আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

সেপ্টেম্বরে মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ জুন 20২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গেল সেপ্টেম্বরে ব্রাজিলের আতিথ্য নিয়েছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচের পুরোটা খেলতে পারেনি দুদল। কোয়ারেন্টিন বিতর্কে শুরুর পাঁচ মিনিট পর বন্ধ হয়ে যায় ম্যাচটি। অবশেষে এক বছর পর ফের মাঠে গড়াতে যাচ্ছে ম্যাচটি।

স্থগিত ম্যাচটি আগামী ২২ সেপ্টেম্বর খেলবে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। তবে ভেন্যুতে আসছে না বদল। ব্রাজিল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, তারা করিন্থিয়ান্স অ্যারেনা আয়োজন করবে ম্যাচটি।

আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল ম্যাচটি খেলতে অনীহার কথা জানিয়েছিল। তবে গত ৯ মে ফিফা আপিল কমিশন সাফ জানিয়ে দেয় ম্যাচটি তাদের খেলতেই হবে। ফিফা ম্যাচের ভেন্যু ও দিনক্ষণ ঠিক করার দায়িত্ব ছেড়ে দেয় ব্রাজিলের ওপর।

ব্রাজিলের মাটিতে গত ৫ সেপ্টেম্বরের সেই ম্যাচে সমস্যাটা শুরু হয় মূলত ইংল্যান্ড থেকে আসা আর্জেন্টিনার চার ফুটবলারের কোয়ারেন্টিন ইস্যু নিয়ে। এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া, এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, জিওভানি লো চেলসো ও ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের নিয়ম না মানায় ম্যাচ শুরুর পাঁচ মিনিট পর ব্রাজিলের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা মাঠে ঢুকে খেলা বন্ধ করে দেন। তাদের সঙ্গে তর্ক করে আর্জেন্টাইন ফুটবলার ও কর্মকর্তারা পরে মাঠ ছাড়েন।


আরও খবর



নোয়াখালীতে বিদ্যুৎপৃষ্টে ব্যবসায়ীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | ২১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর সেনবাগে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খেলনা মেরামত করার সময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে তোফায়েল আহম্মেদ প্রকাশ রিপন (৪৫) নামের এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহষ্পতিবার (২৩ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার ৮নং বীজবাগ ইউনিয়নের ফকিরহাট অছিম উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রিপন স্থানীয় ফকিরহাট বাজারের ব্যবসায়ী ও বীজবাগ ইউপির মধ্য বিজবাগ গ্রামের বাকের চেয়ারম্যানের পুরাতন বাড়ীর মৃত আবুল হোসেনের ছেলে।   

বীজবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম উদ্দিন কাজল জানান, সকাল সাড়ে ১১টার ফকিরহাটে অছিম উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খেলনা মেরামত করার সময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে তোফায়েল আহম্মেদ রিপন আহত হয়। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক,শিক্ষার্থী ও স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্বার করে সেনবাগ সরকারী হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

সেনবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলে পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



পুঁজিবাজারে সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সপ্তাহের তৃতীয় কর্মদিবস মঙ্গলবার (৩১ মে) সূচকের উত্থানের মধ্য দিয়ে দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে। এদিন প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বেড়েছে ৪ পয়েন্ট। সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন এবং অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমেছে ৩ পয়েন্ট।

ডিএসইর তথ্য মতে, মঙ্গলবার বাজারে ৩৭৭টি প্রতিষ্ঠানের ১৭ কোটি ৪৯ লাখ ২৫ হাজার ৫২৫টি শেয়ার ও ইউনিট কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে ১৩৭টি কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৯৬টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টির।

অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমার দিনেও বড় মূলধনী কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ায় এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ৪ দশমিক ১৯ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৩৯২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে বেড়েছে ২ পয়েন্ট এবং তবে কমেছে ডিএস-৩০ সূচক, দশমিক ৫৫ পয়েন্ট।

মঙ্গলবার ডিএসইতে ৬৩৭ কোটি ৮৭ লাখ ৬৮ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৮৩৬ কোটি ৪০ লাখ ১৭ হাজার টাকার শেয়ার। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে।

