আজঃ রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

শাহজাদপুরে ট্রাক উল্টে খাদে, নিহত ২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | ৭৮৫জন দেখেছেন

Image

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রিতিনিধি:

সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুর উপজেলার শাহজাদপুর-জামিরতা আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক উল্টে ২ জন শ্রমিক  নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ১৭ জন শ্রমিক। মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার জামিরতা আঞ্চলিক সড়কের পারজামিরতা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন পোরজনা ইউনিয়নের বাশুরিয়া গ্রামের তানুক আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩০) ও একই গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে বাবর(৫০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানায়, জামিরতা গ্রাম থেকে ট্রাক নিয়ে অর্ধশত শ্রমিক ধান কাটার জন্য রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওনা দেন। ট্রাকটি পারজামিরতা এলাকায় পৌছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে ট্রাকটি উল্টে খাদে পরে যায়। এতে ১৭ জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়। আহতদের মধ্যে মুমূর্ষূ অবস্থায় দুজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত্যু ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনা আহত অন্যদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে শাহজাদপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উল্টে যাওয়া ট্রাকটি উদ্ধার করে।


আরও খবর



চরম নাটকীয়তায় শেষ ম্যাচও হারল বাংলাদেশ

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শুরুটা হয়েছিলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। বাছাইপর্বে স্কটল্যান্ডের কাছে হারের পর ক্রিকেটে নতুন মুখ ওমান ও পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে বাংলাদেশ। যদিও বিশ্বকাপ মিশনে যাওয়ার আগে বিসিবির কর্মকর্তারা স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন সেমিফাইনাল খেলবে টাইগার বাহিনী।

বাছাই পর্ব থেকে বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার সুযোগ পাওয়ার পর কেমন যেন অগোছালো হয়ে যায় বাংলাদেশ শিবির। দল ও কোচিং স্টাফদের নিয়ে উঠে নানা প্রশ্ন। এমন অগোছালো দল নিয়ে বিসিবি কর্মকর্তারাও কঠোর হওয়ার ইঙ্গিত দেন। কিন্তু ভালো আর হলো কই?

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে থাকা ৬ জনকে পরিবর্তন করে একগাদা নতুন মুখ নিয়ে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টির দল ঘোষণা করে বিসিবি। যদিও নতুনদের দলে নেওয়া বা বেশ কয়েকজন সিনিয়রদের বাদ দেওয়ার কোনো কারণ ব্যাখ্যা করেননি কর্তা ব্যক্তিরা।

বিশ্বকাপে ধরাশায়ীর পর ঘরের মাঠেও পাকিস্তানের কাছে ধবলধোলাই হলো বাংলাদেশ। যদিও প্রথম দুই ম্যাচ হেরেই সিরিজ হাত ছাড়া করে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

নিয়মরক্ষার শেষ ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এদিন দলে আনা হয় বেশ কিছু পরিবর্তন। তবে শেষ ম্যাচের আগের দিন দলে ডাক পাওয়া পারভেজ হোসেন ইমন ও কামরুল ইসলাম রাব্বীকে রাখা হয়নি মূল একাদশে।

আগে ব্যাট করা বাংলাদেশ ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিলেও শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১২৪ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। দলের পক্ষে নাঈম শেখের ব্যাট থেকে ৫০ বলে আসে ৪৭ রান। যেখানে দুটি চার ও দুটি ওভার বাউন্ডারির মার ছিলো।

তাছাড়া শামীম হোসেন ২২ ও আফিফ হোসেনের ২০ রান ছাড়া বলার মতো কোনো রান করতে পারেননি কোনো ব্যাটসম্যান।

জয়ের জন্য ১২৫ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা হয় ধীরগতির ব্যাটিং দিয়ে। দলীয় ৩২ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১৯ রান করে আমিনুলের বলে ক্যাচ দিয়ে আউট হন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। পরে হায়দার আলীকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে সফরকারীরা। তবে ১৫ দশমিক ১ ওভারে দলীয় ৮৩ রানের মাথায় শহিদুল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন ৪৩ বলে ৪০ রান করা মোহাম্মদ রিজওয়ান।

