আজঃ শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

প্রশ্ন ফাঁস করে পরীক্ষা, ফাঁস চক্রের ১০ জন আটক

প্রকাশিত:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | ৩৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবশেষে রাষ্ট্রায়ত্ত ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের সত্যতা পেয়েছেন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ । ফাঁস চক্রের সদস্যরা প্রথম ব্যক্তির কাছে একটি প্রশ্ন বিক্রি করে ১৫ লাখ টাকায়। সেই প্রশ্ন হাত বদল করে কোটি কোটি টাকা পকেটে তুলেছে চক্রের সদস্যরা।

যারা প্রশ্ন ফাঁস করেছেন এবং যারা প্রশ্ন কিনে পরীক্ষা দিয়েছেন তাদের ১০ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখা। এদের মধ্যে দুজন এর আগে ফাঁস হওয়া প্রশ্ন কিনে পরীক্ষা দিয়ে ব্যাংকের চাকরি পান। তখন থেকেই প্রশ্ন ফাঁস চক্রে জড়িত তারা। এ চক্রে জড়িত তেজগাঁওয়ের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পর্কেও খোঁজখবর নিচ্ছেন গোয়েন্দা শাখা।

শনিবার নিয়োগের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার পরই প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ করেন অনেক চাকরিপ্রত্যাশী। তাদের অভিযোগ ছিল, পরীক্ষা শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ১০০টি প্রশ্নের প্রিন্ট করা উত্তরপত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পাওয়া গেছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ উড়িয়ে দেওয়া হয়। তবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার তদন্তে বের হয়েছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। অভিযোগের সূত্র ধরে প্রাথমিক তদন্তে প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-উপাত্ত পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশীদ  বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত ৫টি ব্যাংকের প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনাটি সত্য। প্রশ্নপত্র যারা ফাঁস করেছেন এবং যারা ফাঁস হওয়া প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়েছেন তাদের ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় টেন্ডারের মাধ্যমে এ প্রশ্নপত্র তৈরি ও পরীক্ষা নেওয়ার দায়িত্ব পালন করেন। সেখান থেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়। প্রথম ব্যক্তি ১৫ লাখ টাকায় একটি প্রশ্নপত্র কিনেন। পর্যায়ক্রমে সবাইকে ধরা হবে।

গোয়েন্দা সূত্রে আরও জানা গেছে, রাষ্ট্রায়ত্ত সব ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির মাধ্যমে হয়। নিয়োগ কমিটি সাচিবিক দায়িত্ব পালন করেন। আর পরীক্ষা নেওয়ার জন্য তারা দরপত্র আহ্বান করে। এবার ৫টি রাষ্ট্রয়াত্ত ব্যাংকে নিয়োগের এ পরীক্ষা নেওয়ার কাজ পায় তেজগাঁওয়ের একটি বেরসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। সেখান থেকেই মূলত প্রথমে প্রশ্ন ফাঁস হয়।

ডিবির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, গ্রেফতারকৃত ১০ জনের মধ্যে ৮ জনই ব্যাংক কর্মকর্তা। আর ২ জন চাকরি প্রার্থী পরীক্ষার্থী। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে একজন প্রথম ১৫ লাখ টাকায় একটি প্রশ্ন কেনেন। এরপর তিনি একজন ব্যাংক কর্মকর্তার কাছে ওই প্রশ্ন বিক্রি করেন। তার মাধ্যমেই চক্রের অন্য সদস্যরা এ প্রশ্ন বিক্রি করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেন। সর্বনিম্ন ৩ লাখ টাকায় একটি প্রশ্ন বিক্রি হয় বলে গোয়েন্দারা জানতে পারেন।


আরও খবর



শাহজাদপুরে ট্রাক উল্টে খাদে, নিহত ২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | ৭৬৫জন দেখেছেন

Image

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রিতিনিধি:

সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুর উপজেলার শাহজাদপুর-জামিরতা আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক উল্টে ২ জন শ্রমিক  নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ১৭ জন শ্রমিক। মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার জামিরতা আঞ্চলিক সড়কের পারজামিরতা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন পোরজনা ইউনিয়নের বাশুরিয়া গ্রামের তানুক আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩০) ও একই গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে বাবর(৫০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানায়, জামিরতা গ্রাম থেকে ট্রাক নিয়ে অর্ধশত শ্রমিক ধান কাটার জন্য রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওনা দেন। ট্রাকটি পারজামিরতা এলাকায় পৌছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে ট্রাকটি উল্টে খাদে পরে যায়। এতে ১৭ জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়। আহতদের মধ্যে মুমূর্ষূ অবস্থায় দুজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত্যু ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনা আহত অন্যদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে শাহজাদপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উল্টে যাওয়া ট্রাকটি উদ্ধার করে।


আরও খবর



মার্কিন নৌবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৯ জন ইরানি সেনা নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পারস্য উপসাগরের জলসীমায় মার্কিন নৌবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৯ জন ইরানি সেনা নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে ইরানের এলিট ফোর্স হিসেবে পরিচিত রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পস (আইআরজিসি)। 

তুর্কি গণমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সির রবাত দিয়ে সোমবার (২২ নভেম্বর) মিডলইস্ট মনিটর জানায়, ইরানি বার্তা সংস্থা মেহর নিউজ এজেন্সিকে সে দেশের নৌবাহিনীর কমান্ডার আলিরেজা তাংসিরি পারস্য উপসাগরে মার্কিন নৌবাহিনীর সাথে তাদের সংঘর্ষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

