আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

স্বাভাবিক হয়েছে ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টানা ছয় দিন বন্ধ থাকার পর সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠা-নামা শুরু হয়েছে।  রানওয়ে থেকে পানি নেমে যাওয়ায় আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) থেকে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইট চলাচল শুরু হয়েছে।

প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম এই প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, আজ সকাল থেকে আমাদের বিমানবন্দরে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সব রুটেই বিমান উড্ডয়ন ও অবতরণ শুরু হয়েছে। সকাল থেকে অভ্যন্তরীণ সব সরকারি ও বেসরকারি বিমানের পাশাপাশি দুপুর ১২.৩৫ মিনিটে যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারের উদ্দেশে সিলেট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেছে বাংলাদেশ বিমান।

এর আগে গত শুক্রবার (১৮ জুন) বিমানবন্দরের রানওয়েতে বন্যার পানি প্রবেশ করায় সব ধরনের ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

বিমানের সিলেট স্টেশন ম্যানেজার আবদুস সাত্তার জানান, সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা থেকে আসা একটি ফ্লাইট অবতরণ করে এবং ৯টা ৪৫ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এ ছাড়া অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট শিডিউল অনুযায়ী চালু হয়েছে।

এর আগে বিমানবন্দরের রানওয়েতে বন্যার পানি ওঠায় গত ১৭ জুন বন্দরের ফ্লাইট কার্যক্রম তিন দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। তিন দিন পর গত ২০ জুন ওসমানী বিমানবন্দর পরিদর্শন করেন বিমান প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী।


আরও খবর



এক ফোনে ভোটের ফল পাল্টানোকে গুজব বললেন সিইসি

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ জুন ২০22 | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক ফোনে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের (কুসিক) ভোটের ফল পাল্টানোর বক্তব্যকে গুজব বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

সোমবার (২০ জুন) বেলা ১১টায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরবর্তী সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সিইসি বলেন, একটা ফোনে ফল পাল্টে গেলো এটা- একজন বলার পর হাজার মানুষ তাই বললো। আসলে আমাদের দেশের কালচার এটা, এটা একটা গুজব। মেশিনের ফল অথবা হাতের রেজাল্ট আমরা ওয়েবসাইটে তুলে দিয়েছি। এমন ঘটনা ঘটেনি।

কুসিক নির্বাচনে ভোটগ্রহণের পর ফল ঘোষণার সময় সৃষ্টি হট্টগোল, শেষ মুহূর্তে ফল দিতে দেরি হওয়ার বিতর্ক এবং ফল পাল্টে দেওয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরা রাত ৮টা পর্যন্ত নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছি। কোনো বিপর্যয় দেখিনি। সিসিটিভির মাধ্যমে কিন্তু সার্বিক পরিস্থিতি দেখছিলাম। একটা ফোনে ফল পাল্টে গেলো এমন একটি কথা শুনা যাচ্ছে। শেষ মুহূর্তে একটা ফোনে বক্তব্য পাল্টে যায়, এটা একেবারে অসম্ভব। একটা বা দুইটা টেলিফোন আমি নিজেও করেছিলাম। রিটার্নিং অফিসার আমাকে খুব বিপর্যস্ত অবস্থায় ফোন করে বললেন, আমি বিপদে পড়েছি। আমি সেখানে প্রচণ্ড শব্দ শুনতে পাচ্ছিলাম। ভাবলাম তাকে মারধর করা হচ্ছে।

এরপর আমি ডিসি-এসপিকে ফোন করেছিলাম। তারা তখন জানালেন তাৎক্ষনিক বিষয়টি দেখছেন। এরপর রিটার্নিং অফিসারকে বললাম সমস্যা হবে না। পরে তিনি জানালেন পুলিশ এসেছে মানুষ সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। উচ্ছৃঙ্খল ঘটনা মাত্র ১৫ মিনিট ছিল। কোনোভাবেই ২০ মিনিটের বেশি দীর্ঘ হয়নি। এরপর রিটার্নিং অফিসার স্বাচ্ছন্দ্যে ফল ঘোষণা করলেন সেটা আমরা দেখেছি।

