আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রে হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত ৬

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | ২২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ৬ জন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় বুধবার (২২ জুন) বিকেলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) এবিসি নিউজ জানায়, বেল ইউএইচ-১বি নামের হেলিকপ্টারটি লোগান কাউন্টি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের সময় বিধ্বস্ত হয়। হেলিকপ্টারটিতে থাকা যাত্রীদের মধ্যে ৬ জন নিহত হয়। তাদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

লোগান কাউন্টি অফিস অব ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্টের সহকারী পরিচালক সোনিয়া পোর্টার বলেন, ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের লোগান কাউন্টির বিমানবন্দরভিত্তিক এই হেলিকপ্টারটি স্টেট রুট ১৭ হাইওয়েতে বিধ্বস্ত হয় এবং উদ্ধারকারী কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই সেটিতে আগুন ধরে যায়।


আরও খবর



সাবেক স্ত্রীর বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, আটক ২

প্রকাশিত:বুধবার ০১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ জুন ২০২২ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোরে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর অন্যত্র বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলা চালিয়েছে শুভ নামে যুবক ও তার সহযোগীরা। সোমবার (৩০ মে) রাতে যশোর শহরের শংকরপুর গোলপাতা মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ শুভকে ধরতে না পারলেও তার দুই সহযোগীকে ২টি বোমা ও একটি চাকুসহ আটক করেছে। 

আটকরা হলেন, শংকরপুর গোলপাতা মসজিদ এলাকার মাসুম হোসেনের ছেলে অয়ন ও একই এলাকার ওহাব আলীর ছেলে আমানউল্লাহ।

জানা যায়, শহরের শংকরপুর গোলপাতা মসজিদ এলাকার ভাঙাড়ি (পুরাতন লোহা লক্কড়) ব্যবসায়ী শুকুর আলীর এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল এলাকার জাকিরের ছেলে শুভর। তারা পালিয়ে বিয়েও করেছিলেন। শুভর নির্যাতনে বিয়ের ৫ মাস পর তালাক দিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসে ওই মেয়ে। এরপর সোমবার শুকুর আলী তার মেয়ের অন্যত্র বিয়ে ঠিক করেন। 

সোমবার রাতে ছিল বিয়ের অনুষ্ঠান। সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে বর যাত্রীদের বিদায় দেন পরিবারের লোকজন। শুভ তার সাবেক স্ত্রীর বিয়ের সংবাদ জানতে পেরে রাত ১১টার দিকে সহযোগী অয়ন ও আমানউল্লাহকে নিয়ে শুকুর আলীর বাড়ির সামনে গিয়ে ২টি বোমার বিস্ফোরণ ঘটান। পরে খবর পেয়ে কোতয়ালি থানা পুলিশের এসআই আফম মনিরুজ্জামান ঘটনাস্থলে যান।

যশোর কোতয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আফম মনিরুজ্জামান বলেন, বিয়ে বাড়িতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আমানউল্লাহ ও অয়ন নামে দুজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে দুটি বোমা ও একটি চাকু উদ্ধার হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে বিস্ফোরিত বোমার অংশ ও উদ্ধার করে আনা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর



কফিনে কলকাতা ছাড়লেন কেকে, শেষকৃত্য মুম্বাইয়ে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কলকাতাকে আলবিদা জানিয়ে চিরবিদায় নিলেন ভারতের প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী  কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ ওরফে কেকে। বুধবার দুপুর ২টা ৩০ নাগাদ তার কলকাতার মাল্টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল এসএসকেএমে তার মরদেহের ময়নাতদন্ত হয়। এরপর পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের উদ্যোগে শিল্পীকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তার দেহ নিয়ে আসা হয় কলকাতার রবীন্দ্রসদনে।  সেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে গান সেলুট দেওয়া হয়।

এক ঘন্টার মতো সেখানে তার দেহ রাখার পর  ২টা ৪৫ মিনিটে মরদেহ নিয় যাওয়া হয় কলকাতা বিমানবন্দরে। নিথর দেহে কলকাতা থেকে মুম্বাই গামি ৫টা ১৫ বিমানে কলকাতাকে চিরদিনের মতো আলবিদা জানান শিল্পী। কেকে-র পরিবার সূত্রে জানানো হয়়েছে বৃহস্পতিবার মুম্বাইয়ের ভারশোভায় তার শেষকৃত্য হবে। পরিবার ,পরিচিত ,বন্ধু ও সহকর্মীদের উপস্থিতিতে বেলা ১১ টার সময় সম্পন্ন হবে শেষকৃত্য।

