আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

রণবীরের সঙ্গে অন্তরঙ্গ দৃশ্যের পেছনের গল্প জানালেন তৃপ্তি

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বলিউড সিনেমা অ্যানিমেল-এর কিছু দৃশ্যে দেখা যায় অভিনেতা তৃপ্তি দিমরিকে। ছবিতে জোয়া রিয়াজ নামে এক তরুণীর চরিত্রে দেখা গেছে তাকে। সন্দীপ রেড্ডি ভাংগা পরিচালিত এই চলচ্চিত্রে রণবীর কাপুরের সঙ্গে তার অন্তরঙ্গ দৃশ্যর নানা ছবি ও ভিডিও নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। ওই দৃশ্য নিয়ে এবার মুখ খুলেছেন তৃপ্তি। বিশেষ এই দৃশ্যের পর্দার পেছনের কথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

ওই দৃশ্যে অর্ধনগ্ন অবস্থায় দেখা গেছে তৃপ্তিকে। দৃশ্যটি নিয়ে তাকে কটাক্ষও করেছেন কেউ কেউ। তবে রণবীর-তৃপ্তির উষ্ণ রসায়ন পছন্দ করছেন অনেকে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিয়ে চলছে নানা সমালোচনা।

ই-টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তৃপ্তি বলেন, শুরুতে এসব আমাকে অস্বস্তিতে ফেলত। বিরক্ত বোধ করতাম। আমাকে সমালোচনার মুখোমুখি খুব কমই হতে হয়েছে। খুব সামান্যই সমালোচিত হয়েছি। আমার প্রথম কিছু সিনেমার ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ সমালোচিত হয়েছি, আবার ৯০ শতাংশ প্রশংসিত হয়েছি। এই ছবির ক্ষেত্রে আমি মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাচ্ছি। তাই শুরুতে কিছুটা ঘাবড়ে গিয়েছিলাম আমি। নিজেকে সবার থেকে দূরে রাখছিলাম। কিন্তু পরে নিজের সঙ্গে সময় কাটিয়েছি। এ ব্যাপারে ভেবেছি। 

আরও পড়ুন>> ৬ দিনে ৫০০ কোটির ক্লাব ছোঁয়ার পথে ‘অ্যানিমেল’

তৃপ্তি আরও বলেন, আমি নিজেই অভিনেত্রী হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। এ বিষয়ে কেউ আমাকে জোর করেনি। আমিই এটা বেছে নিয়েছিলাম। অভিনয় পেশা আমাকে রোমাঞ্চিত করে। আমি অভিনয় করতে শুরু করি। আর নিজের অভিনীত চরিত্রের মাধ্যমে আনন্দ খুঁজে নিই। অভিনয় আমাকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। চরিত্রের মাধ্যমে নানা চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসি।

অভিনেত্রী আরও বলেছেন, আমার যদি মনে হয়, এটা করা আমার জন্য ভুল হবে না, তাহলে আমি সেটা অবশ্যই করি। আমি শুধু দেখি সেটে আমি স্বচ্ছন্দ কি না। আমার আশপাশের মানুষের সঙ্গ আমাকে স্বচ্ছন্দে থাকতে সাহায্য করছে কি না, এসব আমি দেখি। তাহলে বুঝি আমি ঠিক পথে হাঁটছি।

অ্যানিমেল সিনেমার সেই দৃশ্যটির শুটিংয়ের কথা স্মরণ করে তৃপ্তি বলেন, সেদিন সেটে মাত্র চারজন উপস্থিত ছিলেন। সেটে ছিলাম আমি, রণবীর, সন্দীপ স্যার আর ডিওপি। অন্য কারও থাকার প্রয়োজন ছিল না। পাঁচ মিনিট অন্তর তারা আমাকে জিজ্ঞেস করতেন যে আমার কোনো অসুবিধা হচ্ছে না তো। আমি স্বচ্ছন্দ বোধ করছি তো। আপনার আশপাশের মানুষেরা যখন আপনাকে এতটা সাপোর্ট দেন, আর আপনাকে সব রকম স্বচ্ছন্দ অনুভব করান, তখন আপনার কোনোভাবেই অস্বস্তি বোধ হবে না।

