আজঃ বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

সৌদি থেকে দেশে ফিরলেন সেনাপ্রধান

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ মে ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সৌদি আরব সফর শেষে শনিবার (২৭ মে) দেশে ফিরেছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। শনিবার দিবাগত রাতে এ তথ্য জানিয়েছে আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।

আইএসপিআর জানায়, এই সফরকালে সেনাবাহিনী প্রধান রয়াল সৌদি ল্যান্ড ফোর্সেস কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফাদ বিন আব্দুল্লাহ আল-মোতাইর, রয়াল সৌদি আর্মড ফোর্সেসের চিফ অব জেনারেল স্টাফ এবং ঊর্ধ্বতন সামরিক ও অসামরিক ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাতকালে তারা দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে প্রশিক্ষণ এবং দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও তিনি সৌদি আরবের রিয়াদে আর্মড ফোর্সেস স্টাফ কলেজ পরিদর্শন এবং পবিত্র ওমরাহ পালন করেন। 

আইএসপিআর জানিয়েছে, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল শফিউদ্দিন আহমেদের এই সফরের মধ্য দিয়ে সৌদি আরব ও বাংলাদেশের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো জোরদার হবে বলে আশা করা যায়।


আরও খবর
ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




বৃহস্পতিবারও সারাদেশে ‘বাংলা ব্লকেড’

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সরকারি চাকরিতে কোটাব্যবস্থা সংস্কারের দাবিতে আগামীকাল বৃহস্পতিবারও সারাদেশে বাংলা ব্লকেড কর্মসূচি পালন করবেন শিক্ষার্থীরা। এদিন বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে এই কর্মসূচি শুরু হবে। এবারও সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করা হবে।

বুধবার (১০ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শাহবাগ মোড় থেকে অবরোধ তুলে নেওয়ার আগে কর্মসূচি ঘোষণা করেন বৈষম্য বিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক আসিফ মাহমুদ।

আসিফ মাহমুদ বলেন, আগামীকাল বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে বাংলা ব্লকেড কর্মসূচি পালিত হবে। সারা দেশে সড়ক ও রেলপথে আমাদের শিক্ষার্থীরা ব্লকেড কর্মসূচি পালন করবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে জড়ো হবেন এবং সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে এসে শাহবাগ ব্লক করবেন।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালে রাজপথে আন্দোলনের মাধ্যমে আমরা কোটাহীন মেধাভিত্তিক নিয়োগের পরিপত্র অর্জন করেছি। কিন্তু গত ৫ জুন আমাদের সেই পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। তারপর থেকে আমরা আমাদের অধিকার ফিরে পেতে আমরা আন্দোলন করছি। আমাদের কর্মসূচিকে অনেকে জনদুর্ভোগের কারণ বলে উল্লেখ করেছে। কিন্তু আমাদের এই আন্দোলন সবার অধিকার আদায়ের আন্দোলন।


আরও খবর
ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




সিএমপির ৩২তম কমিশনার হিসেবে যোগদান করলেন মো: সাইফুল ইসলাম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) ৩২তম কমিশনার হিসেবে যোগদান করলেন উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক মোঃ সাইফুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করেন। এসময় সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ নবনিযুক্ত সিএমপি কমিশনারকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নেন। পরে দামপাড়াস্থ সিএমপি সদরদপ্তরে পুলিশের একটি চৌকশ দল সশস্ত্র সালাম প্রদান করেন।

সিএমপির দামপাড়াস্থ পুলিশ লাইন্সের জনক চত্বরে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) আ স ম মাহাতাব উদ্দিন; অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস্) আবদুল মান্নান মিয়া; অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মোঃ মাসুদ আহাম্মদ; উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) মোঃ আব্দুল ওয়ারীশ এবং সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বিদায়ী সিএমপির কমিশনার অতিরিক্ত আইজিপি কৃষ্ণ পদ রায়কে ২০২২ সালের ৩০ জুন সিএমপি কমিশনার হিসেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ পুলিশ-১ শাখার এক প্রজ্ঞাপনে পদায়ন করা হয়েছিল। তবে পদোন্নতি হওয়ায় গত বুধবার (৩ জুলাই) সিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে বিদায়ী পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায়কে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানানো হয়।

