আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

টিকটক ব্যবহারকারীদের জন্য সুসংবাদ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এখন থেকে টিকটকের রাজস্বের অংশ পাবেন নির্মাতারা। বুধবার এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করে যে, জনপ্রিয় টিকটক নির্মাতাদের সঙ্গে বিজ্ঞাপন রাজস্বের একটি অংশ শেয়ার করা হবে।

সংক্ষিপ্ত-ভিডিও ফরম্যাটের অ্যাপটি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এক শ কোটিরও বেশি সক্রিয় ব্যবহারকারী নিয়ে বিশ্বব্যাপী তুমুল জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যদিও টিকটক নির্মাতাদের ঠিক উপায়ে অর্থ প্রদান না করার জন্য সমালোচিত হয়েছে প্ল্যাটফর্মটি।

টেক এক্সপ্লোরের প্রতিবেদনে জানা যায়, নতুন টিকটক পালস প্রোগ্রামের অধীনে হেলথ, ফ্যাশন, রান্না, গেমিং এবং অন্যান্য নির্দিষ্ট বিভাগে ব্যবহারকারীর বিষয়বস্তুর পাশে বিজ্ঞাপন রাখা যাবে। এবং নির্মাতারা এই বিজ্ঞাপন থেকে অর্জিত রাজস্বের একটি অংশ পাবেন।

টিকটকের সহযোগী সংস্থা চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স এক বিবৃতিতে জানায়, আমরা নির্মাতা, পাবলিক ব্যক্তিত্ব এবং মিডিয়া প্রকাশকদের সঙ্গে প্রথমে আমাদের বিজ্ঞাপনের রাজস্ব শেয়ারের বিষয়টি পরীক্ষামূলক ভাবে প্রয়োগ করব।

বাইটড্যান্স আরও জানায়, আমরা মনিটাইজেশনের বিষয়ে মনোনিবেশ করছি যাতে নির্মাতারা টিকটকে নিজেদের মূল্যবান এবং সম্মানিত বোধ করেন।

টিকটক বলছে, প্রথম পর্যায়ে একটি অ্যাকাউন্টে অন্তত ১ লাখ সাবস্ক্রাইবার হলে মনিটাইজেশন পরিকল্পনার জন্য যোগ্য হবে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালে টিকটক আনুমানিক ৪৬০ কোটি ডলার আয় করেছে। এই সংখ্যা আগের বছরের রাজস্বের দ্বিগুণেরও বেশি।

ভিডিওতে ফোকাস করে প্রতিষ্ঠিত এমন অন্যান্য সোশ্যাল নেটওয়ার্ক যেমন ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম এবং স্ন্যাপচ্যাট ইতিমধ্যেই ব্যবহারকারীদের সঙ্গে রাজস্ব শেয়ারের বিষয়টি চালু করেছে।


আরও খবর



মানিকগঞ্জ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে হাতে ভাজা মুড়ি

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১১ মে ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানিকগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী হাতে ভাজা মুড়ি কালের বিবর্তনে হারিয়ে যেতে বসেছে। সদর উপজেলার ধলাই-সরুপাই এলাকার হাতে ভাজা মুড়ির সুনাম রয়েছে দেশব্যাপী। জেলার চাহিদা মিটিয়ে এই মুড়ি দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ হতো। কিন্তু দাম না পাওয়ায় একেবারেই হারিয়ে যেতে বসেছে মজাদার মানিকগঞ্জের হাতে ভাজা মুড়ি।

