আজঃ শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

শেখ হাসিনা মানেই সমৃদ্ধ বাংলাদেশ : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ১৪৪০জন দেখেছেন
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম (এমপি) বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানেই সমৃদ্ধ বাংলাদেশ, তিনি মনে করেন এ দেশের প্রতিটি মানুষের প্রতি তাঁর দায়িত্ব রয়েছে, সে যে ধর্মের বা যে দলেরই হোক না কেন। তাই তিনি দেশের প্রতিটি নাগরিকের খাদ্য ও রাষ্ট্রীয় সকল সেবা নিশ্চিত করেছেন। করোনার এই ভয়াবহ সময়েও বছরের শুরুতে তিনি শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে বই পৌঁছে দিয়েছেন। সকল শ্রেণির মানুষকে বিনামূল্যে করোনার ভ্যাকসিন দিচ্ছেন। তিনি প্রতিহিংসার বা সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করেন না। শেখ হাসিনা না থাকলে দেশের উন্নয়ন থেমে যাবে, দেশে আবার জঙ্গি, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি বেড়ে যাবে। শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন তিনি ভাল থাকলে আমরা ভাল থাকব।

মন্ত্রী আজ মঙ্গলবার দিনব্যাপি পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কার্যক্রমের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, শেষে আলহাজ্ব আব্দুর রহমান ডিগ্রী কলেজ প্রাঙ্গনে, বলদিয়া সেন্ট্রাল মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে ও বলদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এলাকার উন্নয়ন নিয়ে অনুষ্ঠিত পৃথক তিনটি সুধী সমাবেশে বক্তব্যে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী সকালে চাঁদকাঠি জিসি-বৈঠাকাঠা সড়কে আরসিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। দুপুরে বলদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪ তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। বিকেলে মন্ত্রী ইয়ংমেন্স ক্লাব আয়োজিত চেয়ারম্যান কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন। এছাড়াও মন্ত্রী বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী দানবীর আব্দুর রহমান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শহিদুল্লাহ মিয়া ও সমাজ সেবক শামিম হাসানের কবর জিয়ারত করেন।  

সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম ছাড়াও আরও বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম, উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক, ইউএনও মো. মোশারেফ হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক এস এম ফুয়াদ, ইউপি চেয়ারম্যান মো. সাইদুর রহমান, উপজেলা যুবলীগ নেতা শাহ মো. নাসির উদ্দিন প্রমুখ।

এসময় পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) থান্দার খাইরুল ইসলাম পিপিএম  (সেবা), নেছারাবাদ থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার গৌতম নারায়ন চৌধুরী, জেলা পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গোপাল বসু, নাজিরপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহরিয়ার ফেরদৌস রুনা, আইনজীবি আল আমিন রিজভী, জেলা তাতী লীগের আহবায়ক ইরানী শেখ, বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ মিরপুর কলেজ শাখার সভাপতি সুমি জামান, ইউপি সদস্য মো. সোহাগ মিয়া ও ইউপি সদস্য মো. বাবুল বাহাদুরসহ দলীয় নেতাকর্মী ও অন্যান্য ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ইরানকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে: যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইরানকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে হুশিয়ার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনায় ৫১ মার্কিন সামরিক কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তেহরানের নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রতিক্রিয়ায় রোববার যুক্তরাষ্ট্র ওই হুশিয়ারি দেয়। খবর আরব নিউজের।

হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে রোববার এক বিবৃতিতে ইরানকে ওই হুশিয়ারি দেওয়া হয়। বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান বলেছেন, ইরানের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা মার্কিন সেনা কর্মকর্তা ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের কোনো নাগরিকের ওপর হামলা হলে এর পরিণতি হবে ভয়াবহ।  

ইরাকে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যার দায়ে গত শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর ৫১ পদস্থ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইরান।

২০২০ সালে ইরাকের বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলায় ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কুদস ফোর্সের শীর্ষ ওই জেনারেলকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র। এ ঘটনায় এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে বলে শনিবার জানিয়েছে তেহরান।

