আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

সাভারে ছিনতাই করে পালানোর সময় ছিনতাইকারী সহ দুই সহযোগী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
সাভার প্রতিনিধি

Image

সাভারের জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি এলাকা থেকে ছিনতাই করে পালানোর সময়, এক ছিনতাইকারী সহ দুই সহযোগীকে আটক করে হাইওয়ে পুলিশ। ছিনতাইকারীদের আটক করতে জা'বি প্রশাসন ও হাইওয়ে পুলিশ যৌথভাবে তড়িৎ অভিযান পরিচালনা করে। কিছুটা নির্জন হওয়ায় প্রায় সময়ে এই জায়গায় ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে সাধারণ পথচারী।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) রাত সারে ৮ টার দিকে ঢাকা আরিচা মহাসড়কের, জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটির মহিলা হলের বাউন্ডারি দেওয়ালের পাশে এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। এ সময় ভুক্তভোগী ইঞ্জিন মিস্ত্রি বাপ্পি ও দুলালের কাছ থেকে দুটি এন্ড্রয়েড মোবাইল সহ ত্রিশ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। তারা সাভার থেকে আশুলিয়ার শ্রীপুরে রিক্সা করে বাসায় যাচ্ছিলেন। ছিনতাইকারীরা ছিনতাই করে জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি দেওয়াল টোপকে গাঁ ঢাকা দিলে। সংবাদ পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও সাভার হাইওয়ে থানা পুলিশ যৌথ অভিযান পরিচালনায় করে এক ছিনতাইকারী সহ সহযোগী দুইজনকে আটক করে। আটকের পর ভুক্তভোগীরা এক ছিনতাইকারীকে সনাক্ত করতে সক্ষম হয়।

আটককৃত জীবন (১৮), পিতা- আজিম,ধামরাই উপজেলার ঢাউটা গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা। সম্রাট, পিতা -আসাদ,রংপুর জেলার ঢিমলা থানার স্থায়ী বাসিন্দা। সুমন, পিতা- শাহীন, ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও থানার সুবর্ণপুর গ্রামের বাসিন্দা।

তারা সবাই জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটির পার্শ্ববর্তী এলাকা ইসলামনগর গ্রামে ভাড়া থাকে। এসময় জীবন ডিস ব্যবসা, আজম ভ্যান চালক ও সুমন রিকশাচালক বলে পরিচয় প্রদান করে।

ভুক্তভোগী ইঞ্জিন মিস্ত্রি দুলাল জানায়, তার ছোট বাচ্চাটি অসুস্থ হওয়ায় সাভারে ডাক্তার দেখিয়ে বাড়ির পথে ফিরছিলেন। এ সময় জাহাঙ্গীরনগরের ডেইরিগেট পার হয়ে মহিলা হলের পাশে আসলে তিধ ছিনতাইকারী তাদের ঘিরে ধরে। এবং দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে সাথে থাকা মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়। তৎক্ষণাৎ দুলালের সাথে থাকা অন্য ইঞ্জিন মিস্ত্রি বাপ্পি রাস্তার অপর সাইটে সাভার হাইওয়ে থানায় দৌড়ে ঘটনাটি জানায়। সাথে সাথে ঘটনাস্থলে হাইওয়ে থানা পুলিশ আসলে, জাহাঙ্গীরনগর প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে জাহাঙ্গীরনগর ক্যাম্পাসে ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় সন্দেহভাজন এক ছিনতাইকারী সহ দুই সহযোগীকে আটক করে ভুক্তভোগীদের সামনে নিয়ে আসে জাবি প্রশাসন ও হাইওয়ে পুলিশ। তখন আমরা একজন ছিনতাইকারীকে সনাক্ত করতে সক্ষম হই।

