আজঃ রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

সোমালিয়ার রাজধানীতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, হতাহত ২৮

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৫৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৫ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২৩ জন। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) ভোরে পূর্ব আফ্রিকার দেশটির রাজধানীতে ভয়াবহ এই বিস্ফোরণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটে বলে কর্মকর্তা ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বার্তাসংস্থাটি বলছে, বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থল থেকে গোলাগুলির শব্দ শোনা যায় এবং ধোঁয়ার কুণ্ডলি উঠতে দেখা যায়।

সোমালিয়ার আমিন অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের পরিচালক আব্দিকাদির আব্দিরহমান রয়টার্সকে জানান, বিস্ফোরণের পর এখন পর্যন্ত ৫ জন নিহত এবং আরও ২৩ জন আহত হয়েছেন বলে আমরা জানতে পেরেছি।

এদিকে জঙ্গিগোষ্ঠী আল-শাবাব এই হামলা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন গোষ্ঠীটির সামরিক অভিযান বিষয়ক শাখার মুখপাত্র আব্দিয়াসিস আবু মুসাব। রয়টার্সকে তিনি জানান, রাজধানী মোগাদিসুতে জাতিসংঘের একটি গাড়িবহরকে লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়।

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুর প্রাণকেন্দ্র কে৪ জংশনে হওয়া এই বিস্ফোরণের মাত্রা ও তীব্রতা এতোটাই শক্তিশালী ছিল যে সেখান থেকে কিছুটা দূরে অবস্থিত মাকাসার নাম স্থানের দুটি স্কুলের দেওয়াল ভেঙে যায়। এছাড়া বেশ কিছু গাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সোমালিয়ার সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার লক্ষ্যে এক দশকের বেশি সময় ধরে দেশটিতে লড়াই করছে জঙ্গিগোষ্ঠী আল-কায়েদার অনুসারি আল-শাবাব। সোমালিয়ায় ইসলামি শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চায় এই জঙ্গিগোষ্ঠী।

আল-শাবাবের সদস্যরা প্রায়ই দেশটির সামরিক ঘাঁটি, হোটেল ও ব্যস্ত সড়কে বেসামরিক নাগরিক এবং সামরিক স্থাপনা লক্ষ্য করে বোমা ও বন্দুক হামলা চালিয়ে আসছে।


আরও খবর
করোনায় আরও ৭ হাজারের বেশি মৃত্যু

শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১




ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবে ৭৫ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লিবিয়া উপকূল থেকে ইতালির উদ্দেশে যাত্রাকরা নৌকা-ডুবে ৭৫ অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে আরও ১৫ জনকে। শনিবার (২০ নভেম্বর) এক বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এমন তথ্য দিয়েছে। তবে মৃতদের মধ্যে বাংলাদেশি কেউ আছে কি না; সে তথ্য জানাতে পারেনি আইওএম।

এতে বলা হয়, গত সপ্তাহের শেষদিকে লিবীয় উপকূলে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইতালিতে অনুপ্রবেশের সময় সাগরে নৌকা-ডুবে এই প্রাণহানি ঘটেছে। যাদের উদ্ধার করা হয়েছে, তাদেরকে লিবিয়ার জুওয়ারা বন্দরে নেওয়া হয়েছে। সাগরের মৎস্যজীবীরা তাদের উদ্ধার করেছেন।

শনিবার ভূমধ্যসাগর থেকে কয়েক ডজন শিশুসহ ৪২০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে ইতালির কোস্টগার্ড। এক বিবৃতিতে দেশটির উপকূলরক্ষীরা বলছেন, সিসিলির দক্ষিণাঞ্চলের ছোট্ট দ্বীপ লাম্পাডুসায় মোটরবোটে ৭০ জনকে নিরাপদে আনা হয়েছে।

 


আরও খবর
করোনায় আরও ৭ হাজারের বেশি মৃত্যু

শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১




নাঈমকে চাপা দেওয়া গাড়ির মূল চালক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির চাপায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত গাড়ির মূল চালক হারুন মিয়া ওরফে কাইল্লা হারুনকে (৩৭) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব সদর দপ্তরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে এ ঘটনায় সহকারী চালক রাসেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জানা গেছে, ঘটনার সময় গাড়িটি রাসেল খান চালালেও মূল চালক ছিলেন হারুন।

