আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

বসাফোর গোপালগঞ্জ জেলা শাখার নতুন কমিটির পরিচিতি সভা

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জুলাই ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ জুলাই ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক ফোরাম (বসাফো) এর গোপালগঞ্জ জেলা শাখার নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির পরিচিতি সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শনিবার বিকেলে গোপালগঞ্জ শেখ ফজলুল হক মনি মিলনায়তনে এ পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নতুন কমিটির আহ্বায়ক ও জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা নাসিমা খানমের সভাাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুবুল আলম।

বিশেষ অতিথি ছিলেন-পুলিশ সুপার আয়শা সিদ্দিকা, গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব আলী খান, সাধারণ সম্পাদক জিএম সাহাবুদ্দিন আলম, গোপালগঞ্জ সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ওহিদ আলম লস্কার, গোপালগঞ্জ শেখ ফজিলাতুন্নেছা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সেখ বেনজির আহম্মেদ, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এহিয়া খালেদ সাদী ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী নাঈম খান জিমি। পরিচিতি সভা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য সম্প্রতি গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা নাসিমা খানমকে আহ্বায়ক ও গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি মো. মাসুদ রানাকে সদস্য সচিব করে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক ফোরাম (বসাফো) এর গোপালগঞ্জ জেলা শাখার ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন করেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক ফোরাম (বসাফো) এর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আসাদুজ্জামান নুর এমপি ও নির্বাহী সভাপতি মমতাজ বেগম এমপি এবং সাধারণ সম্পাদক নবীন কিশোর গৌতম।

কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক তাসবিরুল হূদা(বাবু), বাবু রাখাল ঠাকুর, আশিস কুমার বাকচী, এম আরিফুল ইসলাম মুক্তা, মাহফুজুর রহমান, রত্না বিশ্বাস, আফরোজা আক্তার, মমতাজ খানম, এ্যাড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুতুল রানী সরকার, আজিজুল সিকদার, মনোয়ারা বেগম, রোমানা হক, লুনা খান, মো. রিয়াজুল ইসলাম রিপন, মো. মনোয়ার হোসেন দ্বীন ইসলাম মোল্যা জইন, সম্রাট হাজরা, রিদয় সাহা।

 


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




‘সরকারি মাল দরিয়ামে ঢাল’ বললে হবে না : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশে আজ যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হয়েছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। আর যে কাজগুলো করে দিচ্ছি সেগুলো রক্ষণাবেক্ষণ, যত্ন করতে হবে। সরকারি মাল দরিয়ামে ঢাল বললে হবে না। সরকার কিন্তু চলে জনগণের পয়সায়। সরকার করে দেয় কিন্তু জিনিসটা জনগণের। এটা মাথায় রাখতে হবে। সেভাবে যত্নশীল হতে হবে।

রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস ২০২৪ অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারের জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণের কাছে দেওয়া ওয়াদা রক্ষা করুন। কমিশনের কথা চিন্তা করে প্রকল্প নেওয়া যাবে না। জনগণ ও প্রকৃতি-পরিবেশের কথা মাথায় রেখেই প্রকল্প নিতে হবে। প্রতিটি ক্ষেত্রে অর্থ সাশ্রয় করে কাজ করতে হবে।

সরকারপ্রধান বলেন, দেশে ভূমি ও গৃহহীন মানুষ থাকবে না। প্রথমে বিভাগ, তারপর জেলা পর্যায়ে খাদ্য সংরক্ষণাগার করা হবে। দেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চলে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানা হবে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা একটি সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। শুধু নেয়ার জন্য কোনো প্রকল্প নেবেন না; জনগণের কাজে লাগে কিনা সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। পরিবেশ সংরক্ষণের দিকেও দৃষ্টি দিতে হবে। জলাধার যথাযথভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে। যারা বেশি বিদ্যুৎ ব্যবহার করবেন, তাদের বিদ্যুৎ বিল অন্যদের চেয়ে বেশি হবে। অর্থাৎ তাদের বিদ্যুতের রেট অন্যদের চেয়ে বেশি হবে। নির্দিষ্ট ইউনিট পর্যন্ত ব্যবহারে কম বিল দেবেন স্বল্প আয়ের ব্যবহারকারীরা।