সাভার হাইওয়ে থানার ওসি আজিজুল খোকন বলেন, রাত সাড়ে আটটার দিকে ভুক্তভোগীদের একজন দৌড়ে এসে হাইওয়ে থানার গেটে বিষয়টি জানায়। অভিযোগ শোনার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে আমি সহ আমাদের ফোর্স উপস্থিত হই। এবং জাহাঙ্গীরনগর প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে তৎক্ষণাৎ অভিযান পরিচালনা করে দুর্বৃত্ত ছিনতাইকারীদের সনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছি। পরে আটককৃত ছিনতাইকারীদের এনে ভুক্তভোগীদের সামনা সামনি করলে তারা একজন ছিনতাইকারীকে শনাক্ত করে। বাকি দুইজন ওই  ছিনতাইকারীদের সহযোগী বলে আমরা ধারণা করছি। তাদের জাহাঙ্গীরনগর ক্যাম্পাসের ভিতরে একই সাথে পাওয়া গেছে। আটককৃতদের আশুলিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে । তাদের বিরুদ্ধে আইনান্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বৈদেশিক মুদ্রার সংকট কাটিয়ে উঠছে দেশ, ফিরে এসেছে ট্র্যাকে : অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দেশে বর্তমানে বৈদেশিক মুদ্রার সংকট থাকলেও তা কাটিয়ে উঠছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। একই সঙ্গে বাংলাদেশ যে সম্ভাবনার দেশ, সেই ট্র্যাকেই ফিরে এসেছে। আজ সোমবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিলের (আইএফএডি) আবাসিক প্রতিনিধির আর্নদ হেমিলিয়ারসের সঙ্গে বৈঠকের শেষে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন। 

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে সংকট আছে, কিন্তু আমরা ওভারকাম করছি। আস্তে আস্তে আমরা উন্নতি করছি। একই সঙ্গে বাংলাদেশ এখন ঊর্ধ্বমুখী। বাংলাদেশ যে সম্ভাবনার দেশ, সেই ট্র্যাকেই ফিরে এসেছি। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ নাকি দেউলিয়া হয়ে গেল? না বাংলাদেশ কোথায় দেউলিয়া? এত বড় একটা দেশ দেউলিয়া হতে পারে না। আমাদের রিজার্ভ উন্নতি করছে।

দেশের সংকট কেটে যাচ্ছে কি নাজানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, হ্যাঁ, সংকট অনগোয়িং। সংকট আছে। কিন্তু আমরা ওভারকাম করছি। আস্তে আস্তে আমরা উন্নতি করছি। যদি ধারণা করেননতুন মন্ত্রিসভা হলো, কালই সব ঠিক হয়ে যাবে, এমনটা হবে না। কিন্তু অন দ্য ওয়ে, আস্তে আস্তে করতে হবে।

আরও পড়ুন>> বাড়তে পারে মন্ত্রিসভার পরিধি: ওবায়দুল কাদের

অর্থমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিলের (আইএফএডি) প্রজেক্ট চালু আছে। সেখানে তাঁরা নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে আসছেন। সেগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সুনির্দিষ্ট কোনো বিষয়ে জোর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে কি না এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, সেরকম কিছু না। তবে তারা আস্তে আস্তে উন্নয়ন করে। প্রতিবছরই উন্নয়নের বিষয়ে আলোচনা হয়। এ বছর উদ্ভাবনী বিষয়ে বাংলাদেশসহ অন্যান্য সবার সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরে অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, মার্কেটিং একটা সমস্যা। কৃষকের কাছ থেকে পণ্য ঢাকায় আসতে আসতে মধ্যস্বত্বভোগীদের হাতে চলে যায়। এটা একটা বড় সমস্যা। আমরা চিন্তাভাবনা করছি কীভাবে এটাকে পরিবর্তন করা যায়।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আইএফএডি এখানে সব সময় আমাদের সাহায্য করে। শুধু তাঁরা একা নয়, আমাদের অনেক পার্টনার আছে যেমন, জাপান, এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। এ ছাড়া আমাদের আরও ডেভেলপমেন্ট পার্টনার আছে তারা বিভিন্ন আইডিয়া নিয়ে আসে। তারপর মিলেমিশে আমরা একটা রাস্তা বের করে যেতে শুরু করি।

আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেন, আমরা কোনো নির্দিষ্ট দেশের ওপর নির্ভরশীল না। কিন্তু আমরা সবার সঙ্গে পরামর্শ করে কাজ করি, আইডিয়া গ্রহণ করি, সেটাকে বড় করি। আর্থিকভাবে বিভিন্ন পার্টনার সহায়তা করে। এভাবেই চলে।

