আজঃ শনিবার ২১ মে ২০২২
শিরোনাম

সংবাদে আজকের বাংলাদেশ | ০১ ডিসেম্বর ২০২০ | দর্পণ টেলিভিশিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ ডিসেম্বর ২০২০ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৩১২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

সংবাদে আজকের বাংলাদেশ 

নিউজ ট্যাগ: দর্পণ

আরও খবর



এক বছরে ৩১৮ দিনই লাইভ খেলা সম্প্রচারে ছিল টি স্পোর্টস

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের ক্রীড়াপ্রেমী মানুষের বড় আস্থা এখন দেশের প্রথম ও একমাত্র স্পোর্টস চ্যানেল টি স্পোর্টস। ২০২০ সালের নভেম্বরে আনুষ্ঠানিভাবে স্বপ্নযাত্রা শুরুর পর ২২ এপ্রিল ২০২২ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ হাজার ঘণ্টা লাইভ ইভেন্ট সম্প্রচার করেছে বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের কনিষ্ঠ সদস্য টি স্পোর্টস।

২০২০ সালে বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল ফ্রেন্ডলি সিরিজে নেপালকে আতিথ্য দেয় বাংলাদেশ। করোনা ভীতি কাটিয়ে সেই প্রথম কোন আন্তর্জাতিক আসর মাঠে গড়ায় বাংলাদেশ, আর টি স্পোর্টসের পর্দায় তা সরাসরি দেখে দেশি-বিদেশি ক্রীড়াপ্রেমীরা। সেই শুরু, এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। ক্রিকেট, ফুটবল থেকে শুরু করে প্রায় সব ক্রীড়া ইভেন্টই সরাসরি সম্প্রচার করছে টি স্পোর্টস।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহযাত্রী হয়ে এ দেশের ফুটবল উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে টি স্পোর্টস। আগামী ৫ বছর বাংলাদেশ ফুটবলের হোস্ট ব্রডকাস্টার টি স্পোর্টস। ফেডারেশন কাপ, স্বাধীনতা কাপ, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের মতো ঘরোয়া আসরের পাশাপাশি বাংলাদেশ দলের সব আন্তর্জাতিক আসরই সরাসরি দেখা যাচ্ছে দেশের প্রথম ও একমাত্র স্পোর্টস চ্যানেলে।

ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপ কোয়ালিফায়ার, এশিয়া কাপ কোয়ালিফায়ার, ফিফা ইন্টারন্যাশনাল ফ্রেন্ডলি, সাফ, এএফসির সব ইভেন্টেরই বাংলাদেশের সম্প্রচার স্বত্ব টি স্পোর্টসের কাছে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লিগের মতো ইন্টারন্যাশনাল সার্কিটের সবচেয়ে দামি আসরের সম্প্রচার স্বত্ব কিনে রীতিমতো হৈ চৈ ফেলে দেয়, দেশের সবচেয়ে বড় শিল্প পরিবার বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন চ্যানেল। ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের ইউরোপ ও এশিয়া অঞ্চলের বাছাই পর্বের ম্যাচগুলো দেখা গেছে টি স্পোর্টসে।

২০২৩ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবির হোস্ট ব্রডকাস্টার টি স্পোর্টস। ২০২১ সালে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের স্বত্ব এককভাবে কিনে নেয় টি স্পোর্টস। পরবর্তীতে ২০২৩ পর্যন্ত জিটিভির সঙ্গে যৌথভাবে বাংলাদেশের সব হোম সিরিজ সম্প্রচারের সিদ্ধান্ত নেয় টি স্পোর্টস।

বাদ যায়নি বাংলাদেশের কোন অ্যাওয়ে সিরিজ। টাইগারদের শ্রীলঙ্কা, নিউজিল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে সফরের সবগুলো ম্যাচই দেখা গেছে এখানে। দুবাই ও ওমানে অনুষ্ঠিত আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি সরাসরি সম্প্রচার করেছে টি স্পোর্টস। আইসিসির পরবর্তী ইভেন্টগুলোও দেখা যাবে এখানে।

