আজঃ শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

রামপুরায় বাসে অগ্নিসংযোগ, ২ মামলায় আসামি ৮০০

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর রামপুরায় শিক্ষার্থী মৃত্যু কেন্দ্র করে বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দুটি মামলা করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার করা মামলা দুটিতে অজ্ঞাত ৮০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

রামপুরা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বাসচাপায় শিক্ষার্থী মাঈনুদ্দিন নিহত হওয়ার পর উত্তেজিত জনতা কয়েকটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর চালায়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করে। একটি মামলায় ২৫০ থেকে ৩০০ জন এবং অপরটিতে ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

এ ছাড়া নিহত শিক্ষার্থীর মা রাশেদা বেগম বাদী হয়ে নিরাপদ সড়ক আইনে একটি মামলা করেছেন। এ মামলায় অনাবিল পরিবহণের বাসচালককে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে জানান ওসি।

প্রসঙ্গত গত সোমবার রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় গ্রিন অনাবিল পরিবহণের বাসের চাপায় মাঈনুদ্দিন নিহত হন। এ ঘটনায় রাতে সড়ক অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা। এ সময় ঘাতক বাসসহ আটটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। ভাঙচুর করা হয় আরো চারটি বাস।


আরও খবর



রেস্তোরাঁর বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তটি বাস্তবসম্মত নয় : মালিক সমিতি

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার এরমধ্যেই ১১ দফা নির্দেশনা দিয়েছে। এই নিদের্শনাগুলো বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে কার্যকর হবে। তবে এসব নির্দেশনার মধ্যে একটি হচ্ছে- কেউ রেস্তোঁরায় খেতে গেলে তাকে করোনা টিকার সনদ দেখাতে হবে। সরকারের এই নির্দেশনা বাস্তবসম্মত নয় বলে মনে করছেন বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সংগঠনটির সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইমরান হাসান গণমাধ্যমকে বলেছেন, রেস্তোরাঁ আসা কোনো কাস্টমারকে আমরা বাধা দিতে পারবো না।

তিনি বলেন, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে রেস্তোরাঁর বিষয়ে সরকারের নির্দেশনা নিয়ে বৈঠক করা হয়েছে। সেখানে সবাই একমত হয়েছেন যে, রেস্তোরাঁর বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তটি বাস্তবসম্মত নয়।

ইমরান হাসান বলেন, সরকারের কাছে আমরা আবেদন করেছি, এ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার। বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত দিয়ে আমাদেরকে যেন ব্যবসা পরিচালনা করার সুযোগ দেওয়া হয়।

তিনি বলেন, আমরা বলেছি, মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে। আর এ ব্যবসার সঙ্গে যারা জড়িত রয়েছেন, তাদের মধ্যে যারা টিকার আওতায় আসেননি, তাদেরকে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে।

ইমরান হাসান বলেন, আমরা কাস্টমারকে বাধা দিতে পারবো না। এটা একটা ভোগান্তি, এই ভোগান্তি আমরা নিতে পারবো না।

নিউজ ট্যাগ: রেস্তোরাঁ

আরও খবর



জাপানে সুনামির আঘাত, সতর্ক ক্যালিফোর্নিয়া

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ২৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টোঙ্গায় আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের ফলে সুনামি সতর্কতা জারির কয়েক মিনিটের মধ্যেই জাপানের উপকূলে আঘাত হেনেছে সুনামি। স্থানীয় সময় রোববার ভোরে জাপানের উপকূলে এই সুনামি আঘাত হেনেছে।

জানা গেছে, তিন মিটার উঁচু জলোচ্ছ্বাসে আমামি এবং টোকারা দ্বীপপুঞ্জের উপকূল প্লাবিত হতে পারে- এমন সতর্কতা আগেই জারি করা হয়েছিল। এর আগেই অগ্ন্যুৎপাতের পর টোঙ্গায় সুনামি আঘাত হানে।

অগ্ন্যুৎপাতের প্রভাবে সাগরে বিপজ্জনক রকমের বড় বড় ঢেউ দেখা দেয়। এছাড়া আগ্নেয়গিরি জালামুখ থেকে নির্গত ছাই, গ্যাস ও ধোঁয়া সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৭ কিলোমিটার পর্যন্ত উঁচুতে উঠে যায়। রাজধানী নুকুয়ালোফায় গত প্রায় দুদিন ধরে বৃষ্টির মতো ঝরে পড়েছে আগ্নেয়গিরির ছাই। 