সরেজমিনে এলাকা ঘুরে দেখা যায় সুনসান নীরবতা। মুড়ি ভাজার কারিগররা বিভিন্ন পেশায় জড়িয়ে গিয়েছে। অথচ কয়েক বছর আগেও রোজার মাসে এই দুইটি গ্রাম মুড়ি ভাজার কাজে মুখরিত থাকতো রাত দিন। মুড়ি ব্যবসায়ী মো. আনোয়ার হোসেন (৫৫) বলেন, নিজ হাতে ধান থেকে মুড়ি প্রস্তুত করে বিক্রি করাই ছিল আমাদের পেশা। লবণ ও পানি ছাড়া এই মুড়িতে কিছুই দেওয়া হতো না। এই এলাকার শতকরা নব্বইটি পরিবার মুড়ি ব্যবসার সাথে জড়িত ছিল। আমার জানা মতে, বর্তমানে একটি পরিবার ছাড়া কেউ এই পেশার সাথে নেই। বাজারে নিম্নমানের মুড়ি কমদামে বিক্রি হচ্ছে। তারপরেও আমাদের মুড়ির চাহিদা কমেনি। কিন্তু এতে লাভ হয় একবারেই কম। তাই এলাকা থেকে মুড়ি ভাজা বন্ধ হয়ে গেছে।

মুড়ি পরিবারের আরেক সদস্য আমজাদ হোসেন বলেন, মুড়ি তৈরির ধান মানিকগঞ্জে হয় না। মাত্র দুইজন বেপারী বরিশাল থেকে ধান এনে বিক্রি করেন। ধানের সঠিক দাম এলাকার লোকজন জানে না। তারা ধান না আনলে এলাকার লোক মুড়ি তৈরি করতে পারেন না। বাপ-দাদার পেশা ছিল মুড়ি তৈরি করে বিক্রি করা। ঝামেলার কারণে আমরা তিন ভাই বিভিন্ন পেশায় জড়িয়ে যাই।

মো. স্বপন মিয়া নামে এক মুড়ি ক্রেতা জানান, তিনি সব সময় মানিকগঞ্জের হাতে ভাজা মুড়ি খেতেন। কিন্তু বর্তমানে মানিকগঞ্জের মুড়ি বাজারে পাওয়া  যায় না বলে বাজারের সাধারণ মুড়ি কিনে খাচ্ছেন। এ মুড়িতে স্বাদ গন্ধ কিছুই নেই।  শহরের খুচরা মুড়ি বিক্রেতা নুরুল ইসলাম বলেন, এলাকার মুড়ির চাহিদা এখনো আছে। তবে কমদামি মুড়ি বেশি বিক্রি হয়।

ধলাই এলাকার একমাত্র মুড়ি ব্যবসায়ী তাহের আলী (৭৭) বলেন, মূলধন নাই, সঠিক সময়ে ধান পাই না। ধানের দামও বেশি। দীর্ঘদিনের মায়া তাই কিছু ধান বেপারীর কাছ থেকে নিয়েছি। আর মনে হয় পারুম না, এবারই শেষ। বয়স হয়েছে চালানপাতি নেই। সরকার যদি বিনা সুদে অথবা কম সুদে ঋণ দিতো তাহলে দুইশত বছরের ঐতিহ্য হাতে ভাজা মুড়ি তৈরি বন্ধ হতো না।  

নিউজ ট্যাগ: ভাজা মুড়ি

আরও খবর



শিমুলিয়া ফেরিঘাটে আজও ঘরমুখো মানুষের ঢ্ল

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদকে সামনে রেখে দক্ষিণ-পশ্চিমবঙ্গের প্রবেশপথ হিসেবে খ্যাত মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ফেরিঘাটে আজও ঘরমুখো মানুষের ঢ্ল। সরকারি ছুটির তৃতীয় দিন রবিবার ভোররাত থেকে এই ঘাটে যানবাহন ও যাত্রীদের চাপ বাড়তে থাকে। সকাল থেকে ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে চার শতাধিক যানবাহন। একটি ফেরি ঘাটে ফিরলেই ঘরমুখো মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন। এ ছাড়া লঞ্চ ও স্পিডবোটেও যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।

তীব্র গরমে ফেরির জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এতে বিড়ম্বনা ও দুর্ভোগ বাড়ছে। এই নৌপথে ফেরিতে ভারী যানবাহন পারাপার নিষিদ্ধ থাকায় হালকা যানবাহন ও ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাত্রা শুরু করেছেন।

