আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

স্ত্রীকে না পেয়ে রড দিয়ে পিটিয়ে শ্বশুরের হাত ভাঙল জামাই

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মেহেরপুরের গাংনীতে স্ত্রীকে না পেয়ে রড দিয়ে পিটিয়ে শ্বশুরের হাত ভেঙেছেন জামাই। বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গাংনী উপজেলার রামনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত শ্বশুর মোহন আলী গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মোহন আলী বলেন, আমার মেয়ে শাপলা খাতুনকে সহড়াতলা গরীবপুর গ্রামের ইনামুল হকের ছেলে রাজন প্রেমের সম্পর্কের জেরে চার বছর আগে জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে তার উপর নির্যাতন করে আসছে রাজন। বর্তমানে তাদের একটি ছেলে হয়েছে। নির্যাতন সইতে না পেরে মেয়ে আমার বাড়িতে চলে এসেছে। বুধবার দুপুরে রাজন আমার বাড়িতে এসে অকথ্য ভাষায় গালাগাল শুরু করে। এ সময় তাকে নিষেধ করলে রড দিয়ে আমার উপর হামলা করে।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আদিলা আজহার বলেন, মোহন আলীর বাম হাত ভেঙে গিয়েছে। তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।


আরও খবর
সিলেট নগরী থেকে গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিবাহিত পুরুষের সাথে অবৈধ সম্পর্ক, মুকুট হারালেন মিস জাপান

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে জন্ম নিয়েছিলেন তিনি, তবুও প্রথা ভেঙে করা হয়েছিল মিস জাপান। সেই মুকুট দুই সপ্তাহও মাথায় রাখতে পারলেন না তিনি। স্থানীয় একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকায় এক বিবাহিত ব্যক্তির সাথে তার সম্পর্কের খবর ফাঁস হওয়ার পরই তিনি পদত্যাগ করলেন।

ক্যারোলিনা শিনো (২৬) দুই সপ্তাহ আগে মিস জাপানের মুকুট জিতেছিলেন। যদিও তখন তার নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল।

তবে অনেকেই তিনি বিজয়ী হওয়াকে জাতি নিরপেক্ষতার জায়গা থেকে স্বাগত জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, তিনি রক্ষণশীল জাপানি সৌন্দর্য ধারণার প্রথা ভেঙেছেন।

স্থানীয় ম্যাগাজিনটি তার সম্পর্কের বিষয়টি প্রকাশ্যে আনে। শাকুনা বুনশুন নামের ম্যাগাজিনটির প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, শিনো এক বিবাহিত পুরুষের সাথে সম্পর্কে রয়েছেন। যদিও এ বিষয়ে ওই ব্যক্তি কোনো প্রকাশ্য মন্তব্য করেননি।

সোমবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) সুন্দরী প্রতিযোগীতার আয়োজকরা জানান, শিনো স্বীকার করেছেন ওই ব্যক্তি বিবাহিত ও তার পরিবার আছে। আয়োজকদের ভুল তথ্য দেয়ার জন্য ক্ষমা চান শিনো। সেই সাথে মুকুটও ত্যাগ করেন। মিস জাপান অ্যাসোসিয়েশন বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ক্ষমা প্রার্থনা বার্তায় শিনো বলেছেন, ‌আমি সত্যিকারার্থেই এমন বড় ভুলের জন্য দুঃখিত। আমি তাদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছি যারা আমাকে সমর্থন করেছেন।

ফলত এ বছরের জন্য মিস জাপান পদটি ফাঁকাই থাকবে। কয়েকজন রানার আপ থাকার পরও কাউকে এই মুকুট পরানো হবে না।


আরও খবর



সড়ক দুর্ঘটনায় অভিনেত্রী আঁচলসহ ৯ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বলিউডে শুরু হয়েছে একের পর এক খারাপ খবর। গজল সম্রাট পঙ্কজ উদাসের মৃত্যুর রেশ কাটিয়ে উঠার আগেই আবারও দুর্ঘটনার খবর এলো। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ওয়েব সিরিজ পঞ্চায়েত ২’-এ অভিনয় করা জনপ্রিয় অভিনেত্রী আঁচল তিওয়ারি। ভারতের বিহারের কাইমুরে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে।

আঁচল ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রিতেও বেশ সক্রিয় ছিলেন। এই দুর্ঘটনায় ভোজপুরি চলচ্চিত্রের চার উঠতি তারকাসহ মোট নয় জনের মৃত্যু হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে জানা যায়, সংগীতশিল্পী ছোটু পান্ডে পুরো টিম নিয়ে ইউপি যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। কাইমুরে জাতীয় সড়কের এ দুর্ঘটনা এতটাই ভয়ংকর ছিল যে, ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালে পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া যায়নি তাদের। আর এ ঘটনায় ভোজপুরি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি শোক প্রকাশ করেছে।