এর আগে, সকালে এডিবি ও ফ্রান্সের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক করেছেন সেখানে কী আলোচনা হয়েছেতা জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ তো এখন ভালো করছে। তবে আমরা সমস্যা থেকে একেবারে বের হয়ে গেছি তা কিন্তু নয়।

এডিবি নতুন কোনো প্রতিশ্রুতি দিয়েছে কি নাএমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, নিশ্চয়ই করেছে। তারা বাংলাদেশকে সাহায্য করছে। এটা চলমান থাকবে। একটা কথা অনেকেই বলে, বাংলাদেশ কি দেউলিয়া হয়ে গেল? না, বাংলাদেশ কোথায় দেউলিয়া? এত বড় একটা দেশে দেউলিয়া হতে পারে না। আমাদের রিজার্ভ উন্নতি করছে।


আরও খবর



পেট্রোল রপ্তানি নিষিদ্ধ করল রাশিয়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পেট্রোল রপ্তানি নিষিদ্ধ করেছে রাশিয়া। আগামী সপ্তাহ থেকে দেশটির এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। অভ্যন্তরীণ চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় ৬ মাসের জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর প্রকাশ করেছে। 

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাশিয়ার বার্তা সংস্থা তাসের বরাত দিয়ে রয়টার্সের ওই খবরে বলা হয়েছে, বিদেশে রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞায় অনুমোদন দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুস্টিন। আগামী ১ মার্চ থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবার কথা রয়েছে। গেল বছরের শুরুর দিকেও একই ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছিল রাশিয়া।

রয়টার্স বলছে, ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী অ্যালেকজান্ডার নোভাক এক চিঠির মাধ্যমে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব করেন। ওই চিঠিতে তিনি অভ্যন্তরীণ বাজারের চাহিদার কথা উল্লেখ করে রপ্তানী বন্ধের প্রস্তাবনা উত্থাপন করেন।

তার দাবি, পেট্রলিয়াম পণ্যের চাহিদার কথা মাথায় রেখে দাম নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।


আরও খবর



মারা গেছেন কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী পঙ্কজ উদাস

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ভারতীয় কিংবদন্তি গজলশিল্পী পঙ্কজ উদাস আর নেই। মৃত্যুর আগে তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। গায়কের মৃত্যুর খবর ইনস্টাগ্রামের এক পোস্টে নিশ্চিত করেছেন তারই কন্যা নায়াব উদাস।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে পঙ্কজ উদাস নানা ধরনের অসুস্থতায় ভুগছিলেন। আজ সোমবার সকাল ১১টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ভারতের গুজরাটে জন্ম নেওয়া পঙ্কজ উদাস মূলত গাজল গায়ক হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পান। ১৯৮০ সালে আহত শিরোনামের গজল অ্যালবাম প্রকাশের মাধ্যমে তিনি তার সংগীত ক্যারিয়ার শুরু করেন। ৪০ বছরেরও বেশি সময় বলিউড মাতিয়েছেন পঙ্কজ। হিন্দি সিনেমার গানে ৮০র দশক-শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন কিংবদন্তি এই শিল্পী। নশা, পয়মানা, হসরত, হামসফরর মতো বেশ কয়েকটি বিখ্যাত অ্যালবামও রয়েছে তার ঝুলিতে।

চান্দি জ্যায়সা রং, না কাজরে কি ধার, দিওয়ারো সে মিল কর রোনা, আহিস্তা, থোড়ি থোড়ি প্যার করো, নিকলো না বেনাকাব- পঙ্কজ উদাসের গাওয়া এসব গজল আজও ভুলতে পারেনি শ্রোতা-দর্শকরা।


আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শাকিব ‘রাজকুমার’ হলে আমি রাজা: জায়েদ খান

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে রেলকে স্মার্ট প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে চাই: রেলমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি

Image

রেলপথ মন্ত্রী মো. জিল্লুল হাকিম বলেছেন, আমরা চেষ্টা করছি লোক নিয়োগ করে ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে রেলকে আধুনিকায়ন ও রেলপথ মন্ত্রণালয়কে পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করা। চেষ্টা চলছে রেলের সম্প্রসারণ, আধুনিকায়ন ও জনগণের কাছে সবচেয়ে সস্তা পরিবহন হিসেবে গড়ে তোলার।

