আজঃ বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

টেকনাফে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ মে ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার প্রতিনিধি

Image

কক্সবাজারের টেকনাফের বাহারছড়ায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৪ মে) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হালিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- বাহারছড়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের বাইন্নাপাড়ার নুরুল ইসলামের ছেলে হেলালউদ্দিন ধলু ও ৭ নং ওয়ার্ডের হাজমপাড়ার সোনা আলীর ছেলে রহমত উল্লাহ।

আরও পড়ুন: আট জেলায় বজ্রপাতে ১৫ জনের মৃত্যু

বাহারছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন খোকন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের পশ্চিমে মেরিন ড্রাইভ সড়ক সংলগ্ন গরু-ছাগলের খামারে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতের শিকার হন হেলাল উদ্দিন ধলু। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। একই দিন পানের বরজে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে রহমত উল্লাহর মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মরদেহ তাদের বাড়িতে রয়েছে।

আরও পড়ুন: বগুড়ায় বাসচাপায় কলেজশিক্ষক নিহত

তিনি জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য, ইউএনও, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। নিহতদের পরিবারকে তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রশাসন আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছে।

টেকনাফ থানার ওসি মো. আবদুল হালিম জানান, উপজেলার বাহারছরা ইউনিয়নে বজ্রাঘাতে দুইজনের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: বজ্রপাতে মৃত্যু

আরও খবর



সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

কোটা সংস্কার নিয়ে সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। 

মন্ত্রী বলেন, কোটা সংস্কারে আদালতের রায় অনুযায়ী কাজ করবে নির্বাহী বিভাগ। সর্বোচ্চ আদালতের রায় বা সিদ্ধান্তই আইন হিসেবে গণ্য হবে।

প্রয়োজনে সংসদে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে, বলেন ফরহাদ হোসেন।

এর আগেও, জাতীয় সংসদ ভবনের টানেলের নিচে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, আন্দোলনকারীদের আলোচনার প্রস্তাবকে স্বাগত জানায় সরকার। আলোচনার জন্য আমাকে ও শিক্ষামন্ত্রীকে দায়িত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ওরা চাইলে আমরা আজকেই আলোচনায় বসতে রাজি।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আগামী ৭ আগস্ট ২০২৪ সালে যে মামলাটার শুনানি হওয়ার কথা ছিল সেই শুনানি এগিয়ে আনার জন্য ব্যবস্থা নিতে। আমি সেই মর্মে বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেলকে নির্দেশ দিয়েছি যে, আগামী রোববার বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতের আপিল বিভাগে আবেদন করবেন যাতে মামলার শুনানির তারিখ তারা এগিয়ে আনেন।

মন্ত্রী বলেন, গতকাল (বুধবার) প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বিচার বিভাগীয় তদন্তের কথা ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা হাইকোর্টের বিচারপতি খন্দকার দিলুরুজ্জামানকে দিয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি করেছি। এই প্রস্তাব প্রধান বিচারপতির কাছে যাবে। আমার বিশ্বাস তিনি এ প্রস্তাব রাখবেন।

আজ থেকে আন্দোলন করার আর কোনো প্রয়োজন নেই দাবি করে মন্ত্রী বলেন, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের আহ্বান জানাচ্ছি, পিতৃতুল্য নাগরিক হিসেবে তাদের অনুরোধ জানাচ্ছি, যাতে তারা সহিংসতা বন্ধ করে এবং এই আন্দোলন প্রত্যাহার বা স্থগিত করে।


আরও খবর
ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




তাপমাত্রা নিয়ে আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা

প্রকাশিত:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

কদিন ধরেই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি হচ্ছে। কোথাও হালকা আবার কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণও হতে দেখা গেছে। এমন পরিস্থিতিতে তাপমাত্রা নিয়ে নতুন বার্তা দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। সংস্থাটি বলছে, আজ সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে। এ ছাড়াও মঙ্গলবার ও বুধবার দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সোমবার (১ জুলাই) সকাল ৯টা থেকে আগামী তিন দিনের পূর্বাভাসে বলা এমন তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়ার অধিদপ্তর।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সোমবার রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থাযীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

অন্যদিকে অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে দেশের রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ও এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি মৌসুমী বায়ুর সাথে মিলিত হয়েছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষ উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু দেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় রয়েছে।


আরও খবর



আলোচনায় বসতে রাজি নয় আন্দোলনকারীরা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

কোটা সংস্কারপন্থী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে সরকারের পক্ষ থেকে সম্মতি জানালেও আলোচনায় বসতে রাজি নয় কোটা সংস্কার আন্দোলনের সমন্বয়করা।

বৃহস্পতিবার সরকারের পক্ষে সংলাপের আহ্বান আসার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সংলাপ না করার কথা জানান।

বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের সমন্বয়ক আসিফ মাহমুদ বলেন, গুলির সাথে কোনো সংলাপ হয় না। এই রক্তের সাথে বেঈমানী করার চেয়ে আমার মৃত্যুই শ্রেয়। আরেক সমন্বয়ক হাসনাত আব্দুল্লাহ ফেসবুকে লিখেন, রক্ত মাড়িয়ে কোনো সংলাপ নয়।

অপর সমন্বয়ক সারজিস আলম প্রশ্ন রেখে বলেন, একদিকে গুলি আর লাশ অন্যদিকে সংলাপ! আমার ভাইয়ের রক্তের উপর দিয়ে কিভাবে সংলাপ হতে পারে?

এদিকে শিক্ষার্থীরা যখনই আলোচনায় বসতে রাজি হবেন, তখনই এ আলোচনা হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। এ আলোচনা সমন্বয় করার জন্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দুপুরে জাতীয় সংসদ ভবনের টানেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।


আরও খবর
ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




প্রশ্নফাঁসকাণ্ডে জড়িত পিএসসির এক ডজন রাঘববোয়াল

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) প্রশ্নফাঁসে এর ভেতর এবং বাইরে এক ডজন রাঘববোয়াল জড়িত রয়েছেন। তাদের কয়েকজন গ্রেফতার হলেও অন্যরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। সন্দেহভাজন এসব রাঘববোয়ালের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ এবং অতীত কর্মকাণ্ডের বিষয়াদি পর্যালোচনা করছে সিআইডিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক ইউনিট। তারা প্রশ্নফাঁস চক্রের মূলোৎপাটনের লক্ষ্যে তদন্ত অব্যাহত রেখেছেন।

সূত্র জানিয়েছে, প্রশ্নফাঁস চক্রে জড়িতদের প্রায় প্রত্যেকেই কোটি কোটি টাকার মালিক। আলোচিত সাবেক গাড়িচালক আবেদসহ গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং আইনে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে সিআইডি।

সিআইডির একজন কর্মকর্তা বলেন, শুরু থেকেই মানুষের মাঝে একটা পারসেপশন ছিল বিসিএস এবং পিএসসির পরীক্ষাসমূহের সঙ্গে যুক্ত সবাই নীতিবান। যে কারণে এসব পরীক্ষায় কোনো দুর্নীতি হয় না, প্রশ্নপত্র ফাঁস হয় না। কিন্তু এক যুগ ধরে প্রশ্নফাঁসের যে অভিযোগ সামনে এসেছে-তা সত্যিই ভাবিয়ে তুলেছে। তিনি বলেন, এই চক্রকে নির্মূল করা না গেলে ক্ষতিগ্রস্ত হবে রাষ্ট্র। তিনি জানান, পিএসসি আইনে মামলার পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং আইনেও মামলার প্রস্তুতি রয়েছে।

রেলওয়ের একটি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় গত সোমবার পিএসসির ছয় কর্মকর্তা কর্মচারীসহ ১৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এর মধ্যে আলোচিত ড্রাইভার আবেদ আলীকে ১০ বছর আগে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে চাকরিচ্যুত করা হয়েছিল। পল্টন থানায় দায়ের করা মামলায় মঙ্গলবার সাবেক গাড়িচালক আবেদ আলী, ডেসপাস রাইটার খলিলুর রহমান ও অফিস সহায়ক সাজেদুল ইসলামসহ ছয়জন দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তারা গত এক যুগ ধরে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসসহ (বিসিএস) পিএসসির আরও কয়েকটি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁস করার কথা স্বীকার করেন। গ্রেফতার পিএসসির কর্মকর্তাসহ যারা স্বেচ্ছায় জবানবন্দি দেননি তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে রিমান্ড আবেদন করেছে সিআইডি। সিআইডি সূত্র জানিয়েছে, তাদের আরেকবার রিমান্ডে পেলে ভেতরে বাইরে প্রশ্নফাঁস চক্রের যত রাঘববোয়াল আছে, তাদের চিহ্নিত করা সম্ভব হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, বিভিন্ন সময়ে প্রশ্নফাঁসে জড়িত পিএসসির বিভিন্ন পর্যায়ের আরও পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারীর নাম সামনে এসেছে। তারাও বিভিন্ন সময়ে ক্যাডার ও নন-ক্যাডার পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসে সংশ্লিষ্ট ছিলেন।

এদিকে মামলায় অভিযুক্ত সাবেক উপ-সহকারী পরিচালক নিখিল চন্দ্র রায়সহ ১৪ জনকে গ্রেফতারে সিআইডির অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে এখনো তাদের গ্রেফতারের আওতায় আনা যায়নি। সূত্র জানিয়েছে, এই চক্রের সদস্য সংখ্যা ৬০ জনের অধিক। এর মধ্যে ডজনের অধিক রাঘববোয়াল। তাদের কেউ কেউ পিএসসিতে বহালতবিয়তে আছেন। আবার কেউ অবসরে গেছেন বা চাকরিচ্যুত হয়েছেন। আর চক্রের অন্য যারা আছেন, তারা মূলত কেউ প্রার্থী জোগাড় করেন, কেউবা দরদাম ঠিক করেন। কেউবা আবার পরীক্ষার্থীদের গোপন আস্তানায় নিয়ে পড়ান।

তদন্তসংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, পিএসসির উপ-পরিচালক মো. আবু জাফর ও মো. জাহাঙ্গীর আলম এবং সহকারী পরিচালক মো. আলমগীর কবিরকে রিমান্ডে পেলে প্রশ্নফাঁসে জড়িত অন্য রাঘববোয়ালদের নাম সামনে আসতে পারে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জুয়েল চাকমা বলেন, মামলা তদন্তাধীন। এই মুহূর্তে কোনো মন্তব্য করা সমীচীন হবে না। তদন্ত শেষ হলে বিস্তারিত জানানো হবে।

পিএসসির যুগ্ম সচিব আবদুল আলীম খান বলেন, আমরাও তদন্ত চলমান রেখেছি। সবাইকে সন্দেহের তালিকায় রেখেই আমরা কাজ এগিয়ে নিচ্ছি। আশা করি তদন্ত প্রতিবেদনে ভালো কিছু দিতে পারব। তিনি বলেন, তদন্তকাজ আমরা স্বাধীনভাবেই চালিয়ে যাচ্ছি।

এদিকে গত মঙ্গলবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে সাবেক গাড়িচালক আবেদ আলীসহ ছয়জন প্রশ্নফাঁস চক্রের অনেক তথ্যই ফাঁস করে দিয়েছেন। তাদের স্বীকারোক্তিতে বেরিয়ে এসেছে রাঘববোয়াল অনেকের নামও। এসব তথ্য সামনে রেখে কাজ করছে সিআইডি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পিএসসিতে কর্মকর্তা পর্যায়ের কিছু লোক প্রশ্ন ফাঁস করতেন। আর তাদের সহযোগী হিসাবে কাজ করতেন কর্মচারীরা। চক্রে বাইরের যারা জড়িত তারা প্রার্থী সংগ্রহ, টাকার চুক্তিসহ বিভিন্ন দায়িত্বে ছিলেন। অডিটর প্রিয়নাথ রায় আবেদ আলীকে বিভিন্ন পরীক্ষার সাড়ে ৪০০ প্রার্থী জোগাড় করে দিয়েছেন বলে তিনি আদালতের কাছে স্বীকার করেছেন। এসব প্রার্থীর প্রত্যেকের সঙ্গে ১৮ থেকে ২০ লাখ টাকায় চুক্তি করেছেন প্রিয়নাথ। গ্রেফতার নোমান সিদ্দিকী লক্ষ্মীপুরের রামগতি থানার চর আলগি গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে। ২০০৪ সালে পিএসসির প্রশ্নপত্র ফাঁসকারী চক্রের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন চাকরির তদবির করতেন তিনি। তখন এক বন্ধুর মাধ্যমে পরিচয় হয় অডিটর প্রিয়নাথ রায়ের সঙ্গে। এরপর ফাঁস হওয়া প্রশ্ন বিক্রি করে নোমান ঢাকার পাশেই একটি গার্মেন্টস কারখানার মালিক হয়েছেন। এছাড়া তার রয়েছে প্লট, ফ্ল্যাটসহ বিপুল সম্পদ।

