আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ডেঙ্গুতে আরও ৮ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ১৭০৮

প্রকাশিত:সোমবার ৩০ অক্টোবর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ৩০ অক্টোবর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এক হাজার ৭০৮ জন ডেঙ্গুরোগী। এ নিয়ে চলতি বছর ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৩৪১ জনে।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ মো. জাহিদুল ইসলাম সই করা ডেঙ্গুবিষয়ক নিয়মিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, রোববার (২৯ অক্টোবর) সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া এক হাজার ৭০৮ জনের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ৩৭৪ এবং ঢাকার বাইরের এক হাজার ৩৩৪ জন। অন্যদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া আটজনের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা চারজন, ঢাকার বাইরের চারজন।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৬৯ হাজার ৩৮৮ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ৯৮ হাজার ৭৫৬ জন আর ঢাকার বাইরের এক লাখ ৭০ হাজার ৬৩২ জন।

একই সময়ে ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন দুই লাখ ৬১ হাজার ৫৮৪ জন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ৯৬ হাজার ১৬৩ জন এবং ঢাকার বাইরের এক লাখ ৬৫ হাজার ৪২১ জন।

২০২২ সালে ডেঙ্গুতে ২৮১ জন মারা যান। ওই বছরের শেষ মাস ডিসেম্বরে ২৭ জনের মৃত্যু হয়। একই সঙ্গে আলোচ্য বছরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন ৬২ হাজার ৩৮২ জন।

২০২০ সালে করোনা মহামারিকালে ডেঙ্গু সংক্রমণ তেমন একটা দেখা না গেলেও ২০২১ সালে সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হন ২৮ হাজার ৪২৯ জন। একই বছর দেশব্যাপী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১০৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল।


আরও খবর



পাকিস্তানে জোট সরকার গঠনে নতুন মোড়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এনের সঙ্গে জোট গঠনের কথা বলেছেন পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) নেতা বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি। এমনকি সংসদে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পিএমএল-এনের প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। খবর এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের।

গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) পাকিস্তানে জাতীয় ও প্রাদেশিক পরিষদের ভোট হয়েছে। ভোটগ্রহণের তিন দিন পর ২৬৫ আসনের মধ্যে অবশেষে ২৬৪ আসনের ফল ঘোষণা করা হয়েছে। গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি ৯৭ আসনে জয় পেয়েছেন ইমরান খানের দল পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। এরপরই পিএমএল-এন ৭৬ আসনে, পিপিপি ৫৪ আসনে জয়ী হয়েছে। এ ছাড়া অন্যান্য ছোট দল পেয়েছে ৩৭টি আসন।

কোনো দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় জোট সরকার গঠন করতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে বড় দলগুলো। তবে নাটকের এই দৃশ্যে বারবার ঘুরে-ফিরে দুটি দলই আলোচনায় আসছে। একটি নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন ও অন্যটি বিলাওয়াল ভুট্টোর পিপিপি।

জোট গঠন নিয়ে কয়েক দফা আলোচনাও করেছে দল দুটি। তবে জোট সরকরের প্রধানমন্ত্রী কে হবেন, তা নিয়ে তাদের সিদ্ধান্ত আটকে ছিল। এমনকি গণমাধ্যমে খবর আসে, ভাগাভাগি করে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন দুই দলের দুজন নেতা। তবে এবার সব জল্পনা-কল্পনা উড়িয়ে দিয়ে নিজেই প্রধানমন্ত্রীর দৌড় থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন বিলাওয়াল।

মঙ্গলবার বিলাওয়াল বলেন, বাস্তবতা হলো- কেন্দ্রে সরকার গঠনের জন্য আমার দলের প্রতি জনগণের ম্যান্ডেট নেই। এ কারণে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে আমি আর থাকব না।

পিপিপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির (সিইসি) বৈঠকের পর দলের চেয়ারম্যান বিলাওয়াল বলেন, পিএমএল-এনের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থীকে সমর্থন করবে পিপিপি। পিপিপি কেন্দ্রীয় পর্যায়ে কোনো মন্ত্রিত্ব চাইবে না। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে উদ্বেগ থাকা সত্ত্বেও আমরা নির্বাচনের ফল মেনে নিয়েছি। পিপিপি যদি পিএমএল-এনের সঙ্গে যোগ না দিত তাহলে দেশের ক্ষতি হতো। একটা দল সবসময় ভোটের ফলের বিরুদ্ধে আপত্তি উত্থাপন করবে, তা হতে পারে না।

৩৫ বছর বয়সী তরুণ এই নেতা বলেন, আমরা চাই সব রাজনৈতিক দল যেন ভুল-ত্রুটি দূরে রাখে। যাতে পরবর্তী নির্বাচনের দিকে কেউ আঙুল তুলতে না পারে। আমরা এসব সমস্যা মোকাবিলায় ইসিপি, সংসদের মতো ফোরামকে ব্যবহার করব।