উল্লেখ্য, রাজধানীর গুলিস্তান গোলচত্বরে হল মার্কেটের সামনে ২৪ নভেম্বর বেলা ১১টায় ডিএসসিসি ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নাঈম হাসান (১৭) নামে নটর ডেম কলেজের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি কলেজের মানবিক শাখার দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। ওই ঘটনার পর থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ করে দুর্ঘটনায় জড়িত প্রকৃত আসামির বিচারের দাবি জানিয়ে আসছেন শিক্ষার্থীরা।

নিউজ ট্যাগ: ডিএসসিসি

আরও খবর



টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রাম টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। শুক্রবার সকালে টস জিতে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক পাকিস্তানকে ফিল্ডিংয়ের আমন্ত্রণ জানান।

তামিম, সাকিব, মাহমুদউল্লাহ, তাসকিনের মতো নির্ভরযোগ্য চার খেলোয়াড় দলে নেই। সিনিয়রদের অনুপস্থিতিতে তারুণ্যনির্ভর একটি দল নিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ শুক্রবার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্ট খেলতে নামছে বাংলাদেশ। এই সিরিজকে চ্যালেঞ্জ হিসাবেই মানছেন টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক।

টি ২০ বিশ্বকাপে ভরাডুবি ও এরপর ঘরের মাঠে পাকিস্তানের সঙ্গে সিরিজ হারের হতাশা কাটিয়ে চট্টগ্রাম টেস্ট জিতে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনতে চান মুমিনুলরা। পাকিস্তানের বিপক্ষে জিততে হলে ভালো বোলিং এবং সেই সঙ্গে ভালো ব্যাটিং করতে হবে বলে জানালেন টাইগার অধিনায়ক।

চট্টগ্রামের মাঠ ব্যাটিং সহায়ক হতে পারে। তাই ব্যাটিং দিয়েই মূলত পাকিস্তানিদের ঘায়েল করতে চান তিনি। বোলারদের ওপরও রয়েছে আত্মবিশ্বাস। বৃহস্পতিবার ম্যাচ-পূর্ব ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে এমনটাই জানালেন বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক।


আরও খবর



প্রবাসী আয় দেড় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মহামারি করোনার মধ্যেও উল্লম্ফন থাকা প্রবাসী আয় কমছে টানা ছয় মাস ধরে। নভেম্বরে প্রবাসীরা যে পরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন তা গত দেড় বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন। বুধবার (১ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত প্রতিবেদনে তথ্য বলছে, সদ্য সমাপ্ত নভেম্বর মাসে ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রবাসী বাংলাদেশিরা দেশে ১৫৫ কোটি ৩৭ লাখ (১.৫৫ বিলিয়ন) মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। প্রবাসী আয়ের এ অঙ্ক গত বছরের নভেম্বরের চেয়ে ২৫ শতাংশ বা ৫২ কোটি ৫০ লাখ টাকা কম। গত বছরের নভেম্বরের রেমিট্যান্স এসেছিল ২০৭ কোটি ৮৭ লাখ ডলার। শুধু তাই নয়, নভেম্বরের রেমিট্যান্সের এ পরিমাণ গত ১৮ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে ২০২০ সালের মে মাসের দেশে সর্বনিম্ন ১৫০ কোটি ডলার রেমিট্যান্স আসে।

অর্থনীতিবিদরা  বলছেন, মহামারির বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ার পর অবৈধ চ্যানেলগুলোতে (হুন্ডি) ফের অর্থ লেনদেন বেড়েছে। এছাড়া মহামারিতে যে হারে প্রবাসীরা চাকরি হারিয়েছে সেভাবে বিদেশে নতুন শ্রমশক্তি নিয়োগ হয়নি। এসব কারণে প্রবাসীদের পাঠানো আয় কমছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছরে প্রথম পাঁচ মাসে (জুলাই-নভেম্বর) দেশে রেমিট্যান্স আসে ৮৬০ কোটি ৮৮ লাখ ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৭৩ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা)। যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ২২৮ কোটি ৫২ লাখ বা প্রায় ২১ শতাংশ কম। ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রথম পাঁচ মাসে রেমিট্যান্স আসে ১ হাজার ৮৯ কোটি ৪১ লাখ ডলার। দেশীয় মুদ্রায় যার অংক ছিল ৯২ হাজার ৬০০ কোটি টাকা।