বাংলাদেশের পাশাপাশি ইন্ডিয়া, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা হোম বোর্ডের বাংলাদেশ অঞ্চলের ব্রডকাস্ট রাইটস টি স্পোর্টসের কাছে। ইংল্যান্ডের ইন্ডিয়া ট্যুর, ইন্ডিয়ার শ্রীলঙ্কা ট্যুর, সাউথ আফ্রিকার শ্রীলঙ্কা ট্যুর, নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান ট্যুর, ওয়েস্ট ইন্ডিজের শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান ট্যুর, ইন্ডিয়ার সাউথ আফ্রিকা ট্যুরের টেস্ট ওয়ানডে ও টি টোয়েন্টি ম্যাচগুলো সরাসরি সম্প্রচার করেছে দর্শকদের দারুণ আস্থার টি স্পোর্টস।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ ২০২০, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএলের হোস্ট চ্যানেল টি স্পোর্টস। দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের ঐতিহ্যের আসর ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের গত ২ মৌসুমের সুপার লিগের ম্যাচগুলো সম্পূর্ণ নিজস্ব কারিগরি ব্যবস্থাপনায় সম্প্রচার করেছে টি স্পোর্টস। বাদ যায়নি ইন্টারন্যাশনাল কোন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। পাকিস্তান সুপার লিগ-পিএসএল, আবুধাবি টি টেন, লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ, ইংল্যান্ডের দ্য হান্ড্রেডের পাশাপাশি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ-আইপিএল সরাসরি দেখা যাচ্ছে এখানে।

শুধুমাত্র ফুটবল-ক্রিকেটেই সীমাবদ্ধ নেই টি স্পোর্টস। কাবাডি, ব্যাডমিন্টন, টেনিসের মতো ইভেন্টের ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক আসরগুলো সরাসরি সম্প্রচার করছে টি স্পোর্টস। বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল কাবাডির টানা ২ আসর সম্পূর্ণ নিজস্ব কারিগরি ব্যবস্থাপনায় প্রডাকশন ও সম্প্রচার হয়েছে। তৃণমূলের ক্রীড়া উন্নয়নে ভূমিকা রাখার চেষ্টা অব্যাহত শুরু থেকেই। যে কারণে অ্যামেচার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, ব্যাংকার্স চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, ফিজিক্যালি চ্যালেঞ্জড ক্রিকেটের মতো আসরগুলো সরাসরি সম্প্রচার করেছে টি স্পোর্টস।

১৩ নভেম্বর ২০২০ আনুষ্ঠানি সম্প্রচার শুরু থেকে ২২ এপ্রিল ২০২২ পর্যন্ত ৫১৯ দিনে ৩ হাজার ৪শ ১৫ ঘন্টা লাইভ কন্টেন্ট সরাসরি সম্প্রচার করেছে টি স্পোর্টস। মে ২০২১ থেকে এপ্রিল ২০২২ পর্যন্ত ৩৬৫ দিনের মধ্যে ৩১৮ দিনই কোন না কোন ঘরোয়া কিংবা আন্তর্জাতিক খেলা সরাসরি সম্প্রচার করেছে টি স্পোর্টস। আন্তর্জাতিক যেকোন স্পোর্টস চ্যানেলের সঙ্গে তুলনা করলে যেটি কোন অংশে কম না।

তবে, এখানেই থামতে চায় না টি স্পোর্টস। সম্পূর্ণ নিজস্ব কারগরি ব্যবস্থাপনায় ইন্টারন্যাশনাল যেকোন স্পোর্টস ইভেন্ট প্রডাকশনের সক্ষমতা টি স্পোর্টসের আছে। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কারিগরি দিক দিয়ে আরও সমৃদ্ধ হচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন চ্যানেলটি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের জন্য গর্বের প্রতীক হতে চায় টি স্পোর্টস।

ডিজিটাল প্লাটফর্মে দারুণ সমৃদ্ধ টি স্পোর্টস। ইউটিউব চ্যানেলে টি স্পোর্টসের সাবস্ক্রাইবার ২.২৪ মিলিয়নের বেশি। আর ফেসবুক পেজে ফলোয়ার ২ মিলিয়নের বেশি। ডিজিটাল রাইটস থাকা সব ইভেন্টই সরাসরি দেখা যাচ্ছে টি স্পোর্টসের ডিজিটাল প্লাটফর্মে। খুব শিঘ্রিই নিজস্ব অ্যাপ চালু করবে টি স্পোর্টস। পূর্ণাঙ্গ ওয়েবসাইটের কাজ চলছে। ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক সব ক্রীড়া ইভেন্টের তরতাজা সব খবর সবার আগে পাওয়া যাবে টি স্পোর্টসের সাইটে।


আরও খবর



ইউরোপ যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে ৩২ বাংলাদেশিসহ উদ্ধার ৮১