এই বলিউড তারকার ভাষ্য, অনেক মানুষ জানেন না এসব দৃশ্য কীভাবে শুট করা হয়, সেটের পরিবেশ কেমন থাকে। তাদের কল্পনাশক্তি এক অন্য দিশায় নিয়ে যায়। আসল সত্যিটা সেসব মানুষের কাছে নিশ্চয়ই আশ্চর্যজনক। সত্যি বলতে আমি সেই দৃশ্যের সময় স্বচ্ছন্দ ছিলাম। আর আমার চরিত্র যা দাবি করবে, আমি নিশ্চয়ই তা করব।

অ্যানিমেল সিনেমায় রণবীর কাপুরের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন রাশমিকা মান্দানা। অনেকে আবার রাশমিকার থেকে তৃপ্তিকে এগিয়ে রেখেছেন।


আরও খবর
ফের বিয়ে করছেন অনুপম রায়, পাত্রী কে?

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




গাজীপুরে ট্রাক ও অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত ৩

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
গাজীপুর প্রতিনিধি

Image

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ট্রাক ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিন জন নিহত হয়েছেন। সোমবার ভোরে উপজেলার সুত্রাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন আরও দুইজন। 

নিহতরা হলেন, উপজেলার টালাবহ গ্রামের মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে মফজেল হোসেন (৬৫), আব্বাস জোয়াদ্দারের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৪০), এবং একই উপজেলার বাউমান টালাবহ গ্রামের মৃত হাছেন আলীর ছেলে শওকত আলী (৪২)। নিহত তিনজন এবং আহত আরও দুইজন অটোরিকশার যাত্রী ছিলেন। তারা সকলেই র্নিমাণ শ্রমিক ।

হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, সোমবার ভোর সাড়ে পাচঁটার দিকে বোডঘর এলাকা থেকে কাজের সন্ধানে ওই পাঁচ ব্যক্তি অটোরিকশা যোগে ঢাকা টাঙ্গাইল মহাসড়কের সার্ভিস লাইন দিয়ে উল্টোপথে আসছিলেন। এসময় চন্দ্রা থেকে ছেড়ে আসা (ঢাকা মেট্রো উ-১৪-১৫৪৫ )একটি মালবাহী ট্রাক মূল মহাসড়ক ব্যবহার না করে সার্ভিস সড়ক দিয়ে মির্জাপুর দিয়ে যাচ্ছিলো। পথে ব্যাটারী চালিত অটোরিকশার সাথে ট্রাকের মুখোমুখি সংর্ঘষ হয়।

ঘটনাস্থলে পাঁচজন আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে র্কতব্যরত চিকিৎসক তিন জনকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকি দুইজনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় মির্জাপুর কুমুদিনি হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নাওজোর হাইওয়ে পুলিশের ওসি শাহদাত হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ট্রাক আটক করা হয়েছে। চালক পলাতক। তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




পাকিস্তানে নির্বাচনী প্রচারণার সময় স্বতন্ত্র প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ার বাজাউর জেলার সিদ্দিকাবাদ এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণার সময় একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। নিহত ওই স্বতন্ত্র প্রার্থীর নাম রেহান জেব খান।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) দেশটির পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি দেশটিতে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বেলুচিস্তানের সিবিতে পিটিআইয়ের একটি সমাবেশে বোমা বিস্ফোরণে চারজন নিহত এবং ছয়জন আহত হওয়ার একদিন পর এ ঘটনা ঘটল।

খার থানার হাউস অফিসার (এসএইচও) রাশেদ খান বলেছেন, রেহান জেব খান এলাকায় প্রচার করছিলেন যখন অজ্ঞাত সশস্ত্র ব্যক্তিরা তার গাড়িতে গুলি চালায়। রেহানকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। হামলায় আরও চারজন আহত হন।

