আজঃ শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

যবিপ্রবির ল্যাবে ৩ জনের ওমিক্রন শনাক্ত

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টারে তিনজনের শরীরে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে দুজন ভারতীয় ও একজন বাংলাদেশি নাগরিক। আজ বুধবার যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক জিনোম সিকোয়েন্সের মাধ্যমে করোনার নতুন এ ধরনটি শনাক্ত করে।

যবিপ্রবির জিনোম সেন্টার থেকে জানানো হয়, ভারতীয় দুই নাগরিকের মধ্যে একজন পুরুষ, যার বয়স ৩০ বছর এবং নারীর বয়স ৪১ বছর। তাঁদের মধ্যে করোনার তেমন কোনো উপসর্গ নেই। বাংলাদেশি নাগরিক একজন পুরুষ এবং তাঁর বয়স ২৫ বছর। যিনি স্থানীয়ভাবে সংক্রমিত হয়েছেন বলে গবেষক দলটি ধারণা করছে। তাঁর তিন দিন ধরে ঠান্ডা, গলা ব্যথা ছাড়া অন্য কোনো উপসর্গ নেই।

গবেষক দলটি জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের নতুন এ ধরনটি খুব দ্রুত ছড়িয়ে যায়। এটি করোনার ডেলটা ধরনের চেয়ে প্রায় চারগুণ শক্তিশালী। এরই মধ্যে নতুন এই ধরনের স্পাইক প্রোটিনে ৩০ টিরও বেশি মিউটেশন বিদ্যমান। ওমিক্রন শনাক্ত হওয়া তিনজনের তথ্য জিআইএসএআইডি ডাটাবেজে জমাও দেওয়া হয়েছে।

করোনার নতুন এ ধরনটি শনাক্তের বিষয়ে যবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ওমিক্রন খুবই দ্রুত সংক্রমনশীল। এ জন্য টিকা গ্রহণ, মাস্ক ব্যবহারসহ কঠোরভাবে করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। তিনি জানান, করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্তের কাজটি জিনোম সেন্টারে অব্যাহত থাকবে।

এর আগে, করোনাভাইরাসের ডেলটা ধরনটির স্থানীয় সংক্রমণের বিষয়টিও যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে শনাক্ত করা হয়।

যবিপ্রবির অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ও জিনোম সেন্টারের সহযোগী পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদের নেতৃত্বে করোনার নতুন এ ধরন শনাক্তে গবেষক দলের অন্য সদস্যরা হলেন বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান ড. হাসান মো. আল-ইমরান, অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শোভন লাল সরকার, এ এস এম রুবাইয়াতুল আলম, প্রভাষক শামিনুর রহমান, জিনোম সেন্টারের গবেষণা সহকারী প্রশান্ত কুমার দাস, আলী আহসান সেতু ও তৌকির আহম্মেদ প্রমুখ।

নিউজ ট্যাগ: ওমিক্রন শনাক্ত

আরও খবর
যশোরে ২ দিনব্যাপী গণটিকা শুরু

বুধবার ২৬ জানুয়ারী ২০২২




ঢাকাকে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২ | ২২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে আগে ব্যাট করে স্কোরবোর্ডে মাত্র ১০০ রানের পুঁজি পায় অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। এ রান টপকাতে একেবারেই বেগ পেতে হয়নি সিলেটের। ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের দল। এতে টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম জয় তুলে নিয়েছে সিলেট।

১০১ রানে জবাব দিতে নেমে দেখেশুনে শুরু করেন সিলেটের দুই ওপেনার লেন্ডন সিমন্স ও আনামুল হক বিজয়। উদ্বোধনী জুটিতে দুজন ২১ রান যোগ করে ইনিংসের চতুর্থ ওভারে মাশরাফির শিকারে পরিণত হন সিমন্স। ফেরেন ১৬ রান করে। এরপর বিজয়কে সঙ্গ দিয়ে ক্রিজে আসেন মোহাম্মদ মিঠুন। তাদের ৩৮ রানের কার্যকরী পার্টনারশিপে জয়ের ভিত পেয়ে যায় সিলেট।