এসময় তিনি বলেন, এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। সমন্বিত চাষাবাদ বা সমবায়ের মাধ্যমে চাষাবাদের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক এলাকায় মাস্টারপ্ল্যান করে কাজ করলে জমির উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব। আধুনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ ও উৎপাদিত পণ্যের যথাযথ বণ্টন নিশ্চিত করতে হবে। সবাইকে সর্বজনীন পেনশন স্কিমে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

জনপ্রতিনিধিদের সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আশ্রয়ণসহ বিভিন্ন প্রকল্পে পুনর্বাসিতদের খোঁজ খবর রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে স্থানীয় সরকারের জনপ্রতিনিধিদের অনেক দায়িত্ব আছে। সরকারি কর্মচারীরা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত চাকরি করে। জনগণের কাছে তাদের জবাবদিহি করতে হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। আজকে আমরা স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছি। এই উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। কারও কাছে মাথা নিচু করে আমরা চলব না। মাথা উঁচু করে চলতে হবে আমাদের।

তিনি আরও বলেন, আমরা দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলব। আমরা কম্পিউটার ট্রেনিং দিচ্ছি। শিক্ষার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। প্রতিটি স্কুলের উন্নয়ন করে দিচ্ছি। প্রতিটি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় করে দিচ্ছি। মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করেছি। বহুমূখী বিশ্ববিদ্যালয় করে শিক্ষার মান উন্নত করে দিচ্ছি। এতো কিছু করছি এদেশের মানুষের জন্য।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইনশাআল্লাহ জাতিসংঘ ঘোষিত সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল সেটাও যেমন আমরা অর্জন করব, ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ, দক্ষ জনশক্তি, দক্ষ সরকার, দক্ষ অর্থনীতি, দক্ষ সমাজ আমরা গড়ে তুলব। আমাদের সব কিছুই হবে স্মার্ট।

শেখ হাসিনা বলেন, ২১০০ সালের ডেল্টা প্লান করে দিয়েছি। তাও বাস্তবায়ন শুরু করেছি। জলবায়ুর অভিঘাত থেকে এই ব-দ্বিপকে রক্ষা করে আমাদের দেশের মানুষের উন্নয়নের অভিযাত্রা যেন অব্যাহত থাকে, প্রজন্মের পর প্রজন্ম সুন্দর জীবন পায় সেটাই আমাদের লক্ষ্য।


আরও খবর



ফেব্রুয়ারি মাসেই চট্টগ্রামে ৪ কোটি টাকার ফুল বিক্রির আশা ব্যবসায়ীদের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, সামাজিক বিবাহ অনুষ্ঠান উপলক্ষ্য ঘিরে নানা ফুলের চাহিদা মিটাচ্ছে ফুল চাষি ও ব্যবসায়িরা। এই বছরে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় অনেকবেশি ফুলের ফলন হয়েছে। চট্টগ্রাম নগরীর ফুল পাড়া হিসেবে পরিচিত চেরাগীর পাহাড় মোড়ে ফুলের দোকানে। চট্টগ্রামে ফেব্রুয়ারি মাসেই ৪ কোটি টাকার ফুল বিক্রির আশা ব্যবসায়ীদের।

সরেজমিনে দেখা যায়, নগরীর বিভিন্ন ফুল দোকানে চাহিদার তুলনায় পযাপ্ত ফুলের সরবরাহ আছে। গত বছর একটি দেশী গোলাপ ৪০ টাকা, দেশী চায়না গোলাপ ৭০ টাকা ও পিংকালারের একটি গোলাপ বিক্রি হয়েছে ১২০ টাকা। ফুলের এ চাহিদা বেড়ে বাড়ে ভালোবাসা দিবস, ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও সামাজিক বিয়েতে ফুল বিক্রি চার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশা করছে ব্যবসায়িরা ।

ফুল বিক্রেতা আব্দুল মোনাফ বলেন, এবার দেশী ফুলের কদর বেড়েছে সে কারণে দামও বেড়েছে। এবার পাইকারিভাবে প্রতিটি ১২, গেদা ১০০০টি ২৫০ টাকা, জিপসি প্রতি আঁটি ১৫-২০ টাকা, চন্দ্রমল্লিকা প্রতিটি ৪ টাকা টাকা বিক্রি হচ্ছে। চায়না গেদা প্রতি ১০০টি ৫০০ টাকা এবং চায়না বেলি বিক্রি হচ্ছে প্রতি ১০০টি ৫০০ টাকায়।