এর আগে, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের (কুসিক) নির্বাচন নিয়ে পরাজিত প্রার্থী সাক্কু ইলেকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অভিযোগ এবং নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে জনমনে বিভ্রান্তি’ এড়াতে রবিবার(১৯ জুন) ব্যাখ্যা দিয়েছে ইসি।


আরও খবর



৪৪তম বিসিএস প্রিলির ফল প্রকাশ

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ জুন 20২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। আজ বুধবার বিকেলে ফল প্রকাশ করা হয়। এতে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১৫ হাজার ৭০৮ জন প্রার্থী।

এর আগে, আজ দুপুরে পিএসসির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে পিএসসির ওয়েবসাইটে ফল প্রকাশ করা হয়।

গত ২৭মে ৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ শহরের ২৫০টি কেন্দ্রে একযোগে নেওয়া হয় এ পরীক্ষা। এই বিসিএসে আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ৩ লাখ ৫০ হাজার ৭১৬ জন। তবে পরীক্ষাকেন্দ্রে ৭৩ হাজার ৯৫৬ জন অনুপস্থিত ছিলেন। পরীক্ষায় অংশ নেন ২ লাখ ৭৬ হাজার ৭৬০ জন প্রার্থী। অংশগ্রহণের হার ছিল ৭৮ দশমিক ৯১ শতাংশ।

গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর ৪৪তম বিসিএসের আবেদন শুরু হয়। আবেদনের শেষ সময়সীমা ছিল গত ২ মার্চ। এই বিসিএসে বিভিন্ন ক্যাডারে ১ হাজার ৭১০ জন কর্মকর্তা নেওয়ার কথা রয়েছে। এর মধ্যে প্রশাসন ক্যাডারে ২৫০ জন, পুলিশ ক্যাডারে ৫০, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ১০, আনসার ক্যাডারে ১৪, নিরীক্ষা ও হিসাবে ৩০, করে ১১, সমবায়ে ৮, রেলওয়ে পরিবহন ও বাণিজ্যিকে ৭, তথ্যে ১০, ডাকে ২৩, বাণিজ্যে ৬, পরিবার পরিকল্পনায় ২৭, খাদ্যে ৩, টেকনিক্যাল ক্যাডারে ৪৮৫ ও শিক্ষা ক্যাডারে ৭৭৬ জন নিয়োগ পাবেন।

৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির ফল দেখতে এই ক্লিক করুন।


আরও খবর



রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে ভারতের মধ্যস্থতা চায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত:রবিবার ২৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৯ মে ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৫ বছর আগে সেনা অভিযানের মুখে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা দিন দিন হতাশ হয়ে পড়ছে এবং চরমপন্থী জঙ্গি রাজনীতির দিকে ঝুঁকছে। ফলে, হুমকির মুখে পড়ছে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার সার্বিক আর্থসামাজিক পরিস্থিতি ও নিরাপত্তা। এ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ও উপমহাদেশের সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থেই বিপদগ্রস্ত এই জনগোষ্ঠীকে তাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে পাঠানো দিন দিন জরুরি হয়ে উঠছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন। কিন্তু মিয়ানমারের তরফ থেকে এ ইস্যুতে এখন পর্যন্ত তেমন কোনো পদক্ষেপ না আসায় দেশটির সঙ্গে এই বিষয়ে মধ্যস্থতা করতে ভারতের সহযোগিতা চেয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বাংলাদেশ ও ভারত উভয় দেশের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া নদ-নদী বিষয়ক দ্বিপাক্ষিক জোট জয়েন্ট কনসালটেটিভ কমিশনের (জেসিসি) সম্মেলনে যোগ দিতে ভারতের আসামে গেছেন একে আবুল মোমেন। রাজধানী গুয়াহাটিতে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি দেওয়া এক এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত ১১ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রিত অবস্থায় আছে। তাদের কোনো ভবিষ্যত নেই; তারা রাষ্ট্রহীন এবং হতাশ। নিজেদের এমন অবস্থানের কারণেই জঙ্গিবাদী রাজনীতির প্রতি এক প্রকার ঝোঁক তাদের মধ্যে তৈরি হচ্ছে এবং সেদিকে ঝুঁকেও পড়ছে তারা। সন্ত্রাসবাদীদের কোনো দেশ নেই। এ কারণে আমাদের ভয় আশ্রিত এই রোহিঙ্গাদের মধ্যে যদি চরমপন্থী ধর্মীয় রাজনীতির উত্থান ঘটে, তাহলে ভয়াবহ অনিশ্চয়তা তৈরি হবে; এতে যে কেবল বাংলাদেশ ও মিয়ানমার ক্ষতিগ্রস্ত হবে এমন নয়, বরং ভারতসহ যেসব প্রতিবেশী দেশ রয়েছে, তাদের জন্যও হুমকি তৈরি হবে। এ কারণে নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা রক্ষার স্বার্থেই রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে পাঠানোর ব্যাপারে মিয়ানমারের প্রতিবেশী দেশগুলোকে উদ্যোগ নেওয়া উচিত। ভারত জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য। এছাড়া মিয়ানমারের বন্ধু রাষ্ট্র হওয়ার সুবাদে দেশটির ওপর প্রভাব বিস্তার করার ক্ষমতাও রয়েছে ভারতের। এ কারণে ভারত ও আসিয়ান দেশগুলোর কাছে আমাদের আন্তরিক চাওয়া হলো এ ব্যাপারে যেন মিয়ানমারের ওপর চাপ দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্তবর্তী দেশ মিয়ানমারের ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যাগুরু জনগোষ্ঠী হলো বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী বর্মীরা। তবে দেশটিতে বর্মীরা ছাড়াও শতাধিক নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী রয়েছে। এসব জনগোষ্ঠীরই একটি হলো রোহিঙ্গা। কিছু হিন্দু ধর্মাবলম্বী থাকলেও এই জনগোষ্ঠীর অধিকাংশই মুসলিম। দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় এবং বাংলাদেশের সীমান্তের সঙ্গে লাগোয়া প্রদেশ রাখাইনে বাস করেন এই জনগোষ্ঠীর অধিকাংশ মানুষ। একই সঙ্গে বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জনগোষ্ঠীর মধ্যেও অন্যতম রোহিঙ্গা। মিয়ানমারের সংবিধানে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর নাম উল্লেখ থাকলেও রোহিঙ্গাদের নাম নেই। রাষ্ট্র থেকে কোনো স্বীকৃতি ও সুবিধাও পায় না তারা।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনের রাথেডং শহরে বেশ কয়েকটি পুলিশ স্টেশন, সীমান্ত ফাঁড়ি ও সামরিক ঘাঁটিতে একযোগে হামলা চালায় জঙ্গিবাদী সশস্ত্র রোহিঙ্গাগোষ্ঠী রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা)। এতে অন্তত ৭০ জন নিহত হন। তারপরই রাখাইনজুড়ে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। গ্রামের পর গ্রাম লুটপাট করে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়, হত্যা-ধর্ষণের শিকার হন হাজার হাজার রোহিঙ্গা নারী পুরুষ। সেনাদের অভিযান থেকে বাঁচতে রাখাইনের বিভিন্ন এলাকা থেকে স্রোতের মতো আসতে থাকে রোহিঙ্গারা। বর্তমানে টেকনাফের কুতুপালং শিবিরে ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা রয়েছে। গত ৫ বছরে বাংলদেশ বেশ কয়েকবার রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর জন্য আন্তর্জাতিক বিশ্বের সহযোগিতা চেয়েছে, কিন্তু তাতে পরিস্থিতির তেমন অগ্রগতি হয়নি।