মিঠুন ১৭ রান করে আউট হলে কলিন ইংগ্রামকে নিয়ে দলের জয়ের বাকি আনুষ্ঠানিকতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন বিজয়। তবে জয়ের থেকে ২ রান দূরে থাকতে আউট হন ৪৫ রান করে। ৪৫ বলের ইনিংসটি সাজান ৪টি চার ও ১টি ছয়ের মারে। পরে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৮ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটের জয় তুলে নেয় সিলেট। যেখানে ইনগ্রাম অপরাজিত থাকেন ২১ রানে। প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে ৪ ওভার বল করে ২১ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন মাশরাফি।

এর আগে টস জিতে প্রতিপক্ষ ঢাকাকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় সিলেট। ইনিংসের শুরুতেই বোলাররা সাফল্য এনে দেন দলকে। পাওয়ার-প্লের ৬ ওভারে ২২ রান তুলতেই ৩ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে ঢাকা। মোহাম্মদ শাহজাদ (৭ বলে ৫), তামিম ইকবাল (৫ বলে ৩) সাজঘরে ফেরার পর বিদায় নেন জহরুল ইসলাম (১০ বলে ৪)।

চতুর্থ উইকেটে দলের হাল ধরেন নাঈম শেখ এবং অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ধীরগতির ব্যাটিংয়ে ৪১ বলে দুজন যোগ করেন ৪০ রান। টেস্ট মেজাজে ব্যাট করা নাঈম ৫০ স্ট্রাইক রেটে ৩০ বলে ১৫ রান করে আউট হলে ভাঙ্গে এই জুটি। নাজমুল ইসলাম অপুর একই ওভারে আন্দ্রে রাসেল শূন্য রানে আউট হলে ৫৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বড় সংগ্রহের স্বপ্নে ধাক্কা খায় ঢাকা। যদিও দুটি সিদ্ধান্তই ছিল বিতর্কিত।

পরে ৩টি চারে সাজানো রিয়াদের ২৬ বলে ৩৩ রানের ইনিংস থামলে একশ রানের কোটা ছোঁয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়ায় ঢাকার সামনে। শেষদিকে শুভাগত হোমের ১৬ বলে ২১ ও রুবেল হোসেনের ৬ বলে ১২ রানের ইনিংসে ৩ অঙ্কের রানের দেখা পায় ঢাকা। ইনিংসের ৮ বল বাকি থাকতে সমান ১০০ রানে অলআউট হয়ে যায় দলটি। সিলেটের হয় অপু এদিন ক্যারিয়ার সেরা ফিগারের দেখা পান, ৪ উইকেট শিকার করেন মাত্র ১৮ রানের দিয়ে।


আরও খবর
সাড়ে ৩ বছর নিষিদ্ধ ব্রেন্ডন টেলর

শুক্রবার ২৮ জানুয়ারী ২০২২




নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে পড়ে নিহত ৪

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫০৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় বাস উল্টে পাশের রাস্তায় ছিটকে পড়ে একটি ভ্যানকে চাপা দিলে এক নারীসহ চারজন জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও অন্তত ১০ জন।

শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) সকাল দশটার দিকে হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের সলঙ্গা থানার গোজা ব্রিজ এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ লুৎফর রহমান জানিয়েছেন, ন্যাশনাল ট্রাভেলসের যাত্রিবাহী একটি বাস রাজশাহী থেকে ঢাকা যাবার পথে শুক্রবার সকাল দশটার দিকে হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার গোজা ব্রিজ এলাকায় পৌঁছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এ সময় যাত্রীবাহী বাসটি মহাসড়ক থেকে পার্শ্ব রাস্তায় ছিটকে পড়ে একটি অটোভ্যানকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই এক নারীসহ চারজন মারা যায়। আহত হয় অন্তত ১০ জন।