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লিবিয়া থেকে অবৈধভাবে উত্তাল ভূমধ্যসাগর হয়ে ইউরোপে যাওয়ার পথে ৮১ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে তিউনিসিয়া নৌবাহিনী। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে রয়েছে ৩২ বাংলাদেশি। নৌবাহিনী জানায়, তিউনিসিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে ক্ষতিগ্রস্ত নৌকাটিতে তাদের সন্ধান মেলে।

উদ্ধারকৃতদের মধ্যে ৩৮ মিসরীয়, ৩২ বাংলাদেশি, ১০ জন সুদানের এবং একজন মরক্কোর নাগরিক। তাদের বয়স ২০ থেকে ৩৮। তিউনিসিয়ার সীমান্তবর্তী লিবিয়ার আবু কামাশ গ্রাম থেকে রওনা হন। তাদের জাতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ইউরোপে পাচারের জন্য দালালরা লিবিয়া, তিউনিসিয়াকে অন্যতম রুট হিসেবে বিবেচনা করে থাকে। ভূমধ্যসাগরে হয়ে ইউরোপে যাওয়ার পথে প্রায় নৌকা ডুবে শরণার্থী ও অভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। দরিদ্র ও উন্নয়নশীল দেশগুলো থেকেই উন্নত জীবনের আশায় ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করেন অনেকে। গত মাসে ইউরোপে যাওয়ার প্রস্তুতির সময় ৫৪২ জন শরণার্থীকে আটক করে লিবীয় কর্তৃপক্ষ।


আরও খবর



প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেওয়া সেই তরুণী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৮৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিয়ের দাবিতে জামালপুর থেকে বরগুনায় প্রেমিকের বাড়িতে এসে অবস্থান নেওয়া সেই তরুণী শিখা আক্তার মৌকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৩ মে) সকালে বেতাগী থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম।

তিনি জানান, বিয়ের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মাহমুদুল হাসানের ভাড়া বাসায় অবস্থান নেওয়া শিখা আক্তার মৌ নামের ওই তরুণীকে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে, গত মঙ্গলবার (১০ মে) বরগুনা আদালতে প্রেমিক মাহমুদুল হাসানের বাবা মোশাররফ হোসেন খান কথিত বিয়ের দাবিতে তাদের পরিবারকে অবরুদ্ধ করে অবস্থান নেওয়ার অভিযোগ করেন ওই তরুণীর বিরুদ্ধে। ওই দিনই বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন বরগুনার মূখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মুহাম্মদ মাহবুব আলম। একই সঙ্গে একসপ্তাহের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ প্রদান করেন বিচারক।

বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম বলেন, আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে আদালতের নির্দেশ পেয়ে ওই তরুণীকে শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গত ২৯ এপ্রিল বরগুনার বেতাগী উপজেলার চান্দখালিতে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মাহমুদ হাসানের ভাড়া বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থায় নেয় জামালপুরের তরুণী শিখা আক্তার মৌ। ছেলে ও তার বাবা-মা আত্মগোপনে থাকায় স্থানীয়রা ওই বাড়ির তালা ভেঙে একটি রুমে ঢুকিয়ে দেন ওই তরুণীকে। একপর্যায়ে গত বৃহস্পতিবার (৫ মে) রাতে মাহমুদুল হাসানের বাবা মোশাররফ হোসেন ওই বাড়িতে আসেন এবং ওই তরুণীকে পুত্রবধূ বানাতে তার সাবেক স্বামীকে তালাকের কাগজ ও অবিভাবকদের নিয়ে আসার শর্ত দেন। ওই তরুণী শর্ত পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন। অবশেষে ১৪ দিন পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: জামালপুর

আরও খবর



কাল চট্টগ্রামের ৬০ গ্রামে ঈদ

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৫৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কাল সোমবার (০২ মে) চন্দনাইশ শাহ্ছুফী মমতাজিয়া দরবার শরীফ ও সাতকানিয়ার মির্জারখীল দরবার শরীফের অনুসারীরা সৌদি আরবের সঙ্গে ঈদ উদ্যাপন করবেন। চট্টগ্রাম, রাঙ্গামাটি, কক্সবাজার, নোয়াখালী, কুমিল্লা, মুন্সিগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ফতুল্লা, ময়মনসিংহ, ঢাকা, গাজীপুর, সিলেট, মৌলভীবাজার, খুলনা, বরিশাল, বরগুনা, পটুয়াখালী, ফিরোজপুর, ঝালকাটি, ফরিদপুর, মাদারীপুরের অর্ধ সহস্রাধিক গ্রামে কাল ঈদ-উল-ফিতর উদ্যাপিত হতে যাচ্ছে।

