আজঃ শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

সংবাদে আজকের বাংলাদেশ | ০১ ডিসেম্বর ২০২০ | দর্পণ টেলিভিশিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ ডিসেম্বর ২০২০ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ২২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

সংবাদে আজকের বাংলাদেশ 

নিউজ ট্যাগ: দর্পণ

আরও খবর



নতুন বাইক কিনেই সড়কে প্রাণ গেল ৩ বন্ধুর

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | ৫২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন কিশোর নিহত হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- মকবুল (১৭), রাকিব (১৮) ও আসাদুল ইসলাম (১৭)। তার পরস্পর বন্ধু।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রাকিব গতকাল বৃহস্পতিবার নতুন মোটরসাইকেল কিনে। গতকাল সে বন্ধুদের নিয়ে বাইক চালায়। আজও মকবুল ও আসাদকে নিয়ে ঘুরতে বের হয়।

উপজেলার মাটিকাটা এলাকা থেকে তারা বাইক যোগে বঙ্গবন্ধু সেতু আঞ্চলিক মহাসড়কের দিকে যাচ্ছিল। পথে রুহুলি এলাকায় একটি দেয়ালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা খায় তাদের বাইকটি। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়। ভূঞাপুর থানার ওসি আব্দুল ওহাব দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর
বগি লাইনচ্যুত, ট্রেন চলাচল বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




জলবায়ু কূটনীতিতে বাংলাদেশের ভূমিকা নেতৃস্থানীয় : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আজ বুধবার সংবাদ সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী। অপরদিকে সংবাদকর্মীরা যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হল থেকে

যুক্তরাজ্যের গ্লাসগো, লন্ডন ও ফ্রান্সের প্যারিস সফর নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রতি বছর ১০০ বিলিয়ন ডলার ছাড়সহ জলবায়ু অর্থায়ন প্রক্রিয়াকে আরও ত্বরান্বিত করতে বিশ্বের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের একমত হওয়াকে এবারের জলবায়ু সম্মেলনের বড় প্রাপ্তি।

আজ বুধবার সংবাদ সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী। অপরদিকে সংবাদকর্মীরা যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হল থেকে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, এবারের কপ-২৬ সম্মেলনে উল্লেখযোগ্য প্রাপ্তি হচ্ছে বিশ্বের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানরা প্যারিস চুক্তি ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে প্রতি বছর ১০০ বিলিয়ন ডলার ছাড়সহ জলবায়ু অর্থায়ন প্রক্রিয়াকে আরও ত্বরান্বিত করতে একমত হন। বাংলাদেশসহ ১৪১টি দেশ ২০৩০ সালের মধ্যে সব ধরনের অরণ্য নিধন রোধে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশের নেতৃত্বে ৪৮টি জলবায়ু ঝুঁকিপূর্ণ দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের ঢাকা-গ্লাসগো ডিক্লারেশন গ্রহণ করাকে জলবায়ু কূটনীতিতে বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় ভূমিকার বহিঃপ্রকাশ। তিনি বলেন, যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসি সম্প্রতি তাদের একটি প্রতিবেদনে আমাকে কপ-২৬ সম্মেলনের পাঁচজন শীর্ষ ডিল মেকার-এর একজন হিসেবে চিহ্নিত করে। একে আমি বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক সক্ষমতা অর্জন, আমাদের নৈতিক পররাষ্ট্রনীতির প্রতি বিশ্ববাসীর আস্থা হিসেবে বিবেচনা করে সম্মানিত বোধ করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের মধ্যে নিয়মিত কূটনৈতিক সংলাপ শুরু করার জন্য আমি প্রেসিডেন্ট মাখোঁকে প্রস্তাব করি। তিনি তা সাদরে গ্রহণ করেন। প্রেসিডেন্ট মাখোঁ প্রতিরক্ষা ও অর্থনীতিসহ অন্যান্য খাতে দুই দেশের কার্যক্রম বাড়ানোর ব্যাপারে এবং আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে একযোগে কাজ করার ব্যাপারে একমত পোষণ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, কোভিড-১৯ ব্যবস্থাপনায় ২০০ মিলিয়ন ইউরো সহায়তা, টেকসই পানি সঞ্চালন ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত প্রকল্পে ১৩০ মিলিয়ন ইউরো সহায়তা এবং বিমান চলাচল খাতে প্রযুক্তিগত সহযোগিতা ও প্রশিক্ষণ প্রদান সংক্রান্ত আলাদা তিনটি চুক্তি সই হয়েছে।  কোভ্যাক্সের আওতায় ফ্রান্স বাংলাদেশকে ২০ লাখ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদানের ঘোষণা দিয়েছে।


