আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
শিরোনাম

সূর্যের উদ্দেশে উড়াল দিলো আদিত্য-এল ১

প্রকাশিত:শনিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২3 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২3 | অনলাইন সংস্করণ
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক

Image

সূর্যের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছে ভারতের নভোযান আদিত্য-এল ১। শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য শ্রীহরিকোটার লঞ্চপ্যাড থেকে সূর্যের কক্ষপথের উদ্দেশে যাত্রা করে আদিত্য-এল ১। আশা করা হচ্ছে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১২৫ দিনের মধ্যে বা চার মাসের মধ্যে সূর্যের কক্ষপথে পৌঁছাবে আদিত্য-এল ১।

ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো জানিয়েছে, উৎক্ষেপণের পর প্রায় ১৬ দিন পৃথিবীর চারিদিকে ঘুরবে আদিত্য-এল ১। এই ১৬ দিনে সূর্যের দিকে পাড়ি দেয়ার জন্য পাঁচটি ধাপে গতিবেগ বাড়াবে আদিত্য। এরপর ১১০ দিন সূর্যের অভিমুখে যাত্রা করে একটি নির্দিষ্ট দূরত্বে দাঁড়িয়ে নক্ষত্রটিকে পর্যবেক্ষণ করবে সেটি। এই ল্যাগরেঞ্জ পয়েন্টে সূর্য এবং পৃথিবীর আকর্ষণ এবং বিকর্ষণ বল একসঙ্গে ক্রিয়াশীল। ফলে এই অঞ্চলে পৌঁছে কৃত্রিম উপগ্রহ স্থির থাকতে পারে। মহাকাশের পরিবেশ, আবহাওয়া, তার উপর সূর্যের কী প্রভাব পড়ে, সেসব জানার চেষ্টা করবে আদিত্য-এল ১।

সংস্কৃত ভাষায় সূর্যের আরেক নাম আদিত্য। সূর্যের কক্ষপথের উদ্দেশে পাঠানো নভোযানটির নাম তাই সূর্যের নামেই রাখা হয়েছে। আর, এল ১ আসলে লেগ্রেঞ্জ পয়েন্ট ১-এর সংক্ষিপ্ত রূপ। পৃথিবী থেকে রওনা হয়ে ১৫ লাখ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করার পর যেখানে গিয়ে থামবে আদিত্য, সেই এলাকাটিকেই সূর্যের লেগ্রেঞ্জ পয়েন্ট বলে উল্লেখ করেছে ইসরো।

 ইউরোপের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির সংজ্ঞানুযায়ী, লেগ্রেঞ্জ পয়েন্ট হলো মহাবিশ্বের এমন একটি এলাকা, যেখানে দুই বৃহৎ বস্তু, যেমন: সূর্য ও পৃথিবীর মহাকর্ষীয় শক্তি পরস্পরকে বিকর্ষণ করে। আদিত্য-এল ১ যদি তার নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে, তাহলে পৃথিবী যে গতিতে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করেসেই একই গতিতে সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে সক্ষম হবে আদিত্য-এল ১।

আদিত্য-এল ১ ভারত থেকে সূর্যের দিকে পাঠানো প্রথম মহাকাশযান। ইসরো জানিয়েছে, মহাকাশযানটিকে সূর্য ও পৃথিবীর মধ্যকার একটি হ্যালো কক্ষপথের এল-১ পয়েন্টে স্থাপন করা হবে। সংস্থাটির দাবি, এই পয়েন্ট থেকে সূর্য নিয়ে গবেষণা করা তুলনামূলক সহজ।

বলা হচ্ছে, অভিযান সফল হলে সৌরঝড়ের পূর্বাভাস দিতে সক্ষম হবে ইসরো। পাশাপাশি সূর্যের আবহাওয়া পরিবর্তনের প্রভাবও বুঝতে এ অভিযান সহায়ক হবে। ২০২০ সালেও সূর্যে অভিযান পরিচালনার উদ্যোগ নিয়েছিল ইসরো। কিন্তু সে সময় করোনা মহামারির কারণে তা স্থগিত হয়ে যায়।


আরও খবর



ব্যাংক লেনদেনের নতুন সময়সূচি নির্ধারণ

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

সরকার ঘোষিত অফিস সময়সূচির সঙ্গে মিলিয়ে ব্যাংক লেনদেনের নতুন সময়সূচি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ঈদুল আজহার পর ১৯ জুন থেকে নতুন সময়সূচি অনুযায়ী ব্যাংকের লেনদেন ও অফিস কার্যক্রম চলবে।

রোববার (৯ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ সম্পর্কিত নির্দেশনা জারি করে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের পাঠানো হয়েছে।

নির্দেশনা অনুসারে, ১৯ জুন থেকে ব্যাংকগুলোর লেনদেন শুরু হবে সকাল ১০টায়, চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। আর ব্যাংকগুলোর অফিস খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

এখন ব্যাংক লেনদেন হয় সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এবং অফিস চলে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। সেই হিসেবে ব্যাংক লেনদেন আধা ঘণ্টা ও অফিস এক ঘণ্টা বেশি সময় চলবে।

ব্যাংকে যথারীতি শুক্রবার ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকবে।


আরও খবর



যোগী-মোদি ম্যাজিক ফিকে, বড় চমক ইন্ডিয়া জোটের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলে অন্যতম নির্ধারক হিসেবে কাজ করে থাকে উত্তরপ্রদেশ। দেশটির একটি কথা প্রবাদের মতো প্রচলিত রয়েছে। বলা হয়, উত্তরপ্রদেশ যার দিল্লি তার। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ভোট গণনার শুরু থেকেই বিজেপি এবং ইন্ডিয়া জোটের টানটান লড়াই চোখ পড়েছে। ৮০ আসনের উত্তরপ্রদেশে ৪৩ আসনে এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইন্ডিয়া জোটের অন্যতম শরিক অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি (এসপি)। আর বিজেপি এগিয়ে রয়েছে ৩৬টি আসনে। এছাড়া কংগ্রেস ছয়টি ও রাষ্ট্রীয় লোকদল দুটি আসনে এগিয়ে আছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে সারা ভারতের নজর ভোটগণনার দিকে। এখন পর্যন্ত যা ট্রেন্ড, তাতে দেখা গেছে, নরেন্দ্র মোদির বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএকে দূরন্ত চ্যালেঞ্জ দিয়েছে ইন্ডিয়া জোট। তবে সবচেয়ে বেশি চমক দেখা গেছে উত্তরপ্রদেশে। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ৮০ আসনের মধ্যে ৬২টি আসনই পেয়েছিল এনডিএ। কিন্তু এবারের অঙ্ক একেবারে বিপরীতে। দেখা যাচ্ছে, এখনও পর্যন্ত ইন্ডিয়া জোট এগিয়ে আছে ৪৩ আসনে। এনডিএ সেখানে এগিয়ে রয়েছে ৩৬টিতে। অন্যান্য ১।

যদিও এই ফলাফল প্রাথমিক। এখন পর্যন্ত যে চিত্র দেখা যাচ্ছে তাতে সত্যিই বড় চমক রয়েছে। শেষ পর্যন্ত এই ট্রেন্ড বজায় থাকলে তা যে বিজেপির জন্য বড় ধাক্কা হতে চলেছে তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। কিন্তু কেন? ভোটব্যাঙ্কে এমন পরিবর্তনের পেছনে ফ্যাক্টর কী?

মনে করা হচ্ছে, এর পেছনে যে কয়েকটি ফ্যাক্টর রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম জাতিগত আদমশুমারি ইস্যু। রাহুল গান্ধী বার বার দাবি করেছেন, তার জোট ক্ষমতায় এলে জাতিগত আদমশুমারি হবে। অন্যদিকে সমাজবাদী পার্টির অখিলেশ যাদব জোর দিয়েছেন পিডিএর উপরে। অর্থাৎ পিছড়া দলিত অল্পসংখ্যক। এর আগে যাদব ও মুসলিমদেরই প্রার্থী করতেন অখিলেশ। কিন্তু এবার দলিতদেরও প্রার্থী করেছে তার দল।

অন্যদিকে বিজেপি বরাবরের মতোই কট্টর হিন্দুত্ববাদী ইস্যুতে জোর দিয়েছে। কিন্তু কট্টর হিন্দুত্ববাদীতে গাজর নষ্ট হয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি একের পর এক কেলেঙ্কারি ফাঁস, বেকারত্বের মতো বিষয়গুলো উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ম্যাজিককে ফিকে করেছে। শেষপর্যন্ত হিসেব কী দাঁড়াবে তা সময় বলবে। কিন্তু এবারের লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল যে চমকপ্রদ হতে যাচ্ছে তা বলাই যায়।

উত্তরপ্রদেশের হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে রাহুল গান্ধী রায়বরেলি ও অখিলেশ যাদব কনৌজ কেন্দ্রে এগিয়ে রয়েছেন। অন্যদিকে মোদি বারাণসী কেন্দ্রে প্রাথমিকভাবে পিছিয়ে পড়েছিলেন কংগ্রেসের আজয় রাইয়ের কাছে। তবে শেষ পর্যন্ত ভোটে এগিয়ে গেছেন মোদি। জিতছেন রাজনাথ সিংও। অন্যদিকে আমেথিতে পিছিয়ে রয়েছেন স্মৃতি ইরানি।


আরও খবর



ঝিনাইদহে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

Image

ধর্ষণ মামলায় ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হরিশংকরপুর ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মিজানুর রহমান এই রায় দেন।

মামলায় আরেক আসামি নজরুল ইসলামের দোষ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস প্রদান করা হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ সদর উপজেলার নরহরিদ্রা গ্রামের খন্দকার আমিরুজ্জামানের ছেলে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, ২০২২ সালের ১৫ এপ্রিল বিচারের জন্য ভুক্তভোগী নারী চেয়ারম্যান ফরিদের কাছে গেলে তার গ্রামের বাড়িতে নিয়ে নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে ধর্ষণ করেন। পরে ওই নারী ১৯ এপ্রিল ঝিনাইদহ সদর থানায় বাদী হয়ে চেয়ারম্যান ও তার গাড়িচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন নেন চেয়ারম্যান ফরিদ। পরবর্তীতে ডিএনএ টেস্টে ফরিদের সম্পৃক্ততা ধরা পড়ে। দীর্ঘ বিচারক প্রক্রিয়া শেষে মঙ্গলবার ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট বজলুর রহমান জানান, বিজ্ঞ আদালত দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে সাক্ষ্য প্রমাণ যাচাই-বাছাই করে ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন।

এই মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট নেকবার।

ভুক্তভোগী নারী গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, বিচার চাইতে গিয়ে ফরিদ চেয়ারম্যানের লালসার শিকার হন তিনি। সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে চেয়ারম্যান নরহরিদ্রা গ্রামে তার নিজ বাড়িতে ডেকে নেন। গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে তাকে দুইতলার একটি কক্ষে নিয়ে যান এবং নেশা জাতীয় কিছু সেবন করিয়ে ফরিদ ধর্ষণ করেন।


আরও খবর



নিজের নিরাপত্তারক্ষীর কাছেই হেনস্তার শিকার অভিনেত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ভারতের জনপ্রিয় টিভি সিরিয়ালের তালিকায় আছে বালিকা বধূ। হিন্দি সিরিয়ালটিতে শিশুশিল্পী হিসেবে দেখা মিলেছিল অভিকা গোরের। প্রথম কাজ দিয়েই দর্শকের মনে স্থান করে নিয়েছিল অভিকা। এখন নায়িকা হিসেবে সিনেমা, সিরিয়াল আর ওয়েব সিরিজে অভিনয় করছেন তিনি। সম্প্রতি হেনস্তার হওয়ার বিষয়ে কথা বলেছেন তিনি।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছেন নিজের নিরাপত্তারক্ষীর হাতেই হেনস্তার শিকার হতে হয়েছিল এ অভিনেত্রীকে। কাজের জন্যই কাজাখস্তান গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। সেখানে এই ঘটনা ঘটে।