্তুত আছি। আমি দেইনি। আমার উত্তর আমি দেইনি।

সাবেক এই সেনাপ্রধান আর বলেন, আমার কোনো ভাইকে সেনাবাহিনী বা বিজিবিতে ঠিকাদারি করার জন্য কোনো ধরনের লাইসেন্স আছে কিনা আপনারা খুঁজে বের করুন। আমি যে আমার ভাইদের কন্ট্রাক্ট দিয়েছি, তার প্রমাণ তারা (যুক্তরাষ্ট্র) দিক। আমি মেনে নেব। তথ্য প্রমাণ ছাড়া তো এটা প্রমাণিত না। আমি জোড় দিয়ে বলছি, আমি তাদের কোনো কন্ট্রাক্ট দেইনি।


আরও খবর



আবারও বিশ্বরেকর্ড রোনালদোর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো আরো একটি বিশ্বরেকর্ড করলেন। সোমবার সৌদি প্রো লিগের মৌসুমের শেষ ম্যাচে আল ইত্তিহাদকে ৪-২ গোলে হারায় আল নাসর। জোড়া গোল করেন রোনালদো। এতেই ক্লাব প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে এক মৌসুমে সর্বাধিক গোলদাতা হওয়ার রেকর্ড করেন পর্তুগালের এই তারকা।

এই ২০২৩-২৪ মৌসুমে আল নাসরের হয়ে ৩৫টি গোল করেন রোনালদো। এর আগে ২০১৮-১৯ মৌসুমে ক্লাব প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩৪ গোলের রেকর্ড করেছিলেন আবদুররাজ্জাক হামদাল্লাহ। আল নাসরের হয়েই এসব গোল করেছিলেন মরক্কোর এই তারকা ফুটবলার। গতকাল হামদাল্লাহর সেই রেকর্ড ভেঙে দেন রোনালদো।

শুধু সৌদি ক্লাব নয়। এর আগে লা লিগা, ইতালিয়ান সিরিআঁ ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার রেকর্ড করেছিলেন রোনালদো। বিশ্বের একমাত্র ফুটবলার হিসেবে চারটি ভিন্ন ক্লাব প্রতিযোগিতায় সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার রেকর্ড করেন তিনি।


আরও খবর



ইব্রাহিম রাইসির মৃতদেহ উদ্ধার, নেওয়া হচ্ছে তাবরিজে

প্রকাশিত:সোমবার ২০ মে ২০24 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ মে ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে নিহত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও তার সহযাত্রীদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের মৃতদেহ তাবরিজ শহরে পাঠানো হচ্ছে। সোমবার টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক মন্তব্যে ইরানের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান পীর হোসেইন কোলিভান্দ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পরে ব্যাপক তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযান সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে।

রেড ক্রিসেন্ট প্রধান পিরহোসেন কুলিভান্দ রাষ্ট্রীয় টিভিকে জানান, আমরা নিহতদের মৃতদেহ তাবরিজে স্থানান্তরের কাজ শুরু করেছি। উদ্ধার কারযক্রম শেষ হয়েছে।

হেলিকপ্টারে প্রেসিডেন্ট রাইসি ছাড়াও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান, পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের গভর্নর মালেক রাহমাতি এবং এই প্রদেশে ইরানের সর্বোচ্চ নেতার মুখপাত্র আয়াতুল্লাহ মোহাম্মদ আলী আলে-হাশেম ছিলেন। আজারবাইজানে একটি জলাধার প্রকল্প উদ্বোধনের পর পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের রাজধানী তাবরিজে ফিরছিলেন তারা।

