আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

বড়াইগ্রামে সড়কে ঝড়ল চাচা-ভাতিজার প্রাণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চুয়াডাঙ্গা থেকে আম কিনতে নাটোরে যাওয়ার পথে আলমসাধু উল্টে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছেন। সোমবার (২০ জুন) সকালে নাটোরের বড়াইগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লসিমন উল্টে খাদে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বনপাড়া হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফিরোজ হোসেন।

নিহত মন্টু ফকির (৫০) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ডাউকি ইউনিয়নের হাউসপুর গ্রামের হঠাৎপাড়ার নবিস উদ্দিনের ছেলে এবং শাহীন (২৫) একই এলাকার আব্দুল হান্নানের ছেলে। তারা আপন চাচা-ভাতিজা বলে জানা গেছে।

বনপাড়া হাইওয়ে থানা সূত্রে জানা যায়, সোমবার (২০ জুন) সকালে আলমসাধুযোগে দুজন আম কেনার উদ্দেশে নাটোরের আহম্মেদপুর বাজারে যাচ্ছিল। পথে বড়াইগ্রামের বনপাড়া-গোদড়া এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আলমসাধু মহাসড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে চালকসহ তিনজনই আলমসাধুর নিচে পড়ে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বনপাড়া জাহেদা হাসপাতালে ভর্তি করে। এর কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজন মারা যান।

হাউসপুর গ্রামের ইউপি সদস্য বদর উদ্দিন বলেন, আম কিনতে যাওয়ার পথে আলমসাধু উল্টে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছে। তারা বিভিন্ন জেলায় ঘুরে আম কিনে তা বিক্রি করত। বিকেলে মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে দুই পরিবারে নেমে আসে শোকের ছায়া। রাত ১০টার দিকে জানাজার নামাজ শেষে গ্রামের কবরস্থানে দাফন করা হয়।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফিরোজ হোসেন বলেন, চুয়াডাঙ্গা থেকে আম কিনতে আসার পথে আলমসাধু উল্টে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে দুর্ঘটনাকবলিত আলমসাধুটি জব্দ করা হয়েছে। অভিযোগ না থাকায় সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর



৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৯ জুন ২০২২ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় সংসদে বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

এর আগে এরপর মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত বাজেট সংসদে উপস্থাপনের অনুমতি দিয়ে তাতে সম্মতিসূচক স্বাক্ষর করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি আজ বঙ্গভবনের বদলে জাতীয় সংসদ ভবনের রাষ্ট্রপতির দপ্তরে অফিস করবেন। এর পরই রীতি অনুযায়ী অর্থমন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে সংসদের অধিবেশন কক্ষে প্রবেশ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন বলে জানা গেছে।

এর আগে দুপুর ১২টা ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার জন্য লাল রঙের ব্রিফকেস হাতে নিয়ে সংসদ ভবনে পৌঁছেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় সংসদ ভবনে পৌঁছান তিনি। অর্থমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা গাজী তৌহিদুল ইসলাম  সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গাজী তৌহিদুল ইসলাম বলেন, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জাতীয় সংসদে ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট উপস্থাপনের জন্য বেলা সোয়া ১১টায় গুলশানের বাসভবন হতে জাতীয় সংসদের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন। দুপুর ১২টায় পৌঁছান তিনি। প্রস্তাবিত বাজেটের আকার ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। এটি বর্তমান সরকারের ২৩তম, বাংলাদেশের ৫১তম এবং বর্তমান অর্থমন্ত্রীর চতুর্থ বাজেট।

কোভিডের অভিঘাত পেরিয়ে উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় প্রত্যাবর্তন শিরোনামে জাতীয় সংসদে আজ বৃহস্পতিবার ২০২২-২৩ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানিয়েছে, আসন্ন বাজেটের আকার ধরা হয়েছে প্রায় ছয় লাখ ৮০ হাজার কোটি টাকা। প্রস্তাবিত এ বাজেটে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হচ্ছে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। এতে মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে।

চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের মূল বাজেটের আকার ছয় লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। এতে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৭ দশমিক ২ শতাংশ। গত অর্থ বছরের তুলনায় আসন্ন বাজেটের আকার ৭৬ হাজার কোটি টাকা বেশি হতে পারে।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, বাজেটের মোট আকার নিয়ে এখনও পর্যালোচনা ও যাচাই-বাচাই চলছে। শেষ মুহূর্তে কিছু কম বেশি হতেও পারে। আগামী বাজেটে ঘাটতি দুই লাখ ৪৩ হাজার কোটি টাকার মতো হতে পারে। চলতি অর্থবছরে বাজেট ঘাটতি ধরা হয়েছিল দুই লাখ ১৫ হাজার কোটি টাকা। আসন্ন অর্থবছরে মূল্যস্ফীতির হার ৫ দশমিক ৫ শতাংশ ধরা হচ্ছে। চলতি অর্থবছরে যা ধরা হয়েছিল ৫ দশমিক ৩ শতাংশ।

সূত্র আরও জানিয়েছে, আগামী অর্থবছরে মোট আয় ধরা হবে চার লাখ ৩৩ হাজার কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে আয় ধরা হয়েছিল তিন লাখ ৮৯ হাজার কোটি টাকা। সে অনুযায়ী এবারে বাজেটে মোট প্রাক্কলিত আয়ের পরিমাণ বাড়ছে ৪৪ হাজার কোটি টাকা।

মোট আয়ের মধ্যে আগামী অর্থবছরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) তিন লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকা আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হতে পারে। চলতি অর্থবছরে এনবিআরকে তিন লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকার লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়। আগের অর্থবছরেও এনবিআরকে একই লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হয়েছিল।

চলতি ২০২১২২ অর্থবছরে মূল বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার ধরা হয়েছিল দুই লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকা। আগামী অর্থবছরের জন্য তা দুই লাখ ৫০ হাজার কোটি টাকা হতে পারে।

অর্থ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আগামী অর্থবছরে বেশি বরাদ্দ দেওয়া হতে পারে বিদ্যুৎ খাতে। এ খাতে ১৮ হাজার কোটি টাকা, তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) আমদানিমূল্য পরিশোধ ও প্রণোদনা প্যাকেজের সুদ ভর্তুকি ১৭ হাজার ৩০০ কোটি, খাদ্য ভর্তুকি ৬ হাজার ৭৪৫ কোটি এবং কৃষি প্রণোদনা বাবদ ১৫ হাজার কোটি টাকা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের টানা তৃতীয় মেয়াদের চতুর্থ বাজেট এটি। অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামালের এটি চতুর্থ বাজেট। দুপুর ৩টায় বাজেট বক্তৃতা শুরু করবেন তিনি।

বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথম বাজেট ঘোষণা করেন তাজউদ্দীন আহমদ। ১৯৭২ সালের ৩০ জুন ঘোষণা করা সেই বাজেটের আকার ছিল ৭৮৬ কোটি টাকার। স্বাধীনতার ৫০ বছর শেষে এর আকার দাঁড়িয়েছে ছঠয় লাখ কোটি টাকার বেশি।  অর্থাৎ প্রথম বাজেট থেকে ৫১তম বাজেটের আকার বেড়েছে ৮৬৫.১৩ শতাংশ।

এ পর্যন্ত সর্বমোট ৫০টি বাজেট উত্থাপন করেছেন ১৩ জন ব্যক্তি। তাদের মধ্যে একজন রাষ্ট্রপতি, নয় জন অর্থমন্ত্রী ও দুজন অর্থ উপদেষ্টা। ব্যক্তি হিসেবে সবচেয়ে বেশি ১২টি করে বাজেট উত্থাপন করেছেন প্রয়াত সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান এবং আবুল মাল আবদুল মুহিত। এর মধ্যে আবুল মাল আবদুল মুহিত আওয়ামী লীগের হয়ে রেকর্ড টানা ১০টি বাজেট উপস্থাপন করেন।


