আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

রোজ গার্ডেনে হবে ঢাকা মহানগর জাদুঘর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | ২৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীনতা অর্জনের দুই বছরও পার হয়নি। তার আগেই পূর্ব পাকিস্তানের অবহেলিত মানুষ জেনে গেছে এই স্বাধীনতা তাদের অধিকার আদায়ে কোনো কাজে আসছে না। উর্দুভাষী পশ্চিম পাকিস্তানি শাসক ও তাদের এদেশীয় দোসররা হরণ করেছে বাঙালির সব অধিকার। সেই অধিকার ফিরিয়ে আনতেই এক প্রতিকূল পরিস্থিতিতে ঢাকার রোজ গার্ডেনে প্রতিষ্ঠিত হয় পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ (বর্তমানে আওয়ামী লীগ)। দিনটি ছিল ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন। অঙ্কের হিসাবে প্রতিষ্ঠার ৭৩ বছর পূর্ণ করছে দলটি।

১৯৪৯ সালে প্রতিষ্ঠার দুই যুগ পূর্ণ হওয়ার আগেই ১৯৭১ সালে সব শোষণ-বঞ্চনার অবসান ঘটিয়ে সংগঠনটি বাঙালি জাতিকে উপহার দেয় স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। এরপর থেকেই রোজ গার্ডেন এবং আওয়ামী লীগ হয়ে উঠল ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এ ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে রোজ গার্ডেনে হবে ঢাকা মহানগর জাদুঘর। চার বছর আগে ২০১৮ সালে ৩৩১ কোটি ৭০ লাখ টাকায় ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেন কিনে নেয় আওয়ামী লীগ সরকার। আবার চার বছরের মাথায় এর সৌন্দর্য ফেরাতে সরকার ৩৩ কোটি ৪৮ লাখ ৫২ হাজার টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এর আগে ১৯৮৯ সালে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রোজ গার্ডেনকে সংরক্ষিত এলাকা (ভবন) ঘোষণা করে। আগামী জুলাইয়ে প্রকল্পের কাজ শুরু হবে এবং পরের বছর অর্থাৎ ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেনের প্রত্নতাত্ত্বিক সংস্কার এবং ঢাকা মহানগর জাদুঘর স্থাপন প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এই প্রকল্পটি গণপূর্ত অধিদপ্তর, শিল্পকলা একাডেমি ও বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরকে নিয়ে বাস্তবায়ন করছে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর। প্রকল্পসংশ্লিষ্টরা জানান, রোজ গার্ডেন আবার ভরে উঠবে প্রস্ফুটিত গোলাপে। ভাস্কর্যগুলো ফিরে পাবে হারানো সৌন্দর্য। বেঙ্গল স্টুডিওকে সংস্কার করে একটি আধুনিক ফিল্ম স্টুডিওতে রূপান্তরের কাজও রয়েছে এই প্রকল্পের মধ্যে। নির্ধারিত ফি দিয়ে টিকিট কেটে দর্শনার্থীরা রোজ গার্ডেনে প্রবেশ করতে পারবেন। সরকার কিনে নেওয়ার পর এই গার্ডেনের নিরাপত্তায় পুলিশ ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া আরও চার কর্মচারী রয়েছে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের। বর্তমানে সেখানে সাধারণের প্রবেশাধিকার নেই।

প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রতন চন্দ্র পণ্ডিত বলেন, ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেন সংস্কার করে এর ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এজন্য সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় দুই বছর মেয়াদি একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, আগামী বছর ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে। এরপর তা দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে প্রকল্পের পিডি ও ডিপিডি নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আগামী মাসে (জুলাই) কাজ শুরু হবে।

