আজঃ বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ভিজিটিং কার্ড ছাপিয়ে খুনের অর্ডার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

রীতিমত ভিজিটিং কার্ড ছাপিয়ে মানুষ খুনের অর্ডার নিচ্ছিলেন সুপারি কিলার! আজব মনে হলেও এমন ঘটনা ঘটেছে কলকাতার কাছেই পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং এলাকায়। নিজেকে 'সুপারি কিলার' বলে দাবি করা বুলেট ওরফে মোরসেলিম মোল্লা সম্প্রতি মানুষ খুনের অর্ডার নেওয়ার জন্য ভিজিটিং কার্ড ছাপিয়ে বিলি করেন, যাতে স্পষ্ট হরফে লেখা, মানুষ হাফ মার্ডার ও ফুল মার্ডার করা হয়। যোগাযোগের জন্য কার্ডে রয়েছে মোবাইল নম্বর। সঙ্গে লাল কালিতে বড় করে লেখা বুলেট

কার্ডের একপাশে রয়েছে, নিজেকে সুপারি কিলার বলে দাবি করা বুলেট ওরফে মোরসেলিম মোল্লার ছবি, আরেক পাশে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে বুলেটের অ্যাকশন ছবি। কার্ডের ছবি প্রকাশ্যে আসতেই তল্লাশি চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেছে ক্যানিং থানা পুলিশ।

ক্যানিং থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, খবর পেয়েই তদন্তে নামে পুলিশ। এরপর সোমবার ক্যানিং এলাকার ধর্মতলা গ্রামে তল্লাশি চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয় বুলেটকে। তার বাড়ি থেকে একটি বন্দুক, দু রাউন্ড কার্তুজ ও বেশ কিছু ভিজিটিং কার্ডও উদ্ধার হয়েছে। বুধবার তাকে ক্যানিং মহকুমা আদালতে হাজির করে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দশদিনের রিমান্ড আবেদন করে। শুনানি নিয়ে আদালত সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত বছরের ৭ জুলাই ক্যানিংয়ের গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় দিনে-দুপুরে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয় তৃণমূল কংগ্রেসের তিন নেতাকে। সেই খুনের মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল বুলেটকে। কিন্তু সে সময় নাবালক থাকায় জামিনে মুক্তি পায় সে। সে বছরই, বেআইনি অস্ত্র পাচারের অভিযোগে ফের পাকড়াও করা হয়েছিল তাকে। পরে জামিনে মুক্ত হয়ে বেশ কয়েকদিন এলাকা ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছিল বুলেট।

স্থানীয়দের দাবি, জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর থেকেই এলাকার মানুষকে মাঝে মধ্যেই আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে ভয় দেখাত বুলেট। গত কয়েকদিন ধরে মানুষ খুন করার জন্য 'সুপারি' নেওয়ার বিজ্ঞাপন দিতে শুরু করে সে। হাফ মার্ডার করলে পঞ্চাশ হাজার ও ফুল মার্ডার করলে এক লাখ রুপি নেওয়া হয় বলেও জানা যায়।

ক্যানিং সাব ডিভিশনাল পুলিশ অফিসার দিবাকর দাস জানান, গ্রেপ্তার বুলেটকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে চাওয়া হচ্ছে এই ভিজিটিং কার্ড সে কোথা থেকে করল এবং কোথায় কোথায় এই কার্ড বিলি করেছে। আর এই কার্ডের মাধ্যমে কাজের অর্ডার মিলেছে কি না সেটাও জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

 


আরও খবর
রাশিয়াকে ‘জুলফিকার’ ক্ষেপণাস্ত্র দিচ্ছে ইরান

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নববধূকে হত্যা করে পালানোর সময় স্বামী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোঃ রাসেল আহমেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

Image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় বিয়ের ৪ দিন পর স্ত্রী হত্যাকান্ডের ঘটনায় ঘাতক স্বামী আব্দুল হামিদ (২৮) কে আটক করা হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের হীরাপুর বড় মুড়া সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে তাকে আটক করে ২৫ বিজিবির সদস্যরা।

পরে তাকে আখাউড়া থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। মূলত মোবাইল দেখা নিয়ে মনোমালিন্যের জেরে সে তার স্ত্রী তাছলিমা আক্তারকে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে। এরআগে মঙ্গলবার দুপুরে তাছলিমা আক্তারকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায় স্বামী আব্দুল হামিদ।