আরও খবর



ইউক্রেনে হামলা করে ‘ঐতিহাসিক ভুল’ করেছেন পুতিন: ম্যাক্রোঁ

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ জুন ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে হামলা চালিয়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ঐতিহাসিক ভুল করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। এমনকি এই হামলার কারণে রুশ প্রেসিডেন্ট বর্তমানে সারা বিশ্ব থেকে কার্যত বিচ্ছিন্ন বলেও দাবি করেছেন তিনি। ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান শুরুর শততম দিনে শুক্রবার (৩ জুন) রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে এই মন্তব্য করলেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট। শনিবার (৪ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ইউক্রেন আক্রমণ করার বিষয়টাকে একটি ঐতিহাসিক ও মৌলিক ভুল হিসেবে আখ্যায়িত করেন এবং দাবি করেন, পূর্ব ইউরোপের এই দেশটিতে হামলার কারণে এখন তিনি (পুতিন) বিচ্ছিন্ন

ফরাসি আঞ্চলিক সংবাদমাধ্যমের সাথে একটি সাক্ষাৎকারে প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ বলেন, আমি মনে করি এবং আমি তাকে বলেছিলাম, দেশের জনগণের জন্য, নিজের জন্য এবং ইতিহাসের জন্য তিনি একটি ঐতিহাসিক ও মৌলিক ভুল করেছেন। আমি মনে করি এই হামলা চালিয়ে তিনি নিজেকে বিচ্ছিন্ন করেছেন। নিজেকে বিচ্ছিন্ন করা একটি জিনিস, কিন্তু এটি থেকে বেরিয়ে আসতে একটি কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়।  তিনি তার কিয়েভ সফরের সম্ভাবনাকে বাতিল করেননি।


আরও খবর



ম্যানচেস্টার ছাড়তে চাচ্ছেন রোনালদো

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | ১৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউরোপীয় ফুটবলে দলবদলের উত্তাপ ক্রমেই বাড়তে শুরু করেছে। আলোচনায় আসতে শুরু করেছেন বড় তারকারা। তাঁদের মধ্যে জোরেশোরে শোনা যাচ্ছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর নাম।

নতুন কোচ এরিক টেন হাগের পরিকল্পনা পছন্দ না হওয়ায় এবং চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারায় রোনালদো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়তে চাচ্ছেন রোনালদো। তাঁকে দলে ভেড়াতে তৎপর এএস রোমা, বায়ার্ন মিউনিখ, চেলসির মতো ক্লাবগুলো। শৈশবের ক্লাব স্পোর্টিং লিসবনও ঘরে ফেরাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

তবে রোনালদোকে নিয়ে অন্য ক্লাবগুলোর আগ্রহে জল জল ঢেলে দিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইংলিশ পরাশক্তিরা পর্তুগিজ মহাতারকাকে সাফ জানিয়ে দিয়েছে, এবারের গ্রীষ্মকালীন দলবদলে তাঁকে বিক্রি করা হবে না। ম্যানইউ কর্তৃপক্ষের দাবি, আগামী মৌসুমেও রোনালদো ওল্ড ট্রাফোর্ডেই থাকবেনএমন প্রত্যাশা তাদের।

রোনালদোর সঙ্গে আরও এক বছরের চুক্তি আছে রেড ডেভিলদের। গত মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৪ গোল করে দলের সেরা পারফরমার ছিলেন তিনি। তবে প্রিমিয়ার লিগে ষষ্ঠ স্থানে থেকে মৌসুম শেষ করায় আসছে মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি ম্যানইউ।

চ্যাম্পিয়নস লিগ ভুবনের রাজা রোনালদো সে কারণে এমন ক্লাবে যেতে চাইছেন, যে ক্লাব এই টুর্নামেন্টে খেলে থাকে। কিন্তু ম্যানইউ তাঁকে ছাড়তে রাজি নয়।