উল্লেখ্য, নবনিযুক্ত সিএমপি কমিশনার মো: সাইফুল ইসলাম পাবনার একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান। তিনি ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।  তিনি ২০০১ সালে ২০তম বিসিএস মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। সিএমপিতে যোগদানের পূর্বে তিনি এমআরটি পুলিশের ডিআইজি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার ও চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এছাড়াও তিনি বরিশাল ও বরগুনা জেলার পুলিশ সুপার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে ২০১২ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিনি উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।


আরও খবর



১৯-২০ জুলাইয়ের চাকরির পরীক্ষা স্থগিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলনের কারণে ১৯ ও ২০ জুলাইয়ের একাধিক চাকরির পরীক্ষা অনিবার্য কারণে স্থগিত করা হয়েছে। কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের শুক্রবার ও শনিবার অনুষ্ঠেয় পরীক্ষাসমূহ স্থগিত করা হয়েছে। পরীক্ষার সময়সূচি পরে এসএমএস এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হবে।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগের শুক্রবারের অনুষ্ঠেয় ২টি পদের লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। সাঁটমুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর এবং কম্পিউটার অপারেটর পদে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। দুটি পদের লিখিত পরীক্ষার তারিখ পরে টেলিটকের এসএমএসের মাধ্যমে এবং স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হবে।

বাংলাদেশ পুলিশের স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চ ঢাকার শুক্রবারের অনুষ্ঠেয় কম্পিউটার অপারেটর, সাঁটলিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর এবং দপ্তরি পদে লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরে এসব পদের লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি জানানো হবে।

বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের ৬ ক্যাটাগরিতে শুক্রবার অনুষ্ঠেয় লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। সহকারী বাণিজ্যিক কর্মকর্তাহিসাবরক্ষক এবং সহকারী প্রকৌশলী, হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা, সহকারী প্রশিক্ষণ কর্মকর্তাউপসহকারী প্রকৌশলী পদে লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এসব লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি পরে এসএমএস এবং করপোরেশনের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হবে।

বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন সচিবালয়ের (বিজেএসসি) সহকারী জজ নিয়োগের সপ্তদশ বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিসের লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। শুক্রবার অনুষ্ঠেয় লিখিত পরীক্ষার জন্য পরে তারিখ ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি পরে কমিশনের ওয়েবসাইটে জানানো হবে।

এ ছাড়া বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ‌সহকারী জেনারেল ম্যানেজার পদের বৃহস্পতিবারের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচি পরে বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। একই সঙ্গে শ্রম অধিদপ্তরের বৃহস্পতিবারের মৌখিক পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এ পরীক্ষা ২৮ জুলাই ঢাকার বিজয়নগরের ১৯৬ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম সরণির শ্রম ভবনের শ্রম অধিদপ্তরে অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর
ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




নিজের গোপন অভ্যাসের কথা ফাঁস করলেন কাজল

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বলিউডের অন্যতম অভিনেত্রী কাজল দেবগন। হিন্দি সিনেমার অন্যতম সফল অভিনেত্রী হিসেবে স্বীকৃত কাজল। তিনি ছয়টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার সহ অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন। কাজল বরাবরই ভীষণ মুডি। নিজের ইচ্ছেমতো কাজ করতেই পছন্দ করেন এ অভিনেত্রী। লোক দেখানো কাজ তিনি করেন না তা অতীতে বহুবার বলেছেন।

কখনও প্রকাশ্যে এসেছে তার খামখেয়ালি আচরণের ছবি, কখনও আবার প্রকাশ্যে সমালোচনার ঝড় তুলেছে তার ব্যবহার। তবে কাজল যে কেবল প্রকাশ্যে পাপারাজ্জিদের সঙ্গেই এমন আচরণ করেন এমনটা নয়। তিনি ব্যক্তি জীবনেও ঠিক এমনই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে ভক্তদের উদ্দেশে এমনই বার্তা দিয়েছিলেন তিনি। কাজল একবার এক ফ্যাশন শো-এ করণ জোহরের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মুখ ভেংচিয়ে অদ্ভুত আচরণ করে বসেন। যা নিয়ে রীতিমতো আলোচনা-সমালোচনা হয়।

তবে কাজল এবার নিজের এই স্বভাবের রহস্য নিজেই স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক পোস্ট তিনি লিখেছেন, আমার দুটি সত্তা রয়েছে, হয় আমি কথা বলতেই থাকি, বলতেই থাকি, আবার কখনও আমি রাখছি না বলেই ফোনটা কেটে দিয়ে থাকি।