তবে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বিশ্বাস, যদি আন্তরিকভাবে চেষ্টা করা যায় তহালে নিশ্চিতভাবেই বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদেরকে তাদের নিজ দেশে পাঠানো সম্ভব। এনডিটিভিকে এ সম্পর্কে তিনি বলেন, একবার কোনো জাতিগোষ্ঠীকে বিতাড়িত করার পর ফের গ্রহণ করার ইতিহাস রয়েছে মিয়ানমারের। তাই আমাদের বিশ্বাস, যদি প্রতিবেশি বিভিন্ন রাষ্ট্র থেকে চাপ আসে, সেক্ষেত্রে মিয়ানমার যথাযথ নিরাপত্তা ও সম্মানসহ তাদের নিজেদের দেশের মানুষকে ফিরিয়ে নেবে।

বাংলদেশ ও ভারতের মধ্যে চলমান জেসিসি বৈঠকটি নানা কারণেই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, আগামী জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে ভারত সফরে যাবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই সফরে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক যেসব বিষয় নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে, সেসবের ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে বর্তমান জেসিসি বৈঠক। আগামী ৩০ মে থেকে শুরু হবে এ বৈঠক।


আরও খবর



এজলাসে ঢুকে কিশোরী বললো, আমি ধর্ষণের শিকার বিচার চাই

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হাইকোর্টে আজ এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষণের শিকার এক ভুক্তভোগী কিশোরী সরাসরি হাইকোর্টের একটি বেঞ্চের সামনে দাঁড়িয়ে বিচার চেয়ে বলেছেন, আমরা গরিব, টাকা পয়সা নাই, আমি ধর্ষণের শিকার। বুধবার (১৫ জুন) সকালে বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি সাহেদ নুর উদ্দীনের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এ ঘটনা ঘটে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের মামলায় খালাস পাওয়া বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে বিচার চেয়েছেন ভুক্তভোগী ওই কিশোরী।

সূত্র জানায়, প্রতিদিনের মতো আজ সকালেও হাইকোর্ট বেঞ্চটিতে বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়। এসময় এক কিশোরী তার মাকে সঙ্গে নিয়ে সরাসরি এজলাসের ডায়াসের সামনে এসে দাঁড়ায়। এসময় সে আদালতকে বলে, আমরা গরিব। টাকা পয়সা নাই। আমি ধর্ষণের শিকার, আমি বিচার চাই।

তখন আদালত কিশোরীর কাছে জানতে চান, কী হয়েছে? আপনি কে? আপনার সঙ্গে উনি কে?

তখন ওই কিশোরী হাইকোর্টকে নিজের নাম বলে। এবং বলে উনি আমার মা। আমি ধর্ষণের শিকার। একজন বিজিবি সদস্য আমাকে ধর্ষণ করেছে। কিন্তু নীলফামারীর আদালত তাকে খালাস দিয়ে দিয়েছে। আমরা গরিব। আমাদের টাকা পয়সা নেই। আপনার কাছে আমি এর সঠিক বিচার চাই।


আরও খবর



দিনাজপুরে গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কায় নিহত ২, আহত ১৬

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের দিনাজপুর সদরের ব্যাংককালী এলাকায় ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের সামনের চাকা ফেঁটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুইজন নিহত এবং ১৬ জন আহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

আহতদের উদ্ধার করে দিনাজপুরের এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

এসময় পার্শ্ববর্তী বাজারের লোকজন, হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ১৬ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

দশ মাইল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ এন এম মাসুদ দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি স্থানীয়দের উদ্ধৃতি করে জানান, দ্রুতগামী বাসটির সামনের চাকা ফেঁটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এসময় মহাসড়কের পাশে গাছে সজোরে ধাক্কা মারলে বাসের সম্মুখভাগ দুমড়ে মুচড়ে যায়। বাসের ১৮ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। কোতয়ালী থানার ওসি মোজাফফর হোসেন দুজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর