আজঃ শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

‘টাকা ছিনিয়ে নিতে বাধা দেওয়ায় অধ্যাপক সাইদাকে হত্যা’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টাকা ছিনিয়ে নিতে বাধা এবং ডাক-চিৎকার করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদা গাফফারকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার আনারুল ইসলাম (২৫) হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এ কথা জানিয়েছে।

ওই অধ্যাপকের নির্মাণাধীন বাড়ির কনট্রাকটর ও রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন আনারুল।

এর আগে তার দেওয়া তথ্যে শুক্রবার সকালে গাজীপুর মহানগরীর দক্ষিণ পাইনশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আবাসন প্রকল্পের ভেতরে একটি ঝোপ থেকে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় অধ্যাপক সাইদার লাশ উদ্ধার করা হয়।

মামলার বাদী নিহতের ছেলে সাউদ ইফখার বিন জহির এজাহারে উল্লেখ করেন, তার মা কাশিমপুর থানাধীন দক্ষিণ পাইনিশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আবাসন প্রকল্পে তার মালিকানাধীন প্লটে বাড়ি নির্মাণকাজ করার জন্য ওই আবাসিক প্রকল্প সংলগ্ন দক্ষিণ পানিশাইল মোশারফ মৃধার বাড়ির দ্বিতীয় তলায় একটি ভাড়া ফ্ল্যাটে থাকতেন। সেখান থেকে আবাসিক প্রকল্পের মধ্যে বাড়ির নির্মাণকাজ দেখাশোনা করতেন।

এতে বলা হয়, গত ১১ জানুয়ারি আনুমানিক রাত ৮টার দিকে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী আমার ছোট বোন হেমেল মাকে তার মোবাইলের মেসেঞ্জারে ম্যাসেজ পাঠান। মা ওই ম্যাসেজ সিন না করায় পরদিন সকাল ৮টার দিকে মায়ের মোবাইলে ফোন দিলেও মা ফোন রিসিভ করেননি।

এজাহারে বলা হয়, পরে বাড়ির নির্মাণকাজের কনট্রাকটর আনারুল ইসলাম ফোন দিয়ে আমার মামা তৈয়ব ও শেখ শমসের গাফফারকে জানায় আজকে ম্যাডাম (আমার মা) আসেনি এবং ফোন বন্ধ। তখন মামা কনট্রাকটর আনারুলকে বাসায় গিয়ে টাকা আনতে বলে।

পরে নির্মাণকাজের লেবার নজরুল আমার মায়ের বাসায় গিয়ে দেখে যে, গেইট খোলা, আলমারিতে চাবি ঝুলছে এবং অন্য আলমারি খোলা এবং মাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ উল্লেখ করা হয় এজাহারে।

এতে বলা হয়, ওই সংবাদের ভিত্তিতে গত ১২ জানুয়ারি রাত সোয়া ৯টার দিকে আমার মায়ের ভাড়া করা বাসায় এসে মাকে না দেখতে পেয়ে এবং সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে আমার বোন সাদিয়া আফরিন কাশিমপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

নিহতের ছেলে আরও জানান, কাশিমপুর থানার পুলিশ জিডির তদন্তকালে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গাইবান্ধা সাদুল্যাপুর থানার বুজুর্গ এলাকার আনসার আলীর ছেলে মো. আনারুল ইসলাম আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

বাদীর ধারণা, আসামি আনারুল অজ্ঞাত সহযোগীদের সহায়তায় তার মাকে হত্যা করে লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে জঙ্গলের মধ্যে ফেলে রাখে।

ভাড়া বাসা থেকে আনুমানিক এক কিলোমিটার দূরে তার লাশটি পাওয়া যায়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ মিজানুর রহমান জানান, সাধারণ ডায়েরি করার পর নির্মাণাধীন বাড়ির প্লটে গিয়ে খোঁজ-খবর নেওয়া হয়। পরে ওই প্লটে কর্মরত রাজমিস্ত্রি আনারুলকে গাইবান্ধা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আনারুল হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। সে জানিয়েছে, প্রফেসর সাইদা গাফফারের হাতে টাকা দেখে সে ছিনিয়ে নিতে চায়। এ সময় প্রফেসর সাইদা গাফ্ফার ডাক-চিৎকার দিলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় আনারুল।

নিহত সাইদা গাফফারের স্বামী মৃত জহিরুল হক। তার ছেলে সাউদ ইফখার বিন জহির ঢাকার উত্তরার পশ্চিম থানার ১২নং রোডের ১৭নং বাড়িতে বসবাস করেন। নিহতের তিন মেয়ের মধ্যে দুই মেয়ে অস্ট্রেলিয়ায় এবং একজন দেশে থাকেন।


