আজঃ রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

পুতিনকে গ্রেপ্তার করবে না হাঙ্গেরি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মার্চ 20২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ মার্চ 20২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হাঙ্গেরিতে আসলে তাকে গ্রেপ্তার করা হবে না। দেশটির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবানের চিফ অব স্টাফ এ তথ্য জানিয়েছেন। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) গত ১৭ মার্চ পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। তার বিরুদ্ধে ইউক্রেন যুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ আনা হয়। এরপরেই হাঙ্গেরির পক্ষ থেকে এমন বার্তা এলো।

আজ বৃহস্পতিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার লাইভ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পুতিন হাঙ্গেরিতে আসলে তাকে গ্রেপ্তার করা হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে এক সংবাদ সম্মেলনে অরবানের চিফ অব স্টাফ গারজেলি গুলিয়াস বলেন, আমরা হাঙ্গেরির আইন উল্লেখ করতে পারি এবং তার ভিত্তিতে আমরা রাশিয়ান প্রেসিডেন্টকে গ্রেপ্তার করতে পারি না। হাঙ্গেরিতে আইসিসির আইন জারি করা হয়নি বলে উল্লেখ করেন তিনি।

গারজেলি গুলিয়াস আরও বলেন, পুতিনের বিরুদ্ধে আইসিসি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করার বিষয়ে তার সরকার কোনো অবস্থান তৈরি করেনি। তিনি বলেন, এসব সিদ্ধান্ত শুভসূচক নয় কারণ এতে উত্তেজনা আরও ত্বরান্বিত হয় এবং তা শান্তির দিকে নয়। গুলিয়াস এসবকে ব্যক্তিগত মতামত হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

এদিকে রুশ সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ সতর্ক করে বলেছেন, আইসিসির গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর দেশের বাইরে ভ্লাদিমির পুতিনকে গ্রেপ্তারের যেকোনো ধরনের প্রচেষ্টাকে যুদ্ধের ঘোষণা হিসেবে দেখবে মস্কো।


আরও খবর



এবার অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করে নিষেধাজ্ঞার মুখে রোনালদো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

সৌদি প্রো লিগে রিয়াদ ডার্বিতে আল শাবাবকে ৩-২ গোলে হারিছে আল নাসর। এই ম্যাচে গোল পেয়েছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে ৭৫০তম গোলের মাইলফলকও স্পর্শ করেছেন তিনি। ফুটবল ইতিহাসে আর কোনো ফুটবলারেরই এমন নজির নেই। তবে মাইলফলকের ম্যাচে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করে বিতর্কেও জড়িয়েছেন পাঁচবারের ব্যালন ডিঅর জয়ী এই ফুটবলার। কেবল বিতর্ক নয় এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন যাতে তার ওপর নিষেধাজ্ঞার খড়গও নামতে পারে।

সৌদি প্রো লিগে পরশু রাতে আল শাবাবের বিপক্ষে ২১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন পর্তুগিজ তারকা। ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে এটি তার ৭৫০তম গোল।

এই ম্যাচের শেষেই আল শাবাবের সমর্থকরা মেসি, মেসি স্লোগান দেয়। আর এতেই ক্ষেপে যান রোনালদো। প্রথমে কানের পেছনে হাত দেন। যাতে বোঝা যায় তিনি সেই স্লোগান শুনছেন। তারপরেই ঘটান অদ্ভুত সেই কাণ্ড। প্রতিপক্ষের সমর্থকদের উদ্দেশ্যে করেন বাজে অঙ্গভঙ্গি। এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

এবার জানা গেছে, এই অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির কারণে সৌদি ফুটবল ফেডারেশনের শাস্তির মুখে পড়তে যাচ্ছেন রোনালদো। সৌদি সংবাদমাধ্যমের বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেইল অনলাইন জানিয়েছে, দুই ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি জরিমানাও গুনতে হতে পারে রোনালদোকে।


আরও খবর



কুষ্টিয়ায় ছেলের মৃত্যুর সংবাদ শুনে পিতার মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রফিকুল ইসলাম, কুষ্টিয়া

Image

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ছেলের মৃত্যু সংবাদ শুনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাবাও মারা গেছেন। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার ছেঁউড়িয়া মণ্ডলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন উপজেলার ছেঁউড়িয়া মণ্ডলপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত হারান মণ্ডলের ছেলে কাবিল (৭০) ও কাবিলের ছেলে আবিদুল (৪৫)।

স্থানীয়রা জানান, সকালে নিজের বাসায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন আবিদুল। প্রথমে তাকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পরে অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

এদিকে ছেলের মৃত্যুর সংবাদ বাড়িতে পৌঁছালে বাবা কাবিল মিয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিক তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তিনিও হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান। মাত্র দুই ঘণ্টার ব্যবধানে বাবা-ছেলের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনামুল হক মনজু বাবা-ছেলের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

নিউজ ট্যাগ: কুষ্টিয়া

আরও খবর



পেকুয়ায় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোহাম্মদ ফারুক, কক্সবাজার

Image

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের পূর্বদিক দিয়ে প্রবাহিত মাতামুহুরী নদীতে শ্যালো মেশিন বসিয়ে গত এক মাস ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার অভিযোগে উঠেছে উজানটিয়া ইউপির সদস্য সোনা মিয়া সিন্ডিকেট এর বিরুদ্ধে।

অবৈধ উপায়ে বালু উত্তোলনের কারণে মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে উজানটিয়ার রুপালী বাজার এলাকায় ৬৪/২বি পোল্ডারের পানি উন্নয়নের বেড়িবাঁধ ও মানুষের ঘরবাড়িসহ বিভিন্ন স্থাপনা। অচিরেই অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ না করলে সামনের বর্ষা মৌসুমে ওই এলাকায় আবারো পাউবোর বেড়িবাঁধে ব্যাপক ভাঙন দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। 