পুলিশ দাবি করেছে, বিহারের কাইমুর জেলায় একটি এসইউভি ও মোটরসাইকেলের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে অভিনেত্রী আঁচল তিওয়ারি ছাড়াও ভোজপুরি ইন্ডাস্ট্রির সংগীতশিল্পী বিমলেশ পান্ডে ওরফে ছোটু পান্ডে, অভিনেত্রী সিমরান শ্রীবাস্তব, প্রকাশ রাম, দধিবল সিং, অনু পান্ডে, শশী পান্ডে, সত্য প্রকাশ মিশ্র এবং বাগিশ পান্ডের মৃত্যু হয়েছে। এরা সবাই ভোজপুরি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বিখ্যাত মুখ ছিলেন।

মোহনিয়া থানা এলাকার দেবকালী গ্রামের কাছে জিটি রোডে ঘটেছে ঘটনাটি। মোহনিয়ার ডিএসপি দিলীপ কুমার জানিয়েছেন, মৃতদের শনাক্ত করা হয়েছে। এদিকে এ ঘাটনায় একঝাঁক তারকার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিহারের মুখমন্ত্রী নীতীশ কুমার।

শোক প্রকাশ করে সোশ্যাল মিডিয়া এক্স হ্যান্ডেলে (সাবেক টুইটার) লিখেছেন, কাইমুর জেলার মোহানিয়া তানায় এলাকায় এনএইচ ২-এ দেবকালীর কাছে ভয়ংকর সড়ক দুর্ঘটনায় শোকাহত। নিহতের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা। আহতদের যথাযথ চিকিৎসার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এ দুর্ঘাটনায় এনএইচ ২-এ দীর্ঘক্ষণ যানজট ছিল। পুলিশ খবর পাওয়ার পরই ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পরে পুলিশের প্রচেষ্টায় রাস্তা স্বাভাবিক হতে থাকে। আর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



আল নাসরের কাছে ছয় গোলে হারল মেসির মায়ামি

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো খেলছেন না তা আগে থেকেই নিশ্চিত ছিল। তাই আল নাসর-ইন্টার মায়ামির এই লড়াই ঘিরে সবার আগ্রহের কেন্দ্রে ছিলেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন তারকা যতক্ষণে মাঠে নামলেন তার আগেই আধা ডজন গোল হজম করে ফেলেছে মায়ামি। ৮৩তম মিনিটে মাঠে নেমে অলৌকিক কিছু করতে পারেননি মেসি।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতিমূলক টুর্নামেন্ট রিয়াদ সিজন কাপের ম্যাচে মায়ামিকে ৬-০ গোলে হারিয়েছে আল নাসর। যেখানে হ্যাটট্রিক করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার আন্দেরসন তালিসকা।

ম্যাচের ১২ মিনিটের মধ্যেই তিন গোল হজম করে মেসির দল। মেসিকে বেঞ্চে রেখে খেলতে নামা মায়ামির জালে প্রথম বল জড়ায় তৃতীয় মিনিটে। পর্তুগিজ মিডফিল্ডার ওতাভিও নাসরকে লিড এনে দেন।

ম্যাচের দশম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন তালিসকা। দুই মিনিট পর আরও একবার মায়ামির জালে বল পাঠায় নাসর। ৩-০ গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় রোনালদোর দল।

বিরতি থেকে ফিরেও ম্যাচে ফিরতে পারেনি মায়ামি। ৫১তম মিনিটে পেনাল্টি পায় নাসর। সেই সুযোগে নিজের দ্বিতীয় ও দলের চতুর্থ গোলটি করেন তালিসকা। ৬৮ মিনিটে মোহাম্মদ মারানও গোল করলে ব্যবধান হয়ে যায় ৫-০। আর ৭৩ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তালিসকা।

এরপর চেষ্টা করেও আর গোল পায়নি কেউই। ৮৩তম মিনিটে মেসি নামেন মাঠে। মাঠে ফিরেও দলকে খাদের কিনারা থেকে তুলতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত আধা ডজন গোল হজম করেই মাঠ ছাড়তে হয়েছে মেসির মায়ামিকে।


আরও খবর
বাঁচা-মরার লড়াইয়ে মুখোমুখি রংপুর-বরিশাল

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বিসিবিতে নতুন দায়িত্ব পেলেন নান্নু

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




পরিবার কল্যাণের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

ইউনিয়ন পর্যায়ে মা ও শিশুর প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা সেবাদানকারী পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে ১ হাজার ৮০টি শূন্য পদে নিয়োগের ফলাফল প্রকাশে বাধা নেই বলেও জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। পৃথক দুটি রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন।

