আজঃ বুধবার ১৯ জুন ২০২৪
শিরোনাম

ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় অটোরিক্সার ৩ যাত্রী নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঠাকুরগাঁওয়ে ট্রাকের ধাক্কায় ব্যাটারীচালিত অটোরিক্সার তিনজন যাত্রী নিহত হয়েছেন। এছাড়াও এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

বৃহস্পতিবার(১৫ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের বোর্ড অফিস নামক এলাকার ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালান্দর ইউনিয়নের বাসিন্দা মজিবর রহমান (৪৫), আউলিয়াপুর ইউনিয়নের কচুবাড়ি এলাকার বাসিন্দা চঞ্চল (৩৫) ও কচুবাড়ি এলাকার সুরজ আলীর ছেলে গোলাম মোস্তাফা (৪৫)।

আহতরা হলেন: কচুবাড়ি এলাকার মোটাই মিয়ার ছেলে জহিরুল ইসলাম (৪০) ও সদরের সালন্দর ইউনিয়নের শিংপাড়া গ্রামের সফির উদ্দীনের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩৩)।

প্রত্যক্ষদর্শীর বলেন, দুপুরে ঠাকুরগাঁও শহর থেকে একটি ট্রাক পঞ্চগড়ে যাচ্ছিল। পথে সদরের আউলিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের পূর্ব দিকের সড়ক থেকে একটি মোটরসাইকেল পঞ্চগড় মহাসড়কে উঠছিল। অপরদিকে আউলিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের পশ্চিম দিকের সড়ক থেকে একটি ট্রাক পঞ্চগড় মহাসড়কে উঠছিল। এসময় ঠাকুরগাঁও শহর থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রাকটি ওই মোটরসাইকেলটিকে বাঁচাতে গেলে মহাসড়কের উপর দাঁড়িয়ে থাকা ব্যাটারীচালিত অটোরিক্সাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে অটোরিক্সার যাত্রী মজিবর রহমান ও চঞ্চল মারা যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় অটোরিক্সার যাত্রী জহিরুল ইসলাম,রবিউল ইসলাম ও গোলাম মোস্তফাকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এসময় চিকিৎসাধীন অবস্থায় গোলাম মোস্তফার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ রকিবুল আলম চয়ন বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত তিনজনের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে। বাকী দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক, তাদেরকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হবে।

ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল থেকে দুইটি ট্রাককে আটক করা হয়েছে। তবে দুর্ঘটনার পর ট্রাকের চালকরা পালিয়ে গেছে, তাকে আটক করতে আমাদের অভিযান চলছে। এ দুর্ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর



বিকেলের মধ্যে রাজধানী অতিক্রম করবে ঘূর্ণিঝড় রেমাল

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উপকূলে ঝড়, বৃষ্টি, জোয়ার আর জলোচ্ছ্বাসের তাণ্ডব চালিয়ে ঘূর্ণিঝড় রেমালের কেন্দ্রভাগ দুপুরের পর ঢাকায় ঢুকবে। এ সময় বাতাসের গতিবেগ থাকবে সর্বোচ্চ ৪০ কিলোমিটার আর বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আজিজুর রহমান আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় ঘূর্ণিঝড় নিয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য দেন।

আজিজুর রহমান বলেন, রেমালের কেন্দ্রভাগ দুপুর ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে ঢাকার দিকে আসবে। এটি এখন অনেকটা গভীর নিম্নচাপে পরিণত হচ্ছে। এর ফলে ঢাকায় আরও বৃষ্টি হবে। সেই সাথে ঝোড়ো বাতাস বইবে। ঢাকার ওপর দিয়ে এটা পর্যায়ক্রমে সিলেট দিয়ে বাংলাদেশের বাইরে যাবে ৷ ঢাকায় আসলে বৃষ্টিপাত আর দমকা বাতাস বাড়বে একটু।

আজিজুর রহমান বলেন, রেমাল সারা রাত তান্ডব চালিয়েছে। এর অগ্রভাগ দুপুরে উপকূলে আসে। মধ্যরাতে কেন্দ্র ওপরে উঠে আসে। এরপর ৫ থেকে ৭ ঘণ্টা ধরে সে পুরোটা ওপরে উঠে আসে। ৬টার আগেই উপকূলে উঠে আসে। এখন সাইক্লোন থেকে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এর প্রভাব যশোরে আছে এরপর ঢাকায় আসবে। বাতাস ২০ থেকে ৪০ কিলোমিটারের মধ্যে থাকবে। এর চেয়ে আর বাড়ার সুযোগ নাই। এটি উপকূলের পুরোটা অংশ পেয়েছে। কক্সবাজারের কয়েকটা এলাকা পানিতে ডুবে গেছে।