সৌদি আরবসহ বিশ্বের অন্যান্য স্থানের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে মাহে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যাওয়াকে কেন্দ্র করে চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চননগর শাহ্ছুফী মমতাজিয়া দরবার শরীফ ও সাতকানিয়া উপজেলার মির্জারখীল দরবার শরীফের অনুসারীরা সোমবার পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর পালন করার প্রস্তুতি নিয়েছেন। এর অংশ হিসেবে চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চননগর, পশ্চিম এলাহাবাদ, উত্তর কাঞ্চননগর আব্বাস পাড়া, পূর্ব এলাহাবাদ, মাইজপাড়া, ছৈয়দাবাদ, হাশিমপুর খুনিয়া পাড়া, পৌরসভার দক্ষিণ হারলা, সাতবাড়ীয়া, বরমা, বাইনজুরী, কেশুয়া, কানাইমাদারী, দক্ষিণ হাশিমপুর বড়পাড়া, ধোপাছড়ি, পটিয়ার হাইদগাঁও, মংলারপাড়া, বাহুলী, কালারপুল, খরনা, সিয়ানপাড়া, বাথুয়া, রাঙ্গুনিয়ার চন্দ্রঘোনা, লিচুবাগান, কুলুশিয়া, মদুনাঘাট, সাতকানিয়ার বাজালিয়া, ফকিরপাড়া, কেওচিয়া, মির্জারখীল শাহপুর, ঢেমশা, চরতী, বাঁশখালীর গুনাগুরী, মইশ্যাপাড়া, গুয়াজরপাড়া, কালীপুর, আনোয়ারার তৈলারদ্বীপ, বুরুমছড়া, লোহাগাড়ার বড়হাতিয়া, সীতাকু-ুর রহমতপাড়া, বাঁশবাড়িয়া, বাড়বকু-ু, সন্দীপ, মিরসরাই, হাটহাজারী, রাঙ্গুনিয়া, উখিয়া, বান্দরবান, আলী কদমে কাল ঈদ উদযাপিত হবে।

নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ, কুতুবপুর, ফেনী, ঢাকা জেলার নারায়ণগঞ্জের লামাপাড়া ফতুল্লা, বরিশাল জেলার সাগরদী, টিয়াখালী, জিয়াসড়ক, বাবুগঞ্জের খানপুরা, মাধবপাশা, কেদারপুর, মেহেন্দীগঞ্জের তালুকদারচর, পতাং, চরকেউটিয়া, সাহেবের হাট, বাকেরগঞ্জের সুন্দরকাঠি দরবার শরীফ, গোমা, পেয়ারপুর, হিজলায় শ্রীরামপুর দরবার শরীফ, ঘোশেরচর, মুলাদী, উত্তমনগর, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, মঠবাড়িয়া, ভা-ারিয়া, পটুয়াখলীর বাউফলে ধাউরাভাঙ্গা, শাবুপুড়া, কয়েনা, শাপলাখালী, রাজনগর, দ্বিপাশা, মদনপুরা, চন্দ্রপাড়া, তাতেরকাঠি, রাঙ্গাবালী-পশুরীবুনিয়া, চরযমুনা, সেনেরহাওলা, খালগোড়া বাজার, ফুলখালী, কোরালিয়া, বাহেরচর, গলাচিপা, ডাকুয়া, কলাপাড়া সদর,ইটবাড়িয়া, নিশানবাড়িয়া দরবার শরীফ,ধানখালী, পাঁচজুনিয়া, চালিতাবুনিয়া, লালুয়া, তেগাছিয়া, চান্দুখালী দরবার শরীফ এবং বরগুনা, শরীয়তপুর, মাদারিপুর, নরসিংদী,ভোলাসহ বাংলাদেশে প্রায় শতাধিক ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে বলে সংশ্লিটরা জানান।

