আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

যশোরে দুজনের শরীরে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোর জেনারেল হাসপাতালে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত যাত্রীদের মধ্যে দুজনের শরীরে ভারতীয় ভেরিয়েন্টের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জোনাম সেন্টারের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা শেষে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন।

এ অবস্থায় ওই দুই রোগীকে আলাদা করে চিকিৎসা দেওয়া ও ভারত থেকে ফেরার পথে তাদের সংস্পর্শে আসা সকল ব্যক্তিকে কোয়ারেন্টিনে নিয়ে নমুনা পরীক্ষার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

করোনার কারণে ভারতের সাথে সীমান্ত বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর গত ২৬ এপ্রিল থেকে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা বিশেষ অনুমতি নিয়ে দেশে ফিরছেন। গত ৪ মে পর্যন্ত বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে এক হাজার ৫৭৭ জন দেশে ফিরেছেন। যাদের বেনাপোলসহ যশোর জেলা ও পার্শ্ববর্তী চার জেলার হোটেলসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ১৬ জন করোনা পজিটিভ যাত্রীর নমুনা সংগ্রহ করে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জোনাম সেন্টারের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষায় পাঠানো হয়। এর মধ্যে তিনজনের নমুনা পজিটিভ এসেছে। এ তিনজনের মধ্যে দুজনের শরীরে করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্টের অস্তিত্ব মিলেছে বলে নিশ্চিত করেছেন জোনাম সেন্টারের সহযোগী পরিচালক প্রফেসর ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদ।

তিনি বলেন, ভারতীয় ভেরিয়েন্টের নাম্বার হলো বি ১.৬ ১৭.২। তবে এটি ডাবল মিউট্যান্ট নয়। ভারতের প্রায় ২০ শতাংশ মানুষ এ ভেরিয়েন্টে আক্রান্ত।তারপরও এ ভেরিয়েন্টের সংক্রমণ রোধে সতর্ক হতে হবে। আমরা আশা করছি যারা ভারত থেকে ফিরতে তাদের পরীক্ষার পাশাপাশি পৃথক পরিবহন ব্যবস্থায় কোয়ারেন্টিনে নিতে হবে এবং নেগেটিভ না হওয়া পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে রাখতে হবে।

এদিকে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য্য প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, যশোর জেনারেল হাসপাতালে থাকা ওই দুই রোগীকে আলাদা করে চিকিৎসা দেওয়ার পাশাপাশি ভারত থেকে ফেরার পথে তার সংস্পর্শে আসা সকল ব্যক্তিকে কোয়ারেন্টিনে নিয়ে নমুনা পরীক্ষার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আমরা যে দুজনের নমুনায় ভারতীয় ভেরিয়েন্ট মিলেছে তাদের নমুনার হোল জিনোম সিকোয়েন্স করার উদ্যোগ নিয়েছি।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দিলিপ কুমার রায়  বিকেল পৌনে ৪টার দিকে সাংবাদিকদের বলেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনোম সেন্টারে ও আইইডিসিআরএ নমুনা পঠানো হয়েছিল। আমরা এখনো কোনো তথ্য পাইনি। পেলে আমাদের বিশেষজ্ঞ টিম প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।


আরও খবর



এবার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিলেন তানভীর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আনোয়ারুল আজিম আনারকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণ মামলায় দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন আসামি তানভীর ভূঁইয়া (৩০)।

মঙ্গলবার (৪ জুন) বিকেলে ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেনের আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর ফের তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

এর আগে সোমবার (৩ জুন) একই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন আসামি শিলাস্তি রহমান।

অপর আসামি হলেন শিমুল ভূঁইয়া ওরফে ওরফে আমানুল্যাহ আমান (৫৬)। তিন আসামির ২৪ মে আট দিনের এবং ৩১ মে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এদিকে, গোয়েন্দা পুলিশের অবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার আনার হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার ও পলাতক ১০ আসামির ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য দিতে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্সকে আদেশ দিয়েছেন আদালত।

উল্লেখ্য ১২ মে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান সংসদ সদস্য আনার। ওঠেন পশ্চিমবঙ্গে বরাহনগর থানার মণ্ডলপাড়া লেনে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে। পরদিন ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ আনোয়ারুল আজিম।

বাড়ি থেকে বেরোনোর পাঁচদিন পরে, গত ১৮ মে বরাহনগর থানায় আনার নিখোঁজের বিষয়ে একটি জিডি করেন বন্ধু গোপাল বিশ্বাস। এরপরও খোঁজ মেলেনি তিনবারের এই সংসদ সদস্যের। বুধবার হঠাৎ খবর ছড়ায়, কলকাতার পাশের নিউটাউন এলাকায় সঞ্জিভা গার্ডেনস নামে একটি আবাসিক ভবনের বিইউ ৫৬ নম্বর রুমে সংসদ সদস্য আনার খুন হয়েছেন। ঘরের ভেতর পাওয়া গেছে রক্তের ছাপ। তবে ঘরে মেলেনি মরদেহ।