রেমাল নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে জানিয়ে আজিজুর রহমান বলেন, রেমাল এখন প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে ঘূর্ণিঝড় ও সবশেষে উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে স্থল গভীর নিম্নচাপ আকারে যশোর ও এর আশপাশের এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। এটি আরও উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে বৃষ্টিপাত ঝড়িয়ে নিম্নচাপে পরিণত হবে। এটি আগামীকালের মধ্যে আরও দুর্বল হয়ে বৃষ্টি দিয়ে একই দিক দিয়ে নিম্নচাপ আকারে আসামের দিকে চলে যাবে।

আজিজুর রহমান বলেন, রেমাল গতকাল সন্ধ্যার দিকে উপকূলের মোংলা ও ভারতীয় সাগর আইল্যান্ডে দিয়ে বাংলাদেশ অতিক্রম শুরু করে ৷ এর প্রভাব সবচেয়ে বেশি ছিল পটুয়াখালীর খেপুপাড়াতে।

পরিচালক জানান, ঝড়ের সর্বোচ্চ বাতাসের গতিবেগ ছিল পটুয়াখালীর খেপুপাড়াতে ১১১ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায়। রাত ১টা ৩০ মিনিটে এটা রেকর্ড করা হয়েছে। আর সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে চট্টগ্রামে ২০৩ মিলিমিটার।

আজিজুর রহমান আরও বলেন, বাতাসের গতিবেগ দেখে বোঝা যাচ্ছে রেমাল পটুয়াখালী ও খেপুপাড়া অঞ্চলে বেশি সময় স্থায়ী ছিল। এটির বড় অংশ এই অঞ্চল দিয়ে পার হয়েছে।

এছাড়া সাতক্ষীরাতে বাতাসের গতিবেগে রাতে রেকর্ড করা হয় সর্বোচ্চ ৭৮ কিলোমিটার রাত দুইটায়। মোংলাতে রাত সাড়ে বারোটায় ৮০ কিলোমিটার ও রাত ১১টায় ৮৩ কিলোমিটার। ঢাকায় সকাল ৬টা ২০ মিনিটে বাতাসের গতিবেগ সর্বোচ্চ রেকর্ড করা হয় ৬৯ কিলোমিটার। আর চট্টগ্রামের পতেঙ্গাতে ৭৪ কিলোমিটার।

রেমালের প্রভাবে খেপুপাড়া ও পটুয়াখালীতে বৃষ্টি হয়েছে ১১১ মিলিমিটার, ঢাকাই সকাল ৬টা পর্যন্ত ৫৯ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ২০৩ মিলিমিটার ও কুতুবদিয়াতে ১২৫ মিলিমিটার। এছাড়া সারা দেশেই বৃষ্টিপাত হচ্ছে। যা আজ সারা দিন অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



গাজায় ইসরায়েলি হামলা, নিহত ২৮৩

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় তীব্র হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। এ হামলায় ২৮৩ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। সোমবার (১০ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে তুরস্কের বার্তাসংস্থা আনাদোলু।

আনাদোলুর ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী গাজা উপত্যকায় গত ২৪ ঘণ্টায় আটটি গণহত্যা চালিয়েছে। এতে একদিনে ২৮৩ জন শহীদ হয়েছেন এবং আরও ৮১৪ জন আহত হয়েছেন। এ নিয়ে উপত্যকাটিতে নিহতের মোট সংখ্যা ৩৭ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় আট মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা ইসরায়েলি হামলায় নিহত ফিলিস্তিনির সংখ্যা কমপক্ষে ৩৭ হাজার ৮৪ জনে পৌঁছেছে। এসব হামলায় এখন পর্যন্ত ৮৪ হাজার ৪৯৪ জন আহত হয়েছেন।

মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, শনিবার কেন্দ্রীয় গাজা উপত্যকার নুসিরাত ক্যাম্পে ফিলিস্তিনিদের ওপর গণহত্যা চালিয়েছে ইসরায়েলি দখলদাররা। এতে ২৭৪ জন নিহত ও ৬৯৮ জন আহত হয়েছেন, যাদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শনিবার ইসরায়েলি সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা কেন্দ্রীয় গাজা উপত্যকায় ফিলিস্তিনিদের ওপর একটি ভয়াবহ হামলায় চালিয়েছে এবং চার জিম্মিকে উদ্ধার করেছে।