জানা যায়, প্রায় দুই শতাধিক বছর আগে সাতকানিয়া মির্জারখীল গ্রামে হযরত মাওলানা মোখলেছুর রহমান জাঁহাগিরি (রঃ) হানাফী মাজহাবের ফতোয়া অনুযায়ী পৃথিবীর যে কোন দেশে চাঁদ দেখা গেলে রোজা ও ঈদসহ সকল ধর্মীয় উৎসব পালন করার ফতোয়া দিয়েছেন। তারই উত্তরসূরি হযরত মাওলানা আবদুল হাই জাঁহাগিরির অন্যতম খলিফা চন্দনাইশ শাহ্ছুফি দরবারের পীর হযরত মাওলানা শাহ্ছুফি আমজাদ আলী (রঃ) মুরিদ ও অনুসারিরা একই নিয়মে ঈদ উৎসব পালন করে আসছে। দরবার শরীফের পীর মাও. হজরত শাহ্সুফি ছৈয়্যদ মোহাম্মদ আলী উক্ত দরবারের ঈদের জামাত পরিচালনা করবেন। তিনি অন্যান্য দরবারের অনুসারীরা যারা কাল ঈদ পালন করছেন তাদেরকে আন্তরিক মোবারকবাদ জানিয়ে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে একই দিনে রোজা ও ঈদসহ সকল ধর্মীয় কার্যক্রম পালনের আহবান জানান।

এখানে উল্লেখ্য, গত ২ এপ্রিল সাতকানিয়া মির্জারখীল ও চন্দনাইশ শাহসুফি দরবার শরীফের অনুসারীরা বিশ্বের যুক্তরাষ্ট্রে চাঁদ দেখা যাওয়ার ওপর ভিত্তি করে রোজা শুরু করেছিলেন। সে হিসেবে কাল মাহে শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখাকে কেন্দ্র করে ঈদ-উল-ফিতর পালন করতে যাচ্ছে। একইভাবে মির্জারখীল দরবারের সাজ্জাদানশীন শাহজাদা মাওলানা সাজ্জাদুল আরেফিন সৌদি আরবের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে রোজার নিয়মে ঈদ পালন করার মত ব্যক্ত করেছেন। এদিকে চন্দনাইশ শাহছুফি দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন শাহসুফি মাওলানা ছৈয়দ মোঃ আলী তাদের পূর্বপুরুষের নিয়মানুযায়ী বিশ্বের যে কোন স্থানে চাঁদ দেখাকে কেন্দ্র করে রোজা ও ঈদ পালন করে আসছেন। সে হিসেবে বিশ্ব জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে এবছরও রোজা পালনের পাশাপাশি কাল ঈদ পালন করার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। কাঞ্চননগর শাহ সুফি জাঁহাগিরিয়া দরবার শরীফে সকাল ৯ টায় প্রথম ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর
টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০




বন্যহাতি হত্যার দায়ে পিতা-পুত্রের জেল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় বন্যহাতি হত্যার দায়ে এজাহারভুক্ত ২জন আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চট্টগ্রাম।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) এজাহারভুক্ত ওই আসামীরা আদালতে আত্মসমর্পণ পূর্বক জামিনের জন্য গেলে জামিন না মঞ্জুর করে সি-ডব্লিউ মূলে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চট্টগ্রাম।

তাঁরা হলেন উপজেলার জয়নগর এলাকার মৃত মাইবা আহম্মদের ছেলে মো. আবুল হাসেম। ও একই এলাকার আবুল হাসেমের পুত্র সাহাব উদ্দিন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আসামীরা বন্যহাতি থেকে তাদের রোপণ করা কলা গাছ রক্ষায় বৈদ্যুতিক তারের ফাঁদ পেতে বিগত ২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর উপজেলার নারিশ্চা বনবিট আওতাধীন জয়নগর এলাকায় তাদেরই বৈদ্যুতিক ফাঁদের বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ৮-১০ বছর বয়সী ১টি বন্যহাতি মারা গেলে মাটিতে পুঁতে ফেলে তাঁরা।

তাদের বিরুদ্ধে এ হাতি হত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত বন মামলা নং ১৫৮/২০১৯ এ মামলায় আবুল হাসেম মামলার ১নং এজাহারভুক্ত আসামী। সাহাব উদ্দিন মামলার এজাহারভুক্ত ৩নং আসামী।

জানতে চাইলে চট্টগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, "বনপ্রাণী হত্যার দায়ে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। এছাড়াও ভবিষ্যতে এরকম কোনো অপরাধ যেনো কেউ করতে না পারে সেজন্য বন মামলার সুষ্ঠু বিচারের জন্য আমরা ওয়াকিবহাল রয়েছি"।


আরও খবর