হত্যাকাণ্ড সংঘটিত করার অভিযোগে গ্রেফতার সৈয়দ আমানুল্লাহ আমান ওরফে শিমুল ভূঁইয়া, ফয়সাল আলী সাহাজি ওরফে তানভীর ভূঁইয়া ও শিলাস্তি রহমানের ৮ দিনের রিমান্ড শেষে আরও পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন দেশের আদালত। আর হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়া জিহাদ হাওলাদার ওরফে কসাই জিহাদকে ১২ দিনের রিমান্ড দিয়েছেন ভারতের বারাসাতের আদালত।

অন্যদিকে, আনার হত্যাকাণ্ডের অন্যতম সন্দেহভাজন মো. সিয়াম নেপালে আটক হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৩০ মে) নেপাল পুলিশ তাকে আটক করেছে বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ পায়। সোমবার (৩ জুন) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবুল হক তার গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। আমানের সহযোগী সাইফুল মেম্বারকেও রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।


আরও খবর



আফগানিস্তানে নৌকাডুবি, শিশুসহ ২০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলে একটি নৌকা ডুবে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১ জুন) একটি নদী পাড় হওয়ার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন নানগারহার প্রদেশের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রাদেশিক পরিচালক কুরাইশি ব্যাডলন।

কুরাইশি ব্যাডলন বলেন, মহামান্দ দারা জেলায় নৌকা ডুবে শিশু ও নারীসহ ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গ্রামবাসীর বরাত দিয়ে ব্যাডলন আরো বলেন, ওই নৌকায় ২৫ জন যাত্রী ছিল। দুর্ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ জন প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন।

নাঙ্গারহার স্বাস্থ্য বিভাগ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত পাঁচ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন একজন পুরুষ, একজন নারী ও তিন শিশু।

স্বাস্থ্য বিভাগ আরো জানিয়েছে, ঘটনাস্থলে চিকিৎসাকর্মী ও অ্যাম্বুলেন্স পাঠানো হয়েছে।

এই দুর্ঘটনার কারণ না জানিয়ে কর্মকর্তারা বলেছেন, বাকি মরদেহগুলো উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা।


আরও খবর



চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৩৯ কোটি টাকার রাজস্ব বাজেট অনুমোদন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ফাইন্যান্স কমিটি (এফসি) ও সিন্ডিকেটের ৬০ তম যৌথ সভায় ২০২৩-২৪ অর্থ বছরের সংশোধিত রাজস্ব বাজেট এবং ২০২৪-২৫ অর্থ বছরের প্রাক্কলিত ৪৩৯ কোটি ১৬ লক্ষ টাকার রাজস্ব বাজেট অনুমোদন করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে চবি উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ আবু তাহের।  চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সম্প্রতি জাতিসংঘ ঘোষিত টেক্সই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকান্ড, গবেষণা, উদ্ভাবন ও সফলতার ভিত্তিতে টাইমস এবং কিউএস দুটি আন্তর্জাতিক র‌্যাঙ্কিং এ সেরাদের তালিকায় স্থান পাওয়ায় ফাইন্যান্স কমিটি, সিন্ডিকেট সদস্য ও র‌্যাঙ্কিং কমিটিসহ বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন জানানো হয়।

 চবি উপাচার্য বলেন, আমি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম এবং ভৌত অবকাঠামো উন্নয়নকে গুরুত্ব দিয়ে কাজ শুরু করেছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুল লক্ষ্য শিক্ষা-গবেষণা ও উদ্ভাবনকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বিভিন্ন কর্ম-পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি যার ফলে ইতোমধ্যে দৃশ্যমান ফলাফল আসতে শুরু করেছে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য ও গৌরব বৃদ্ধি করতে চেষ্টা করছি। এ লক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর এর সম্মতিক্রমে ৫ম সমাবর্তনের আগামভ ৮ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দায়িত্ব নেবার পর সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতার মাধ্যমে অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে পালন করে যাব।