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, সন্ত্রাসবাদ এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে ৫১ মার্কিন সামরিক কর্মকর্তাকে টার্গেট করা হয়েছে।  ইরানের নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা মার্কিন সামরিক কর্মকর্তাদের মধ্যে আছেন জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলি, হোয়াইট হাউসের সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ওব্রায়েন।

এ নিষেধাজ্ঞার ফলে ইরানে থাকা মার্কিন কর্মকর্তাদের সম্পদ ইরানি কর্তৃপক্ষ বাজেয়াপ্ত করতে পারবে। তবে ইরানে মার্কিন কর্মকর্তাদের সম্পদ না থাকায় এই নিষেধাজ্ঞা প্রতীকী ব্যবস্থা বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তেহরানের স্থানীয় গণমাধ্যমে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতির বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, জেনারেল কাসেম সোলাইমানি এবং তার সহযোগীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবাদী ভূমিকায় সংশ্লিষ্টতা এবং সন্ত্রাসবাদ ও মৌলিক মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে ওই ৫১ জনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর অভিজাত শাখা কুদস ফোর্সের কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানি, যিনি এই বাহিনীর বৈশ্বিক কর্মকাণ্ডের নেতৃত্ব দিয়ে আসছিলেন।

তাকে ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরাকে ড্রোন হামলা চালিয়ে হত্যা করে মার্কিন সামরিক বাহিনী। পরে দেশটির তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা দেন, তার নির্দেশেই সোলাইমানিকে হত্যা করা হয়েছে।


আরও খবর



চিকিৎসকদের গবেষণায় মনোনিবেশ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের চিকিৎসকদেরকে গবেষণায় মনোনিবেশ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে তিনি এই আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের চিকিৎসকরা রোগী নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। কিছুটা সময় যদি আপনারা ব্যয় করেন, গবেষণায় নজর দেন, আমাদের দেশের আবহাওয়া-জলবায়ু, এদেশের মানুষের কী কী ধরনের রোগ দেখা দেয়, প্রতিরোধ শক্তি কীভাবে বাড়ানো যায়, সেটি কিন্তু তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া যায়।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের বেশিরভাগ রোগী কিন্তু পেটের সমস্যায় ভুগত। ইতোমধ্যে আমরা কিন্তু গ্যাস্ট্রোলিভার ইন্সটিটিউট করে দিয়েছি।  ইএনটি ইন্সটিটিউট, আই ইন্সটিটিউট, সব ধরণের ইন্সটিটিউট কিন্তু আমরা সরকারে আসার পর থেকে ধাপে ধাপে করে দিয়েছি। 

এ সময় প্রধানমন্ত্রী ভয় না পেয়ে দেশবাসীকে করোনার টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দেশবাসীর জন্য আমরা ৩১ কোটি টিকার ব্যবস্থা করেছি।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী এই অনুষ্ঠানে বিভাগীয় ৮টি শহরে সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর ঘোষণা করেন।


আরও খবর



বরিশালে এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যা,নারী আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২ | ১০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বরিশালের হিজলা উপজেলায় ছাগলে ধানের বীজ খাওয়াকে কেন্দ্র করে কাঞ্চন আলী রাঢ়ী (৬৫) নামে এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহত কাঞ্চন ওই এলাকার মৃত আলী আহমেদ রাঢ়ীর ছেলে। এ ঘটনায় এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

ওই উপজেলার হিজলা-গৌরবদী ইউনিয়নের বিশর গ্রামে গত বুধবার (২৬ জানুয়ারী) বেলা ১২টার দিকে কাঞ্চন আলীকে কুপিয়ে আহত করার পর একই দিনে দিবাগত রাতে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

হিজলা থানার ওসি ইউনুস মিয়া বলেন, বৃদ্ধ কাঞ্চন হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে ফাতেমা বেগম নামে এক নারীকে আটক করা হয়েছে। অন্যান্যদের আটকের চেস্টা চলছে। দুই গ্রুপের সংঘর্ষে প্রতিপক্ষ গ্রুপেরও একজনকেও আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান ওসি। এ ঘটনায় মামলঅ দায়ের সহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন তিনি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আলাউদ্দিন দফাদার জানান, নিহত কাঞ্চনের ছাগল গতকাল বুধবার দুপুরে প্রতিবেশী মোল্লা বংশের এক ব্যক্তির ক্ষেতের ধানের বীজ খায়। এ নিয়ে কাঞ্চনের সাথে প্রতিপক্ষ মোল্লা গ্রুপের বাদানুবাদ এবং এক পর্যায়ে সংঘর্ষ হয়। এসময় মোল্লা গ্রুপের মিরন মোল্লা, মহিউদ্দিন, শাহাবুদ্দিন, ইমরান, ইমন, রাসেল ও কামালসহ অন্যান্যরা কাঞ্চনকে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে আহত করে। স্থানীয়রা প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নেয়া হলে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।