আরও খবর



‘ওয়ালটন স্মার্ট ফ্রিজ, স্মার্ট মেকার’: সেরা দশ নির্মাতা পুরস্কৃত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শেষ হলো ওয়ালটন স্মার্ট ফ্রিজ, স্মার্ট মেকার-সিজন টু শীর্ষক ভিডিও নির্মাণ প্রতিযোগিতার প্রথম রাউন্ড। ওয়ালটন রেফ্রিজারেটর আয়োজিত ওই স্মার্ট ভিডিও কনটেস্টের প্রথম রাউন্ডে বিজয়ী সেরা দশ নির্মাতাকে পুরস্কৃত করেছে কর্তৃপক্ষ। পুরস্কার হিসেবে তারা প্রত্যেকে ৫০ হাজার টাকা করে পেয়েছেন। ওই টাকায় তারা দ্বিতীয় পর্বের জন্য আরেকটি ভিডিও নির্মাণ করবেন। তাদের মধ্য থেকে তিন চূড়ান্ত বিজয়ী পাবেন যথাক্রমে ৩, ২ এবং ১ লাখ টাকা পুরস্কার।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাজধানীর ওয়ালটন করপোরেট অফিসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সেরা দশ নির্মাতাকে পুরস্কৃত করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর নজরুল ইসলাম সরকার, ইভা রিজওয়ানা নিলু ও মো. হুমায়ূন কবীর, ওয়ালটন প্লাজা ট্রেডের সিইও মোহাম্মদ রায়হান, জ্যেষ্ঠ নির্বাহী পরিচালক এস এম জাহিদ হাসান, রেফ্রিজারেটরের চীফ বিজনেস অফিসার আনিসুর রহমান মল্লিক, কনটেস্টের সিজন টুর বিচারক প্যানেলের তিন সদস্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী কুসুম শিকদার, ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ও প্রধান বিপণন কর্মকর্তা ফিরোজ আলম এবং সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ও হেড অব ব্র্যান্ড ম্যানেজমেন্ট আমিন খান, ফ্রিজের সিনিয়র ব্র্যান্ড ম্যানেজার মাহমুদুল হাসান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বিচারক প্যানেলের অন্যতম সদস্য ফিরোজ আলম বিজয়ী প্রতিযোগিদের গুরুত্বপূর্ণ দিক-নির্দেশনা দেন। তিনি দ্বিতীয় রাউন্ডের ভিডিও তৈরির জন্য ৫টি থিম উপস্থাপন করেন। সেগুলো হলো: সুন্দর আগামি ও উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ওয়ালটনের ভূমিকা, প্রযুক্তিসম্পন্ন আধুনিক বাংলাদেশে ওয়ালটনের ভূমিকা, অর্থনৈতিক উন্নয়নে ওয়ালটনের ভূমিকা, জীবন-যাত্রার মানোন্নয়নে ওয়ালটনের ভূমিকা এবং জলবায়ু সুরক্ষায় ওয়ালটনের ভূমিকা।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গত ৬ অক্টোবর শুরু হয়ে প্রথম রাউন্ড চলে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রথম পর্বে এক হাজারেরও বেশি প্রতিযোগি রেজিস্ট্রেশন করেন। সেখান থেকে চার শতাধিক ভিডিও জমা পড়ে। ভিডিওগুলোর মধ্যে গল্পে ২৫, নির্মাণশৈলীতে ৫০ এবং সোশ্যাল মিডিয়া একটি ভিটিতে ২৫ নম্বরের মধ্যে যারা বেশি পেয়েছেন, এমন ১০ জন নির্মাতাকে নির্বাচন করা হয়। 

ওই ১০ জন স্মার্ট মেকারকে নিয়ে শুরু হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ড। তারা ওয়ালটনের দেয়া ৫টি থিমের ওপর সর্বোচ্চ ২ মিনিটের আরেকটি ভিডিও নির্মাণ করবেন। ওই ভিডিওগুলোর নির্মাণশৈলীতে ৫০ এবং সোশ্যাল মিডিয়া একটিভিটিতে ৫০ নম্বর দেয়া হবে। দ্বিতীয় পর্বের প্রতিযোগিদের মধ্যে যারা প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হবেন, তাদেরকে যথাক্রমে ৩, ২ এবং ১ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে। বাকি প্রতিযোগিদের জন্য থাকছে ওয়ালটন রেফ্রিজারেটরের সৌজন্যে আকর্ষণীয় গিফট হ্যাম্পার।

ওয়ালটন স্মার্ট ফ্রিজ, স্মার্ট মেকার সিজন টু কনটেস্টের প্রথম পর্বের পুরস্কারপ্রাপ্ত ১০ নির্মাতা হলেন: শরিফুল ইসলাম শামীম, আলম মোরশেদ, মিনহাজুর রহমান, আসিফুর রহমান, মেসবাহ কামাল, পাপন, সারওয়ার জাহান অপু, রাফিউর রহমান, পৃথ্বীরাজ প্রধান এবং তানিম আবদুল্লাহ।