২০২০-২১ অর্থবছরের পুরো সময়ে রেমিট্যান্সের উল্লম্ফন ছিল। ওই অর্থবছরে অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে ২ হাজার ৪৭৮ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠান প্রবাসীরা, যা তার আগের অর্থবছরের চেয়ে ৩৬ দশমিক ১০ শতাংশ বেশি ছিল। গত অর্থবছরের ১২ মাসের মধ্যে সাত মাসেই ২০০ কোটি ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে দেশে।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত ছয় মাস ধরে ধারাবাহিকভাবে রেমিট্যান্স কমছে। চলতি বছরের অক্টোবর মাসে দেশে ১৬৪ কোটি ৬৯ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল। সেপ্টেম্বরে এসেছিল ১৭২ কোটি ৬৭ লাখ ডলার, আগস্টে রেমিট্যান্স আসে ১৮১ কোটি ডলার। যা তার আগের মাস জুলাইয়ের চেয়ে ৬ কোটি ১৪ লাখ ডলার কম। চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে দেশে রেমিট্যান্স আসে ১৮৭ কোটি ১৪ লাখ ডলার, যা তার আগের মাস জুনের চেয়ে ৬ কোটি ৯৩ লাখ ডলার কম। জুনে প্রবাসীরা পাঠিয়েছিলেন ১৯৪ কোটি ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, নভেম্বরে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৩০ কোটি ৯৪ লাখ ডলার। বিশেষায়িত দুটি  ব্যাংকের মধ্যে একটিতে এসেছে ৩ কোটি ডলার রেমিট্যান্স। এছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১২০ কোটি ৬৫ লাখ ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ৭৪ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছে।

বরাবরের মতোই বেসরকারি ইসলামী ব্যাংকের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স এসেছে। নভেম্বরে ব্যাংকটির মাধ্যমে প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন ৩৮ কোটি ২৬ লাখ মার্কিন ডলার। এছাড়া ডাচ বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ১৮ কোটি ৯৬ লাখ ডলার। অগ্রণী ব্যাংকের মাধ্যমে ১২ কোটি ৬৯ লাখ ডলার, সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে ৯ কোটি ৮০ লাখ ডলার এবং ব্যাংক এশিয়ার মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৬ কোটি ৯৮ ডলার।


আরও খবর
আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




শারীরিক অবস্থার অবনতি, আবারও আইসিইউতে রওশন এরশাদ

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক রওশন এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে আবারও আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে। শনিবার (২৭ নভেম্বর) থাইল্যান্ডে অবস্থানরত ছেলে সাদ এরশাদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, অক্সিজেন সেচুরেশন কমে যাওয়ার কারণে গত ২৫ নভেম্বর তাকে কেবিন থেকে দ্বিতীয় দফায় আইসিইউতে নেওয়া হয়। উনার কফ জমে গিয়েছিল। তবে আগের মতোই আছে অবস্থা। খুব বেশি যে সিরিয়াস তা নয়। কিন্তু আইসিইউ মানেই তো ভয়ের ব্যাপার।

গত ৫ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টা ২৫ মিনিটে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে তাকে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে নেয়া হয়।গত ১৪ আগস্ট থেকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন রওশন এরশাদ।

রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্ত্রী। তিনি ময়মনসিংহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এবং গত দুই মেয়াদে বিরোধীদলীয় নেতা। এরশাদের মৃত্যুর পর ছেলে রাহগির আল মাহি সাদ উপনির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ রাষ্ট্রপতি থাকাকালে রওশন এরশাদ সমাজ কল্যাণ ও নারী-শিশুর অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য সচেষ্ট ছিলেন। তিনি 'বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা সংস্থা'-এর প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন। ১৯৭৫ সালে তিনি 'সেনা পরিবার কল্যাণ সমিতি' প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট নিযুক্ত হন। তিনি ১৯৮৪ এবং ১৯৮৫ সালে হজ পালন করেন।


নিউজ ট্যাগ: রওশন এরশাদ

আরও খবর