আজ রোববার বেলা সোয়া ১১টার দিকে পাবনার ঈশ্বরদী শহরের ফতেমোহাম্মদপুরে ৯৫ বছর আগে নির্মিত বাংলাদেশ রেলওয়ে ডিজেল লোকোমোটিভ রানিং শেড পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক রেল মন্ত্রণালয়কে স্মার্ট বাংলাদেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমরা রেলকে সুন্দর ও সেবামুখী স্মার্ট প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

তিনি বলেন, বিএনপির আমলে রেলের অনেক লোককে গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে চাকরিচ্যুত করে জনবলের সংকট সৃষ্টি করা হয়। যা এখনো অব্যাহত রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি লোক নিয়োগ করে ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে রেলকে আধুনিকায়ন এবং রেলপথ মন্ত্রণালয়কে পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করতে।

বক্তব্যের একপর্যায়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন, আপনারা সাংবাদিক মানুষ। আমি কালকে পার্বতীপুর, সৈয়দপুরে যে কথাগুলো বলেছি তা সঠিকভাবে উপস্থাপন করা হয়নি। আপনারা তো সমাজের বিবেক। কথাগুলো যদি পজিটিভ ওয়েতে উপস্থাপন না করা হয়, সে ক্ষেত্রে কিন্তু আমি মনে করব যে আপনারা সহযোগিতা করছেন না। কিন্তু আমরা চাই আপনাদের সহযোগিতা। কারণ আপনারাও বাংলাদেশের নাগরিক, আমরাও বাংলাদেশের নাগরিক। আমরা সবাই দেশের উন্নয়ন চাই। সে ক্ষেত্রে নেগেটিভ নিউজ করে উন্নয়ন আশা করা যায় না।

মন্ত্রীর পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন, রেলসচিব ড. মো. হুমায়ুন কবীর, রেলওয়ের মহাপরিচালক কামরুল হাসান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক পার্থ সরকার, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক অসীম কুমার তালুকদার, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী রাজশাহী পশ্চিমাঞ্চলের চিফ কমান্ড্যান্ট আশাবুল ইসলাম, পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক শাহ সুফী নুর মোহাম্মদ, বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী মমতাজুল ইসলাম, ঈশ্বরদী ডিজেল লোকোমোটিভ রানিং শেডের ঊর্ধ্বতন উপসহকারী (ইনচার্জ) মো. শাকের জামাল, রেলওয়ে শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। এর আগে মন্ত্রী শনিবার রাতে ট্রেনযোগে নাটোরের আব্দুলপুর জংশন স্টেশনে নামেন। সেখান থেকে তিনি ঈশ্বরদীর পাকশীতে এসে রাত্রিযাপন করেন।

উল্লেখ্য, ঈশ্বরদী শহরের ফতেমোহাম্মদপুরে অবস্থিত এ স্থাপনা ব্রডগেজ রেলপথের ক্ষেত্রে দেশের সবচেয়ে বড় ডিজেল লোকোমোটিভ রানিংশেড। ১৯২৯ সালে বাষ্পীয় ইঞ্জিনের লোকশেড হিসেবে এর যাত্রা শুরু হয়। তখন এখানে বাষ্পীয় ইঞ্জিন মেরামত হতো। ষাট ও সত্তরের দশকে যুক্ত হয় ডিজেল ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ (ইঞ্জিন)। পর্যায়ক্রমে এটি ডিজেল লোকোমোটিভ রানিং শেডে রূপান্তরিত হয়। বর্তমানে এখান থেকে ১২৭টি ইঞ্জিন বিভিন্ন ব্রডগেজ রেলপথে যাত্রী ও মালবাহী ট্রেন নিয়ে চলাচল করেছে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিলেট বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ জয়িতা সম্মাননা প্রদান সম্পন্ন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
সিলেট প্রতিনিধি