পিপিপি নেতা বলেছেন, তাদের সঙ্গে জোট গড়তে অস্বীকার করেছে ইমরান খানের পিটিআই। তাই তারা পিএমএল-এনকে সমর্থন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। কেননা একমাত্র পিএমএল-এন তাদের জোট সরকারে যোগদানের আমন্ত্রণ জানিয়েছিল।

তবে তিনি এ-ও বলেন, ব্যক্তিগতভাবে আসিফ আলী জারদারিকে তিনি পাকিস্তানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেখতে হতে চান। তিনি বলেন, দেশ জ্বলছে। একমাত্র আসিফ আলীই এ পরিস্থিতি সামাল দিতে পারবেন।


আরও খবর



নতুন গাড়ি রেজিস্ট্রেশনে জমা দিতে হবে পুরাতন গাড়ি : মেয়র আতিক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম জানিয়েছেন- নতুন গাড়ি রেজিস্ট্রেশনের সময় জমা দিতে হবে পুরাতন গাড়ি। এছাড়া নতুন করে কোনো রেজিস্ট্রেশন দেওয়া হবে না। যানজট নিরসনে এ ধরনের আইন করা ছাড়া উপায় নেই। ঢাকা শহরে এত গাড়ি কোথায় জায়গা দেবো। শুধু গাড়ি আর গাড়িতে ভরে যাচ্ছে ঢাকা।

বৃহস্পতিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে ডিএমপির ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সুধী সমাবেশ ও আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন যে ট্রাফিক পুলিশ বক্সগুলো করছে, আপনাদের নিয়ে আমরা যৌথভাবে পুলিশ বক্স করে দেবো। প্রত্যেকটি পুলিশ বক্সে টয়লেট, পানি ও বসার জন্য ব্যবস্থা করা হবে। পুলিশ বক্স করার জন্য ১০ কোটি টাকা বাজেট করা হয়েছে। আমরা প্রত্যেকটি পুলিশ বক্স আধুনিক করে দেবো।

মেয়র বলেন, আপনারা জানলে খুশি হবেন আমরা একটি নতুন পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছি। সেটি হলো ওয়ানস্টপ পার্কিং সুবিধা। এই ডিজিটাল পার্কিং পদ্ধতি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এবং ডিএমপি একসঙ্গে কাজ করছে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সির মাধ্যমে কীভাবে ঢাকায় ট্রাফিক লাইটগুলোকে আমরা কন্ট্রোল করতে পারি সেই পরিকল্পনা শুরু হয়েছে।

মাঠ পর্যায়ের পুলিশের উদ্দেশ্যে মেয়র আতিক বলেন, আপনারা রোদ নাই বৃষ্টি নাই, দিন নাই, রাত নাই মানুষের পাশে দাঁড়ান। করোনার সময় দেখেছি কীভাবে আপনারা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সন্তানরা ফেলে গেলেও পুলিশ তার পাশে দাঁড়িয়েছে।


আরও খবর



প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে গুজব ঠেকাতে বড় পরিসরে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। এ সময় প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রশ্নফাঁসের গুজবের সঙ্গে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে। প্রশ্নফাঁসের গুজব ঠেকাতে গোয়েন্দারা নজরদারি করছেন। কেউ গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, সুষ্ঠু পরিবেশে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে পরীক্ষায় ভালো নম্বর পেলেও শিক্ষার্থীদের শেখার ঘাটতি থেকে যাচ্ছে। এ কারণে নতুন কারিকুলামে মূল্যায়ন ও শিখন পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

এ সময় নতুন কারিকুলামে অভিভাবকরা যেন শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন সহজেই বুঝতে পারেন সে বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে জানান মহিবুল হাসান চৌধুরী।তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের প্রকৃত অর্থে মেধাবী ও কর্মোপযোগী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এ ছাড়া শুধু বার্ষিক পরীক্ষা কেন্দ্রিক শিক্ষাব্যবস্থা নয়, সারা বছর শিক্ষার্থীর মূল্যায়ন করা হবে।

উল্লেখ্য, আজ সকাল ১০টা থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হয় দুপুর ১টায়। এবার মোট পরীক্ষার্থী ২০ লাখ ২৪ হাজার ১৯২ জন। সারাদেশে ২৯ হাজার ৭৩৫টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ৩ হাজার ৭০০টি কেন্দ্রে পরীক্ষা দেন। আর বিদেশের ৮ কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।