ব্যবসায়ীরা জানান, বর্তমানে সরকার নানামুখী পদক্ষেপ প্রহণ করার কারণে বাণিজ্যিকভাবে দেশী ফুল চাষের সুদিন ফিরছে।তবে রাস্তায় চাঁদাবাজদের কারণে শহরে আসতে আসতে ফুলের দাম বেড়ে যায়। বিদেশ থেকে ফুল আমদানির ক্ষেত্রে সরকার যদি আমদানি শুল্কহার বৃদ্ধি করে দেন তাহলে আমদানি কারকরা বিদেশ থেকে ফুল আমদানিতে নিরুৎসাহিত হবেন, ফলে দেশী ফুলের চাহিদা আরো বৃদ্ধি পাবে।

চকরিয়ার ফুল চাষি আনসারউল ইসলাম জানান,  ভালোবাসা দিবস বা ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, সামাজিক অনুষ্ঠান ঘিরে দেশী কাঁচা ফুলের কদর বাড়ছে। ফুল চাষিরা তাদের বাগানে ব্যস্ত সময় পার করছেন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকাতর এই বছর ফুলের চাষও ভালো হয়েছে। চকরিয়া থেকেও কোটি টাকার উপরে ফুলের ব্যবসা হবে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




২৩ ফেব্রুয়ারি : ইতিহাসে আজকের এই দিনে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

১৯৫২ সালের এই দিনে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে ঢাকা মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণে প্রথম শহীদ মিনার নির্মাণ শুরু করে রাতের মধ্যে তা সম্পন্ন হয়

আজ শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ইতিহাসের আজকের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্ট জনদের জন্ম, মৃত্যুদিনসহ উল্লেখযোগ্য আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়-

ঘটনাবলি:

৬২৪ - ঐতিহাসিক খন্দকের যুদ্ধ সংঘটিত হয়।

১৭৬৮ - হায়দ্রাবাদের নিজামের সঙ্গে চুক্তি করে কর্নেল স্মিথে ব্রিটিশ আধিপত্য বিস্তার করে।

১৭৯৯ - ফরাসী সেনা কমান্ডার নেপোলিয়ান বোনাপার্ট মিশর দখলের পর শ্যামে হামলা চালায়।

১৮৩১ - সাপ্তাহিক সংবাদ সুধাকর প্রকাশিত হয়।

১৮৭১ - লন্ডনে ইউরোপীয় সরকারগুলোর প্রতিনিধিদের একটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ।

১৮৮৬ - বিশিষ্ট রসায়নবিদ চার্লস মার্টিন হল মূল্যবান এ্যালুমিনিয়াম উৎপাদনের সুত্র আবিষ্কার করেন ।

১৮৮৭ - উচ্চমাত্রার ভূমিকম্প আঘাত করেছিল ফ্রান্সে, যাতে প্রায় ২০০০ লোক মারা যায়।

১৮৯৮ - একটি খোলা চিঠি লেখার দায়ে ফ্রান্সে এমিল জোলাকে কারাবাস দেওয়া হয়।

১৯১৭ - রাশিয়ার পিটার্সবার্গে প্রথম আন্দোলনের মাধ্যমে ফেব্রুয়ারি বিদ্রোহের সূত্রপাত হয়।

১৯১৮ - সোভিয়েত লাল ফৌজ প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯১৩ - মেক্সিকোর পদচ্যুত রাষ্ট্রপতি ফ্রান্সিসকো মাদেরো গুলিতে নিহত হন।

১৯১৯ - বেনিতো মুসোলিনি ইতালিতে ফ্যাসিবাদী দল গঠন করে।

১৯৪৭ - দি ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর স্ট্যানডারডাইজেশন (ISO) প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৪৮ - পাকিস্তানের গণপরিষদের প্রথম অধিবেশনে বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দানের দাবি তোলেন ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত কিন্তু প্রত্যাখ্যাত হয়েছিল ।

১৯৫২ - ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ প্রাঙ্গণে প্রথম শহীদ মিনার নির্মাণ শুরু করে রাত্রির মধ্যে তা সম্পন্ন।