এর আগে বুধবার কেকের মৃত্যুতে তার সহযোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে নিউমার্কেট থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে কলকাতা পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে সিএমআরআই হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছিল কেকে র মুখে , মাথায় মিলেছে আঘাতের চিহ্ন। তবে শেষ পাওয়া খবরে অনুযায়ী ময়নাতদন্তের রিপোর্টে মেলেনি তেমন অস্বাভাবিক কোনো তথ্য।

ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে যে, হৃদযন্ত্রজনিত সমস্যা ছিল কেকের। তবে রাসায়নিক বিশ্লেষণের পর পাওয়া যাবে চূড়ান্ত রিপোর্ট। এখনও পর্যন্ত ময়নাতদন্তের রিপোর্টে অস্বাভাবিক কিছু পাওয়া যায়নি। কিন্তু চূড়ান্ত রিপোর্টেই আসল কারণ জানা যাবে কেকের প্রয়াণের।

তবে গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ । মধ্য কলকাতার যে পাঁচতারা হোটেলে তিনি ছিলেন রাতেই সেখানে পৌঁছায় পুলিশ। পুলিশ হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজ ইতিমধ্যেই বাজেয়াপ্ত করেছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে সেখানকার স্টাফ এবং ম্যানেজার কে। বুধবার দুপুরে হোটেলে পৌঁছায় ফরেনসিক টিম, সংগ্রহ করে নমুনা।পাঁচতারা হোটেলে ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করতে আসেন জয়েন্ট সিপি ক্রাইম মুরলী ধর শর্মা ও ডিসি সেন্ট্রাল রূপেশ কুমার। সহযোগীরা বলছে নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠান চলাকালীন সময় থেকেই থেকেই অসুস্থ বোধ করছিলেন কেকে। গুরুদাস মহাবিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ২২০০ ধারণক্ষমতার ইনডোর হলটিতে গতকাল জমায়েত হয়েছিল প্রায় ৭ হাজার অনুরাগী। তাদের আটকাতে যেমন ব্যবস্থা নেয়নি ছাত্র ইউনিয়ন। পাশাপাশি ভিড়ে ঠাসা ইনডোরে ছিলো না এসির ব্যবস্থা। ভিড় নিয়ন্ত্রণে একসময় ফায়ার এক্সটেংগুইশার স্প্রে শুরু করেন আয়োজকরা।

নজরুল মঞ্চে প্রবেশের সময় শিল্পী কে কে ঘিরে থাকা অনুরাগীদের ছত্রভঙ্গ করতেও স্প্রে করা হয় ফায়ার এক্সটেংগুইশার। যা মুখে চলে যাওয়ায় প্রাথমিকভাবে অসুস্থ বোধ করেন কেকে। শেষ পাওয়া ভিডিওতে দেখা যায় গরমে কাহিল হয়ে অনুষ্ঠানের মাঝেই বারবার মুখ মুছছিলেন শিল্পী। মঞ্চে থাকাকালীন স্পটলাইটও বন্ধ করতে বলেন তিনি। সহযোগীরা জানান হোটেলে ফিরে বমিও করেন তিনি। 

ম্যানেজার হিতেশ ভাট জানান অনুষ্ঠান শেষে ফিরে যাওয়ার সময় গাড়িতে শীত করছিল কেকে-র। তার জন্য গাড়ির এসি বন্ধ করে দিতে হয়। হাতে-পায়ে ক্র্যাম্প ধরতে শুরু করে। তবুও হোটেলে ফিরে অনুরাগীদের ডাকে সাড়া দিয়ে ছবিও তোলেন কেকে। হোটেলের ঘরে ঢুকে সোফায় বসতে গিয়ে পড়ে যান। তবে একার পক্ষে কেকেকে তোলা সম্ভব ছিল না তার পক্ষে। হোটেল কর্মচারীদের ডেকে এনে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় কেকেকে। বিগত ১৫ দিন ধরে দেশের একের পর এক শহরে শো করে বেরিয়েছেন তিনি। ফলে বেশ ক্লান্ত ছিলেন তিনি। 