খবর পেয়ে হাটিকুমরুল হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর



লাইবেরিয়ায় পদদলিত হয়ে ২৯ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লাইবেরিয়ার রাজধানী মনরোভিয়াতে খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের এক ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে অন্তত ২৯ জন নিহত হয়েছেন। দেশটির পুলিশ বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) এই তথ্য জানান।

দেশটির স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বুধবার ভোরে অথবা বৃহস্পতিবার সকালের দিক এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে। পুলিশের মুখপাত্র মোসেস কার্টার বলেন, নিহতের সংখ্যা অস্থায়ী এবং এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

তিনি আরও বলেন, হাতে ছুরি থাকা একদল গ্যাংস্টার উন্মুক্ত স্থানে প্রার্থনাকারীদের ওপর হামলা চালায়। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে পদদলিত হয়ে অনেকের মৃত্যু হয়। তিনি জানান, ছুরি বহনকারী এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই অনুষ্ঠান নিয়ে এখনো স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি। তবে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম একে খ্রিস্ট্রানদের প্রার্থনার জন্য জড়ো হওয়া বলেছে যাকে ক্রুসেড বলা হয়। বিবিসি জানিয়েছে, লাইবেরিয়ায় খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের প্রার্থনার সমাবেশকে ক্রুসেড বলা হয়।

এমানুয়েল গ্রে (২৬) বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, তিনি অনেক চিৎকার শুনতে পান এবং অনেক মৃতদেহ দেখতে পান।  বিবিসি আরও জানিয়েছে, নিহতদের মরদেহ রেডেম্পশন হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হয়েছে। 


আরও খবর



কক্সবাজারের মহেশখালীতে অস্ত্রসহ ৬ জলদস্যু আটক

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
মোহাম্মদ ফারুক, কক্সবাজার

Image

কক্সবাজারের মহেশখালীতে অস্ত্র-গুলিসহ ছয় জলদস্যুকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। গতকাল শুক্রবার রাত ১২ টার দিকে উপজেলার সোনাদিয়া চ্যানেলে র‍্যাব-১৫ কক্সবাজারের একটি বিশেষ দল অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে ৩টি দেশীয় বন্দুক ও ১১টি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলো, মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়ার বাসিন্দা নেজাম উদ্দিন (২২), মো. সাকিল (২৪), মো. সাজ্জাদ (৩৫), মো. সুজন (২৪), মো. মানিক (৩২) ও ওমর ফারুক (২১)।

র‍্যাব-১৫ কক্সবাজারের সিপিসি কমান্ডার মেজর শেখ ইউসূফ আহমেদ বলেন, গতকাল রাতে মহেশখালীর সোনাদিয়া চ্যানেলে একদল জলদস্যু মাছ ধরার ট্রলারে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। খবর পেয়ে র‍্যাব ১৫ এর একটি দল সাগরে অভিযানে নামেন। এ সময় একটি ট্রলার থেকে অস্ত্র-গুলিসহ ছয় জলদস্যুকে আটক করে র‍্যাব। আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর



পঁচাত্তরের পরের সরকারগুলো ছাত্রদের হাতে অস্ত্র তুলে দেয় : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পঁচাত্তরে জাতির পিতাকে হত্যার পর যেসব সরকার রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিল, তাদের সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, পঁচাত্তরের পরে যারা ক্ষমতায় ছিল, তারা সংবিধান লঙ্ঘন করেছে। ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য তারা ছাত্রদের হাতে, মেধাবী শিক্ষার্থীদের হাতে অস্ত্র তুলে দেয়। তাদের ব্যবহার করেছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অস্ত্রের ঝনঝনানি ছিল তখন।

বৃহস্পতিবার সকালে নবনির্মিত জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কমপ্লেক্সের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তর-পরবর্তী সরকারগুলোর ফোকাস ছিল ক্ষমতা ভোগ করা এবং কুক্ষিগত করা। জনগণের কী প্রয়োজন সেদিকে তাদের দৃষ্টি ছিল না।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।


আরও খবর