রোজ গার্ডেন প্রাসাদ সংক্ষেপে রোজ গার্ডেন নামে পরিচিত। এটি একটি ঐতিহাসিক বাগানবাড়ি, যা ঢাকার টিকাটুলি এলাকায় কেএম দাস লেনে অবস্থিত। ১৯৩১ সালের দিকে ঋষিকেশ দাস নামের এক ব্যবসায়ী ২২ বিঘা জমির ওপর একটি দ্বিতল ভবনের নির্মাণকাজ শুরু করেন। ভবনের বাগানে গোলাপের প্রাচুর্য থাকায় বাড়ির নাম হয় রোজ গার্ডেন। অভিনব নির্মাণশৈলীর কারণে এটি হয়ে ওঠে ঢাকার অন্যতম মনোরম ভবন। ঋষিকেশ দাস ১৯৩৬ সালের দিকে ব্যবসায়ী খান বাহাদুর কাজী আবদুর রশীদের কাছে বাড়িসহ বাগানটি বিক্রি করে দেন। এরপর কাজী আবদুর রশীদ নিজের নামে এই বাড়ির নামকরণ করেন রশীদ মঞ্জিল। কিন্তু রোজ গার্ডেন নামটি মানুষের মুখে মুখে রয়েই যায়। কাজী আবদুর রশীদ মারা যান ১৯৪৪ সালে। এরপর রোজ গার্ডেনের মালিকানা পান তার বড় ছেলে কাজী মোহাম্মদ বশীর (হুমায়ুন সাহেব)। এ কারণে সেসময় ভবনটি হুমায়ুন সাহেবের বাড়ি হিসাবে পরিচিত হয়ে ওঠে। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার আগে বেঙ্গল স্টুডিও এবং মোশন পিকচার্স লিমিটেড রোজ গার্ডেন প্যালেসের ইজারা নেয়। হারানো দিন নামের জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের শুটিং হয়েছিল এই বাড়িতেই। ইজারাগ্রহীতা বেঙ্গল স্টুডিওর সঙ্গে মামলায় জড়িয়ে পড়ে কাজী আবদুর রশিদের পরিবার। এ মামলায় লড়ে জয়ী হলে ১৯৯৩ সালে বাড়িসহ গার্ডেনের মালিকানা স্বত্ব ফিরে পান মৃত কাজী আবদুর রশিদের মেজো ছেলে কাজী আবদুর রকীব। তিনি মারা যাওয়ার পর স্ত্রী লায়লা রকীব পান এর মালিকানা।

১৯৪৯ সালের ২৩ জুন রোজ গার্ডেনে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ (বর্তমান আওয়ামী লীগ) গঠন হয়। প্রায় ৭ হাজার বর্গফুট আয়তনের প্রাচীরবেষ্টিত পশ্চিমমুখী রশীদ মঞ্জিলের উচ্চতা প্রায় পঁয়তাল্লিশ ফুট। ভবনের মূল বারান্দার সঙ্গে রয়েছে অর্ধচন্দ্রাকৃতির ব্যালকনি। এর অবস্থান প্রবেশপথের তিনটি খিলানের ওপরে। ভবনের বিভিন্ন অংশে কাঠ, রঙিন কাচ ও লোহার সমন্বয়ে তৈরি এবং সেগুলো জটিল জ্যামিতিক নকশা, লতাপাতা ও বিভিন্ন প্রাণীর মোটিফে (সজ্জায়) অলংকৃত। মূল ভবনের দ্বিতীয় তলায় পাঁচটি কামরা আর একটি বড় নাচঘর আছে। নিচতলায় আছে আটটি কামরা।

এই ভবনের দায়িত্বে নিয়োজিত নৈশ প্রহরী মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, সরকার রোজ গার্ডেন কিনে নেওয়ার পর প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের কর্মচারী হিসাবে তাকে এখানে পাঠানো হয়। সেই থেকে তিনিসহ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের আরও তিন কর্মচারী (একজন অফিস সহকারী ও দুইজন মালি) রোজ গার্ডেনে রয়েছেন। সপ্তাহে একবার রশীদ মঞ্জিলের দরজা-জানালা খোলা হয়, বাকি সময় তালাবদ্ধ থাকে।