আরও খবর
আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




মেসির সপ্তম ব্যালন ডি’অর জয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোমবার রাতে ফুটবলপ্রেমীদের চোখ ছিল ফ্রান্সে এক বর্ণিল সন্ধ্যায়। কে জিতবেন ব্যালন ডিঅর? নাম গিয়ে ঠেকেছিল মাত্র দুটিতে। বায়ার্ন মিউনিখের গোলমেশিন পোলিশ স্ট্রাইকার রবের্ত লেওয়ানডস্কি আর পিএসজির আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। আর সেই যুদ্ধে লেওয়ানকে হারিয়ে সপ্তমবারের মতো ব্যালন ডিঅর জয় করলেন মেসি।

তালিকায় বায়ার্ন তারকা ছাড়াও আরও ছিলেন চেলসির ইতালিয়ান মিডফিল্ডার জর্জিনিও, রিয়াল মাদ্রিদের ফরাসি ফরোয়ার্ড করিম বেনজেমা ও চেলসির ফরাসি মিডফিল্ডার এনগোলো কন্তে। তবে মেসির নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন লেওয়ানডস্কি।

ভোটাভুটিতে লেওয়ানডস্কিকে হারিয়ে নিজের সর্বোচ্চসংখ্যক ব্যালন ডিঅর জয়ের রেকর্ডকে আরও এক ধাপ উঁচুতে নিয়ে গেলেন ৩৪ বছর বয়সি আর্জেন্টাইন তারকা।

২০২১ সালটা মেসির জন্য ঘটনাবহুল, স্মৃতিময়। উচ্ছ্বাস আর চাপা কষ্টের কান্না দুটোই রয়েছে এই বছরে।  ধুঁকতে থাকা বার্সেলোনাকেও জিতিয়েছিলেন কোপা দেলরে শিরোপা, লা লিগায় করেছিলেন তৃতীয়ও।

এরপর দেশকে ২৮ বছরের শিরোপার খরা ঘোচান। এনে দেন কাঙিক্ষত কোপা আমেরিকা শিরোপা। ওই টুর্নামেন্টে ৪ গোল ও ৫ অ্যাসিস্ট করে হয়েছিলেন টুর্নামেন্টসেরাও।

এরপর আসে তার কান্নার দিন। ২১ বছরের সম্পর্ক শেষ করে বার্সেলোনা ছেড়ে কাঁদতে কাঁদতে পাড়ি জমান প্যারিসে। গায়ে চড়ান পিএসজির জার্সি।

এর আগে ছয়বার ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের দেওয়া সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারটি উঠেছিল মেসির হাতে - ২০০৯, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৫ ও ২০১৯ সালে। এক বছর বিরতি দিয়ে আবারও জিতলেন এই ট্রফি।

প্রসঙ্গত, ১৯৫৬ সালে প্রথমবার চালু হয় ব্যালন ডিঅর। তখন কেবল ইউরোপের সেরা খেলোয়াড়কে দেওয়া হতো এই পুরস্কার। ১৯৯৫ সাল থেকে ইউরোপে খেলা বিশ্বের যেকোনো খেলোয়াড়ের জন্য পুরস্কারটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ২০০৭ সাল থেকে সেটি দেওয়া হচ্ছে বিশ্বের যেকোনো জায়গায় খেলা ফুটবলারদের।


আরও খবর



আজ মওলানা ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ ১৭ নভেম্বর। ১৯৭৬ সালের এই দিনে ঢাকার তৎকালীন পিজি হাসপাতালে (বর্তমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পরে টাঙ্গাইলের সন্তোষে তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। টাঙ্গাইলের সন্তোষে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করা হচ্ছে।

১৮৮০ সালের ১২ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জের ধানগড়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন মওলানা হামিদ খান ভাসানী। তবে তিনি বেড়ে উঠেছেন টাঙ্গাইলের সন্তোষে। তিনি কৈশোর থেকেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি তৎকালীন বাংলা-আসাম প্রদেশ মুসলিম লীগের সভাপতি ছিলেন। তিনি ১৯৫৪ সালের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্ট গঠনকারী প্রধান নেতাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তিনি প্রবাসী সরকারের উপদেষ্টা ছিলেন।

৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা ও টাঙ্গাইলের সন্তোষে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

বুধবার সকালে সন্তোষে ভাসানীর মাজারে পুস্পস্তবক অর্পণ এবং মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ডক্টর এ আর এম সোলাইমান।

এরপর আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-শিক্ষার্থী, মওলানা ভাসানীর পরিবার, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাব, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও মওলানা ভাসানীর ভক্ত অনুসারীরা মাজারে পুস্পস্তবক অর্পণ এবং মোনাজাত করেন।

দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠন দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি নিয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আলোচনা সভা, বাউল গান পরিবেশন, মিলাদ, দোয়া মাহফিল, ওরশ, দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণসহ আরও বিভিন্ন আয়োজন।


আরও খবর