গতকাল (রোববার) আজারবাইজানের সীমান্তবর্তী এলাকায় দুই দেশের যৌথভাবে নির্মিত একটি বাঁধ উদ্বোধন করতে যান ইব্রাহিম রাইসি। সেখানে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভও ছিলেন। সেখান থেকে তিনটি হেলিকপ্টারের বহর নিয়ে ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের রাজধানী তাবরিজে ফিরছিলেন ইব্রাহিম রাইসি ও তার সঙ্গে থাকা অন্য কর্মকর্তারা। পথে পূর্ব আজারবাইজানের জোলফা এলাকার কাছে দুর্গম পাহাড়ে প্রেসিডেন্টকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। অন্য দুটি হেলিকপ্টার নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছায়।


আরও খবর



বাংলাদেশে সব পণ্যই নকল হয়: ভোক্তার ডিজি

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

বাংলাদেশে এমন কোনো পণ্য নেই যা নকল হয় না। কসমেটিক থেকে শুরু করে শিশু খাদ্য সবকিছু নকল হচ্ছে। এ বিষয়ে তথ্যগুলো আমাদের দেন আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নেব।

রোববার (২ জুন) সকালে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর অবহিতকরণ ও বাস্তবায়ন বিষয়ক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এএইচএম সফিকুজ্জামান।

তিনি আরও বলেন, এ নকল পণ্যের তথ্য সারাবিশ্বে ছড়িয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের মানুষের কাছে বার্তা যাচ্ছে বাংলাদেশে ভেজাল পণ্য তৈরি হয়। আমাদের সব অর্জন ম্লান হচ্ছে এই ভেজালের কারণে। তাই সবাই সতর্ক থাকবেন। এদের বিরুদ্ধে কোনো ছাড় নেই।

সভায় সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রাশেদ ইকবাল চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রেজাউল করিমের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সাঈদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ান, ক্যাব কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি জামিল চৌধুরী, সাংবাদিক, স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ অন্যান্যরা।

এর আগে সুনামগঞ্জের বিভিন্ন স্টক হোল্ডারদের অংশগ্রহণে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ভোক্তা ও ব্যবসায়ীদের কথা শোনেন ভোক্তা অধিকারের মহাপরিচালক। পরে তিনি সুনামগঞ্জ পৌর শহরের বাজার মনিটরিং করেন। এসময় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সমর কুমার পাল, ভোক্তা অধিকারের সহকারী পরিচালক আল আমিন, নিরাপদ খাদ্য অফিসার শরীফ উদ্দিন, জেলা মার্কেটিং অফিসার অনুপা চক্রবর্তী ও জেলা ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান চৌধুরী প্রমুখ।


আরও খবর



সুপার এইট নিশ্চিত করল আফগানিস্তান

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

টি-টোয়েন্টির বিশ্বকাপে সুপার এইট নিশ্চিত করেছে আফগানিস্তান। নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ম্যাচেও হেরে যাওয়ায় স্রেফ সময়ের অপেক্ষা ছিল আফগানদের শেষ আটে পৌঁছানো, পাপুয়া নিউ গিনিকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সেই কাজ করে ফেলল রশিদ খান, রহমানুল্লাহ গুরবাজরা।

নবিন উল হক, ফজলহক ফারুখিদের বোলিংয়ের সামনে সেভাবে মাথা তুলে দাঁড়াতেই পারেনি পাপুয়া নিউ গিনি, জবাবে ব্যাট করতে নেমে যথেষ্ট ভালোভাবেই ম্যাচ পকেটে পুড়ে নিয়েছে আফগানরা। এই ম্যাচ জয়ের ফলে গ্রুপ সি থেকে তারা পৌঁছে গেল সুপার এইট স্টেজে। 