রোজ গার্ডেন প্যালেসের পশ্চিম ও উত্তরদিকের দেওয়ালের মধ্যবর্তী অংশে আছে দুটি ফটক। পশ্চিমদিকের মূল ফটক দিয়ে প্রবেশ করলে প্রথমেই আছে একটি বিস্তীর্ণ খোলা প্রাঙ্গণ। এখানে মঞ্চের ওপর দণ্ডায়মান নারীর ভাস্কর্য রয়েছে। পূর্বাংশের মধ্যবর্তী স্থানে রয়েছে একটি বড় পুকুর। পুকুরের পূর্ব ও পশ্চিম পাশের মাঝামাঝি একটি করে বাঁধানো পাকা ঘাট আছে। প্রকল্পের আওতায় এই পুকুরও সংস্কার করা হবে। মূল ফটকের ডানে ও পুকুরের পাড়ে রয়েছে একটি তিনতলা ভবন। বর্তমানে এই ভবনটি ফাঁকা পড়ে রয়েছে। এই ভবনে স্থাপন করা হবে ঢাকা মহানগর জাদুঘর। রোজ গার্ডেনের সর্বশেষ মালিক কাজী আবদুর রকীবের পরিবার এই ভবনে বসবাস করতেন বলে জানা গেছে।

নিউজ ট্যাগ: রোজ গার্ডেন

আরও খবর



জায়েদ-নিপুণের আইনি লড়াই: ফের শুনানি পেছালো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | ২৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে জায়েদ-নিপুণের সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে শুনানি পিছিয়ে আগামী রবিবার ধার্য করা হয়েছে। আজ সোমবার প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হওয়ার কথা ছিল।

জায়েদ খানের আইনজীবী মো. শহীদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৩ মে শুনানি ৫ জুন পর্যন্ত মুলতবি করেছিলেন আপিল বিভাগ। ২৩ মে দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে সেদিন জায়েদ খানের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. আহসানুল করিম ও অ্যাডভোকেট নাহিদা সুলতানা যুথি। নিপুণের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ।

এর আগে গত ১৩ মার্চ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে চেম্বার আদালতের স্থিতাবস্থার আদেশ নিপুণ আক্তার ও জায়েদ খানকে কঠোরভাবে পালন করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে চার সপ্তাহের জন্য শুনানি মুলতবি করা হয়। পরবর্তীতে প্রধান বিচারপতির অনুপস্থিতিতে আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ ২৫ এপ্রিল এক আদেশে শুনানি ২৩ মে পর্যন্ত মুলতবি করেন। এ অবস্থায় নির্ধারিত দিনে মামলাটি আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় আসলে আদালত শুনানির দিন পিছিয়ে আজকের দিন ঠিক করে দেন।

এর আগে গত ৮ মার্চ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদে স্থিতাবস্থার আদেশের পরও সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসায় নিপুণের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করেন জায়েদ।

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচন গত ২৮ জানুয়ারি হয়। পরদিন ২৯ জানুয়ারি প্রাথমিক ফলে ইলিয়াস কাঞ্চনকে সভাপতি ও জায়েদ খানকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকে জায়েদ খানকে বিজয়ী ঘোষণা করার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিলেন নিপুণ। পরে নির্বাচনী আপিল বোর্ডের কাছে এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ করেন।

এই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২ ফেব্রুয়ারি সমাজ সেবা অধিদপ্তর আপিল বোর্ড গঠন করে। ৫ ফেব্রুয়ারি আপিল বোর্ড জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে নিপুণকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করে। পরে জায়েদ খানের রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচনী আপিল বোর্ডের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট।


আরও খবর



টোল দিয়ে প্রথমবার পদ্মা সেতু পার হলো গাড়ি

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ জুন ২০২২ | ৫২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টোল দিয়ে প্রথমবারের মতো পদ্মা সেতু পার হয়েছে গাড়ি। শুক্রবার (১৭ জুন) সন্ধ্যায় পরীক্ষামূলকভাবে টোল দিয়ে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের কয়েকটি গাড়ি পার হয়। প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মাওয়া প্রান্তের টোলপ্লাজায় টোল দিয়ে সেতু প্রকল্পের গাড়িগুলো পদ্মা সেতু পার হয়।