আরও খবর



দ. আফ্রিকার পার্লামেন্টে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনের পার্লামেন্ট ভবনে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। আগুনের ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখা যায়। অনেক দূর থেকেই ধোঁয়া দেখা যাচ্ছে বলে খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি। খবর পেয়ে পার্লামেন্ট ভবনে পৌঁছেছে দমকলবাহিনী।

রবিবার (২ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় পাঁচটার দিকে আগুন লাগার খবর পায় দমকল বিভাগ। স্থানীয় এক কর্মকর্তা জেপি স্মিথ বলেছেন, আগুন নেভাতে একাধিক অগ্নিনির্বাপক গাড়ির মাধ্যমে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দমকলকর্মীরা।

নিরাপত্তার স্বার্থে পার্লামেন্ট ভবনের আশপাশ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে সাধারণ মানুষকে। আগুন লাগার কারণ এখনও উদঘাটন করা যায়নি।

জরুরি বিভাগের এক মুখপাত্র ফরাসি সংবাদমাধ্যম এএফপিকে বলেন, আগুন এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আমরা যতটুকু জানি আগুন ভবনের তিনতলায় ছড়িয়েছে। ভবনের জিমেও আগুন লেগেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, অফিসের ভেতর থেকে আগুনের সূত্রপাত।


আরও খবর



ক্যামেরুনের রাজধানীতে নাইটক্লাবে অগ্নিকাণ্ড, নিহত-১৬

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২ | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ক্যামেরুনের রাজধানী ইয়াউন্ডে একটি জনপ্রিয় নাইটক্লাবে অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ১৬ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। ক্লাবের ভেতরে আতশবাজি থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটে।

রাজধানীর বাস্তোস জেলার দূতাবাস ও কূটনীতিক এলাকার লিভ নামের নাইট ক্লাবটি আগুনে আচ্ছাদিত হয়ে যায়। কর্তৃপক্ষ জানায়, আগুন যেখানে রান্নার গ্যাস জমা করে রাখা হয়েছিল সেখান পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে।

রোববার সরকারের মুখপাত্র রেনে এমানুয়েল বলেন, আমরা আহত ও নিহিত ব্যক্তিদের নাম ও জাতীয়তা খুঁজে বের করতে এখনও তদন্ত পর্যায়ে রয়েছি।

দেশটির যোগাযোগ মন্ত্রণালয় জানায়, আতশবাজির বিস্ফোরণ থেকে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়, সেখানের ছয়টি গ্যাস বোতলের বিকট বিস্ফোরণে আশপাশের আতঙ্কের সৃষ্টি করে। এ ঘটনায় আহত আটজনকে ইয়াউন্ডে কেন্দ্রীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আরও খবর



রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানি ফেব্রুয়ারিতে

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে আন্তর্জাতিক বিচারিক অপরাধ আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানি ফের শুরু হবে। শুক্রবার বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন, মামলার বাদিপক্ষ আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল দাওদা জাল্লৌ ।

তিনি বলেন, মামলার কার্যক্রম পুরোপুরি সচল করতে আগামী ২১ জানুয়ারি হাইব্রিড শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।’ হাইব্রিড শুনানির বিষয়ে আইন কর্মকর্তা বলেন, এটি হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে কয়েকজন ব্যক্তি শুনানিতে সশরীরে উপস্থিত থাকবেন এবং অন্যরা এতে যুক্ত হবেন ভার্চুয়াল বা অনলাইন মাধ্যমে।

তবে মামলার রায়ের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের জান্তা সরকারের প্রতিনিধিরা চ্যালেঞ্জ জানাতে পারেন বলে জানিয়েছেন গাম্বিয়ার আইনজীবী।

এর আগে ২০১৯ সালে মামলাটিতে মিয়ানমারকে প্রতিনিধিত্ব করেছিল অং সান সু চির নেতৃত্বে একটি দল। হেগে অনুষ্ঠিত সেই শুনানিতে গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে মামলা তুলে নেয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

তবে এবার নিজেই বন্দি থাকার কারণে প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে পরিবর্তন এনেছে জান্তা সরকার। করোনার কারণে এবারের শুনানিতে প্রতিনিধিদের অনেকেই অনলাইনে যোগ দেবেন। এর আগে ২০১৭ সালে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দেশটির রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর নির্যাতন চালায়। সেসময় জীবন বাঁচাতে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।