কাজলের এই পোস্ট দেখে খানিক স্বস্তিতে ভক্তরা। যারা যারা কাজলকে ট্রল করতে ব্যস্ত ছিলেন গত কয়েকদিনে, তাদের কাছে একটি বিষয় স্পষ্ট হয়ে গেল যে কাজল যা করেন নিজের স্বভাবদোষেই করেন। কোনও কিছু ইচ্ছাকৃত নয়।


আরও খবর



শত কোটি টাকার সম্পদের মালিক মতিউর কন্যা ইপ্সিতা

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ছাগলকাণ্ডে একে একে বের হতে থাকে মতিউরের দুর্নীতির মাধ্যমে উপার্জন করা কোটি কোটি টাকার সম্পদ। শুধু মতিউর না তার দুই স্ত্রী এবং সন্তানদের নামে বেনামে থাকা সম্পদের তথ্যও প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে। মতিউরের প্রথম স্ত্রী লায়লা কানিজ লাকীর মেয়ে ফারজানা রহমান ইপ্সিতা সম্পদের তথ্য এবার ফাঁস হয়েছে।

মাত্র ৩২ বছর বয়স। নিজেকে মেকআপ আর্টিস্ট হিসাবে পরিচয় দেন এই তরুণী। পড়াশোনা শেষে এই পেশায় যোগ দিয়ে কতই বা আয় করতে পারেন। কিন্তু বিস্ময়কর হলেও সত্যি, এই অল্প বয়সেই বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় সাততলা বাড়িসহ শতকোটি টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন। কানাডায় নিজস্ব ফ্লাটে বসবাস করেন ইপ্সিতা। কানাডায় তার বাড়ি-গাড়িসহ বিলাসী জীবনের ছবি ঘিরে নেট দুনিয়ায় হইচই চলছে। তবে কানাডার চেয়ে দেশেই তার বেশি সম্পদ রয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে একজন মেকআপ আর্টিস্ট এত টাকার সম্পদের মালিক হলেন কীভাবে।

ইপ্সিতার সম্পদ নিয়ে একাধিক সূত্রে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য সামনে এসেছে, ২০২৩ সালে মতিউর কন্যার প্রকাশিত আয়কর ফাইলেই ৪২ কোটি টাকার সম্পদ দেখানো হয়েছে। সোনালী সিকিউরিটিজে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা, সিনাজি ট্রেডিং লিমিটেডে ৫ লাখ টাকা, গ্লোবাল সুজ কোম্পানিতে ৪ কোটি ৯৪ লাখ ৫৫ হাজার, ওয়ান্ডার পার্কে ১০ লাখ ও মামুন অ্যাগ্রো প্রোডাক্টস কোম্পানিতে ৪৫ লাখ ৪৫ হাজার ৬৯০ টাকা বিনিয়োগ রয়েছে ইপ্সিতার।

আয়কর নথিতে আরও জানা গেছে, বিভিন্ন স্থানে ঋণ ও ধার বাবদ ইপ্সিতার সম্পদ আছে ২২ কোটি টাকার। নরসিংদীতে হেবামূলে দেড় একর জমি আছে তার। রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার বিলাসবহুল এলাকার সাততলা বাড়ি মালিক তিনি। বাড়িটির মূল্য অন্তত ৫০ কোটি হলেও আয়কর নথিতে তা ৫ কোটি দেখানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, মতিউর রহমান তার অবৈধ পথে আয় করা কোটি কোটি টাকা বিভিন্ন কৌশলে বৈধ করার অপচেষ্টাও চালিয়েছেন। ইপ্সিতার নামে থাকা বিপুল সম্পদ তারই নমুনা মাত্র।

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি)-এর নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান গণমাধ্যমে বলেন, বয়স ও পেশার সঙ্গে ইপ্সিতার সম্পদের পরিমাণ স্পষ্টতই অস্বাভাবিক। বাবার প্রভাবে তার আয়কর ফাইল রাজস্ব বিভাগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়নি। বাবার প্রভাবে তিনি আটকাননি। দেশে যারা কর ফাঁকি দিতে চান তারা পার পেয়ে যান, আর স্বচ্ছতার সঙ্গে কর দিতে চাওয়া মানুষেরা নানামুখী হয়রানির শিকার হন। এখন দুদকের উচিত হবে মতিউর রহমান, তার দুই পক্ষের স্ত্রী-সন্তান, ভাই-বোন ও আত্মীয়স্বজনের সম্পদের খোঁজ নেওয়া।


আরও খবর