১৯৬৯ - সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ শেখ মুজিবুর রহমানকে বঙ্গবন্ধু উপাধিতে ভূষিত করে।

১৯৬৯ - গণঅভ্যুত্থানের মুখে প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান পদত্যাগে বাধ্য হন।

১৯৯১ - থাইল্যান্ডে সামরিক অথ্যুত্থান ঘটে।

১৯৯৭ - স্কটল্যান্ডের ইডেনবার্গের রোর্সালন ইনস্টিটিউটের গবেষকগণ সর্বপ্রথম পূর্ণাঙ্গ ক্লোন ভেড়া ডলির জন্মের কথা প্রকাশ করেন ।

জন্ম:

১৬৩৩ - ইংরেজ সৈনিক ও রাজনীতিক স্যামুয়েল পেপয়স জন্মগ্রহণ করেন ।

১৬৮৫ - জার্মান বংশোদ্ভূত ইংরেজ অর্গানবাদক ও সুরকার জর্জ ফ্রিডেরিক হান্ডেল জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৪০ - অস্ট্রীয় অর্থনীতিবিদ ও শিক্ষাবিদ কার্ল মেনগের জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৬৮ - আমেরিকান সমাজবিজ্ঞানী, ইতিহাসবিদ ও সমাজ সেবী ডব্লিউ. ই. বি. ডু বইস জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৭৪ - এস্তোনিয়া আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও ১ম রাষ্ট্রপতি কনস্টানটিন পাটস জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৮৩ - জার্মানি সুইস মনোবিজ্ঞানী ও দার্শনিক কার্ল জাস্পেরস জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৯৯ - জার্মান লেখক ও কবি এরিক কাস্টনের জন্মগ্রহণ করেন।

১৯১৩ - খ্যাতনামা জাদুকর পি সি (প্রতুলচন্দ্র) সরকার জন্মগ্রহণ করেন।

১৯২৪ - নোবেল পুরস্কার বিজয়ী দক্ষিণ আফ্রিকান বংশোদ্ভূত আমেরিকান পদার্থবিদ অ্যালান ম্যাকলিয়ড করমাক জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৪০ - আমেরিকান অভিনেতা পিটার ফন্দা জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৪৮ - ইংরেজ পরিচালক ও প্রযোজক বিল আলেকজান্ডার জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৫৪ - ইউক্রেনীয় রাজনীতিবিদ ও ৩য় প্রেসিডেন্ট ভিক্টর য়ুশ্চেনকো জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৬৫ - আমেরিকান ব্যবসায়ী ও ডেল প্রতিষ্ঠিত মাইকেল সল ডেল জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭৪ - দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার হার্শেল গিবস জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৮১ - ইংরেজ ফুটবলার গ্যারেথ ব্যারি জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৯২ - ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার সাসেমিরো জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৯৪ - আমেরিকান অভিনেত্রী হ্যানা ডাকোটা ফ্যানিং জন্মগ্রহণ করেন।

মৃত্যু:

০৬৬৫ - বিশিষ্ট সাহাবী আবু মুসা আশরায়ী (র:) ইন্তেকাল করেন।

১৭৬৬ - পোলিশ রাজা স্টানিস্লাও লেসযচয্য়ন্সকি মৃত্যুবরণ করেন।

১৭৯২ - ইংরেজ চিত্রশিল্পী জশুয়া রেনল্ডস মৃত্যুবরণ করেন ।

১৮২১ - ইংরেজ কবি জন কিটস মৃত্যুবরণ করেন ।

১৮৪৮ - মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ষষ্ঠ রাষ্ট্রপতি জন কুইন্সি অ্যাডামস মৃত্যুবরণ করেন ।

১৮৫৫ - জার্মান গণিতবিদ ও বিজ্ঞানী ইয়োহান কার্ল ফ্রিডরিশ গাউস মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৩৪ - মৃত্যুবরণ করেন এডওয়ার্ড ইলগার, তিনি ছিলেন ইংরেজ সুরকার ও শিক্ষাবিদ।

১৯৪৫ - মৃত্যুবরণ করেন আলেক্সেই নিকলাইয়েভিচ তল্স্তোয়, তিনি ছিলেন সোভিয়েত রুশ লেখক।