একইসঙ্গে ইউনিয়ন পর্যায়ে মা ও শিশুর প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা-দানকারী পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের বৈধতা প্রশ্নে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। রুলে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার পর নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করা পরিপত্র কেন বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, জানতে চাওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য সচিব, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ চার বিবাদীকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ মিয়া, অ্যাডভোকেট সৈয়দা নাসরিন।

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর ২০২০ সালের ১০ মার্চ পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকার ১ হাজার ৮০টি শূন্য পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়। বিজ্ঞপ্তির তিন বছর পর ২০২৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরে ১১ মে পরীক্ষার ফল ঘোষণা করে অধিদপ্তর। আবেদনকারীদের মধ্য থেকে ৭ হাজার ৬২১ জন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরে ১৫মে থকে ১৮ জুন পর্যন্ত মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু মৌখিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ না করে গত ১৪ জানুয়ারি নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর। নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলের ক্ষেত্রে অনিয়মের অভিযোগ তোলা হয়।

আইনজীবী বলেন, ২০২০ সালে করোনা ভাইরাস মহামারী শুরু হওয়ার আগে থেকে সারা দেশে পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকার ২ হাজার ৬৭৬টি পদ শূন্য ছিল। এর মধ্যে ২০২০ সালে ১ হাজার ৮০টি শূন্য পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয় সরকার। সাড়ে তিন বছর পর এর লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা হয়। মৌখিক পরীক্ষার পর ফল প্রকাশ না করে অনিয়মের অভিযোগ তুলে লিখিত পরীক্ষাটি বাতিল করা হয়।

এদিকে ইতোমধ্যে মৌখিক পরীক্ষা পর্যন্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সরকার ১৫ কোটি টাকার মত ব্যয় করেছে। আবার লিখিত পরীক্ষা হলে আবারও ব্যয় হবে। আর সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে নিয়োগ পেতে পেতে আরও তিন বছর লেগে যেতে পারে নিয়োগ প্রত্যাশীদের। ফলে সংক্ষুব্ধ নিয়োগ প্রত্যাশীদের পরীক্ষা বাতিলের পরিপত্র চ্যালেঞ্জ করে রিট করেছেন।


আরও খবর
ডিআইজি মিজানের ১৪ বছরের সাজা বহাল

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




দেশে এলএনজি সরবরাহে কাতার এনার্জির সঙ্গে মার্কিন কোম্পানির চুক্তি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

বাংলাদেশে বছরে ১০ লাখ টন তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহের জন্য কাতার এনার্জির সঙ্গে চুক্তি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এক্সিলারেট এনার্জির। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) চুক্তির বিষয়টি এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করেছে কাতার।

চুক্তি অনুযায়ী, ২০২৬ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ১৫ বছর মেয়াদে এক্সিলারেট কাতারের প্রতিষ্ঠানটি থেকে এলএনজি কিনে বাংলাদেশকে সরবরাহ করবে। বিষয়টি নিয়ে এক্সিলারেটের সঙ্গে পেট্রোবাংলার চুক্তি রয়েছে।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, কাতারের নর্থ ফিল্ড সম্প্রসারণ প্রকল্পে ইউরোপীয় ও এশীয় অংশীদারদের সঙ্গে কাতার এনার্জির করা সিরিজ চুক্তির মধ্যে সর্বশেষ চুক্তি এটি। ২০২৭ সালের মধ্যে কাতারের এলএনজি উৎপাদন বর্তমানের বছরে ৭৭ মিলিয়ন টন (এমটিপিএ) থেকে ১২৬ এমটিপিএতে উন্নীত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। কাতার বাংলাদেশেরও সবচেয়ে বড় এলএনজি সরবরাহকারী।

কাতার এনার্জির প্রধান নির্বাহী সাদ আল-কাবি এক বিবৃতিতে বলেন, এই নতুন চুক্তি এক্সিলারেটের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আরও জোরদারের পাশাপাশি বাংলাদেশের জ্বালানি চাহিদা এবং বৃহত্তর অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথে অগ্রযাত্রাকে সমর্থন করবে।

এছাড়া, এক্সিলারেট এনার্জি ২০২৬ ও ২০২৭ সালে ৮ লাখ ৫০ হাজার এমটিপিএ এবং ২০২৮ থেকে ২০৪০ সালের মধ্যে ১ এমটিপিএ এলএনজি কিনবে। এটি বাংলাদেশের ভাসমান স্টোরেজ এবং রিগ্যাসিফিকেশন ইউনিটে পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছে কাতার এনার্জি।


আরও খবর
কোম্পানির রিটার্ন জমার সময় বাড়ল দুই মাস

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