গত বছর ভারতের মাটিতে ওডিআই বিশ্বকাপের মঞ্চে একাধিক বড় দলকে টেক্কা দিয়েছিল আফগানিস্তান। এমনকি অস্ট্রেলিয়াকেও প্রায় হারিয়েই দিয়েছিলেন রশিদ খানরা। কিন্তু অভিজ্ঞতার কাছেই হারতে হয়েছিল তাঁদের। ওডিআই বিশ্বকাপের অভিজ্ঞতার পুঁজি নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজে খেলতে এসেছিল তারা।  এবার অবশ্যই তারা সফল। কিউয়িদের বিশাল ৮৪ রানের ব্যবধানে হারানোর পরই পথ মসৃণ হয়ে গেছিল। শেষ পর্যন্ত পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে ৭ উইকেটে জয়ের সঙ্গে সঙ্গেই এক ম্যাচ বাকি থাকতে সুপার এইট স্টেজে পৌঁছে গেল মহম্মদ নবি, গুলবদিন নাইবদের আফগানিস্তান।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৯৫ রানেই গুটিয়ে যায় পাপুয়া নিউ গিনির ইনিংস। আফগানিস্তানের হয়ে ৩ উইকেট নেন পেসার ফজলহক ফারুকি। দুটি উইকেট নেন আরেক জোরে বোলার নবিন উল হক, একটি উইকেট পান নূর আহমেদ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে আফগানিস্তানের দুই ওপেনার তেমন নজর না কাড়লেও মহম্মদ নবি এবং গুলবদিন নাইব দলের জয় নিশ্চিত করেন।

৩৬ বলে ৪৯ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন আফগানিস্তানের গুলবাদিন নাইব। অলরাউন্ডার মহম্মদ নবি ১৬ রানে অপরাজিত থেকে পাপুয়া নিউ গিনির বিরুদ্ধে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। এই গ্রুপ থেকে নিউজিল্যান্ডকে টপকে যে আফগানিস্তান দল সুপার এইটে পৌঁছাতে পারে, সেকথা টুর্নামেন্ট শুরু আগে হয়ত স্বপ্নেও ভাবেননি অতি বড় আফগান সমর্থকও। কিন্তু কঠোর পরিশ্রম এবং নিষ্ঠার দ্বারা অসম্ভবকেও সম্ভব করা যায়, সেটাই প্রমাণ করে দেখালেন রশিদ খান, মহম্মদ নবিরা।

গ্রুপ সি-তে তিন ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। এক্ষেত্রে নেট রান রেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও ওপরে রয়েছে তারা। তিন ম্যাচ ৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আন্দ্রে রাসেলরা রয়েছেন। তিন ম্যাচে ২ পয়েন্ট উগান্ডার। তিন ম্যাচে ০ পয়েন্ট পাপুয়া নিউ গিনির, দু ম্যাচে ০ পয়েন্ট নিউজিল্যান্ডের।  ফলে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আফগানিস্তান পৌঁছে গেল সুপার এইটে।


আরও খবর



মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে হাইকোর্টের রায় চেম্বারে বহাল

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে জারি করা পরিপত্র অবৈধ মর্মে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল রেখেছেন চেম্বার জজ আদালত। তবে এ বিষয়ে আপিল বিভাগের নিয়মিত ও পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য আগামী ৪ জুলাই পরবর্তী দিন ঠিক করেছেন আদালত।

রোববার (৯ জুন) চেম্বার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম হাইকোর্টের রায় স্থগিত না করে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির দিন ধার্য করেন।

এর ফলে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালের আদেশটি আপাতত বহাল রইলো বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

এর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের রায় স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। রোববার (৯ জুন) আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মুহাম্মদ সাইফুল আলম।

গেল ৫ জুন প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে পদে সরাসরি নিয়োগে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি তুলে দিয়ে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে পরিপত্র জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। কোটা বাতিলে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তের একদিন পর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এ পরিপত্র জারি করে।

সেখানে বলা হয়েছিল, ৯ম গ্রেড (পূর্বতন ১ম শ্রেণি) এবং ১০ম-১৩তম গ্রেড (পূর্বতন ২য় শ্রেণি) পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে মেধাতালিকার ভিত্তিতে নিয়োগ দিতে হবে। ওই পদসমূহে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি বাতিল করা হলো।


আরও খবর