তখনও পাকিস্তানকে জিততে হলে দরকার ২৮ বলে ৪১ রান। এমন সমীকরণেও ঘুরে দাঁড়াতে পারলো না বাংলাদেশ। তবে খেলা পর্যন্ত নাটকীয়তায় রূপ নেয়। ৬ বলে পাকিস্তানের দরকার হয় ৮ রান। বল হাতে নেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। প্রথম বল ডট, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে উইকেট। চতুর্থ বলে ছক্কা, পঞ্চম বলে আবারো উইকেট। জয়ের জন্য শেষ বলে দরকার দুই রান। আর একরান হলে সুপারওভার। কিন্তু ব্যাটসম্যান মোহাম্মাদ নেওয়াজ সব সমীকরণ শেষ করে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৫ উইকেট হাতে রেখেই শেষ ম্যাচেও জয় তুলে নিলো পাকিস্তানিরা।

বাংলাদেশের পক্ষে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এক ওভার বল করে ১০ রান দিয়ে নেন তিন উইকেট। আর শহিদুল ইসলাম ও আমিনুল ইসলাম নেন একটি করে উইকেট।

নিউজ ট্যাগ: টি-টোয়েন্টি

আরও খবর



খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ: ডা. জাফরুল্লাহ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রর ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে, মাঝে মাঝে রক্ত বমি করছেন।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে নাগরিক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় খালেদা জিয়াকে দেখতে হাসপাতালে যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন রাজনৈতিক নেতা।

সংবাদ সম্মেলনে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমরা মঙ্গলবার বিকেলে খালেদা জিয়াকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলাম। যা দেখেছি সম্প্রতিককালে এমন মর্মান্তিক ঘটনা আমাদের নজরে আসেনি। খালেদা জিয়া কতক্ষণ, কয় মিনিট, কয় দিন বাঁচবেন সেটা আমি বলতে পারব না। তবে এটা বলতে পারি খালেদা জিয়া চরম ক্রান্তিকালে আছেন।

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, তিনি অত্যন্ত ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আছেন। যে কোনো মুহূর্তে মারা যেতে পারেন। মেডিক্যাল বোর্ডের ৬ চিকিৎসক আমাকে বিস্তারিত বলেছেন। আমি তাদের ফাইলের প্রত্যেকটা লেখা পড়ে দেখেছি। ওনার মুখ দিয়ে রক্তপাত হচ্ছে। পায়খানার রাস্তা দিয়ে রক্তপাত হচ্ছে। ব্লাড প্রেসার একশোর নিচে নেমে এসেছে। আমি সেখানে দেখেছি খালেদা জিয়াকে রক্ত দেওয়া হচ্ছে। আমি ফাইলের প্রত্যেকটা লাইন দেখেছি, কারো মুখের কথায় কিছু বলছি না। সম্ভব হলে আজ (২৪ নভেম্বর) রাতেই ওনাকে বিদেশে ফ্লাই করা উচিত। আর না হলে যে কোনো কিছু ঘটে যেতে পারে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুর পরিচালনায় এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সদস্য অ্যাডভোকেট হাসনাত কাইয়ুম, নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়ক শহিদুল্লাহ কায়সার প্রমুখ।


আরও খবর



ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়ার এমডিকে হত্যা চেষ্টা: সাংবাদিক নেতাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমেটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিশিষ্ট শিল্পপতি সায়েম সোবহান আনভীরকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা এই ঘটনার সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত দাবী করে দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

রাজধানীর ভাটারা থানা পুলিশ ইস্টওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমেটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে সাইফুল ইসলাম সাদ (২৩) নামে এক যুবককে গত ৫ নভেম্বর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। সাদের বাড়ি চট্টগ্রামের পটিয়ায়। সাদ পুলিশকে বলেছে চট্টগ্রাম-১২ আসনের (পটিয়া) সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এবং তার ছেলে নাজমুল করিম  চৌধুরী ওরফে শারুণের নির্দেশে এই হত্যাকান্ডের ঘৃণ্য পরিকল্পনা নেয়া হয়। এজন্য শারুন সাদকে কিছু নগদ অর্থ ও একটি আগ্নেয়াস্ত্র দেওয়ার কথাও স্বীকার করেছেন। সাদকে পুলিশ তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে। এবিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রয়েছে।