জানা যায়, ৭/৮ মাস আগে হীরাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফ মিয়ার প্রবাসী পুত্র আব্দুল হামিদের সাথে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের বাসুদেব গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জামের মেয়ে তাছলিমা আক্তারের বিয়ে হয় মোবাইল ফোনে। সম্প্রতি হামিদ দেশে ফিরে এসে গত শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠান করে স্ত্রী তাছলিমাকে বাড়িতে নিয়ে আসে। বিয়ের পর থেকেই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে পরিবারিক কলহ দেখা দেয়। এরই জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে ধারালো ছুরি দিয়ে তাছলিমাকে গলা কেটে হত্যা করে হামিদুল। এ সময় হামিদুলের বড় ভাই হানিফ বাধা দিলে তাকেও হামিদুল ছুরিকাঘাত করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় ওই রাতেই নিহতের বড় ভাই আব্দুল কুদ্দুছ বাদী হয়ে আব্দুল হামিদকে আসামী করে থানায় মামলা করেন। মামলায় কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা দেখানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ২৫ বিজিবি (সরাইল) ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আরমান আরিফ (পিএসসি) বলেন, সীমান্ত এলাকা অতিক্রম করার সময় টহলরত বিজিবি সদস্যরা আসামীকে আটক করেছে। পরে তাকে থানায় সোপর্দ করা হয়।

আখাউড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আব্দুল হামিদ স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে তার স্ত্রী মোবাইলে টিকটক দেখতো ও ছেলের সাথে চ্যাটিং করতো বলে সন্দেহ ছিল। হামিদ তার স্ত্রীর মোবাইল দেখতে চাইলে তাকে তার স্ত্রী মোবাইল ধরতে বারণ করে। এনিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। ঘটনার দিন সকালে তাছলিমা বাবার বাড়িতে যেতে চাইলে হামিদ যেতে দেয়নি। এরপর স্বামী আব্দুল হামিদ বাজার থেকে ৩০০ টাকা দিয়ে ছুরি কিনে বাড়ি ফিরে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করে।

নিউজ ট্যাগ: ব্রাহ্মণবাড়িয়া

আরও খবর



স্বামীকে আটকে স্ত্রীকে ধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতাসহ রিমান্ডে ৪ জন

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হলে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুরসহ চার আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাবেয়া বেগমের আদালত তাদের এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডে নেয়া অপর আসামিরা হলেন- সাব্বির হাসান, সাগর সিদ্দিক ও হাসানুজ্জামান।

এদিন, তাদেরকে আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান। অপরদিকে আসামি পক্ষে রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে শুনানি করা হয়।

শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মীর মশাররফ হোসেন হলের 'এ' ব্লকের ৩১৭ নম্বর কক্ষে স্বামীকে আটকে রেখে হল সংলগ্ন পাশের জঙ্গলে নিয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ করা হয়।

ভুক্তভোগী নারীর স্বামী আশুলিয়া থানায় ছয়জনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তারা হলেন- জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, একই বিভাগের সাগর সিদ্দিকী ও হাসানুজ্জামান এবং উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির হাসান।

পলাতক আছেন ভুক্তভোগীর পূর্বপরিচিত মো. মামুনুর রশিদ এবং স্বামীকে আটকে রাখায় সহায়তা ও মারধর করা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মুরাদ। তাদেরকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।


আরও খবর



বেসরকারি শিক্ষকদের ‘সুখবর’ দিতে চান শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দেশের এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের উৎসব ভাতা বাড়াতে উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) স্বাধীনতা মাদ্রাসা শিক্ষক পরিষদ-এর নেতাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ উদ্যোগের কথা জানান তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, উৎসব ভাতা নিয়ে আমি নিজে থেকেই অর্থ মন্ত্রণালয়ে যাব, যাতে তা নিশ্চিত করতে পারি। অর্থের ব্যাপারে অর্থ মন্ত্রণালয় সব সিদ্ধান্ত নেয়। সেখানে গেলে কতটুকু অর্থ লাগবে সে পরিমাণটুকু আমরা পাব। তাই এখুনি আমার পক্ষ থেকে প্রতিশ্রুতি দিতে পারছি না। এখনই যদি প্রতিশ্রুতি দেই, তাহলে সেটা হবে বিভ্রান্তি ও প্রতারণামূলক। আমি অঙ্গীকার করতে চাই শিক্ষকদের এই বিষয়টা আমি সরকারের যথাযথ পর্যায়ে আলোচনা করব।