পিএসসির অফিস সহায়ক সাজেদুল ইসলামের সঙ্গে বন্ধুত্ব ছিল পানির ফিল্টার ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেনের। সাজেদুলের প্ররোচনায় সাখাওয়াত ও তার ভাই সায়েম হোসেন এই চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। ৪৬ জন চাকরিপ্রত্যাশীকে সাখাওয়াতের গুদামে নিয়ে ফাঁস করা রেলওয়ের প্রশ্ন পড়ানো হয়।

আর সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী তো প্রশ্ন ফাঁস করে বনে গেছেন শতকোটি টাকার মালিক। প্রশ্নফাঁসে গ্রেফতার পিএসসির উপপরিচালক মো. আবু জাফরের বাড়ি পটুয়াখালীর গলাচিপার কলাগাছিয়ায়।

আবু জাফর বেশ কয়েক বছর ধরে স্ত্রী জ্যোতির নামে মালিবাগের চৌধুরী পাড়ায় একটি কোচিং সেন্টার চালাচ্ছেন। যেখানে সরকারি চাকরিপ্রত্যাশীরা কোচিং করতেন।

উল্লেখ্য, প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে গত ৮ জুলাই রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আবেদ আলীসহ মোট ১৭ জনকে গ্রেফতার করে সিআইডি। প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় ওই রাতে রাজধানীর পল্টন থানায় বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন আইনে সিআইডির এসআই নিপ্পন চন্দ্র চন্দ মামলা করেন। মামলায় ৩১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৫০-৬০ জনকে আসামি করা হয়েছে।


আরও খবর
ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




জামালপুরে বন্যার পানিতে গোসলে নেমে চারজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বালুচর এলাকায় বন্যার পানিতে গোসল করতে নেমে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (১৪ জুলাই) বিকেল ৫টায় এ ঘটনা ঘটে।

মেলান্দহ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- দক্ষিণ বালুচর এলাকার বাবুলের স্ত্রী রোকশানা (২৫), দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে দিশা আক্তার (১৭), সবুজ মিয়ার মেয়ে সাদিয়া (১০) ও গোলাপ আলির মেয়ে খাদিজা (১০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার বিকেলে দক্ষিণ বালুচর এলাকার পাশাপাশি বাড়ির তিন শিশু, এক কিশোরী ও এক গৃহবধূ ফসলি জমিতে বন্যার পানিতে গোসল করতে যান। গোসল করার একপর্যায়ে হঠাৎ করেই চারজন পানিতে তলিয়ে যেতে থাকেন। এ সময় দূরে থাকা এক কিশোরী তাদের তলিয়ে যাওয়া দেখে দৌড়ে বাড়িতে এসে ডাক-চিৎকার করে খবর দেন। খবর পেয়ে লোকজন গিয়ে দেখেন মরদেহ পানিতে ভেসে উঠেছে। এ সময় বেঁচে ফেরেন মারিয়া (১২) নামের এক শিশু।

স্থানীয়রা জানান, অল্প পানিতেই সবাই গোসল করতে গিয়েছিল। এই পানিতে ডুবে মারা যাওয়ার ঘটনা একেবারে আশ্চর্যজনক। এর মধ্যে আগামী শুক্রবার দিশার বিয়ে হওয়ার কথা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আজাদ আলী বলেন, দুপুরে এমন খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। এমন ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিউজ ট্যাগ: জামালপুর

আরও খবর