Image

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় সিলেটের উদ্যোগে তৃণমূলের সংগ্রামী নারীদের উজ্জীবিত ও অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে প্রতিবছর জীবনযুদ্ধে জয়ী নারীদের স্বীকৃতি প্রদানের জন্য জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ শীর্ষক কার্যক্রমের ধরাবাহিকতায় সিলেটে বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচিত ৫ জন শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে নগরীর পূর্ব শাহী ঈদগাহস্থ জেলা শিল্পকল্পা একাডেমিতে আয়োজিত সিলেট বিভাগীয় পর্যায়ে জয়িতা সম্মান প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ঢাকার মহাপরিচালক (গ্রেড-১) কেয়া খান।

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী এনডিসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি শাহ মিজান শাফিউর রহমান বিপিএম-বার, পিপিএম, এসএমপি সিলেটের পুলিশ কমিশনার মোঃ জাকির হোসেন খান পিপিএম, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ঢাকার পরিচালক (যুগ্ম সচিব) জাকিয়া আফরোজ, অতিরিক্ত পরিচালক (যুগ্ম সচিব) ও জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ কর্মসূচির পরিচালক সালেহা বিনতে সিরাজ, সিলেটের জেলা প্রশাসক শেখ রাসেল হাসান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক এমপি, রোকেয়া পদকপ্রাপ্ত সৈয়দা জেবুন্নেছা হক।

সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) দেবজিৎ সিংহ এর স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যম সূচিত অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সিলেটের উপ-পরিচালক শাহিনা আক্তার।

সিলেট জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্ত এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণলয়ের এপিসি প্রকল্পের চাইল্ড রাইটস্ ফ্যাসিলিটেটর প্রিয়াংকা দাস রায় এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ শীর্ষক কার্যক্রমের আওতায় ৫টি ক্যাটাগরিতে সিলেট বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ জয়িতা যথাক্রমে অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী সিলেটের আছমা কামালী শান্তা, শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী সিলেটের অধ্যাপক ডাঃ শামসুন নাহার বেগম, সফল জননী মৌলভীবাজারের কমলী রবিদাশ, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে নতুন জীবন শুরু করেছেন যে নারী হবিগঞ্জের নাজমা আক্তার, সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখেছেন যে নারী হবিগঞ্জের স্বপ্না রাণী দেব বর্মা-কে  উত্তরীয়, ক্রেস্ট, সম্মাননা চেক ও সনদপত্র প্রদান করেন প্রধান অতিথি সহ অতিথিবৃন্দ।

বিভাগীয় পর্যায়ে রানার্স জয়িতা- সুফিয় রহমান, মোছাম্মত সেলিনা বেগম, বেগম হাজেরা হাশেম ও বিনতা দেব-কে উত্তরীয় ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে জয়িতা তোমরাই বাংলাদেশের বাতিঘর শীর্ষক স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ঢাকার মহাপরিচালক কেয়া খান বলেন, দেশ-জাতি, সমাজের উন্নয়ন সহ সর্বক্ষেত্রে মায়েদের আবাদন বেশি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী থাকার কারণে আজ নারী সমাজ শিক্ষা, চিকিৎসা, চাকুরী, উদ্যোক্তা, সমাজসেবা সহ সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছেন। নারীরা এখন আর পিছিয়ে নেই। দক্ষতার সাথে তারা দেশের উন্নয়নে নিরলস ভাবে ভূমিকা রাখছেন। সমাজে প্রতিকূলতা অতিক্রম করে যে নারী তাঁর কাজের মাধ্যমে উজ্জীবিত তাঁদের সম্মান ও স্বীকৃতি প্রদানের জন্য জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ কার্যক্রমটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। এতে নারী সমাজের সম্মান বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল সকলক্ষেত্রে নারীদের অবদান নিশ্চিত করা।

পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী কাজ করায়, নারীর উন্নয়নের পাশাপাশি বাংলাদেশ বহির্বিশ্বে সুনামের সাথে পরিচিত লাভ করেছে। তিনি বাল্য বিবাহ রোধে কাজ করার পাশাপাশি জয়িতা সম্মাননা পাওয়ার ক্ষেত্রে নারীদের উৎসাহিত করে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে নারী পুরুষ সমতার মাধ্যমে সবাইকে এক যুগে কাজ করার আহবান জানান।

নিউজ ট্যাগ: সিলেট

আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