সাংবাদিক নেতারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

এ বিষয়ে দেশ বরেণ্য সাংবাদিক, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক তথ্য উপদেষ্টা, অ্যাটকোর সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ডেইলী অবজারভার এর সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, আমি প্রথমত এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমি মনে করি এটা একটা বড় ধরনের ষড়যন্ত্র। যেহেতু পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে আশা করা যায় এর সুষ্ঠ সমাধানও হবে। এবং দায়ীরা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পাবে।

এছাড়া বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি তো শুধু একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তাই নন। তিনি একজন শীর্ষ ব্যবসায়ীও। এমন কি সায়েম সোবহান আনভীর একজন ক্রীড়ামোদী মানুষ। দেশের একটি বড় ক্রীড়া ক্লাবের তিনি চেয়ারম্যান। ফলে এমন একজন ব্যক্তিকে যারা হত্যার পরিকল্পনা করেন অবশ্যই তারা দুস্কৃতিকারী। এছাড়া কোন ব্যক্তিকেই হত্যার হুমকি দেওয়া বা হত্যার পরিকল্পনা করা আমি সমর্থন করিনা। এক্ষেত্রেও আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আশা রাখি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এর প্রকৃত কারণ ও অপরাধীরা চিহ্নিত হবে এবং এর একটা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলে তিনি মনে করেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, গণমাধ্যমের একজন মালিক ও একজন প্রতিষ্ঠিত শিল্পপতিকে হত্যার চেষ্টা আমাদের জন্য উদ্বেগ ও আতঙ্কের। শুধু তিনি কেন, যেকোন নাগরিককে হত্যাচেষ্টা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও ফৌজদারি অপরাধ। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ ঘটনায় একজন গ্রেফতার হয়েছে, তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে । পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে বের করা উচিত এর নেপথ্য ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে কারা আছেন। নেপথ্য ষড়যন্ত্রকারীদের চিহ্নত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই। পাশাপাশি হত্যা চেষ্টার ঘটনায় থানায় দায়ের করা মামলার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য পুলিশ প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করছি।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ বলেন, একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তাকে হত্যা চেষ্টা অত্যন্ত উদ্বেগ ও উৎকন্ঠার, আমি এঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। এই ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে যারা আছেন তাদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। আমি প্রত্যাশা করছি ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়ার এমডি ন্যায় বিচার পাবেন।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) মহাসচিব দীপ আজাদ বলেন, এঘটনায় থানায় একটি এজহার দেওয়া হয়েছে। পুলিশ প্রশাসন মামলাটির সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত করবে এমনটাই প্রত্যাশা করছি।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু বলেন, আমরা এই ষড়যন্ত্রের তীব্র নিন্দা জানাই। এই ঘটনায় থানায় একটি এজহার দেওয়া হয়েছে। আসামী রিমান্ডে আছেন। আমরা আশা করবো পুলিশ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে ষড়যন্ত্রকারীদের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিবে।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সহসভাপতি ওসমান গনি বাবুল বলেন, গণমাধ্যমের একজন মালিককে হত্যার চেষ্টা আমাদের জন্য উদ্বেগ ও আতঙ্কের। আমরা এই ঘটনার নিন্দা জানাই এবং থানায় দায়ের করা মামলার সুষ্ঠ ও নিরক্ষে তদন্তের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই।

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সভাপতি মিজান মালিক বলেন, আমরা গণমাধ্যমে দেখেছি সায়েম সোবহান আনভীরকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি মাদ্রাসা থেকে একজন যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুসন্ধরা গ্রুপের একজন কর্মকর্তা থানায় এজহার দিয়েছেন। এজহারের সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই।