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. ফয়সাল জানান, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌপথে দশটি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। যাত্রী সাধারণের সুবিধার্থে বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাট কর্তৃপক্ষ ১নং ফেরিঘাট দিয়ে শুধু মোটরসাইকেল এবং বাকি ২, ৩ ও ৪ নং ঘাট ফেরি ও যাত্রী পারাপারের জন্য নির্ধারণ করে দিয়েছে। ১নং ঘাটে মোটরবাইকের যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় রয়েছে। সকাল থেকে ফেরিতে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে চার শতাধিক যানবাহন।

বিআইডব্লিউটিএ শিমুলিয়া ঘাটের পরিবহন পরিদর্শক মো. সোলেমান জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে শনিবার রাতে লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ করে দেওয়ার পর তা আবার রবিবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে। এ রুটে ১৫৩টি স্পিডবোট ও ৮৫টি লঞ্চ চলাচল করছে। লঞ্চ ও স্পিডবোটে বিপুলসংখ্যক যাত্রী পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে বলে জানান তিনি। স্পিডবোট চলাচল করছে সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত এবং লঞ্চ চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত।

ঈদ ব্যবস্থাপনায় বিআইডব্লিউটিএ'র সহযোগী সংস্থা হিসেবে জেলা পুলিশ, নৌ পুলিশ, ডিবি পুলিশ, ট্রাফিক পুলিশ, এপিবিএন, নৌপরিবহন অধিদফতর, বিআইডব্লিউটিসি, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, আনসার ও ভিডিপি, মুন্সীগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন কর্তৃক নিয়োজিত মেডিক্যাল টিম, সংশ্লিষ্ট ইজারাদার এবং লঞ্চ মালিক সমিতি নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজ করছে।


আরও খবর



ঈদে ৩ পর্বের বিশেষ সিসিমপুর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রতিবারের মতো এবারের ঈদেও ছোট্ট বন্ধুদের জন্য থাকছে ৩ পর্বের বিশেষ সিসিমপুর মিলেমিশে সবে, মাতি উৎসবে। যা বাংলাদেশ টেলিভিশনের ঈদ অনুষ্ঠানমালায় প্রচার হবে ঈদের দিন, ঈদের দ্বিতীয় দিন এবং ঈদের তৃতীয় দিন প্রতিদিন বেলা ১টায়।

উৎসব, বৈচিত্র্য, মিলেমিশে থাকা- এই বিষয়গুলোকে প্রাধান্য দিয়ে সাজানো হয়েছে এবারের ঈদের বিশেষ তিন পর্ব। যেখানে আনন্দ আর বিনোদনের মাধ্যমে বিষয়গুলোর গুরুত্ব তুলে ধরবে সিসিমপুরের জনপ্রিয় চরিত্র হালুম, ইকরি আর বাহাদুর। এছাড়াও অনুষ্ঠান তিনটির প্রতি পর্বে শিশুরাও অংশ নেবে। হালুম, ইকরি আর বাহাদুরের সঙ্গে তারা ভার্চুয়ালি মেতে উঠবে ঈদ আড্ডায়। ভাগাভাগি করবে তাদের ঈদ উদযাপনের অনুভূতি।

এছাড়া তিন পর্বের ঈদ স্পেশাল সিসিমপুরের একটি পর্বে তৃতীয় লিঙ্গের একজন তারকা এবং আরেকটি পর্বে শারীরিক প্রতিবন্ধী একজন শিশুও অংশ নেবে। যার মাধ্যমে শিশুদের মাঝে একীভূত করার গুরুত্ব তুলে ধরা হবে।