বাজাউর জেলা পুলিশ অফিসার কাশিফ জুলফিকার ডন ডটকমকে বলেছেন, ঘটনাটি টার্গেটেড কিলিং বলে মনে হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে।

এদিকে, পিটিআই রেহান হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পিটিআইয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত প্রার্থীদের জনসমাবেশকে সন্ত্রাসী হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। যা নির্বাচনের নিরপেক্ষতার বিষয়টিকে মারাত্মকভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করছে। সিবিতে পিটিআই-এর নির্বাচনী সমাবেশে হামলার পর, স্বতন্ত্র প্রার্থীকে হত্যার দায় অযোগ্য তত্ত্বাবধায়ক সরকার কোনোভাবেই এড়াতে পারে না। 

আরও পড়ুন>> কোকেনের মামলায় তিন আফ্রিকানসহ ৫ জন রিমান্ডে

সম্প্রতি পাকিস্তানের বেলুচিস্তান ও খাইবার পাখতুনখাওয়ায় সন্ত্রাসী হামলার সংখ্যা বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে। আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। বিশেষ করে উল্লেখিত প্রদেশে। এতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছেন ভোটাররা।

এদিকে সাইফার মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ড পাওয়ার পরদিনই আরও বড় দুঃসংবাদ পেলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এবার তোশাখানা মামলায় তাকে ও তার স্ত্রী বুশরা বিবিকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন পাকিস্তানের একটি আদালত।

এর আগে, গত মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘন, তথা সাইফার মামলায় ইমরান খান ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত।

নির্বাচনের মাত্র সপ্তাহখানেক আগে ইমরানের বিরুদ্ধে এমন রায় দিলেন পাকিস্তানি আদালত। ব্যাপক চাপের মধ্যেও নির্বাচনী আইকনিক ব্যাট প্রতীক ছাড়াই এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)।

নিউজ ট্যাগ: গুলি করে হত্যা

আরও খবর



বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে ভারত-বাংলাদেশের ২১ উদযাপন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
এম এ রহিম, বেনাপোল (যশোর)

Image

২১ ফেব্রয়ারি মাতৃভাষা দিবস ও ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এবার স্বল্প পরিসরে যশোরের বেনাপোল-পেট্রাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে কাঠ, বাঁশের তৈরি অস্থায়ী শহিদ মিনারের প্রস্তুতির কাজ চলছে। শ্রদ্ধা জানাবেন দুই দেশের রাজনৈতিক নেতা-কর্মী ও প্রশাসনিক কর্মকর্তারা।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে অস্থায়ী শহিদ মিনারের নির্মাণ কাজ শুরু করছে শ্রমিকেরা। অন্যান্য সময় উৎসবে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে রক্তদান, বই মেলাসহ নানা কর্মসূচিতে মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হলেও এবার তা স্বল্প পরিসরে উদযাপিত হবে।

উপজেলা শার্শার আওয়ামী লীগের আয়োজনে ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০ টায় বাংলাদেশের পক্ষে যশোর-১ আসনের সংসদ শেখ আফিল উদ্দীনের নেতৃত্বে ২৫ থেকে ৩০ জন নোম্যান্সল্যান্ডে শহীদ মিনারে পুষ্প অর্পণ করবেন। অন্যদিকে ভারতের পক্ষে শ্রদ্ধা জানাবেন ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার বিধায়ক (এমএলএ) শ্রী নারায়ণ গোস্বামী নেতৃত্বে ২০ জন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। দুই সীমান্তে বিভিন্ন সংস্থার নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

২১ উদযাপন কমিটির যুগ্ন আহবায়ক-বেনাপোল পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন জানান, এবারের বেনাপোল-পেট্রাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে অল্প সময়ের জন্য শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠান। বিশেষ এ দিনে স্বপ্ল পরিসরে দুই বাংলা এক সাথে মিলিত হতে পারে। এ সময় আনন্দে নানা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করবেন দু-বাংলার ভাষাপ্রেমী মানুষ।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




তোশাখানা মামলায় ইমরান ও তার স্ত্রীর ১৪ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

