আজঃ শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

সিলেটে গ্যাসের চাপ কম থাকায় গ্রাহকদের ভোগান্তি

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | ১০২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেট থেকে মুহাম্মদ আমজাদ হোসাইন:

সিলেট নগরীর কয়েকটি এলাকার মানুষ গ্যাস সংকটে ভুগছেন। এ সকল এলাকার গ্রাহকদের অভিযোগ ভোর, সকাল কিংবা দুপুরবেলা গ্যাস সংকট দেখা দেয়। রান্না-বান্নার কাজ শুরু করতে যাওয়া মাত্র গ্যাসের লুকোচুরি শুরু হয়ে যায়। গ্যাসের চাপ কম থাকায় এই সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে বলে তাদের ভাষ্য। তবে এ অভিযোগ আমলে নিচ্ছেন না গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

গত একমাস ধরে সিলেট নগরীর কয়েকটি এলাকায় গ্যাস সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। ভোর থেকে সকাল এগারোটা পর্যন্ত আবার কোথাও সকাল এগারোটা থেকে বেলা তিনটা পর্যন্ত এই সমস্যা স্থায়ী থাকছে। বিকেলে পর অবশ্য যথারীতি পর্যাপ্ত গ্যাস পাওয়া যাচ্ছে। এ অবস্থায় যারা ভোর কিংবা দুপুরবেলা রান্নাঘরে যান, তাদের রান্নার কাজ করতে ব্যাপক ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বিশেষ করে এ সমস্যায় বেশি পড়তে হচ্ছে দরগা মহল্লা ঝর্ণারপার, দর্শনদেউড়ী এলাকার বাসিন্দাদের।

দর্শনদেউড়ী এলাকার গৃহিনী সাদিয়া আক্তার অভিযোগ করে বলেন, পরিবারের প্রয়োজনে ভোর থেকে তাদের রান্নার কাজ করতে হয়। কিন্তু তখন গ্যাসের চুলায় আগুন পাওয়া যায়না, কখনো পাওয়া গেলেও জ্বলছে নিভু নিভু করে। এতে রান্না করা কঠিন হয়ে পড়ে। ঝরনার পার পায়রা আবাসিক এলাকার বাসিন্দা রনি আক্তার বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে এই সমস্যায় ভুগছি। কবে যে মুক্তি পাবো জানি না। গ্যাস সংকট নিরসনে কর্তৃপক্ষের দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। তিনি বলেন, বেশ কিছুদিন শুধু সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত গ্যাসের চাপ এতটাই কম থাকে যে সামান্য পরিমাণ চা বানাতেও ঘণ্টাখানেক সময় লেগে যায়। একই এলাকার সৈয়দা সালামা সুলতানা ও সালমা বেগম জানান, একই সমস্যায় ভুগছেন তারা। তবে সবসময় নয়। মাঝে মধ্যে দুপুরের দিকে রান্নার ব্যস্ত সময়ে প্রয়োজনীয় গ্যাস পাওয়া যায়না। ওই এলাকার সাব্বির আহমদ ও জুবের আহমদ অভিযোগ করে বলেন, বিষয়টি কয়েক দফায় কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে, কিন্তু গুরুত্ব দেয়া হচ্ছেনা। ফলে সমস্যা দিনদিন প্রকট হচ্ছে।

যোগাযোগ করা হলে জালালাবাদ গ্যাসের প্রকৌশলী মো. মনজুর আহমদ চৌধুরী জানান, এ ধরণের কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে এটা গ্যাসের সমস্যা নয়, পাইপ লাইনের সমস্যা। সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসী যদি নির্দিষ্টভাবে সীমানা উল্লেখ করে আবেদন করেন, তাহলে আমরা সমাধান করে দেবো।

