আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম
পীর সাহেব ছারছীনা বলেন

‘সমাজের ফ্যাতনা ফ্যাসাদ দুর করতে আল্লাহর হুকুম মেনে চলতে হবে’

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

ছারছীনা দরবার শরীফের পীর শাহ মোহাম্মদ মোহেবুল্লাহ বলেছেন, সমাজে ফ্যাতনা ফ্যাসাদ ভরে গেছে। মানুষ সুদ, ঘুষ, মদ, জুয়া ও ব্যভিচারে লিপ্ত হচ্ছে। এর প্রভাব থেকে নিজে, পরিবার ও সমাজকে মুক্ত রাখতে ইসলামী আদলে জীবন গড়ে তুলতে হবে। খাঁটি মুসলমান হতে কুরআন সুন্নাহর পথে চলার কোন বিকল্প নাই। ইসলামী আদর্শে জীবন গড়ার লক্ষ্যে ইসলামের সকল হুকুম আহকাম মেনে চলতে হবে। এলাকার ভুল পথে যাওয়া মানুষকে সৎ পথে ফিরিয়ে আনার দায়িত্ব আল্লাহ ওয়ালা মানুষদের। বিপথগামীদের বুঝিয়ে ধর্মের পথে আনতে হবে। নামাজ রোজাসহ আল্লাহর সকল ইবাদত সঠিকভাবে পালন করতে হবে।

পীর সাহেব শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) জুমা বাদ দরবারের ১৩৩তম বার্ষিক ইছালে সওয়াব মাহফিলের আখেরী মোনাজাত পূর্ব বয়ানে এসব কথা বলেন।

আখেরী মোনাজাতে অংশ নিয়ে বক্তৃতা করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম (এমপি) বলেন, শেখ হাসিনা সরকার বঙ্গবন্ধুর প্রতিষ্ঠিত ইসলামী ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ইসলামের নানা ধরনের উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করে চলছেন, দেশের মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার স্বীকৃতি দিয়েছেন, সারাদেশে মডেল মসজিদ নির্মাণ করে চলছেন। ইসলাম বিরোধী কোন সিদ্ধান্ত শেখ হাসিনা সরকার অতীতেও যেমন করেনি তেমনি ভবিষ্যতেও করবেনা।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ, এ্যাড. আফজালুর রহমান এমপি, রুস্তুম আলী ফরাজি এমপি, এস এম শাহজাদা এমপি, মো. মহিবুর রহমান এমপি, অ্যাডভোকেট মো. আমজাদ হোসেন এমপি, আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যঞ্চেলর মাওলানা আব্দুর রশিদ, পীর সাহেবের বড় জামাতা মাওলানা নুরুর রহমান বেগ প্রমুখ।

মোনাজাতে আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক এমপি মনিরুল ইসলাম, ইউএনও মো. মাহবুব উল্লাহ মজুমদার, স্বরূপকাঠি উপজেলার চেয়ারম্যান আব্দুলহক, স্বরূপকাঠি পৌরসভার মেয়র মো. গোলাম কবির, বানারীপাড়া উপজেলার চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক, ওসি মো. গোলাম সরওয়ার সহ বিশিষ্ট ওলামাগন। তিন দিনব্যাপী ওই মাহফিলে দেশের খ্যাতনামা আলেম ওলামাগন ওয়াজ নসিহত করেন।

গত বুধবার থেকে শুরু হওয়া এ মাহফিলে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লী শরীক হয়েছেন। শুক্রবার জুমা নামাজ ও আখেরী মোনাজাতে অংশগ্রহণের জন্য দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে বাস, লঞ্চ, ট্রলারসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে লাখ লাখ মুসল্লি মাহফিল ময়দানে সমবেত হয়। এক সময় মুসল্লিরা মাহফিল ময়দান ছাড়িয়ে আশে পাশের রাস্তায় বসে মোনাজাতে অংশ নেয়। মোনাজাতে তাদের কান্না জড়িত আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে পুরো মাহফিল ময়দান।


আরও খবর



শেষ সময়ের গোলে রিয়ালকে রুখে দিল আতলেতিকো

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিট পর যোগ করা সময়ের একেবারে শেষ মুহূর্তে রিয়াল মাদ্রিদকে স্তব্ধ করে দিল আতলেতিকো মাদ্রিদ। প্রায় নিশ্চিত জয়ের কাছে গিয়েও মূল্যবান দুটি পয়েন্ট হারাল কার্লো আনচেলত্তির শিষ্যরা।

রবিবার রাতে লা লিগায় সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে মুখোমুখি হয় দুই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী। যেখানে লড়াইটি শেষ হয় ১-১ ড্রয়ে। ম্যাচে ব্রাহিম দিয়াস রেয়ালকে এগিয়ে নেওয়ার পর শেষ সময়ে সমতা টানেন মার্কোস ইয়োরেন্তে।

খেলার ২০তম মিনিটে এগিয়ে যায় রিয়াল। লুকাস ভাসকেস চেষ্টা করেন জুড বেলিংহ্যামকে খুঁজে নেওয়ার। কিন্তু প্রতিপক্ষের একজনের পায়ে লেগে বল পেয়ে যান ব্রাহিম দিয়াস। ঠাণ্ডা মাথায় দুইজনের মধ্যে দিয়ে এগিয়ে গোলরক্ষকের সামনে চিপ শটে বল জালে পাঠান ভিনিসিউসের জায়গায় খেলতে নামা দিয়াস।

খেলার শেষ দিকে রিয়াল যখন জয়ের চিন্তায় দিশেহারা, ঠিক তখনই সব ওলটপালট। মেম্ফিস ডিপাইয়ের হেড পাস ডি-বক্সে পেয়ে হেডেই ক্রসবার ঘেঁষে ঠিকানা খুঁজে নেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ইয়োরেন্তে। আতলেতিকো বাঁধভাঙা উল্লাসে মাতে।

লিগ টেবিলে অবশ্য শীর্ষেই থাকছে রিয়াল মাদ্রিদ। ২৩ ম্যাচে ১৮ জয় ও চার ড্রয়ে তাদের পয়েন্ট ৫৮। সমান ম্যাচে ২ পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে জিরোনা। তৃতীয় স্থানে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট ৫০। তাদের চেয়ে ২ পয়েন্ট কম নিয়ে চার নম্বরে আতলেতিকো।


আরও খবর



ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরীর পণ্য

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Image

বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরী (বিএমটিএফ) লিমিটেড, গাজীপুর নিজস্ব উৎপাদিত পণ্যসমূহ নিয়ে ক্রেতাগণের মাঝে আগ্রহ সৃষ্টি এবং পণ্যসমূহ ক্রেতাদের দোর গোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় প্যাভিলিয়ন নম্বর ১৪তে বিএমটিএফ লিমিটেড এর ৮টি স্টলে ৪৩৭টি পণ্য নিয়ে অংশগ্রহণ করেছে।

বিএমটিএফ কর্তৃক উৎপাদিত কসমেটিকস্, লেদার আইটেম, জুতা, এ্যাপারেলস, ইলেকট্রিক বাল্ব, জার্মনিল হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ফার্নিচার, প্যাকেজিং আইটেম প্যাভিলিয়নে স্থান পেয়েছে।

এছাড়াও রয়েছে বিএমটিএফ এর তৈরীকৃত র‍্যাঙ্ক ব্যাজ, মেডেল, ক্রেস্ট, লোশন, কোটপিন, ড্রেস, এলইডি বাল্ব, সোলার বাল্ব, চেয়ার-টেবিল, সোফা, খাট, প্যাকেজিং সিস্টেম, হ্যান্ডব্যাগ, স্থান সংকুলানের জন্য স্বয়ংক্রিয় দ্বিতল পার্কিং সিস্টেম ভার্টি পার্ক, ব্যাটারী চালিত বাহন পুলক ও বাহকসহ নানা পণ্য।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০০ সালে বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরী (বিএমটিএফ) লিমিটেডকে একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করে দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদানের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নিকট হস্তান্তর করেন। বিএমটিএফ লিমিটেড এর পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, এসবিপি (বার), ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আসাদুল্লাহ মিনহাজুল আলম, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি হিসেবে দায়িত্বরত রয়েছেন। 

এছাড়া, ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বিএমটিএফ লিমিটেড কর্তৃক উৎপাদিত পণ্যসমূহের প্রতি ক্রেতাগণের ব্যাপক আগ্রহ ও চাহিদা পরিলক্ষিত হয়েছে, যা বিএমটিএফ লিমিটেড এর উৎপাদন কার্যক্রমকে ভবিষ্যতে আরো বেগবান করবে বলে আশা করা যায়।


আরও খবর



চার মাসে পশ্চিম তীরে গ্রেপ্তার প্রায় ৭ হাজার ফিলিস্তিনি

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিম তীরে গত চার মাসে প্রায় ৭ হাজার ফিলিস্তিনিকে গ্রেপ্তার করেছে ইসরায়েল। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ফিলিস্তিনি প্রিজনার্স ক্লাবের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে আলজাজিরা।