এদিন সকাল ন'টায় নির্ধারিত সময়ে কলকাতায় এসে পৌঁছন প্রয়াত সংগীতশিল্পীর পরিবারের সদস্যরা। সকাল ৭টা নাগাদ মুম্বাই থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তাঁরা। এরপর দমদম বিমানবন্দরে এসে পৌঁছন কেকের স্ত্রী ও পুত্র। বিমানবন্দর থেকে তারা পৌঁছান সিএমআরআই হাসপাতালে। পরিবারের সম্মতির ভিত্তিতে তাদের উপস্থিতিতে ময়নাতদন্তের জন্য  হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া শিল্পীর মরদেহ।

এবিষয়ে চিকিৎসক শিবব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, সাধারণত হার্টের রোগের ক্ষেত্রেই এরকম ঘাম হচ্ছে দেখা যায়। কখনও ব্যথা হয়। আবার কখনও হয় না। হার্টের গতিবেগ বাড়তে পারে। ফলে মৃত্যু হতে পারে। আবার মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণের আশঙ্কাও থাকে। বিশিষ্ট চিকিৎসক কুণাল সরকার৷ কেকের এভাবে মৃত্যু লজ্জার, বলছেন তিনি৷ নিজের ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন তিনি৷ সেখানেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক লিখেছেন যে এই মৃত্যু যতটা দুঃখের ততটাই লজ্জার৷ কারণ এই বেসামাল ভিড়ের ফলে সমস্যা তৈরি হতে পারে৷ এর পাশাপাশি বেশ কিছু বিষয় উল্লেখ করেন চিকিৎসক কুণাল সরকার৷ তিনি লেখেন যে, এসি বেহাল-ভীষণ গরম, মুখের উপর ফায়ার এক্সটেনগুইশার স্প্রে করা, ২ ঘণ্টার উপর সময় নষ্ট করে শেষ অবস্থায় হাসপাতাল নিয়ে আসা৷ এভাবে কেকের মৃত্যুর জন্য দায়ী করে বেশ কয়েকটি বিষয় উল্লেখ করেন তিনি৷ কারণ তাঁর মতে এতটা ভিড়ে বদ্ধ জায়গায় পারফর্ম করা খুবই কষ্টকর৷ এরই সঙ্গে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ উল্লেখ করেন যে ভারতীয় পুরুষদের ৩০ বছর থেকে বিশেষভাবে সাবধানতা অবলম্বন করা উচিৎ৷ কেকের বয়স ছিল ৫৩ বছর৷ ফলে যে সব পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল তা কেকের স্বাস্থ্যের জন্য হিতকর ছিল না৷


আরও খবর



ফতুল্লায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে কিশোর নিহত

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ জুন ২০২২ | ১৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় অজ্ঞাত দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে সাকিব নামে এক কিশোর নিহত হয়েছেন।  শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় ফতুল্লা রেলষ্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত সাকিব(১৪) ফতুল্লা রেলষ্টেশন এলাকার মারুফের বাড়ির ভাড়াটিয়া নাসিমা বেগমের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অজ্ঞাত কয়েকজন কিশোরের সঙ্গে সাকিবের কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সাকিব তাদের মারধর করলে তাদের মধ্যে একজন তার পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

নিহত সাকিবের মা নাসিমা বেগম জানান, ছেলের ওপর হামলা হয়েছে সে খবর শুনতে পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় তার ছেলে সাকিব মাটিতে কাতরাচ্ছেন। এসময় বড় ছেলে রাকিবকে সঙ্গে নিয়ে গুরতর আহত সাকিবকে খানপুর ৩০০শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আসলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, সাকিব-রাকিব (তার দুই ছেলে) রেলষ্টেশন এলাকায় সিলভার কারখানায় কাজ করেন। তাদের বাবা রুবেল শেখ কয়েক বছর আগে মারা যায়। এরপর বিভিন্ন বাসা বাড়িতে কাজ করে রাকিব ও সাকিবকে বড় করেছি। কোন সময় বিপথে যেতে দেইনি। আমি হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার চাই।ফতুল্লা মডেল থানার ওসি শেখ রেজাউল হক দিপু জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। খুনিদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

 

 

 


আরও খবর



মডেলিং থেকে স্টান্ট, এ এক অন্য সালমানের গল্প

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈশ্বরের পর যদি মনে কারও স্থান হয় তবে তা ভাইজানের। এতটাই শ্রদ্ধা করেন সালমান খানকে। তাঁর কাছে জগতের সমর্থক ভাইজান।

তাঁর জন্য শ্যুটিং-এর সেটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা টেক দিতেও পিছপা হন না তিনি। ধৈর্য ধরে বসে থাকেন। কখন তাঁর সময়টুকু আসবে। দীর্ঘ সময় বসে থাকতে থাকতে ধৈর্যচ্যুতি হয় না তাঁর। তার কারণ, ওই যে ভাইজান!

