আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

সোনারগাঁয়ে আজকের দর্পণ পত্রিকার ৯ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
সোনারগাঁও (নারায়নগঞ্জ) প্রতিনিধি

Image

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে আজকের দর্পণ পত্রিকার নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে সামাজিক সংগঠন যোলোআনা কার্যালয়ে অনারম্ভ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়।

আজকের দর্পণ পত্রিকার সোনারগাঁ প্রতিনিধি হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সাংসদ ও সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল কায়সার।

সাংবাদিক শাহাদাত হোসেন রতনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, বারদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লায়ন মাহবুবুর রহমান বাবুল, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামসুল আলম সামসু, সোনারগাঁ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি অসিত কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক আল আমিন তুষার। এসম উপস্থিত ছিলেন, সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মোস্তফা কামাল নিলু, সাংবাদিক হাসান মাহমুদ রিপন, মাহবুবুল ইসলাম সুমন, মশিউর রহমান, মোক্তার হোসেনসহ সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আবদুল্লাহ আল কায়সার বলেন, বস্তুনিষ্ট প্রতিবেদনের মাধ্যমে এগিয়ে যাবে আজকের দর্পণ পত্রিকা। নির্বাচন এগিয়ে এলেই সোনারগাঁয়ে প্রার্থী সংখ্যা বেড়ে যায়৷ সারা বছর তাদের কোন খোঁজ থাকে না। রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে তাদের কোন অবদান নেই। নির্বাচন এসেছে এখন তারা বড় রাজনৈতিক নেতা। এ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের অনুরোধ করবো সঠিক তথ্য তুলে ধরুন। তাহলেই সোনারগাঁবাসী আসল সেবক পাবেন।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




জন্মদিনে স্বর্ণের কেক কাটলেন উর্বশী

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

জনপ্রিয় অভিনেত্রী উর্বশী রাউতেলা ৩০ বছরে পা রাখলেন। রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) জন্মদিনে ২৪ ক্যারেট খাঁটি সোনার কেক কাটলেন তিনি। এ সময় তার পাশে ছিলেন জনপ্রিয় ব়্যাপার হানি সিং।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা ইন্দো-এশিয়ান নিউজ সার্ভিস (আইএএনএস) জানিয়েছে, বর্তমানে হানি সিংয়ের সঙ্গে একটি মিজজিক ভিডিও অ্যালবামে কাজ করছেন উর্বশী। চলছে মিজজিক ভিডিও অ্যালবামের শুটিং।

২০১৫ সালে মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন উত্তরাখণ্ডের মেয়ে উর্বশী রাউতেলা। ২০১৩ সালে ‌সিং সাহাব দ্য গ্রেট ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন তিনি। এরপর সনম রে, হেট স্টোরি ৪, ভার্জিন ভানুপ্রিয়ার মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন।


আরও খবর
ফের বিয়ে করছেন অনুপম রায়, পাত্রী কে?

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সৌদি সরকারের সতর্কতা

অনুমতি ছাড়া পবিত্র হজ করলে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

এ বছর পর্যটক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রয়োজনীয় অনুমতি ছাড়া পবিত্র হজ পালন না করার বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে সৌদি আরব সরকার। হজ পালন প্রক্রিয়ার সুষ্ঠু বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে এবং এ-সংক্রান্ত আইনকানুন ভাঙার সম্ভাব্য ঘটনা এড়াতে এখন থেকে কঠোর সাজার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। খবর গালফ নিউজের।

সৌদি আরবের জেনারেল ডাইরেক্টরেট অব পাসপোর্ট-এর সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ হজ-সংক্রান্ত আইনকানুন লঙ্ঘনের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ওই সাজা কার্যকর করবে।

সৌদি হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় জোর দিয়ে বলেছে, প্রয়োজনীয় অনুমতি ছাড়া পবিত্র হজ পালন বৈধ নয় এবং এমন কাজ করলে একজন ব্যক্তিকে ৫০ হাজার রিয়াল (প্রতি রিয়াল ৩০ টাকা হিসাবে ১৫ লাখ টাকা) জরিমানা গুনতে হবে। এ ছাড়া প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছাড়া কেউ হজযাত্রীদের পরিবহন করলে, তাকেও ১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, এমন বিধিভঙ্গের সঙ্গে কোনো বিদেশি জড়িত থাকলে, তাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং পরে সৌদি আরব থেকে বের করে দেওয়া হবে। এর পরের ১০ বছর ওই ব্যক্তি আর সৌদি আরব ঢুকতে পারবেন না।


আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ইজতেমার বাসে মুসল্লি সেজে মাদক পাচারের চেষ্টা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোঃ মাসুদ রানা, কুড়িগ্রাম

Image

কুড়িগ্রামে বিশ্ব ইজতেমার উদ্দেশে মুসুল্লিদের নিয়ে ছেড়ে যাওয়া একটি রিজার্ভ বাসে মাদক পাচারের সময় গাঁজাসহ আঙুর হোসেন নামের এক মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাগেশ্বরী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুপ কুমার সরকার। এর আগে গতকাল বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার আঙুর গতকাল রাতে নাগেশ্বরী বাসস্ট্যান্ড থেকে বিশ্ব ইজতেমার রিজার্ভ বাসে মুসল্লির ছদ্মবেশে মাদক নিয়ে ঢাকা যাচ্ছিলেন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে নাগেশ্বরী থানা পুলিশের একটি দল ওই বাসের মুসল্লিদের সহায়তায় সাড়ে ১০ কেজি গাঁজাসহ তাকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে।

কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো: রুহুল আমীন বলেন, গ্রেপ্তারকৃত মাদক কারবারি ছদ্মবেশে বিশ্ব ইজতেমার বাস ব্যবহার করে মাদক পরিবহনের চেষ্টা করেছিল। কিন্তু মুসল্লিদের সহায়তায় নাগেশ্বরী থানা পুলিশের একটি টিমের অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




রামের জীবনী পড়ানো হবে ভারতের মাদ্রাসায়

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ভারতের উত্তরাখণ্ডের কিছু মাদ্রাসায় আগামী মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া নতুন শিক্ষাবর্ষে শ্রী রামের জীবনী পড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। উত্তরাখণ্ড ওয়াকফ বোর্ড সোমবার (২৯ জানুয়ারি) এ কথা জানিয়েছে।

ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারপারসন মুহাম্মদ শাদাব শামস জানান, আমাদের অধীনে থাকা মাদ্রাসাগুলো আধুনিক করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে মাদ্রাসায় ন্যাশনাল কাউন্সিল অব এডুকেশনাল রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিংয়ের কারিকুলাম চালু করা হচ্ছে। পড়ানো হবে শ্রী রামের গল্প ও তার গুরুত্ব।

প্রাথমিকভাবে উত্তরাখণ্ডের দেরাদুন, হরিদ্বার, উধম সিং নগর এবং নৈনিতালের একটি করে মোট চারটি মাদ্রাসায় রামের জীবনী পড়ানো হবে। পরবর্তীতে অন্য মাদ্রাসায়ও পড়ানো হবে।

২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত উত্তরাখণ্ড ওয়াকফ বোর্ড রাজ্যটির শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত হয়। রাজ্যটির মোট ৪১৫টি মাদ্রাসার মধ্যে ওয়াকফ বোর্ডের অধীনে রয়েছে ১১৭টি।

মুহাম্মদ শাদাব শামস উত্তরাখণ্ডের বিজেপির সাবেক মুখপাত্র। ২০২২ সালে তিনি ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন। দায়িত্ব গ্রহণ করে ওয়াকফ বোর্ডের মাদ্রাসাগুলোয় আরবি ও ইংরেজির পাশাপাশি সংস্কৃতও পড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন শামস।

শামসের সিদ্ধান্ত মতে, এসব মাদ্রাসায় সকাল সাড়ে ৬টা থেকে সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ধর্মীয় শিক্ষা দেওয়া হবে। পরবর্তীতে সাধারণ কারিকুলাম পড়ানো হবে।

মাদ্রাসায় শ্রী রামের জীবনী পড়ানোর বিষয়ে শামস বলেন, অযোধ্যায় শ্রী রামের মন্দির সম্প্রতি জাঁকজমকভাবে উদ্বোধ করা হয়েছে। যেভাবে তা করা হয়েছে তাতে করে আমাদের মনে হয়েছে চারটি আধুনিক মাদ্রাসায় শ্রী রাম শিক্ষা দেওয়া উচিত। মার্চ থেকে এসব কারিকুলাম শুরু হবে।

বিজেপির সাবেক এ মুখপাত্র বলেন, আল্লামা ইকবাল পর্যন্ত রামকে ভারতের নেতা বলে উল্লেখ করেছেন। তাই ভারতের মুসলমানদের শ্রী রামকে অনুসরণ করা আমরা কর্বত্য মনে করি। কারণ আমরা আরব নই। আমরা ধর্মান্তরিত মুসলমান। মুসলমান হওয়ার পর আমাদের প্রার্থনার পদ্ধতি বদলে গেছে। তাই বলে আমরা আমাদের পূর্বপুরুষদের পরিবর্তন করতে পারি না।

নিউজ ট্যাগ: শ্রী রাম

আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ: ৫ মাদ্রাসাশিক্ষক জেলহাজতে

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলায় দ্বিতীয় শ্রেণির এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তারকৃত পাঁচ শিক্ষককে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) আসামিদের আদালতে হাজির করা হলে মুকসুদপুর আমলি আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোমানা রোজী তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন শিক্ষক মো. ইসমাইল হোসাইন, মো. আওলাদ ওরফে আসাদুজ্জামান (৪৭), মাছুম বিল্লাহ (৩৫), মো. আল আমিন (২৫) ও আমেনা বেগম (৩০)। মামলার আসামিদের মধ্যে আরেক শিক্ষক মিজানুর রহমান মিজু পলাতক রয়েছেন।

জানা গেছে, গত ৫ ফেব্রুয়ারি মুকসুদপুর উপজেলার একটি মহিলা কওমি মাদ্রাসায় ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেন শিক্ষক মো. ইসমাইল হোসাইন। এরপর অসুস্থ অবস্থায় বিনা চিকিৎসায় ওই শিক্ষার্থীকে গোপনে একটি কক্ষে রেখে দেন। ৭ ফেব্রুয়ারি পরিবারের লোকজন বিষয়টি জানার পর মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে ওই শিক্ষার্থী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বৃহস্পতিবার ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে মাদ্রাসার ছয় শিক্ষককে আসামি করে মুকসুদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর রাতেই অভিযান চালিয়ে মাদ্রাসা শিক্ষক আমেনা বেগমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর আগে, গত বুধবার রাতে আটক চার শিক্ষককে মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

মুকসুদপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, মামলার পর রাতে অভিযান চালিয়ে আরেক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়। মামলায় একজন পলাতক আছে।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