আরও খবর
সৈকতে ভেসে এলো মৃত ইরাবতী ডলফিন

রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২

সৈকতে ভেসে এলো মৃত ইরাবতী ডলফিন

রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২




ওমিক্রন হলে যেসব উপসর্গ দেখা দিতে পারে

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসের অতি-সংক্রামক নতুন রূপ ওমিক্রনে আক্রান্ত সংখ্যা। ইউরোপ ও আমেরিকায় আশঙ্কাজনক হারেই বাড়ছে ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা। প্রতিবেশী দেশ ভারতেও বিপজ্জনক হয়ে উঠছে ওমিক্রন।

অনেক মানুষের কাছে ওমিক্রন সাধারণ ঠাণ্ডার মতো মনে হবে। অনেকে বলেছেন, ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়ার পর তাদের গলা শুকিয়ে যাওয়া, সর্দি লাগা, শরীরের জয়েন্টে ব্যথা বা মাথাব্যথা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. সাইফুল্লাহ মুনশি বলেছেন, ওমিক্রনের লক্ষণগুলো খুবই হালকা ধরনের হয়। ডেলটা বা অন্য ধরনগুলোর মতো অতোটা প্রকট নয়। অনেকের ফুসফুসের ওপরের দিকে ব্যথা হতে পারে। সাধারণত সিকোয়েন্সিং করে এটা শনাক্ত করা যায়।

তবে তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা গেলেই যেসব সতর্কতা নেওয়ার কথা বারবার বলা হয়েছে, সবাইকে সেগুলো নিতে হবে। শুধু ওমিক্রনের জন্য আলাদা কোনও ব্যবস্থা নেওয়ার নেই।

এর আগের করোনাভাইরাসের ধরনগুলোয় আক্রান্ত হলে স্বাদ বা গন্ধ চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটতো। এছাড়া কাশি এবং উচ্চ তাপমাত্রার জ্বর হতো। এখনও করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে এই তিনটি প্রধান লক্ষণ।

চিকিৎসকরা বলছেন, ওমিক্রনে আক্রান্ত হলে অনেক সময় হালকা ঠাণ্ডা বা সাধারণ অসুস্থতার মতো ঘটনাও ঘটতে পারে। এছাড়া আরও যেসব উপসর্গ দেখা দিতে পারে:

বুকের ওপরের অংশে ব্যথা

মাথাব্যথা, জ্বর

ক্লান্ত লাগা

শরীরে ব্যথা

গলা শুকিয়ে যাওয়ার অনুভূতি

শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক তৌফিক আহমেদ বলেছেন, যদিও ডেলটা ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় ওমিক্রন অনেক বেশি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্য-উপাত্তে জানা যাচ্ছে, ওমিক্রন একটু হালকা ধরনের, আক্রান্তদের গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়া বা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার হার কম।

তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহামারী বিশেষজ্ঞ ড. আব্দি মাহামুদ বলেছেন, ওমিক্রন যে অন্যান্য ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে কম ক্ষতিকর, সেটি বলার মতো যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি। সুতরাং মুল বার্তা হল- আপনি যদি টিকা নিয়ে থাকেন, তাহলেই আপনি নিরাপদ।

যে দেশে প্রথম ওমিক্রন শনাক্ত হয়, সেই দক্ষিণ আফ্রিকায় রোগটি পিক অবস্থায় চলে গেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: ওমিক্রনের লক্ষণ