আরও খবর



কাজাখস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন আলী খান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মধ্য-এশিয়ার তেল সমৃদ্ধ দেশ কাজাখস্তানে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশজুড়ে প্রাণঘাতী তীব্র সহিংস বিক্ষোভের মুখে সরকার পতনের এক সপ্তাহের মাথায় নতুন প্রধানমন্ত্রী পদে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সাবেক সরকারের উপ-প্রধানমন্ত্রী আলী খান এসমাইলোভকে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মনোনয়ন দিয়েছেন কাজাখস্তানের প্রেসিডেন্ট।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, কাজাখস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আলী খানকে মনোনীত করেছেন প্রেসিডেন্ট কাশেম-জোমার্ট তোকায়েভ। তিনি মনোনীত করার পর দেশটির সংসদের নিম্নকক্ষে তাৎক্ষণিকভাবে ভোটাভুটির আয়োজন করা হয়।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সরাসরি প্রচারিত সংসদ অধিবেশনে আলী খানের পক্ষে সংসদ সদস্যদের সম্মতি জানাতে দেখা যায়। জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে মধ্য-এশিয়ার এই দেশটিতে গত প্রায় এক সপ্তাহ ধরে তীব্র সহিংস বিক্ষোভ চলছে।

প্রাণঘাতী এই সহিংসতার জেরে গত ৫ জানুয়ারি দেশটির প্রেসিডেন্ট কাশেম-জোমার্ট ক্ষমতাসীন সরকার ভেঙে দেন। ভেঙে যাওয়া সরকারের প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন ৪৯ বছর বয়সী খান।

মঙ্গলবার কাজাখস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশটিতে চলমান বিক্ষোভ সহিংসতায় এখন পর্যন্ত প্রায় ৯ হাজার ৯০০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।


আরও খবর



বসুন্ধরা বিটুমিন গুণে-মানে নতুন পথ দেখাবে: কেসিসি মেয়র

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, নির্মাণকাজে বিটুমিন গুরুত্বপূর্ণ। এত দিন বিদেশ থেকে আসা বিটুমিনের ওপর এ দেশের সড়ক নির্মাণকাজ নির্ভর করত। এসব বিটুমিনের খারাপ মানের কারণে অনেক সময় নির্মাণকাজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বসুন্ধরা শিল্পগোষ্ঠী এরই মধ্যে তারা বিটুমিন উৎপাদন করেছে। সড়ক বিভাগ এই বিটুমিনকে এরই মধ্যে ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে এবং নির্মাণকাজে ব্যবহার করছে। আশা করছি, বসুন্ধরা বিটুমিন গুণে-মানে নতুন পথ দেখাবে।

রবিবার খুলনার একটি হোটেলে বসুন্ধরা বিটুমিনের ইঞ্জিনিয়ার মিট অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ আসলাম আলী বসুন্ধরা বিটুমিনের সাফল্য কামনা করে বলেন, বিটুমিনের জন্য আমাদের সব সময় বিদেশের ওপর নির্ভর করতে হতো। আবার এগুলোর মান ভালো না হওয়ায় নির্মাণ কাজগুলোর মান নষ্ট হয়ে যায়। দেশের বেসরকারি খাতে প্রথম প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা বিটুমিন। গুণ ও মান অক্ষুন্ন রেখে প্রতিষ্ঠানটি দেশের সেবায় এগিয়ে আসবে বলে আমরা প্রত্যাশা করছি।

মোজাহার এন্টারপ্রাইজের প্রাইভেট লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী কাজী মোজাহারুল হক বলেন, সরকারি বিটুমিন আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান দেশের চাহিদার ২০ শতাংশও মেটাতে পারে না। এ ক্ষেত্রে বসুন্ধরা বিটুমিন বিশেষ চমক। আমরা ৩০টি জেলায় নির্মাণকাজ করছি। এরই মধ্যে এই বিটুমিন ব্যবহার করছি। আশা করি, বসুন্ধরা গ্রুপ দেশের স্বার্থে এই পণ্যের মান বজায় রেখে তাদের উৎপাদন অব্যাহত রাখবে।

অনুষ্ঠানে খুলনা চেম্বারের সহসভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু, বসুন্ধরা বিটুমিনের পরামর্শক ও আইইউটির সহকারী অধ্যাপক ড. নাজমুস সাকিব, বসুন্ধরা বিটুমিনের অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (সেলস) সুকান্ত কুমার সাহা প্রমুখ বক্তব্য দেন। এসময় সড়ক ও জনপথ বিভাগ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, খুলনা সিটি করপোরেশন, ঠিকাদার ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলীসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগের শতাধিক প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।



আরও খবর
কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে

বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২

মিশ্র প্রবণতায় চলছে পুঁজিবাজারের লেনদেন

বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২