আরও খবর



ইনটেলকে ১০ বিলয়ন ডলার ভর্তুকি দেবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহুজাতিক প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইনটেল করপোরেশনকে ১০ বিলয়ন ডলার বা ১ হাজার কোটি ডলার ভর্তুকি দেওয়ার কথা ভাবছে বাইডেন প্রশাসন। মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ বিষয়ে আলোচনা চলমান।

ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন সরকারের এই ভর্তুকি দুই উপায়ে দেওয়া হবে ইনটেলকে। ১০০০ কোটি ডলারের একটা অংশ দেওয়া হবে সরাসরি সহায়তা হিসেবে যা আর ফেরত দিতে হবে না। বাকি অংশ দেওয়া হবে ঋণ হিসেবে। ইনটেল ও মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে কোনো আনুষ্ঠানিক মন্তব্য করেনি।

এর আগেও মার্কিন কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে দুটি স্বল্পমেয়াদি অর্থ সহায়তা প্যাকেজের অনুমোদন দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী জিনা রাইমন্দো ব্লুমবার্গকে জানান, গত দুই মাসে মার্কিন সরকার ভিন্ন মেয়াদি তহবিল গঠনের পরিকল্পনা করেছে। সরকারের ৩ হাজার ৯০০ কোটি ডলারের কর্মসূচির আওতায় এ পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। বড় পরিসরে, সেমিকন্ডাক্টর শিল্পের বিকাশ ও উৎপাদন এগিয়ে নেওয়াই এ প্রকল্পের মূল লক্ষ্য।

ইনটেল এই ভর্তুকি অ্যারিজোনা ও নিউ মেক্সিকোতে তাদের কারখানার নির্মাণে কাজে লাগাতে চায়। এ ছাড়া ওহাইওতেও নতুন কারখানাও তৈরি করছে ইনটেল। এটি হতে যাচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম চিপ নির্মাণ কারখানা।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইনটেল ২০১৬ সাল নাগাদ ওহাইও প্ল্যান্টের নির্মাণকাজ স্থগিত করার পরিকল্পনা করছে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, চিপ বিক্রির বাজারে ধীর গতি ও ডলারের কমে যাওয়া এর মূল কারণ হতে পারে।

এদিকে তাইওয়ান সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং করপোরেশন একই তহবিল থেকে ভর্তুকি পাওয়ার আশায় আবেদন করেছে। মূলত যুক্তরাষ্ট্রে অ্যারিজোনায় প্রতিষ্ঠানটির চিপ উৎপাদন কারখানার নির্মাণকাজ চলমান। তবে ডলারের মান পড়ে যাওয়ার কারণে এই নির্মাণকাজ স্থগিতের সম্ভাবনা আছে। এ ছাড়া, মাইক্রন ও স্যামসাং ইলেকট্রনিকসও যুক্তরাষ্ট্রের এই তহবিল হতে ভর্তুকি পাওয়ার আশায় আবেদন করেছে।


আরও খবর



তথ্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সংসদে কিছু আইন আসবে: আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, কিছু আইন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ সংসদে আসবে। এর মাধ্যমে তথ্য ও সম্প্রচার নিয়ন্ত্রণ নয়, মিথ্যা তথ্য এবং মিথ্যা খবর দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা যাতে বন্ধ করা যায় সে ব্যবস্থা নেবে সরকার।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য রুহুল আমিন হাওলাদারের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন আইনমন্ত্রী। তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাতের অনুপস্থিতিতে তার পক্ষে সংসদে প্রশ্নের জবাব দেন তিনি।

রুহুল আমিন হাওলাদার তার প্রশ্নে বলেন, অনেক অনলাইন সংবাদমাধ্যম মিথ্যা সংবাদ করে অস্থিরতা সৃষ্টি করে। অপপ্রচার করে। এগুলো বন্ধে আইন করা হবে কি না। 

আরও পড়ুন>> ‘সরকারি মাল দরিয়ামে ঢাল’ বললে হবে না : প্রধানমন্ত্রী

জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, আমাদের সংবিধানে বলা আছে যে মৌলিক অধিকারের মধ্যে বাকস্বাধীনতা এবং সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা। সেই নিরিখে এবং সেটাকে যথাযথ মর্যাদা দিয়ে আইন প্রণয়ন করতে হয়। আইন অলরেডি একটা আছে যেটা হচ্ছে সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট।

আমি সংসদ সদস্যকে জানাতে চাই, সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট এবং আরও কিছু আইন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ সংসদে আসবে। এর মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ নয়, মিথ্যা তথ্য এবং মিথ্যা খবর দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা যাতে বন্ধ করা যায় সে ব্যবস্থা সরকার নেবে। এর পাশাপাশি আমি বলে রাখত চাই, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা কোনোভাবে খর্ব করবে না সরকার।


আরও খবর