প্রধানমন্ত্রী দেশে মাদ্রাসা শিক্ষার প্রসার করেছেন উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দ্বীনি শিক্ষা প্রসারে জাতির পিতার পর সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেটা সাধারণ শিক্ষার মাধ্যমে হোক অথবা মাদ্রাসার মাধ্যমে হোক। সমাজের সবাইকেই এটা স্বীকার করতেই হবে। আমরা প্রায়ই বলি ১ হাজার ৮০০ মাদ্রাসা ভবন ছয় হাজার কোটি টাকা দিয়ে করেছে কে? বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা। শত শত কোটি টাকা ব্যয়ে আরবি বিশ্ববিদ্যালয় করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষকদের উৎসব ভাতার মাত্র ২৫ শতাংশ দেয় সরকার। এই ভাতা বাড়াতে দীর্ঘদিন থেকে দাবি জানিয়ে আসছেন বেসরকারি শিক্ষক সংগঠনগুলো।

সভায় কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব ড. ফরিদ উদ্দিন আহমদ, ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আব্দুর রশিদ, মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান, শিক্ষক নেতা শাহজাহান আলম সাজুসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
আজ থেকে শুরু জাবির ভর্তি পরীক্ষা

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




গাজায় নিহত বেড়ে ২৮ হাজার ৬৬৩

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

দখলদার ইসরায়েলি বাহিনীর অব্যাহত হামলায় ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় নিহতের সংখ্যা ২৮ হাজার ৬৬৩ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সঙ্গে আহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৮ হাজার ৩৯৫ জন। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ডেইলি সাবাহ।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে প্রতিবেদনে বলা হয়, গাজায় ইসরায়েলি হামলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮৭ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। একই সময়ে আহত হয়েছেন ১০৪ জন। অনেক মানুষ এখনও ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় আটকে আছেন এবং উদ্ধারকারীরা তাদের কাছে পৌঁছাতে পারছেন না।

ইসরায়েলের অব্যাহত হামলায় গাজার ৬০ শতাংশ অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত বা ধ্বংস হয়ে গেছে। উপত্যকাটিতে হাজার হাজার মানুষ কোনো ধরনের আশ্রয় ছাড়াই বসবাস করছে এবং প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম ত্রাণবাহী ট্রাক সেখানে প্রবেশ করছে। গত মাসে আন্তর্জাতিক বিচার আদালত গাজায় হামলা বন্ধ করতে ইসরায়েলকে নির্দেশ দিলেও তারা সেটি মানছেন না। 

আরও পড়ুন>> বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী দেশের তালিকা জানাল আইএমএফ

জাতিসংঘের মতে, ইসরায়েলের হামলায় গাজার প্রায় ৮৫ শতাংশ ফিলিস্তিনি বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। আর খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি এবং ওষুধের তীব্র সংকটের মধ্যে গাজার সকলেই এখন খাদ্য নিরাপত্তাহীন অবস্থার মধ্যে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর হামাসের নজিরবিহীন রকেট হামলার পর থেকে ইসরায়েল গাজা উপত্যকায় অবিরাম বিমান ও স্থল হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। ইসরায়েলি এই হামলায় হাসপাতাল, স্কুল, শরণার্থী শিবির, মসজিদ, গির্জাসহ হাজার হাজার ভবন ক্ষতিগ্রস্ত বা ধ্বংস হয়ে গেছে। মাঝে এক সপ্তাহ মানবিক বিরতির পর গত ডিসেম্বরের শুরু থেকে ফের হামলা শুরু করে ইসরায়েল।


আরও খবর
রাশিয়াকে ‘জুলফিকার’ ক্ষেপণাস্ত্র দিচ্ছে ইরান

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নারকেল দুধে রান্না পোলাওয়ের সঙ্গে দুই পদ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

পিঠাপুলি তৈরির সময় যেহেতু এখনো ফুরিয়ে যায়নি, তাই বাড়িতে দু-একটা নারকেল থাকতেই পারে। নারকেলের দুধ দিয়ে রেঁধে ফেলতে পারেন ভিন্ন স্বাদের পোলাও। সঙ্গে থাকতে পারে চিংড়ি ভুনা কিংবা চিকেন রোস্ট। রেসিপি দিয়েছেন সিম্পল কুকিং বাই নাতাশার স্বত্বাধিকারী এবং টনি খান হোটেল ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের জ্যেষ্ঠ প্রশিক্ষক নাদিয়া নাতাশা।

নারকেল দুধে পোলাও

উপকরণ

পোলাওয়ের চাল ২ কাপ, নারকেল দুধ ২ কাপ, ঘি আধা কাপ, বেরেস্তা আধা কাপ, ২ টেবিল চামচ গরমমসলা গুঁড়া, তেজপাতা ২টি, লবণ প্রয়োজনমতো ।