শনিবারের হামলার বিষয়ে ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, অনেক সংখ্যক ভুক্তভোগী মানুষ এখনও ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় আটকে রয়েছেন এবং অ্যাম্বুলেন্স ও সিভিল ডিফেন্স ক্রুরা তাদের কাছে পৌঁছাতে পারছেন না।’


আরও খবর



ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে তীব্র যানজট

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গাড়ি নষ্ট হওয়ায় নারায়ণগঞ্জের বন্দর লাঙ্গলবন্দ এলাকা থেকে সোনারগাঁয়ের চৈত্রী এলাকা পর্যন্ত চট্টগ্রামমুখী লেনে ৪ কিলোমিটার জুড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে তীব্র ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা।

বুধবার (৫ জুন) সকাল সোয়া ৭টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এমন দৃশ্য দেখা যায়।

এ দিকে এমন যানজট আগে কখনো দেখেননি জানিয়ে এক বাসচালক বলেন, সচরাচর এই সময় মহাসড়কে তেমন যানজট থাকে না। আবার আজ মহাসড়কে যানবাহনের চাপও কম। কী কারণে এমন যানজটের মাধ্যমে আমাদের দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হলো তা জানা নেই।

এ বিষয়ে আমিনুর রহমান নামে এক যাত্রী বলেন, যানজটের কারণে লাঙ্গলবন্দ ব্রিজ থেকেই গাড়ি আর সামনের দিকে যাচ্ছে না। কখন নাগাদ গন্তব্যস্থলে যেতে পারব জানি না।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি রেজাউল হক বলেন, আজ ভোরের দিকে মহাসড়কের চৈত্রী এলাকায় একটি গাড়ি বিকল হয়ে যায়। এ কারণে মহাসড়কে যানবাহন চলাচলে বাধার সৃষ্টি হচ্ছে। তবে এরইমধ্যে রেকার দিয়ে ওই বিকল গাড়িটি সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। আশা করছি, খুব শিগগিরই যান চলাচল স্বাভাবিক হবে। যানজট নিরসনে আমরা সবার্ত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।


আরও খবর



বন্ধুরাষ্ট্রের কাছে ‘কথিত’ এমপিরাও নিরাপদ নয়: ফখরুল

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

শুধু সাধারণ নাগরিক নয়, আওয়ামী লীগের কথিত সংসদ সদস্যরাও সরকারের বন্ধুরাষ্ট্রের (ভারত) কাছে নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বুধবার (২২ মে) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক যৌথসভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে এ মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে নিখোঁজ ঝিনাইদহ-৪ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনারের মরদেহ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা থেকে উদ্ধার করা হয়।

ভারতে এমপি হত্যার পেছনে দুর্নীতি বা অন্য কোনো ঘটনা থাকতে পারে বলেও জানান মির্জা ফখরুল।

সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল (অব.) আজিজ আহমেদের ওপর নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, এই নিষেধাজ্ঞা জাতির জন্য লজ্জাকর। তার জন্য দায়ী সরকার। সেনাবাহিনীকে অন্যায়ভাবে ব্যবহারের ফলে এই নিষেধাজ্ঞা। সরকারের কারণে সেনাবাহিনীকে হেয় প্রতিপন্ন করা করা হলে দেশের মানুষ কখনো মেনে নেবে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, জাতির সামনে সমস্যা এই সরকার। গোটা জাতির আত্মা ধ্বংস করে দিয়েছে। গোটা দেশকে বিক্রি করে দিয়েছে।


আরও খবর



চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সাথে সিডিএ চেয়ারম্যানের সৌজন্য সাক্ষাৎ

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ।

সোমবার (৩ জুন) বিকাল ৪টায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান চেয়ারম্যানের সাথে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে আলোচনা শেষে চট্টগ্রামের উন্নয়নে যৌথভাবে কাজ করবেন বলে আশ্বস্ত করেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রাকিব হাসান, স্টাফ অফিসার টু ডিসি মো: ফাহমুন নবী এবং সিডিএ এর প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস, নির্বাহী প্রকৌশলী মো: শামীম (নির্মাণ বিভাগ-২) ও নির্বাহী প্রকৌশলী রাজীব দাশ (আই.পি)।


আরও খবর