 এফসি ও সিন্ডিকেটের যৌথ সভায় সদস্যবৃন্দের সুচিন্তিত মতামত ও সুপারিশ বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে অধিকতর সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এফসি ও সিন্ডিকেটের যৌথ সভায় চবি উপ-উপাচার্যবৃন্দ, এফসি ও সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুর, এফসি সদস্য প্রফেসর আবু মুহাম্মদ আতিকুর রহমান, প্রফেসর (অবসরপ্রাপ্ত) ড. সুলতান আহমেদ, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মামুন এবং সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ শামীম উদ্দিন খান, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম, ড. নঈম উদ্দিন হাছান আওরঙ্গজেব চৌধুরী, মোহাম্মদ আলী, মোঃ মোয়াজ্জেম হোসাইন, এস এম ফজলুল হক এবং সিন্ডিকেট সচিব চবি রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কে এম নুর আহমদ উপস্থিত ছিলেন। সভায় অনলাইনে অংশগ্রহণ করেন সিন্ডিকেট সদস্য ড. মোঃ ওমর ফারুক।

সভায় বাজেটের বিভিন্ন বিষয়ের ওপর স্বতঃস্ফূর্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন এবং মতামত পেশ করেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা-গবেষণার চলমান উন্নয়নসহ প্রশাসনিক ও অবকাঠামো উন্নয়নে একটি সময়োপযোগী বাজেট পেশ করায় চবি উপাচার্যকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানানো হয়।

সভায় চবি হিসাব নিয়ামক (ভারপ্রাপ্ত) ও এফসি সচিব মোঃ আমিরুল ইসলাম বাজেট উপস্থাপন করেন এবং তা আগামী সিনেট সভায় পেশ করার জন্য অনুমোদন করা হয়।



আরও খবর



কানে ইতিহাস গড়লেন বাঙালি অভিনেত্রী অনসূয়া

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

কান উৎসবে হাজির হয়ে ইতিহাস গড়লেন বাঙালি অভিনেত্রী অনসূয়া সেনগুপ্ত। দ্য শেমলেস সিনেমার জন্য এবারের আসরের সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন কলকাতার এই অভিনেত্রী। তিনিই প্রথম ভারতীয়, যিনি কানে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতলেন। আঁ সার্তে রিগায় সেরা সিনেমার পুরস্কার জিতেছে চিনের ব্ল্যাক ডগ

কানে অফিশিয়াল মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকেই আলোচনায় ছিল কনস্টানটিন বোজানভ পরিচালিত ভারতীয় সিনেমা দ্য শেমলেস। কানে প্রিমিয়ারের পর থেকেই প্রশংসায় ভাসছিল সিনেমাটি। ছবিতে রেনুকা চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনসূয়া।

দ্য শেমলেস সিনেমাটির গল্প একজন যৌনকর্মীকে নিয়ে। যিনি দিল্লির একটি যৌনপল্লিতে এক পুলিশকে হত্যা করে ফেরার হন। এই যৌনকর্মীর চরিত্রেই অভিনয় করেছেন অনসূয়া। অভিনেত্রী তার এই পুরস্কার উৎসর্গ করেছেন বিশ্বের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে, যাদের যে লড়াই করার কথা হয়তো ছিল না কিন্তু করতে হচ্ছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা জানিয়েছে, কলকাতাতেই বড় হয়েছেন অনসূয়া। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিলেন তিনি। ইংরেজি সাহিত্য নিয়ে পড়াশোনা করেছেন তিনি।

এছাড়া আঁ সার্তে রিগায় জুরি পুরস্কার পেয়েছে ফ্রান্সের সিনেমা দ্য স্টোরি অব সুলেমান। সিনেমাটির নির্মাতা বরিস লোজকাইন। দ্য স্টোরি অব সুলেমান সিনেমায় অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন আবু সনগারে। দ্য ড্যামড সিনেমার জন্য ইতালির রবার্তো মিনারভিনি হয়েছেন সেরা নির্মাতা।


আরও খবর



নিখোঁজের ৬ দিন পর পুকুরে ভেসে উঠল নারীর মরদেহ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

কিশোরগঞ্জে নিখোঁজের ছয় দিন পর পুকুরে ভেসে উঠল এক নারীর মরদেহ। আজ মঙ্গলবার সকালে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।

নিহত মদিনা আক্তার (৩৬) জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার কোদালিয়া গ্রামের আবু তাহেরের মেয়ে।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, আজ সকালে সদর উপজেলার বিন্নাটি এলাকার কিশোরগঞ্জ-ভৈরব আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশের একটি পুকুরে মরদেহটি ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় এলাকাবাসী। পরে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা চলমান রয়েছে।

পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান টিটু জানান, গত ২৯ মে দুপুরে পাকুন্দিয়ার চন্ডিপাশা ইউনিয়ন পরিষদে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফেরেননি মদিনা আক্তার। পরে স্বজনেরা ওইদিনই পাকুন্দিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ছয় দিন পর পুকুরে ভেসে ওঠে তাঁর মরদেহ। ময়নাতদন্তের পর মদিনার মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।


আরও খবর