জানা যায়, গত এক মাস ধরে উজানটিয়া ইউনিয়নের পুর্ব দিকে প্রবাহিত মাতামুহুরী নদীর উজানটিয়ার রুপালী বাজার পয়েন্টে নদীতে শ্যালো মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন অব্যাহত রেখেছে একই ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সোনা মিয়া ও ইউনিয়ন ছাত্রীগের সহ সভাপতি মো: কাফি চৌধুরী এবং যুবলীগ নেতা আয়াত।

খাল কিংবা নদী থেকে বালি উত্তোলনের নিয়ম না থাকলেও অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বেচা-বিক্রিতে জড়িত রয়েছে এই সিন্ডিকেট। রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে বেআইনীভাবে বালু উত্তোলন করলেও পেকুয়া উপজেলা প্রশাসন নদী থেকে বালু উত্তোলন বন্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় স্থানীয় সচেতন মহলে ক্ষোভ বিরাজ করছে। 

এ বিষয়ে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চাই থোয়াইহলা চৌধুরী জানান, অবৈধভাবে বালু উত্তোলন কর্মকান্ডে অবশ্যই অভিযান হবে।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় একমাস ধরে চলছে এই বালু উত্তোলন। যার ফলে নদী ভাঙনের শংঙ্কায় রয়েছে নদীর পাড়ে অবস্থিত শতাধিক পরিবার। নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলনের ফলে সরকার বঞ্চিত হচ্ছে রাজস্ব থেকে। স্থানীয়রা নদী থেকে অবৈধ উপায়ে বালু উত্তোলন বন্ধে জরুরী ভিত্তিতে পেকুয়া উপজেলা প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করেছেন।

নদী থেকে অবৈধ উপায়ে বালু উত্তোলন প্রসঙ্গে জানতে বালুখেখো সিন্ডিকেটের সদস্য সোনা মিয়া মেম্বারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, বালু উত্তোলনের কাজে আমি জড়িত নাই । বালু পরিবহনের জন্য আমার গাড়ি ভাড়া দিয়ে থাকি।  বালু উত্তোলন করে ছাত্রলীগ নেতা কাফি এবং  যুবলীগ নেতা আয়াত। তাদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করে বক্তব্য নেওয়ার জন্য একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও তাদের মুঠোফোনে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উজানটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল করিম  বলেন, আমার ইউনিয়ন খুব শান্ত ছিল, ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সোনা মিয়া সিন্ডিকেট করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন এবং মাটি বিক্রি করে ইউনিয়নের অনেক ক্ষতি করে যাচ্ছে। এবিষয়ে প্রশাসনকে অবহিত করেছি আমি।


আরও খবর



সেন্টমার্টিনে গিয়ে বিসিএস ক্যাডার নারী নিখোঁজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার প্রতিনিধি

Image

প্রবাল দ্বীপ কক্সবাজারের সেন্টমার্টিনে বেড়াতে গিয়ে মাহমুদা আক্তার হ্যাপী (৩১) নামে এক নারী পর্যটক নিখোঁজ রয়েছেন। গতকাল রোববার থেকে তাঁর খোঁজ মিলছে না বলে জানা গেছে। নিখোঁজ মাহমুদা আক্তার হ্যাপী ৪১তম বিসিএস ক্যাডার। তাঁকে বনবিভাগে পদায়ন করা হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আদনান চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গত ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা থেকে ৭১ জনের একটি দল সেন্টমার্টিনে বেড়াতে যায়। সেখানে মাহমুদা আক্তার হ্যাপীও ছিলেন। তাঁরা হোটেল সি ভিউসহ কয়েকটি রিসোর্টে উঠেন। গতকাল রোববার সকালে হ্যাপী বন্ধুর সঙ্গে দেখা করার কথা বলে রিসোর্ট থেকে বের হন।

বিকেল পর্যন্তও তিনি ফিরে না আসায় তাঁর সহকর্মীরা মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে বন্ধুর সঙ্গে আছেন বলে জানান। কিন্তু এক ঘণ্টা পর তাঁর মোবাইলে আর সংযোগ পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে পুলিশ কাজ করছে বলে জানান ইউএনও।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি আজ সোমবার রাতে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। নিখোঁজ নারী পর্যটকের এখনো খোঁজ মেলেনি। পুলিশ ও বনবিভাগের লোকজন তাঁর সন্ধানে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।


আরও খবর



কারাগারে পোস্টাল ভোট দিলেন ইমরান খান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানে জাতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া এই ভোটগ্রহণ চলবে একটানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

এদিকে কারাগার থেকেই নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে ইমরান খানের স্ত্রী বুশরা বিবি ভোটে অংশ নিতে পারেননি। বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এবং অন্যান্য বিশিষ্ট রাজনৈতিক বন্দিরা আদিয়ালা জেল থেকে পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে তাদের ভোট দিয়েছেন। ডাকযোগে যারা ভোট দিতে পেরেছেন তাদের মধ্যে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি, পাঞ্জাবের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী চৌধুরী পারভেজ এলাহি, আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রধান শেখ রশিদ এবং সাবেক তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরীও রয়েছেন।

তবে ইমরান খানের স্ত্রী বুশরা বিবি ভোটে অংশ নিতে পারেননি কারণ পোস্টাল ভোটিং প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পরে তাকে দোষী সাব্যস্ত এবং গ্রেপ্তার করা হয়।


আরও খবর