পরিসংখ্যান বলছে, দেশে মোট গ্যাস মজুতের পরিমাণ ৪০ ট্রিলিয়ন ঘনফুট (টিসিএফ)। এরমধ্যে উত্তোলনযোগ্য মজুতের পরিমাণ ৩০ টিসিএফ। এখন পর্যন্ত উত্তোলন করা হয়েছে ১৮ দশমিক ৫৩ টিসিএফ। অবশিষ্ট আছে ১১ দশমিক ৫২ টিসিএফ। পেট্রোবাংলা সূত্র বলছে, এখন প্রতি বছর গড়ে এক টিসিএফ করে গ্যাস উত্তোলন হয়ে থাকে। অর্থাৎ অবশিষ্ট মজুদে আর ১০ বছর মতো চলবে। কিন্তু ক্রমান্বয়ে প্রতি বছরই গ্যাস উত্তোলন ক্ষমতা কমে আসবে। এতে করে শেষের বছরগুলাতে সংকট আরও প্রকট হবে। দেশীয় গ্যাসের উৎপাদন কমে আসলে আনুপাতিক হারে আমদানি বাড়াতে হবে।

জানা গেছে বাপেক্স-এর ৮টি গ্যাস ক্ষেত্রের মোট মজুত ১ দশমিক ৪৬ টিসিএফ থেকে ৪৭৩ বিসিএফ তোলা হয়েছে। অবশিষ্ট রয়েছে ৯৮৭ বিসিএফ। বাপেক্সের সিলেট অঞ্চলের খনিগুলোর মধ্যে ফেঞ্চুগঞ্জে ৩২৯ বিসিএফ মজুতের ১৬২ তোলা হয়েছে মজুত রয়েছে ১৬৬ বিসিএফ। বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ড কোম্পানির মোট মজুত ১২ দশমিক ২৫২ টিসিএফ, এরমধ্যে তোলা হয়েছে ৮ দশমিক ৭৬৮ টিসিএফ। বাকি রয়েছে ৩ দশমিক ৪৮৪ টিসিএফ। সিলেটের খনিগুলোর মধ্যে হবিগঞ্জে দুই দশমিক ৭৮৭ টিসিএফ মধ্যে ২ দশমিক ৫৮৮ টিসিএফ তোলা হয়েছে। বাকি রয়েছে ১৯২ বিসিএফ।

শেভরন বাংলাদেশের তিন ক্ষেত্রের মোট মজুত ৯ দশমিক ৭৪২ টিসিএফ। উত্তোলন করা হয়েছে ৬ দশমিক ৪৫৩ টিসিএফ। বাকি রয়েছে ৩ দশমিক ২৮৯ টিসিএফ। শেভরনের বিবিয়ানাতে এখনও ২ টিসিএফ এর একটু বেশি, মৌলভীবাজারে ১৫৮ বিসিএফ এবং জালালাবাদে এক দশমিক ২৬ টিসিএফ মজুত অবশিষ্ট রয়েছে। সিলেট গ্যাস ফিল্ডের মোট মজুতের পরিমাণ ৭ দশমিক ৩৩ টিসিএফ এরমধ্যে এক ১ দশমিক ৭৮৪ টিসিএফ তোলা হয়েছে। এখানের ৫টি খনিতে এখনও মজুত রয়েছে ৫ দশমিক ২৪৯ টিসিএফ। এখানের পাঁচটি খনি হচ্ছে কৈলাসটিলা, সিলেট, রশিদপুর, ছাতক এবং বিয়ানীবাজার।


আরও খবর



রদবদল হচ্ছে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজমেন্টে

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৫২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ দলে রদবদল হচ্ছে। অধিনায়ক বদলের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। টিম ম্যানেজমেন্টেও বদল আসছে। আবারও খালেদ মাহমুদকে বাংলাদেশ দলের পরিচালক করা হচ্ছে। শুক্রবার রাতে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের বাসায় নির্বাচকদের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, সাত তরুণ ক্রিকেটারকে আগামীদিনের জন্য প্রস্তুত করতে খালেদ মাহমুদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

খালেদ মাহমুদের অধীনে কাজ করার জন্য ডাক পাচ্ছেন-নাজমুল হোসেন শান্ত, পারভেজ হোসেন ইমন, ইয়াসির আলী রাব্বি, সাইফ হাসান, তৌহিদ হৃদয়, কামরুল ইসলাম রাব্বি ও তানভির ইসলাম। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে তাদের প্রস্তুতি শুরু হতে পারে আজ।