প্রণালি

পোলাওয়ের চাল ১০ মিনিট ভিজিয়ে ছেঁকে রাখতে হবে। নারকেল কুরিয়ে ২ কাপ গরম পানি দিয়ে কচলিয়ে দুধ বের করে নিন। ননস্টিক হাঁড়িতে নারকেলের দুধ, গরম মসলা ও লবণ দিয়ে ফুটিয়ে চাল দিয়ে নেড়েচেড়ে ঢেকে দিন। চাল ও পানি যখন সমান হবে তখন ঘি দিয়ে তাওয়ার ওপর দমে বসাতে হবে। চাল ফুটে গেলে বেরেস্তা ছিটিয়ে ১০ মিনিট দমে রাখুন। এবার নামিয়ে গরম-গরম পরিবেশন করুন।

চিংড়ি ভুনা 

উপকরণ

মাঝারি চিংড়ি ১৫টি, কাঁচামরিচ ৬টি, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, পেঁয়াজ বাটা ২ চাচামচ, আদারসুন বাটা ১ চাচামচ, মরিচ গুঁড়া দেড় চাচামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চাচামচ, জিরা গুঁড়া ১ চাচামচ, তেল আধা কাপ, লবণ ১ চাচামচ, পানি আধা কাপ।

প্রণালি

চিংড়ি মাছ হলুদ ও লবণ মাখিয়ে আগেই একটু তেলে ভেজে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে কিছুক্ষণ ভাজুন। এরপর সব মসলা দিয়ে কষান। মসলা কষানো হলে মাছগুলো দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে পানি দিয়ে দিন। তেল উঠলে নামিয়ে নিন।

চিকেন রোস্ট

উপকরণ

মুরগির লেগ পিস বা রান ৬ থেকে ৮টি, টক দই আধা কাপ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ বাটা ১ চাচামচ, আদা ২ চাচামচ, রসুন দেড় চাচামচ, ধনে গুঁড়া আধা চাচামচ, জিরা গুঁড়া ১ চাচামচ, বেরেস্তার জন্য কাটা পেঁয়াজ ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ৫ থেকে ৬টি, বাদাম বাটা ১ টেবিল চামচ, গোল মরিচ গুঁড়া সামান্য, আলু বোখারা ২টা, জায়ফল ও জয়ত্রী সামান্য, দারুচিনি ২ থেকে ৩ টুকরা, সাদা এলাচি ৪টা, জর্দার রং সামান্য, লবণ পরিমাণ মতো, চিনি ১ চাচামচ, ঘি ১ কাপ, মাওয়া ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ চাচামচ, কিশমিশ অল্প।

প্রণালি

প্রথমে মুরগির পিসগুলো ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে পানি ঝরিয়ে রেখে দিতে হবে। এরপর ধুয়ে রাখা মুরগির পিসগুলোর সঙ্গে টক দই, আদা, রসুন, ধনে, জিরা, লেবুর রস ও লবণ দিয়ে ভালোভাবে মাখিয়ে ঘণ্টা খানিক ঢেকে রেখে দিতে হবে। এবার একটি পাত্রে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ দিয়ে বেরেস্তা করে তুলে রেখে দিতে হবে। অন্য একটি পাত্রে ঘি গরম করে তাতে মুরগির পিসগুলো মাখানো মসলা থেকে ঝেড়ে তুলে মাঝারি আঁচে অল্প ভেজে নিতে হবে। ভাজা হয়ে গেলে এর সঙ্গে পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ বাটা, বাটিতে থাকা মাখানো মসলাগুলো দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে ঢেকে দিতে হবে। এবার পেঁয়াজ বেরেস্তা, চিনি, আলুবোখারা, কিশমিশ, মাওয়া ও কাঁচা মরিচ বাদে বাকি সব মসলা দিয়ে নেড়ে নিয়ে অল্প আঁচে রান্না করতে হবে। প্রয়োজনে ১ কাপ গরম পানি দিতে হবে। মাংস সেদ্ধ হয়ে আসলে বেরেস্তা, চিনি, আলু বোখারা, কিশমিশ ও আস্ত কাঁচা মরিচ দিয়ে আরও ২০ মিনিট অল্প আঁচে দমে রাখুন। রোস্টের পানি শুকিয়ে তেল ওপরে উঠে এলে মাওয়া দিয়ে নেড়েচেড়ে নামিয়ে ফেলুন।


আরও খবর
বিষাক্ত মাশরুম চেনার উপায়

মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24