এ বিষয়ে পদ্মা সেতু প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, প্রকল্পের গাড়ি নিয়ে প্রথমবারের মতো টোল দিয়ে পদ্মা সেতু পার হয়েছি আমরা। ১২০০ টাকা টোল দিয়ে প্রকল্পের প্রথম গাড়িটি পার হয়। টোল ব্যবস্থাপনা ঠিক আছে কি-না, পরীক্ষার জন্য এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যাচাই-বাছাই করে দেখেছি, সবকিছু ঠিক আছে।

এর আগে, ১৪ জুন সন্ধ্যায় মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তের সবগুলো ল্যাম্পপোস্টে একসঙ্গে বাতি প্রজ্বালন করা হয়। সরাসরি বিদ্যুৎ সংযোগের মাধ্যমে পরীক্ষামূলকভাবে সড়কবাতিগুলো জ্বালানো হয়। পরীক্ষামূলকভাবে সবগুলো কাজ ইতোমধ্যে সফল হয়েছে বলে জানিয়েছে সেতু কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ জুন উদ্বোধন হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের মানুষের স্বপ্নের এই সেতুটি। পরদিন ২৬ জুন সকাল থেকে চলবে যানবাহন।


আরও খবর



খালের পানিতে ডুবে দুই বছর বয়সী শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ২৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৯ মে ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন

Image

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে খালের পানিতে ডুবে আবু সাইদ রাফিম (২) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। রোববার (২৯ মে) বিকেলে উপজেলা সদর ইউনিয়নের বজরের খামার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আবু সাইদ রাফিম ওই গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহত আবু সাইদ রাফিম বাড়ীর উঠানে খেলা করতে ছিল। খেলার এক পর্যায়ে পরিবারের সবার অজান্তে বাড়ী সংলগ্ন থাকা একটি খালের পানিতে পরে ডুবে যায়। পরে পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুজির পর নিহত শিশুটিকে খালের পানিতে ভাসতে দেখে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয়রা মিলে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) সরওয়ার পারভেজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।


আরও খবর



সাংবাদিক অপূর্বর ওপর হামলায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার চায় বিডিজেএ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৩ জুন ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সময় টেলিভিশনের বরিশাল ব্যুরো প্রধান অপূর্ব অপুর ওপর হামলা ও অপহরণচেষ্টার মামলায় এখনো কেউ গ্রেফতার হয়নি। এছাড়াও এই ঘটনায় দৃশ্যমান কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় উদ্বেগ জানিয়েছে ঢাকায় কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন বরিশাল ডিভিশনাল জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (বিডিজেএ) ঢাকা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সামনে বরিশাল ডিভিশনাল জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (বিডিজেএ) ঢাকা আয়োজিত প্রতিবাদী মানববন্ধনে বক্তারা অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করে শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনা এই প্রথম নয়। কিন্তু এর কোনো বিচার না হওয়ায় অপরাধীরা আরো বেশি সাহস দেখানোর সুযোগ পাচ্ছে। কিন্তু এভাবে দিনের পর দিন চলতে পারে না। হামলা করে কোনো সাংবাদিকের কলম বন্ধ করা যায়নি, যাবেও না।

তারা বলেন, দিনেদুপুরে সাংবাদিক অপূর্ব অপুর ওপর হামলা হলো, তাকে অপহরণ করার চেষ্টা হয়েছে, অপরাধীদের চিহ্নিত করা হয়েছে কিন্তু  এখনো কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। আর সময়ক্ষেপণ করা যাবে না। দ্রুত দায়িদের গ্রেপ্তার করতে হবে।

সাংবাদিকরা বলেন, মফস্বলে সাংবাদিকরা অনেক ধরণের চাপ ও ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন। যদিও সাংবাদিকদের নির্বিঘ্নে কাজ করতে দেয়া, নিরাপত্তা নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব।  কিন্তু দিনের পর দিন সাংবাদিকের সঙ্গে এমন হামলার ঘটনা মুক্ত গণমাধ্যমের ওপর খারাপ নজির স্থাপন করে। এই ঘটনা দেশের ভাবমূর্তির নষ্ট করে। তাই সরকারকে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।