আরও খবর
করোনায় আরও ২০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৪৪০

শুক্রবার ২৮ জানুয়ারী ২০২২

করোনায় মৃত্যু ১৫, শনাক্ত ১৫ হাজার ৮০৭ জন

বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২




শেখ হাসিনা জনবান্ধব সরকারপ্রধান: মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৯২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চান সব শ্রেণি-পেশার মানুষের জন্য রাষ্ট্র নৈতিক দায়িত্বের জায়গা থেকে সকল চেষ্টা অব্যাহত রাখবে। তিনি বিপন্ন, অসহায়, দুস্থ, অনাথসহ সকল শ্রেণির মানুষের অধিকার নিশ্চিত করছেন

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, "প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনবান্ধব সরকারপ্রধান। তিনি এমন সরকারপ্রধান যিনি কাউকে পেছনে ফেলে রাখেন না। তিনি দুস্থ-অসহায় মানুষের সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিতে কাজ করে যাচ্ছেন। সকল মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য অবিরাম পরিশ্রম করে চলেছেন। প্রতিবন্ধী, স্বামী পরিত্যাক্তা, দুস্থ, বিধবা, অসহায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা থেকে শুরু করে এমন কোন জায়গা নেই যেখানে বঙ্গবন্ধু কন্যার মমত্বের সহযোগিতা পৌঁছাচ্ছে না। সর্বত্র সকলকে নিয়ে তিনি সামনে এগোতে চান"।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) পিরোজপুর সার্কিট হাউস মিলনায়তনে ক্যান্সার, কিডনী, লিভারসিরোসিস, স্ট্রোকে প্যারালাইজড, জন্মগত হৃদরোগ ও থ্যালাসেমিয়া রোগীর জন্য আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।


পিরোজপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয় যৌথভাবে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সমাজসেবা অধিদপ্তরের আওতায় ৪৩ জন দরিদ্র রোগীকে চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করেন মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, "প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চান সব শ্রেণি-পেশার মানুষের জন্য রাষ্ট্র নৈতিক দায়িত্বের জায়গা থেকে সকল চেষ্টা অব্যাহত রাখবে। তিনি বিপন্ন, অসহায়, দুস্থ, অনাথসহ সকল শ্রেণির মানুষের অধিকার নিশ্চিত করছেন। আমরা এমন একজন জনবান্ধব প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি যিনি দুঃখী মানুষের কষ্ট বোঝেন। অনুন্নত এলাকার বেদনা তাকে আকৃষ্ট করে। তিনি এমন ব্যতিক্রমধর্মী রাষ্ট্রনায়ক"।

জটিল রোগে আক্রান্তদের জন্য আর্থিক অনুদানের বরাদ্দ বাড়ানোসহ পিরোজপুরের সব খাতের পরিসর বাড়ানোর জন্য চেষ্টা করছেন বলে এসময় জানান মন্ত্রী। একসময় উন্নয়নবঞ্চিত পিরোজপুর দেশের অন্যান্য স্থানের মতো উন্নয়নের সমতার জায়গায় চলে আসবে বলেও এসময় আশা প্রকাশ করেন তিনি।

পরে মন্ত্রী যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন হতে অস্বচ্ছল ক্রীড়াবিদদের মাঝে আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করেন। এর আগে মন্ত্রী পিরোজপুর সার্কিট হাউসে প্রাঙ্গণে শীতার্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে প্রাপ্ত শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। পরে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের কর্তৃক বাস্তবায়িত পিরোজপুর খেয়াঘাট-হুলারহাট সড়কের ধূপপাশায় ও রানীপুরে ২টি কালভার্ট উদ্বোধন করেন তিনি।

পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুরের সিভিল সার্জন ডা. হাসনাত ইউসুফ জাকী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার থান্দার  খায়রুল হাসান, পিরোজপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক ইকবাল কবির ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ চণ্ডীচরণ পাল। এছাড়া পিরোজপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আব্দুল বারী, পিরোজপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি আখতারুজ্জামান ফুলু, পিরোজপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার গৌতম নারায়ণ রায় চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য কামরুজ্জামান খান শামীম, পিরোজপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গোপাল বসু প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:

শেখ হাসিনা উন্নয়নবান্ধব সরকার প্রধান : শ ম রেজাউল করিম

উন্নত, সমৃদ্ধ ও বিজ্ঞানমনস্ক দেশ গড়ে তুলছেন শেখ হাসিনা : শ ম রেজাউল করিম


আরও খবর