কাল সাইফ হাসান জানান, আমি জাতীয় লিগের একটি রাউন্ডে খেলছি না। ওলেভেলের দুটি বিষয়ের পরীক্ষা দিচ্ছি। শুনেছি আমাদের কয়েকজনকে ডাকা হয়েছে। হয়তো জানানো হবে। যুব বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার পারভেজ হোসেন ইমনও একই কথা বললেন, একাডেমিতে আছি আমি। আমাদের একটা ক্যাম্পের জন্য ডাকবে শুনেছি। সাতজন থাকবে। বাকিটা যোগ দেওয়ার পর বলতে পারব।

বিশ্বকাপের পর তিন টি ২০ ও দুই টেস্ট খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসবে পাকিস্তান। এই দ্বিপাক্ষিক সিরিজকে সামনে রেখে সাত তরুণকে বিবেচনায় নিয়েছে বোর্ড। তবে কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে ছাঁটাই করা হচ্ছে না। তার কাজ আরও বেশি পর্যবেক্ষণ করা হবে।

এজন্য খালেদ মাহমুদকে টিম ডিরেক্টর করার সিদ্ধান্ত। দলের সামগ্রিক বিষয়ে তার হস্তক্ষেপ থাকবে। অনুশীলন, ম্যাচ পরিকল্পনা, দল নির্বাচন ও লক্ষ্য ঠিক করার কাজ তাকে সঙ্গে নিয়ে করবে টিম ম্যানেজমেন্ট। পাকিস্তান সফরের জন্য ১২ নভেম্বর বাংলাদেশ দলের প্রস্তুতি শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।


আরও খবর



আজও রাজধানীর রামপুরায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীর রামপুরা ব্রিজের ওপর অবরোধ কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন গণপরিবহন থেকে যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে তা আটকে দিচ্ছেন।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে রামপুরা ব্রিজের ওপর অবস্থান নেন আশপাশের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, নিরাপদ সড়কের দাবিতে মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুর ২টা পর্যন্ত আমরা অবরোধ কর্মসূচি পালন করছি। গতকালই আমাদের ঘোষণা ছিল যে আজ বেলা ১১টা থেকে একই দাবিতে আন্দোলনে নামব। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আমরা আজ আন্দোলনে নেমেছি। শিক্ষার্থীদের জন্য যতক্ষণ পর্যন্ত সড়ক নিরাপদ হবে না এ আন্দোলন আমরা চালিয়ে যাব।

এ বিষয়ে রামপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম জানান, আমরা শুনেছি শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমেছে। আগে থেকে ঘোষণা ছিল তারা আজকেও নামবে। তবে যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলে পুলিশের যথেষ্ট উপস্থিতি রয়েছে।

একরামুন্নেসা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাইনুদ্দিন দুর্জয়ের মৃত্যুর ঘটনায় মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, ইম্পিরিয়াল কলেজ, ন্যাশনাল আইডিয়াল ও রাজধানী আইডিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রগতি সরণিতে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। তারা রামপুরা ব্রিজ এলাকায় সড়কে বসে পড়েন। এতে সড়কের দুইপাশে যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে শিক্ষার্থীরা দাঁড়িয়ে থাকা বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের সঙ্গে কথা বলে যাদের জরুরি প্রয়োজন রয়েছে তাদের ছেড়ে দেন। দুপুর ২টা পর্যন্ত চলে তাদের এ কর্মসূচি।


আরও খবর



তেলের দাম না কমা পর্যন্ত পণ্য পরিবহন ধর্মঘট চলবে

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৫৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জ্বালানি তেলের দাম না কমা পর্যন্ত ট্রাক-কাভার্ডভ্যানের ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে বলে ট্রাককাভার্ড ভ্যান মালিকেরা।