সংগঠনের সভাপতি তারিকুল ইসলাম মাসুমের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মাহবুব সৈকতের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) সহ-সভাপতি মানিক লাল ঘোষ, সাংগঠনিক সম্পাদক জিহাদুর রহমান জিহাদ, বিডিজের সহ-সভাপতি এমএম বাদশাহ, যুগ্ম সম্পাদক সানবির রুপল, ডিইউজের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান মিয়া, ডিইউজের নির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য গোলাম মুজতবা দ্রুব, ডিআরইউর সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ জামাল, ডিআরইউর সাবেক দপ্তর নয়ন মুরাদ, ডিআরইউর দপ্তর সম্পাদক রফিক রাফি, সাংস্কৃতিক সম্পাদক নাদিয়া শারমিন, কার্যউনির্বাহী কমিটির সদস্য সুশান্ত সাহা, মাহমুদুল হাসান, মো. আল আমিন, শিপিং রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি কাজী জেবেল, সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার ফোরামের নির্বাহী কমিটির সদস্য মাইনুল আহসান পিন্নু, ফোরাম ফর এনার্জি রিপোর্টার্সের সাধারণ সম্পাদক রিশান নাসরুল্লাহ, টিসিএর সভাপতি মাহবুবুল আলম, রংপুর বিভাগ সাংবাদিক সমিতি সাবেক সাধারণ সম্পাদক গাউছুল আজম বিপু, ডিফেন্স রিপোর্টার্স ফোরামের প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবলু প্রমুখ।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিডিজেএর সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব জুয়েল, দপ্তর সম্পাদক ফাহিম মোনায়েম, কার্যনির্বাহীর সদস্য মিজানুর রহমান প্রমুখ।


আরও খবর



মামলা তুলে নিতে যৌন হয়রানি, ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেফতার-২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে স্বামীকে হত্যার হুমকি দিয়ে ধর্ষণের মামলা তুলে নিতে রাস্তা অবরোধ করে যৌন হয়রানি করেন ছাত্রলীগ নেতা ও তার লোকজন। এ ঘটনায় মামলা হলে ওই ছাত্রলীগ নেতাসহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন- পৌর এলাকার ছাব্বিশা গ্রামের কামরুজ্জামান মন্ডলের ছেলে ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আসিফুজ্জামান হৃদয় মণ্ডল (২৫) ও বীরহাটি গ্রামের মিন্টু সরকারের ছেলে রাব্বী সরকার (২১)।

২০২০ সালে ৩ জানুয়ারি আসিফুজ্জামান হৃদয় মণ্ডলকে এক কলেজছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করে। আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করে। জামিনে এসে হৃদয় মণ্ডল বাদী ও তার পরিবারকে নানাভাবে হুমকি দিতে থাকে। সর্বশেষ মামলা তুলে নেওয়ার জন্য রাস্তায় দাঁড়িয়ে ওই নারীকে যৌন হয়রানি করে। এ ঘটনায় অভিযোগ করলে পুলিশ হৃদয় মণ্ডলকে রোববার (১৯ জুন) রাতে আবার আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করে।

অভিযোগে জানা যায়, আসিফুজ্জামান হৃদয় মণ্ডল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি থাকার সময়ে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করেছে। ধর্ষণের ঘটনায় সুইসাইড নোটও লেখেন। পরে মেয়েটির স্বামী বিষয়টি জানার পর তাকে থানায় নিয়ে অভিযোগ করেন। ছাত্রীকে কলেজে আসা-যাওয়া বন্ধ করে দেওয়া স্বামীকে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। এতে ওই ছাত্রী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে এবং আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয় এবং সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

এ ব্যাপারে ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম বলেন, এক নারীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 


আরও খবর