আরও খবর



৪ জুন আওয়ামী লীগের সারা দেশে বিক্ষোভের ডাক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে আগামী ৪ জুন সারা দেশে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করবে দলটি।

মঙ্গলবার সকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এবং সব সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ  সিটি করপোরেশনের মেয়রদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের যৌথ সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। যৌথসভা শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময় দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এ কর্মসূচির কথা জানান।

সভায় বিএনপি মহাসচিবের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাজপথ কাউকে ইজারা দেওয়া হয়নি। মির্জা ফখরুল, বলে দিচ্ছি আগুন নিয়ে খেলবেন না। আওয়ামী লীগ আছে।  আপনারা শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেবেন আর আমরা ছেড়ে দেব এটা হবে না। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে কোনো আপস নেই।

তিনি বলেন, বিএনপি মনে করেছে ছাত্রদলকে দিয়ে ক্যাম্পাসে অরাজকতা করবে। তারা ৭৫-র হাতিয়ার গর্জে ওঠো আরেকবার স্লোগান দেবে? নেত্রীকে হত্যার হুমকি দেবে আর আমরা যারা আওয়ামী লীগ করি, তারা কি বসে আঙুল চুষবো? যারা ছাত্ররাজনীতি করে তারা কি বসে থাকবে? তাদের রক্ত গরম হবে না? মির্জা ফখরুল আগুন নিয়ে খেলবেন না। আমরা হাত গুটিয়ে বসে থাকব না।


আরও খবর



অবৈধ ভিওআইপির দায়ে ৪ মোবাইল অপারেটরকে জরিমানা

প্রকাশিত:রবিবার ১২ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ জুন ২০২২ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবৈধ ভিওআইপির (ভয়েস ওভার ইন্টারনেট প্রটোকল) রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটককে ৫ কোটি টাকা জরিমানা করেছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা-বিটিআরসি। পাশাপাশি অপর তিন অপারেটর রবি, গ্রামীণফোন ও বাংলালিংকেও জরিমানা করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। রবিকে ২ কোটি, গ্রামীণফোনকে ৫০ লাখ এবং বাংলালিংককে ১৫ লাখ টাকা প্রশাসনিক জরিমানা করেছে কমিশন।

বিটিআরসি পরিচালিত বিভিন্ন সময়ের অভিযানে উদ্ধার করা অবৈধ ভিওআইপিতে ব্যবহৃত সিম নিয়ে মোবাইল ফোন অপারেটরদের আবেদন, শুনানি শেষে কমিশন এই জরিমানা করে।

জানা গেছে, টেলিটকের ৩২ হাজার ৮৪৫টি সিম জব্দ করেছে বিটিআরসি। কমিশনের নির্দেশনা ও লাইসেন্সিং শর্ত ভঙ্গ করার অপরাধে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের ৪৬ ও ৬৫ ধারার বিধান অনুযায়ী ও কমিশনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক এই টাকা জরিমানা করা হয়। রবির জব্দ করা সিমের পরিমাণ ১৬ হাজার ৩৯০টি, গ্রামীণফোনের ২ হাজার ৩৫৬টি এবং বাংলালিংকের ৭৫৩টি।

সব মিলিয়ে অবৈধ কল টার্মিনেশনে জড়িত থাকায় ৫২ হাজার ৫২ হাজার ৩৪৪টি সিম জব্দ করে বিটিআরসি। বিটিআরসি সংশ্লিষ্ট অপারেটরগুলোকে কিছু নির্দেশনা মেনে চলতে হবে বলে সতর্কও করেছে।

বিটিআরসির সচিব মো. নূরুল হাফিজের সই করা এসব চিঠি গত ৭ জুন সংশ্লিষ্ট অপারেটরগুলোকে পাঠানো হয়। আগামী ৩০ জুনের মধ্যে অপারেটরগুলোকে প্রশাসনিক জরিমানা পরিশোধের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ভিওআইপি

আরও খবর