রোববার বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার কথা জানায় বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক সমিতি। ট্রাক মালিকেদের আরেক সংগঠন পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদও একই কথা জানিয়েছে।

তারা জানিয়েছেন, জ্বালানি তেলের দাম কমানোর দাবিতে চলমান ধর্মঘট নিয়ে তাদের সঙ্গে সরকারের পক্ষ থেকে এখনো কেউ কথা বলেনি। তাই তারা ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

গত ৩ নভেম্বর ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ১৫ টাকা বাড়িয়ে ৬৫ থেকে ৮০ টাকা করে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। ওইদিন রাত ১২টা থেকেই কার্যকরের নির্দেশনা দেওয়া হয় প্রজ্ঞাপনে।

পরদিন থেকেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন দেশের মানুষ। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ থেকে শুরু করে শিক্ষার্থী, রাজনৈতিক দলসহ সামাজিক সংগঠনগুলোও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখাতে শুরু করেছে।

ডিজেলের দাম বৃদ্ধি প্রতিবাদে শুক্রবার (৫ নভেম্বর) সকাল থেকে সারা দেশে ধর্মঘট শুরু পরিবহণ মালিক-শ্রমিকরা। এই পরিবহণ ধর্মঘটে সারা দেশ অচল হয়ে পড়েছে। তিনদিন ধরে পরিবহণে ধর্মঘটে জিম্মি রয়েছেন সাধারণ মানুষ। শিকার হচ্ছেন সীমাহীন দুর্ভোগের।

এদিকে ডিজেলের দাম বাড়ায় বাস ভাড়াও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। দূরপাল্লার বাস ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৪২ পয়সার পরিবর্তে এখন ১ টাকা ৮০ পয়সা এবং ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরে ১ টাকা ৭০ পয়সার পরিবর্তে এখন ২ টাকা ১৫ পয়সা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ)।

ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সারা দেশে তিন দিন ধরে চলা ধর্মঘটের মধ্যেই রোববার সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকার বনানীতে বিআরটিএ দপ্তরে পরিবহণ মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, ডিজেলের দাম বাড়ানোয় বাস ভাড়াও বাড়ানো হয়েছে। দূরপাল্লার প্রতি কিলোতে ১ টাকা ৮০ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর মহানগরে প্রতি কিলোতে ২ টাকা ১৫ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামীকাল (সোমবার) থেকে নতুন এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, মহানগরে বাস ভাড়া সর্বনিম্ন ৮ এবং ১০ টাকা করা হয়েছে। তবে সিএনজিচালিত কোনো গাড়ির ভাড়া বাড়বে না।


আরও খবর
দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1

এএসপি হলেন ২২ পুলিশ কর্মকর্তা

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




পাকিস্তান ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বাবর আজমসহ ২১ জনের বিরুদ্ধে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে নালিশি মামলা দায়ের করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

আইনজীবী মো. মাহবুবুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশের মিরপুরের একাডেমি মাঠে পাকিস্তানের পতাকা উড়িয়ে অনুশীলন করায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়। এ বিষয়ে বিকেলে আদেশ দেওয়া হবে।


আরও খবর



হেফাজত মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম লাইফ সাপোর্টে

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কওমি মাদ্রাসাভিত্তিক আলোচিত সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা নূরুল ইসলাম জিহাদী হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার রাতে তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

রবিবার (২৮ নভেম্বর) হেফাজত মহাসচিবের ছোট মাওলানা রাশেদ বিন নূর ফেসবুক স্ট্যাটাসে এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি তার বাবার সুস্থতা কামনা করে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

রাশেদ বিন নূর জানিয়েছেন, গত রাতে স্ট্রোক করেন তার বাবা। তাৎক্ষণিকভাবে চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতেই তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। আজ তার ওপেন হার্ট সার্জারি হওয়ার কথা রয়েছে।

গতকাল শনিবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলনে বক্তব্য দেন হেফাজত মহাসচিব। সেই সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালও অতিথি হিসেবে যোগ দেন।


আরও খবর