রাধে ছবির কাজ শেষ হয়ে যাওয়ার পর নেটমাধ্যমে একটি ছবি ভাইরাল হয়। যে ছবিতে ভক্তের সঙ্গে ছিলেন তাঁর ভগবানও। সালমানের সঙ্গে পারভেজ কাজি, তাঁর বডি ডাবল। দুজনকে অবিকল এক রকম দেখতে! এই ছবি দেখে অনেকেই চমকে উঠেছিলেন।

প্রতিটি সিনেমার শ্যুটিং শেষ হওয়ার পর মেক আপ করে থাকা অবস্থায় পারভেজ সালমানের সঙ্গে একটি করে ছবি নেটমাধ্যমে আপলোড করেন। বহু বছর ধরে এটাই তাঁর অভ্যাস।এই সব ছবি দেখে মনে হয়, সালমান ও পারভেজ একে অপরের যমজ ভাই! সামান্য মেক আপ করলেই আর চেনার উপায় থাকে না।

শুধু রাধে সিনেমাতেই নয়, প্রেম রতন ধন পায়ো, বডিগার্ড, দবাং ৩, রেস ৩, টাইগার জিন্দা হ্যায়, ভারত’— সালমানের সব ছবিতেই বডি-ডবলের ভূমিকা পালন করেছেন পারভেজ। মডেলিং দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেন পারভেজ। এখন এক রকম সালমানের ছায়াসঙ্গী হয়েই রয়েছেন।

দুজনের মধ্যে সম্পর্কও অটুট। কখনও জন্মদিনে নিজের হাতে কেক খাইয়ে দেন ভাইজানকে, কখনও আবার ভাইজানকে দেখা যায়, পারভেজের পরিবারের সঙ্গে ছবি তুলতে।

ইনস্টাগ্রামে বেশ জনপ্রিয়তা রয়েছে পারভেজের। এক সময় পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি ফলোয়ার ছিল পারভেজের। কিন্তু তার পরই হয় বিপত্তি। ২০২০ সাল নাগাদ তাঁর অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে যায়। আবার নতুন করে অ্যাকাউন্ট খুলতে হয় তাঁকে। বর্তমানে তাঁর অনুগামীর সংখ্যা প্রায় ৩৭ হাজার।

সালমান নিজেই বলেছিলেন, শ্যুট করার সময় নায়িকার পাশে কখনও কখনও তাঁকে বয়স্ক মনে হয়। তখন পারভেজই তাঁর একমাত্র ভরসা। নকল সালমান কখন যে মেক আপ চড়িয়ে  আসল সালমান হয়ে ওঠেন, তা বোঝাই দায়!

 


আরও খবর



প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবিতে আবারও বিক্ষোভ শ্রীলঙ্কায়

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ জুন 20২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পদত্যাগের দাবিতে শ্রীলঙ্কায় ফের বিক্ষোভ হয়েছে। বিক্ষোভের মুখে দেশটির মন্ত্রীসভা সংবিধান সংশোধনের অনুমতি দিয়েছে। নতুন এই সংশোধনের মাধ্যমে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা কমানো হবে। 

কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া ও নতুন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহের পদত্যাগের দাবিতে আবারও বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। গতকাল সোমবার দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজারও শিক্ষার্থী রাজধানী কলম্বোয় বিক্ষোভ করেন। তাদের দাবি, দেশটির চলমান অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়েছেন প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা বলেছেন, শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক সংকটের জন্য দায়ী প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়া রনিলের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, তিনি দেশের চলমান সংকট নিরসনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এলেও প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেননি।

এদিকে সংবিধানের ২১তম সংশোধনী প্রস্তাবে বলা হয়েছে, সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে প্রেসিডেন্টের একচ্ছত্র আধিপত্য কমে কিছু ক্ষমতা পার্লামেন্টের হাতে ফিরবে এবং গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে সরকারের কমিশনগুলো স্বাধীনতা ভোগ করবে। শ্রীলঙ্কার পর্যটনমন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ২১তম সংশোধনী মন্ত্রীসভায় উত্থাপিত এবং পাস করা হয়েছে। প্রস্তাবটি এখন দেশের পার্লামেন্টে পাঠানো হবে। যেখানে এটি পাসের জন্য দুই-তৃতীয়াংশ পার্লামেন্ট সদস্যের ভোট প্রয়োজন।


আরও খবর