টোঙ্গার এক বাসিন্দা বলেন, বাড়িতে রাতের খাবার তৈরির প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। হঠাৎ বিস্ফোরণের বিকট শব্দ পাই। মনে হয়েছিল, আশপাশে কোথাও হয়তো বোমা হামলা হয়েছে।

অগ্ন্যুৎপাত তীব্রতা এতটাই ভয়াবহ ছিল যে এর শব্দ ৮০০ কিলোমিটারের বেশি দূরে ফিজিতেও বজ্রপাতের মতো শোনা যায়। এর পরপরই ফিজি সরকার সুনামি সতর্কতা জারি করে।

উপকূলীয় এলাকার বাসিন্দাদের জন্য খোলা হয় আশ্রয়কেন্দ্র। প্রশান্ত মহাসাগরের আরেক দ্বীপরাষ্ট্র ভানুয়াতুতেও একই সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এদিকে, ক্যালিফোর্নিয়া উপকূলেও সুনামি সতর্কতা বলবৎ করা হয়েছে। কর্মকর্তারা জনগণকে সৈকত এবং মেরিনা এলাকা এড়িয়ে যেতে অনুরোধ করা হয়। কিছু এলাকায় নিচু জলাবদ্ধতা ও ছোট ধরনের বন্যা দেখা দিতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। পাশাপাশি, অরেঞ্জ কাউন্টির কিছু সৈকত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

সাগরের তলদেশে থাকা বিশাল এ আগ্নেয়গিরি অগ্ন্যুৎপাত শুরুর পর নিউজিল্যান্ড, টোঙ্গা ও ফিজিতে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছে। 

সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার পূর্ব উপকূলের বিভিন্ন অংশ ও তাসমানিয়ায়। অস্ট্রেলিয়ার এক মুখপাত্র জানান, দেশটির প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। দরকার পড়লেই সহায়তার জন্য প্রস্তুত আছেন তাঁরা।


আরও খবর



রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে যায়নি বিএনপি

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে রাষ্ট্রপতির সংলাপে যায়নি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)। আজ বিকেল চারটায় বঙ্গভবনে আমন্ত্রণ থাকলেও দলটির কেউ যায়নি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দলটির চেয়ারপারসনের প্রেস উইং শাখার সদস্য শায়রুল কবির খান।

গত ২০ ডিসেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত ৩২টি দল আমন্ত্রণ পেয়েছে। নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে এ সংলাপে মো. আবদুল হামিদের আহ্বানে ১৮টি দল সাড়া দিয়ে বঙ্গভবনে গিয়েছে। চারটি দল আগেই আনুষ্ঠানিক চিঠিতে বর্জন করেছে। অনানুষ্ঠানিকভাবে আরও তিন দল বঙ্গভবনে যাবে না বলে জানান দিয়েছে। ২০১২ ও ২০১৪ সালে যে প্রত্যাশায় সংলাপ হয়েছিল তা পূরণ হয়নি বলেই দলগুলো এবার বর্জনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তাদের ভাষ্য, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে চলমান এই সংলাপ পুরোটাই অর্থহীন। সরকার তথা ক্ষমতাসীন দল যা চাইবে ইসি গঠনে তারই প্রতিফলন ঘটবে। এমনটা ধারণা থেকেই সংলাপে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকছে বর্জনকারী দলগুলো।

এদিকে একের পর এক না বলায় চলমান এই সংলাপ গুরুত্বহীন হয়ে উঠছে বলেও মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। আবার যে ১৮টি দল এখন পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশ নিয়েছে তাদের বেশির ভাগই কেউ ক্ষমতাসীনদের জোটের কিংবা সরকারঘেঁষা।

যে সাতটি দল সংলাপে যাচ্ছে না তারা হলো-বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), এলডিপি, বিএনপি, জেএসডি ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি।

আগামী ১৪ই ফেব্রুয়ারি বর্তমান দায়িত্বে থাকা কেএম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। সাংবিধানিকভাবে এই কমিশনের বিদায়ের পরই নতুন কমিশন দায়িত্ব নেবে ইসির। তারই অংশ হিসেবে রাষ্ট্রপতি কমিশন গঠনের জন্য বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন। আগামী ১৭ জানুয়ারি ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে সংলাপে বসবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

নিউজ ট্যাগ: বিএনপি

আরও খবর



স্থায়ী জামিন পেলেন স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজি

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদকে স্থায়ী জামিন দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন।