তোশাখানা মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তার স্ত্রী বুশরা বিবির ১৪ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। বুধবার আদালত তাদের এ সাজা ঘোষণা করেন।

চলতি মাসের শুরুতে এক জবাবদিহি আদালত তাদের দুজনকে অভিযুক্ত করে। দুর্নীতি বিরোধী ওয়াচডগের অভিযোগ, ইমরান প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে তিনি ও তার স্ত্রী বিভিন্ন দেশের প্রধান ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের কাছ থেকে মোট ১০৮টি উপহার পান।

৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনের মাত্র আট দিন আগে এ রায় এলো। ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) রাষ্ট্রীয় দমনপীড়নের মধ্যে প্রতীক ছাড়াই লড়ছে। 

আরও পড়ুন>> জর্ডানে হামলার জবাব দেবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন

আর আগের দিন মঙ্গলবার গোপন তথ্য ফাঁস করার অভিযোগে অফিসিয়াল সিক্রেটস আইনে ইমরান ও তার তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

ইমরান ও বুশরার সরকারি কোনো পদে থাকায় ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি প্রত্যেকের ৭৮৭ মিলিয়ন রুপি জরিমানা হয়েছে। শুনানির সময় পিটিআই প্রতিষ্ঠাতাকে হাজির করা হলেও তার স্ত্রী আদালতে হাজির হননি।


আরও খবর



দেশের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ রাখবে ভারত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রেখেছিল ভারত। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সেটা অব্যাহত থাকবে। অর্থাৎ এর আগে মসলাজাতীয় পণ্যটি রপ্তানি করবে না তারা। ভারতীয় প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া এবং দ্য হিন্দুর প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, গত ২০ ফেব্রুয়ারি এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে মরিয়া ভারত সরকার। সেই সঙ্গে অভ্যন্তরে পর্যাপ্ত সরবরাহ রাখতে চায় তারা। সেই লক্ষ্যে রান্নাঘরের মুখ্য পণ্যটি রপ্তানি নিষিদ্ধ রাখতেই আগ্রহী তারা। প্রয়োজনে বন্ধ রাখার মেয়াদ আরও বাড়তে পারে।

বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে ভোক্তা বিষয়ক সচিব রোহিত কুমার বলেন, পেঁয়াজ রপ্তানিতে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হচ্ছে না। এ নিয়ে বিদ্যমান অবস্থান পরিবর্তনের কোনো বাধ্যবাধকতা আপাতত নেই। ভারতে পেঁয়াজের দর যৌক্তিক পর্যায়ে আনতে মুখিয়ে আছে সরকার। দেশের মার্কেটে পণ্যটির সহজলভ্যতা ও প্রাপ্যতা নিশ্চিত করতে চায় তারা। এখন মূলত তাতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

সম্প্রতি খবর বের হয়, পেঁয়াজ রপ্তানিতে জারি করা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে ভারত। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়তেই দেশটিতে নিত্যপণ্যটির দর ৪০ দশমিক ৬২ শতাংশ বেড়ে যায়। পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশটির বাজারে পাইকারিতে প্রতি কুইন্টালের মূল্য দাঁড়ায় ১২৮০ রুপি (ভারতীয় মুদ্রা)।

সূত্র জানায়, সামনে ভারতে জাতীয় নির্বাচন। এর আগে পেঁয়াজের ওপর থেকে নরেন্দ্র মোদি সরকারের নিষেধাজ্ঞা ওঠানোর সম্ভাবনা ক্ষীণ। একরকম নেই বললেই চলে। কারণ, শীতকালীন মৌসুমে দেশটির শীর্ষ উৎপাদক অঞ্চল মহারাষ্ট্রে তুলনামূলক কম উৎপন্ন হয়েছে।

অবশ্য ইতোমধ্যে বাংলাদেশসহ কয়েকটি বন্ধুত্বপূর্ণ দেশে সীমিত পরিমাণে পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে ভারত। সেই চুক্তি বজায় থাকতে পারে।


আরও খবর
২৪ দিনে প্রবাসী আয় ১৮ হাজার কোটি টাকা

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