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন আরিফ বলেন, আমি এঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সায়েম সোবহান আনভীর বাংলাদেশে প্রথম সারির একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তা। ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়ার অধীনে বাংলাদেশ প্রতিদিন, কালেরকন্ঠ, ডেইলী সান, নিউজ টুয়েন্টিফোর টেলিভিশন, বাংলা নিউজ টুয়েন্টিফোর, তিতাস টিভি ও ক্যাপিটাল রেডিওর মতো সাতটি গুরুত্বপূর্ণ গণমাধ্যম পরিচালিত হচ্ছে। এসব গণমাধ্যমে ক্র্যাবের অনেক সদস্য কর্মরত আছেন। তার মতো একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তকে হত্যা চেষ্টার ঘটনা আমাদের জন্য বড় ধরনের উদ্বেগ ও আতংকের পরিস্থিতি তৈরি করে। এই ঘটনায় বসুন্ধরা গ্রুপের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা মেজর (অব.) মিজানুর রহমান থানায় একটি অভিযোগ করার বিষয়ে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা চাই ঘটনার সঠিক ও নিরপেক্ষ তদন্ত। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এই ঘটনার নেপথ্য ষড়যন্ত্রকারিদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানাই।


আরও খবর
ডিআরইউ’র সভাপতি মিঠু, সম্পাদক হাসিব

মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১




চট্টগ্রাম কাস্টমসের সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আয়

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের অর্থনীতির লাইফ-লাইন খ্যাত চট্টগ্রাম বন্দরের আমদানি-রপ্তানি খাতে চার মাসে সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস।

চলতি অর্থ বছরের জুলাই-অক্টোবর প্রান্তিকে এই রাজস্ব আয় হয়েছে। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় এই রাজস্ব আয়ের পরিমাণ ৩ হাজার ৩৯৮ কাটি টাকা বেশি এবং প্রবৃদ্ধির হার ২৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ। শনিবার (১৩ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের কমিশনার মো. ফখরুল ইসলাম বিষয়টি জানিয়েছেন।

তিনি জানান, চলতি ২০২১-২২ অর্থ বছরে চট্টগ্রাম বন্দর কেন্দ্রীক আমদানি-রপ্তানি খাতে রাজস্ব আয় বিগত বছরের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। মূলত করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসার পর আমদানি-রপ্তানি বৃদ্ধি পাওয়া, রাজস্ব ফাঁকি রোধে কাস্টমস হাউজের কঠোর ব্যবস্থার পাশাপাশি আমদানি-রপ্তানিতে অনিয়ম বন্ধ হওয়ায় রাজস্ব আয় ইতিবাচকভাবে বাড়ছে।

কাস্টমস কমিশনার জানান, চলতি অর্থ বছরের  এক তৃতীয়াংশ সময়ে রাজস্ব আয়ে ২৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। গত জুলাই থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত চার মাসে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসে রাজস্ব আহরণ হয় ১৭ হাজার ৬৪৪ কোটি ১২ লাখ টাকা। এর আগের অর্থবছরের (২০২০-২১) একই সময়ে রাজস্ব আদায় হয়েছিল ১৪ হাজার ২৪৫ কোটি ৭৩ লাখ টাকা।

গত অর্থবছরের এক তৃতীয়াংশ সময়ের তুলনায় চলতি বছরের একই সময়ে ৩ হাজার ৩৯৮ কোটি ৩৯ লাখ টাকা বেশি রাজস্ব আয় হয়েছে। 


আরও খবর



করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন একজন। এ সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৭৩ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, তাদের নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসেবে মোট মারা গেলেন ২৭ হাজার ৯৮১ জন, আর মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ৭৬ হাজার ২৮৪ জন।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩৬৮ জন। তাদের নিয়ে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ৪০ হাজার ৯৬৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৯ হাজার ৯২৪টি, পরীক্ষা করা হয়েছে ১৯ হাজার ৮০২টি।

দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে এক কোটি আট লাখ ৮৮ হাজার ৭৫১টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৭৭ লাখ ৭৩ হাজার ৮৩২টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩১ লাখ ১৪ হাজার ৯১৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় রোগী শনাক্তের হার এক দশমিক ৩৮ শতাংশ আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৪৮ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭৬ শতাংশ এবং মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ব্যক্তি নারী। তাকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট নারী মারা গেলেন ১০ হাজার ৭৬ জন এবং পুরুষ মারা যান ১৭ হাজার ৯০৫ জন।

২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া নারীর বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে। তিনি ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। তার মৃত্যু হয়েছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে।


আরও খবর