রোববার আদালতে আসামিদের উপস্থিতিতে মামলাটির চার্জশিট গ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল। আবুল কালাম আজাদসহ জামিনে থাকা পাঁচ আসামি আদালতে হাজিরা দেন। এ সময় আবুল কালাম আজাদের পক্ষে তার আইনজীবী স্থায়ী জামিনের জন্য আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

তবে রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়নি। তাই আদালত চার্জশিট গ্রহণের তারিখ পিছিয়ে ২২ ফেব্রুয়ারি ঠিক করেন।

দুদকের কোর্ট ইন্সপেক্টরের দায়িত্বপ্রাপ্ত দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

আবুল কালাম আজাদ ছাড়াও এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ওরফে সাহেদ করিম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক পরিচালক ডা. আমিনুল হাসান, উপ-পরিচালক ডা. মো. ইউনুস আলী, সহকারী পরিচালক ডা. মো. শফিউর রহমান ও গবেষণা কর্মকর্তা ডা. মো. দিদারুল ইসলাম। আসামিদের মধ্যে সাহেদ কারাগারে ও বাকিরা জামিনে আছেন।

গত বছর আবুল কালাম আজাদসহ ছয়জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী।

চার্জশিটে আসামিদের বিরুদ্ধে পরস্পর যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহার করে লাইসেন্স নবায়নবিহীন বন্ধ রিজেন্ট হাসপাতালকে ডেডিকেটেড কোভিড হাসপাতালে রূপান্তর, সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর ও সরকারি প্রতিষ্ঠান নিপসমের ল্যাবে তিন হাজার ৯৩৯ জন কোভিড রোগীর নমুনা বিনামূল্যে পরীক্ষা করার অভিযোগ আনা হয়েছে। যেখান থেকে তারা অবৈধ পারিতোষিক বাবদ রোগী প্রতি তিন হাজার ৫০০ টাকা হিসেবে মোট এক কোটি ৩৭ লাখ ৮৬ হাজার ৫০০ টাকা গ্রহণ করেন।

এছাড়া চার্জশিটে রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর ও উত্তরা শাখার চিকিৎসক, নার্স, ওয়ার্ডবয় ও অন্যান্য কর্মকর্তাদের খাবার খরচ বরাদ্দের বিষয়ে এক কোটি ৯৬ লাখ ২০ হাজার টাকার মাসিক চাহিদা তুলে ধরাসহ সমঝোতা স্মারকের খসড়া স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

আসামিদের বিরুদ্ধে সর্বমোট তিন কোটি ৩৪ লাখ ছয় হাজার ৫০০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারা ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন ১৯৪৭ এর ৫ (২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

২০২০ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী। সেখানে আবুল কালাম আজাদকে আসামি করা হয়নি। তবে তদন্তে নাম আসায় চার্জশিটে তার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়।


আরও খবর



১০০ কেন্দ্রে আইভীর ভোট ৮২৩২৬, তৈমুরের ৪৯২৩১

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসি) নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। রোববার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে এই ভোটগ্রহণ।

ভোটগ্রহণ শেষে এখন চলছে গণনা। এতে দেখা যাচ্ছে, ১৯২ কেন্দ্রের মধ্যে মোট ১০০ কেন্দ্রের ফলে নৌকার মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী পেয়েছেন ৮২,৩২৬ ভোট। আর হাতি প্রতীকে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার পেয়েছেন ৪৯,২৩১ ভোট।

নাসিক নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী সাত জন প্রার্থী হলেন- খেলাফত মজলিসের এবিএম সিরাজুল মামুন (দেওয়াল ঘড়ি), স্বতন্ত্র থেকে বিএনপি নেতা তৈমূর আলম খন্দকার (হাতি), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাও. মো. মাছুম বিল্লাহ (হাতপাখ), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসীম উদ্দিন (বটগাছ), বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মো. রাশেদ ফেরদৌস (হাতঘড়ি), স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল ইসলাম (ঘোড়া) এবং বাংলদেশ আওয়ামী লীগের সেলিনা হায়াৎ আইভী (নৌকা)।

এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ সিটির ২৭টি ওয়ার্ডের প্রায় ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পেয়েছেন। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে ১৯২টি ভোটকেন্দ্রে ১ হাজার ৩৩৩টি ভোটকক্ষে। এর মধ্যে ৩০টি ভোটকেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে মাঠ প্রশাসন।


আরও খবর