এদিন সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ার। এরপর যথাক্রমে লেনদেন হয় ওরিয়ন ফার্মা, ফুয়াং ফুড, জিএসপি ফাইন্যান্স, বেক্সিমকো ফার্মা, স্কয়ার ফার্মা, এসিআই ফরমুলেশন, জেএমআই হসপিটাল, আইপিডিসি এবং জেনেক্স ইনফোসেস লিমিটেড।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৬৬৭ পয়েন্টে।

এ বাজারে ২৭৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৮৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৬২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির। এদিন লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ৫৭ লাখ ১১ হাজার ২৫২ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৩০ কোটি ৯৮ লাখ ৮৩ হাজার ৩০০ টাকা।


আরও খবর
পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান

বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২




প্যারাসিটামলে মৃত্যু: ১০৪ শিশুর পরিবারকে ১৫ লাখ করে দিতে নির্দেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভেজাল প্যারাসিটামল সেবনে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় মোট ১০৪ শিশুর প্রত্যেকের পরিবারকে ১৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরকে এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ১০৪ শিশু মৃত্যুর জন্য দায়ী সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি, কোম্পানির কাছ থেকে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর উক্ত অর্থ আদায় করবে।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। অপরপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. আসাদুজ্জামান।

পরে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ বলেন, ১৯৯১ সালে ভেজাল প্যারাসিটাল সিরাপ সেবন করে ৭৬ শিশু এবং ২০০৯ সালে রিড ফার্মার প্যারাসিটামল সেবন করে ২৮ শিশু মারা যায়। এ ঘটনায় ২০১০ সালে পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে মানবাধিবার সংগঠন এইচআরপিবি জনস্বার্থে হাইকোর্টে রিট দায়ের করে। রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেন। রুলের দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত আজ রায় দিয়েছেন। রায়ে ভেজাল প্যারাসিটামল সেবনে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় মোট ১০৪ শিশুর প্রত্যেকের পরিবারকে ১৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া ভেজাল ওষুধ নিয়ন্ত্রণে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের নিষ্ক্রিয়তা অবৈধ ঘোষণা, ভেজাল ওষুধের অপরাধের ক্ষেত্রে বিশেষ ক্ষমতা আইন অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দিয়েছেন। পাশাপাশি আদালত বলেছেন, ভেজাল ওষুধের কারণে শিশু মৃত্যুর দায় ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এড়াতে পারে না।

এদিকে রিড ফার্মার ভেজাল প্যারাসিটামল সিরাপ সেবন করে ২৮ শিশু মারা যাওয়ার ঘটনায় ওষুধ কোম্পানিটির মালিকসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করা হয়। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক মো. শফিকুল ইসলাম ঢাকার ড্রাগ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার বিচার শেষে ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর পাঁচ জনকে খালাস দেন বিচারিক আদালত।

ওই রায়ের পর্যবেক্ষণে বিচারিক আদালত বলেছিলেন, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর মামলাটি করার ক্ষেত্রে ১৯৮০ সালের ড্রাগ আইন যথাযথভাবে অনুসরণ করেননি। মামলায় যথাযথভাবে আলামত জব্দ করা, তা রাসায়নিক পরীক্ষাগারে পাঠানো এবং রাসায়নিক পরীক্ষার প্রতিবেদন আসামিদের দেওয়া হয়নি। এক্ষেত্রে ড্রাগ আইনের ২৩, ২৫ ধারা প্রতিপালন করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের ক্ষেত্রে সাবেক ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক মো. শফিকুল ইসলাম ও আলতাফ হোসেন চরম অবহেলা, অযোগ্যতা ও অদক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন।


আরও খবর



মিথ্যাচারে নোবেল থাকলে মির্জা ফখরুল পেতেন: কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১০ জুন ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মিথ্যাচার আর লুটপাটের উপর যদি নোবেল পুরস্কার থাকত তাহলে বিএনপি মহাসচিব তা পেতেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, লুটপাট আর মিথ্যাচার বিএনপির অস্থিমজ্জায় মিশে আছে।

শুক্রবার (১০ জুন) সকালে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের অন্তর্গত দারুসসালাম থানা এবং নয় ও ১০ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে একথা বলেন।

বাংলাদেশের ইতিহাসে এবার সবচেয়ে বেশি টাকার বাজেট শেখ হাসিনা সরকার দিয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাতেই মির্জা ফখরুলসহ বিএনপি নেতাদের মুখে শ্রাবণের কালো মেঘের ছায়া পড়েছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মিথ্যাচার আর লুটপাটের উপর যদি নোবেল পুরস্কার থাকতো তাহলে বিএনপি মহাসচিব তা পেতেন।

বিএনপি মহাসচিবের কাছে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশে পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, কর্ণফুলী টানেলসহ বিভিন্ন বড় বড় প্রকল্প নির্মাণ করা কি শেখ হাসিনার অপরাধ?

নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে যাবে না, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পাল্টা প্রশ্ন রেখে বলেন, বেগম জিয়া এক সময় বলেছিলেন শিশু ও পাগল ছাড়া দেশে নিরপেক্ষ কেউ নেই, তাহলে বিএনপি কি পাগল ও শিশুকে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকার বানাতে চায়?

পলাতক ও দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি তারেক রহমান টেমস নদীর ওপার থেকে বিএনপি নেতাদের কাছে পাচার করা টাকা পাঠিয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার ষড়যন্ত্র করছে, এমন অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদের দলের নেতা-কর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হলে দলের দুঃসময়ের নেতা-কর্মীদের বাঁচাতে হবে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দলকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করে আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

আওয়ামী লীগে ভালো লোকের অভাব নেই, তাই খারাপ লোকদের দলে রাখার কোনো প্রয়োজন নেই বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

পদ্মাসেতু উদ্বোধন হতে যাচ্ছে শুনে সারাদেশের মানুষের মুখে হাসি কিন্তু বিএনপি নেতাদের মনে বড় কষ্ট বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

দারুসসালাম থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মাজহারুল আনামের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুল রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, সংসদ সদস্য আগা খাঁন মিন্টুসহ অন্য নেতারা।


আরও খবর



গুরুদাসপুরে কোরবানির চাহিদার চেয়ে অর্ধলক্ষের বেশি পশু প্রস্তুত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ জুন ২০২২ | ৪৫৫জন দেখেছেন

Image

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি:

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে বিক্রির জন্য ৮৫ হাজার কোরবানির পশু প্রস্তুত করছেন খামারিরা। উপজেলায় কোরবানির পশুর চাহিদা রয়েছে প্রায় ৩৬ হাজার ৬৫২ টি। চাহিদার চেয়ে সাড়ে ৪৮ হাজার উদ্বৃত্ত পশু বাইরে বিক্রি করতে পারবেন খামারিরা।

গুরুদাসপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহের জরিপে উপজেলায় ২ হাজার ৩৫৬ জন খামারি ৮৪ হাজার ১০০ কোরবানির পশুর মধ্যে গরু ২৮ হাজার ২৪৯ টি, মহিষ ৬৮৭, ছাগল ৫০ হাজার ৬১০ ও ৫ হাজার ৫৪৬ টি ভেড়া সামনের ঈদুল আযহার কোরবানির জন্য প্রস্তুত করছেন। এসব পশুর বাজারমূল্য ধরা হয়েছে প্রায় ৫০০ কোটি টাকা।

উপজেলার খুবজিপুর এলাকার খামারি তানজির রহমান তনু বলেন, তিনি আসন্ন কোরবানির জন্যে ১৬টি গরু প্রস্তুত করছেন। বাজারে চাউলের চেয়ে গবাদি পশুর খাদ্যের দাম বেশী। এছাড়া লেবারসহ অন্যান্য খামার ব্যবস্থাপনার খরচ অস্বাভাবিক বেড়ে গেছে। বর্তমানে গরুর বাজারমূল্য মোটামুটি, আশা করছি আরও বাড়বে। তবে বাজারমূল্য কমে গেলে লোকসান গুনতে হবে।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আলমগীর হোসেন বলেন, কোরবানির দিন এগিয়ে আসার সাথে সাথে বানিজ্যিক খামার ও পশুর সংখ্যাও বাড়বে। বাজারে সব ধরনের গো খাদ্যের দাম বেড়েছে। তাই কৃষক ও খামারিদের গবাদি পশুকে কাঁচা ঘাস খাওয়ানোর ওপড় জোড় দিতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। গো খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় কোরবানির পশুর দামও বাড়বে বলে তিনি আশা করেন।


আরও খবর