নিউজ ট্যাগ: সিসিমপুর

আরও খবর



আজ বিশ্ব জীববৈচিত্র্য দিবস

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ১৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্ব জীববৈচিত্র্য দিবস আজ। প্রতিবছরের মতো এবারও বাংলাদেশে যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে পালিত হবে দিবসটি। এবারের প্রতিপাদ্য সব প্রাণীর জন্য একটি সমন্বিত ভবিষ্যৎ গড়ে তুলি

জীববৈচিত্র্য সম্পর্কে বিশ্ববাসীকে সচেতন করতেই ২২ মে দিনটি বিশ্ব জীববৈচিত্র্য দিবস হিসেবে উদযাপন করে আসছে জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচি।

স্বাধীনতার পর ১৯৭৪ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জীববৈচিত্র্য ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ সেল ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন প্রণয়ন করেন। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ ১৯৯২ সালের ২২ মে কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে বায়োডাইভার্সিটি (সিবিডি) চুক্তিতে সই করে।

এরপর ৫ জুন ১৯৯২ সালে ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির ধরিত্রী সম্মেলনে সিবিডি বিভিন্ন দেশের স্বাক্ষরের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিশ্বের প্রায় ১৬৮টি দেশ সিবিডি চুক্তিতে সই করে এবং সিবিডি ওই বছরের ২৯ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হয়। বর্তমানে এ চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশের সংখ্যা ১৯৫ টি।


আরও খবর



উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন শ্রীদেবী কন্যা

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৩ মে ২০২২ | ২১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুব শিগগির বলিউডে অভিষেক হবে শ্রীদেবীর ছোট কন্যা খুশি কাপুরের। জোয়া আখতারের দ্য আর্চিস সিনেমার মাধ্যমে তার অভিষেক হতে যাচ্ছে। তবে তারকা সন্তান হওয়ার সুবাদে খুশিকে নিয়ে চর্চা বহুদিনের। জানভির বোন স্টাইলের দিক থেকে প্রতিষ্ঠিত বলিউড নায়িকাদেরও টেক্কা দেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার অনুসারীর সংখ্যাও কম নয়। ইনস্টাগ্রামে ফ্যাশন ব্লগার হিসেবেও পরিচিত খুশি। এবার তার একটি ছবি আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

রবিবার (২১ মে) ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেছেন খুশি। তাতে দেখা যায়, খুশির পরনে সোনালি রঙের ব্যাকলেস গাউন। পিঠখোলা ছবিতে অন্তর্জালে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন খুশি। অনেকে ছবিটিতে মন্তব্য করেছেন। এ তালিকায় রয়েছেন শাহরুখ কন্যা সুহানা খান। কমেন্ট বক্সে তিনি লিখেছেন, ওয়াও। শানায়া কাপুর লিখেছেন, আমি তোকে খুব ভালোবাসি। পরিচালক জোয়া আখতার কমেন্ট বক্সে হৃদয়ের চিহ্ন এঁকেছেন।

কমিকস চরিত্র আর্চি অন্ড্রুজ অ্যান্ড হিজ ফ্রেন্ড থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে সিনেমাটির ভারতীয় সংস্করণ তৈরি করেছেন জোয়া আখতার। তিনজন স্টার কিড ছাড়াও সিনেমাটিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যাবে মিহির আহুজা, ডট, বেদাঙ্গ রায়না এবং যুবরাজ মেন্দাকে। আগামী বছর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

জানা গেছে, অগস্ত্যা নন্দাকে দেখা যাবে আর্চি অ্যান্ড্রুজের চরিত্রে। খুশি কাপুর এবং সুহানা খানকে দেখা যাবে বেটি এবং ভেরোনিকার চরিত্রে। সিনেমাটি পুরোদস্তর মিউজিক্যাল ড্রামা। সঙ্গে থাকছে টিনএজ রোমান্সের রঙিন সব উপাদান। তিন স্টার কিডের অভিষেক নিয়ে এই সিনেমা ঘিরে প্রত্যাশার পারদ চড়েছে সকলেরই।

নিউজ ট্যাগ: খুশি কাপুর

আরও খবর