১৯৪৭ - আয়ুর্বেদীয় চিকিৎসক হাকীম হাবিবুর রহমান মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৫৫ - ফরাসি কবি, লেখক ও নাট্যকার পল ক্লাউডেল মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৬৫ - ইংরেজ কমিক অভিনেতা, লেখক ও চলচ্চিত্র পরিচালক স্ট্যান লরেল মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৬৯ - ভারতীয় অভিনেত্রী মধুবালামৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৭৩ - নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আমেরিকান ডাক্তার ডিকিনসন ডাব্লিউ রিচার্ডস মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৭৬ - নোবেলশান্তি পুরস্কার বিজয়ী রানে কাস্যাঁ মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৯৮ - ভারতীয় ক্রিকেট খেলোয়াড় রমন লাম্বা মৃত্যুবরণ করেন ।

২০০৮ - স্লোভেনীয় অর্থনীতিবিদ, রাজনীতিবিদ ও ২য় প্রেসিডেন্ট জানেয ডরনোভসেক মৃত্যুবরণ করেন ।


আরও খবর
২৯ ফেব্রুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আজকের রাশিফল: বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ঘড়ি প্রতীকে লড়বেন সাবেক মেয়র ইকরামুল হক টিটু

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

Image

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন সদ্য সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইকরামুল হক টিটু। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) নগরীর তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়াম হল রুমে সকাল ১০টা থেকে উৎসবমুখর পরিবেশে প্রতীক বরাদ্দ শুরু হয়। এসময় মেয়র প্রার্থী ইকরামুল হক টিটুর হাতে টেবিল ঘড়ি প্রতীক তুলে দেন ময়মনসিংহ আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা এবং মসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন চৌধুরী। ইকরামুল হক টিটু টেবিল ঘড়ি প্রতীক পাওয়ার পর শতশত নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের আনন্দ উচ্ছ্বাসে ভরে ওঠে টাউনহল প্রাঙ্গণ।

প্রতীক পাওয়ার পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে টেবিল ঘড়ি প্রতীকে মেয়র প্রার্থী মোঃ ইকরামুল হক টিটু বলেন, ভোটারদের প্রতি আমার আহ্বান থাকবে, দীর্ঘদিন সুখে-দুঃখে পাশে থেকে কাজ করেছি, উন্নয়নের চেষ্টা করেছি, আগামীদিনে অসমাপ্ত এবং প্রক্রিয়াধীন কাজগুলো বাস্তবায়ন করে ময়মনসিংহকে একটি সমৃদ্ধ নগরী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে আগামী ৯ তারিখ সঠিক সময়ে, সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে টেবিল ঘড়ি মার্কায় ভোট দিবেন।

অপরদিকে মেয়র পদে অন্য চার প্রার্থীরা যে প্রতীক পেয়েছেন- জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী শহিদুল ইসলাম স্বপন মন্ডল পেয়েছেন দলীয় প্রতীক লাঙল, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম পেয়েছেন ঘোড়া, শহর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি সাদেকুল হক খান মিল্কী টজু হাতি এবং কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সাবেক সদস্য কৃষিবিদ ড. রেজাউল হক পেয়েছেন হরিণ প্রতীক।

এছাড়াও ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের সাধারণ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যেও প্রতীক বরাদ্দ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, ৩৩ টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৯ জন এবং ১১টি সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৬৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। আগামী ৯ মার্চ ইভিএম এর মাধ্যমে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসার শিক্ষক প্রত্যাহার

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের আজিমপুর ক্যাম্পাসের দিবা শাখার এক সিনিয়র শিক্ষককে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কেকা রায় চৌধুরীর সই করা এক অফিস আদেশে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়া গেছে। এ কারণে শিক্ষার পরিবেশ স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে এবং এ বিষয়ে আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য ওই শিক্ষককে আজ থেকে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানান, অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম মুরাদ হোসেন সরকার। তাদের অভিযোগ, ওই শিক্ষক কোচিংয়ে পড়ানোর সময় ছাত্রীদের ওপর যৌন নিপীড়ন চালাতেন।

অবশ্য ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ কী, তা অফিস আদেশে উল্লেখ করা হয়নি।


আরও খবর
জাবির ‘ডি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