ফিলিস্তিনি প্রিজনার্স ক্লাব জানিয়েছে, গত মাসে ৩০ নারী ও ৭৩ শিশুসহ অধিকৃত পশ্চিম তীরে এক হাজার ২৩৬ ফিলিস্তিনিকে গ্রেপ্তার করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। এ নিয়ে গত ৭ অক্টোবর থেকে অধিকৃত এই অঞ্চলে বন্দির সংখ্যা ৬ হাজার ৮৭০ জনে দাঁড়িয়েছে।

গাজা যুদ্ধ শুরুর বেশ আগে থেকেই অধিকৃত পশ্চিম তীরে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। গত অক্টোবরে গাজায় ইসরায়েলি বাহিনী হামলা শুরু করলে এই উত্তেজনা আরও বেড়ে যায়। প্রায় প্রতি দিনই সেখানে ইসরায়েলি বাহিনী ও অবৈধ বসতি স্থাপনকারীদের সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। 

আরও পড়ুন>> মিয়ানমারের সংঘাত: সীমান্তে এক দিনে ৫ বাংলাদেশি গুলিবিদ্ধ

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী, ৭ অক্টোবরের পর গত প্রায় চার মাসে পশ্চিম তীরে ৩৭০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এসব হত্যাকাণ্ডের জন্য ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনী এবং অবৈধ বসতি স্থাপনকারীদের দায়ী করা হয়।

১৯৬৭ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর থেকে পশ্চিম তীর দখল করে রেখেছে ইসরায়েল। গাজা ছাড়াও এই পশ্চিম তীর নিয়ে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গড়ার স্বপ্ন দেখেন ফিলিস্তিনিরা।

গাজা ও পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর নীতি নিয়ে পশ্চিমা মিত্রদের মধ্যে অসন্তোষ বাড়ছে। গত বৃহস্পিতিবার পশ্চিম তীরে সহিংসতায় জড়িত চার ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীর ওপর প্রথমবারের মতো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ছাড়া উগ্র ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়টি বিবেচনা করে দেখছে কানাডা।


আরও খবর



বাণিজ্য মেলায় ৪০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

এবারের বাণিজ্য মেলায় ৪০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি হয়েছে, যা গতবছরের চেয়ে ১৫ শতাংশ বেশি। মাসব্যাপী ঢাকা আন্তর্জাতিক মেলার সমাপনীতে ৩৯২ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশও পাওয়া গেছে জানিয়েছে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি)।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বাণিজ্য মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে বণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল আলম টিটু বলেন, আগামী বছরের পরিকল্পনা হল হস্তশিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। একটি গ্রাম ও একটি পণ্য প্রকল্পকের হস্তশিল্প বর্ষ সফল করা হবে। এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। হস্তশিল্প বিদেশে রপ্তানির ও ব্যবস্থা করা হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, কৃত্রিম সংকট কেউ সৃষ্টি করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স থাকতে হবে।

এসময় বিদেশী পণ্য আমদানী আরও কমানোর আহ্বান জানান তিনি।


আরও খবর
২৪ দিনে প্রবাসী আয় ১৮ হাজার কোটি টাকা

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




আওয়ামী লীগেই থাকতে চায় স্বতন্ত্ররা: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দ্বাদশ সংসদে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, স্বতন্ত্ররা আওয়ামী লীগেই থাকতে চায়।

তিনি বলেন, তারা (স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য) সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করতে পারবেন। এই একটা বিষয় আমাদের সংসদ নেতা, দলের সভাপতি পরিষ্কারভাবে বলেছেন।

রোববার রাতে গণভবনে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শেষে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংস নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের বিভিন্ন মার্কার কিছু সংঘাত, সহিংসতা, অন্তকলহ এসব বিষয় রয়েছে। কোথাও কোথাও বিচ্ছিন্নভাবে অবাঞ্চিত ঘটনা ঘটছে। এটা আর হতে দেয়া যাবে না, নেত্রী আমাদেরকে বলেছেন। তারা (স্বতন্ত্র) দাবি করেছে আওয়ামী লীগেই থাকতে চায়। ভিন্ন কোনো নামে পরিচয় দিতে গেলে আমাদের বিবেক-আবেগ আহত হয়। নিজেরা নিজেদের মধ্যে অন্তকলহ বিবেদ মিটিয়ে ফেলতে হবে। নির্বাচন ইশতেহার বাস্তবায়নে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, নারী সংরক্ষিত আসনের ব্যাপারে সংসদ নেতা শেখ হাসিনা যাদেরকে মনোনীত করবেন তাদের প্রতি স্বতন্ত্রদের সমর্থন থাকবে, তারা এটা ব্যক্ত করেছেন।

স্বতন্ত্র এমপিরা কোন হুইপের আওতায় থাকবে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, চিফ হুইপ সংসদ নেতার সঙ্গে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নেবেন।


আরও খবর