তবে কবে কখন এ সংঘর্ষ হয় তা জানাননি তিনি।

কমান্ডার তাংসিরি জানান, সংঘর্ষে আইআরজিসির ৯ জন সৈন্য নিহত হয়েছেন। তবে নিহতদের সম্পর্কে কিছু বলেননি তিনি। নৌবাহিনীর কমান্ডার ইরান ও মার্কিন নৌবাহিনীর মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে বলেও উল্লেখ করেছেন। 

 


আরও খবর
ভারতে ধরা পড়ল ওমিক্রন

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




৯ ডিসেম্বর নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ দল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | ২০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বকাপ শেষেই ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। আগামী ৮ ডিসেম্বর শেষ হবে পাকিস্তান সিরিজ। এর পরেও অবশ্য বিশ্রামের সুযোগ নেই। পাকিস্তান সিরিজ শেষ হওয়ার পর দিনই নিউজিল্যান্ডে উড়াল দেবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। সূচি অনুযায়ী, দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ডে যাবে বাংলাদেশ দল। নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই শুরু হবে দুদলের লড়াই।

নিউজিল্যান্ড সফর নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছেন, ৯ ডিসেম্বর সকালে যাত্রা নিউজিল্যান্ডের জন্য দেশ ছাড়বেন মুমিনুলরা।

এবারের সফরে কোয়ারেন্টিনে কিছুটা শীথিলতা এনেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট। এর আগের সফরে  দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে ছিল বাংলাদেশ দল। এবার থাকতে হবে সাতদিন।

এ ব্যাপারে নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমাদের শেষ নিউজিল্যান্ড সিরিজে যে প্রটোকল ছিল, সেটা থেকেও কিছুটা শিথিল করা হয়েছে। তিন থেকে চারদিনের রুম কোয়ারেন্টাইন করতে হবে। বাকি সময় ওদের যে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার, সেখানে থাকতে হবে তিন থেকে চারদিন। এর ফলে আমাদের কিছু বাড়তি সুযোগ এসেছে। আমাদের দল দুটি অনুশীলন ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে। দুটি দুদিনের অনুশীলন ম্যাচ হবে। একটা নিজেদের মধ্যে, আরেকটা নিউজিল্যান্ড একাদশের সঙ্গে। দুইটা অনুশীলন ম্যাচ খেলার পর বাংলাদেশ দল সরাসরি টেস্ট খেলবে।

২০২২ সালের ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। প্রথম ম্যাচটি হবে মাউন্ট মঙ্গানুইতে। এরপর ৯ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় টেস্ট। সেটি হবে ক্রাইস্টচার্চে। টেস্ট সিরিজের দুটি ম্যাচই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

নিউজ ট্যাগ: নিউজিল্যান্ড

আরও খবর



‘দেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী একজন আর্কিটেক্ট’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | ৪৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রীকে একজন যোগ্য আর্কিটেক্ট (স্থপতি) বলে মন্তব্য করেছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। শুক্রবার (১২ নভেম্বর) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) এর অডিটোরিয়ামে সিনিয়র কৃষিবিদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতা এ মন্তব্য করেন আইনমন্ত্রী। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের ঢাকা মেট্রোপলিটন শাখা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আইনমন্ত্রী বলেন, দেশ গড়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী একজন আর্কিটেক্ট। তার কারণ হলো- তার প্রজ্ঞা ও দূরদর্শি নেতৃত্বে দেশ দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। বাংলাদেশ ২০১৫ সালে নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে। ২০২৬ সালে বাংলাদেশ উন্নয়শীল দেশের কাতারে যুক্ত হবে। আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য ২০৩১ সালের মধ্যে দেশকে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশের মযদা অর্জন করা এবং ২০৪১ সালে দারিদ্র অবসান করে উচ্চ আয়ের দেশ হিসেবে গড়ে তোলা।

এমন কোন পরিকল্পনা বাংলাদেশের ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ছাড়া কেউ নেয়নি। তিনি একটা ব-দ্বীপ পরিকল্পনা নিয়েছেন যেটা ২০২১ সাল পযন্ত। এটি ব্যতিক্রম। এটাতে বুঝা যায়, তিনি একজন আর্কিটেক্ট।

১২ নভেম্বর দুটি কারনণ উল্লেখযোগ্য দিন বলে মনে করেন আইনমন্ত্রী। তিনি বলেন, এই দিনে ইনডেমনিটির মত কালো আইন বাতিল করে আইনের শাসনের দ্বার উন্মচেন হয়েছিল। ১৯৯৬ সালে এই কালো আইন বাতিল করা হয়। তার ফলেই বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড ও জেল হত্যার বিচার হয়েছে।

তিনি বলেন, আজকে দিনটি আরেকটি কারণে গুরুত্বপূর্ণ। সেটি হলো ১৯৭০ সালের এই দিনে ভয়াবহ ঘুর্ণিঝড় হয়েছিল। সেই ঘুর্ণিঝড়ে বহু মানুষ হতাহত হয়। তখন কিন্তু পাকিস্তান সরকার কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। বঙ্গবন্ধু সে দিন পদক্ষেপ নেওয়ায় ১৯৭০ সালের নির্বাচনে তার বেশ প্রভাব পড়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গবেষণাবান্ধব উল্লেখ করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর গবেষণায় গুরুত্বারোপ করেন। ২০০৯ সালে তিনি গবেষণার জন্য প্রচুর টাকা দিয়েছেন। মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকে আমি দেখেছি, গবেষণার জন্য তিনি অত্যন্ত গুরুত্ব দেন।

আইনমন্ত্রী কৃষিবিদদের উদ্দেশ্য বলেন, আপনারা গবেষণা চালিয়ে যাবেন। সেই জন্য সরকার আপনাদের সব ধরণের সহযোগিতা করবে। ১৯৯৬ সালের ২৬ লাখ টন খাদ্য সংকট থেকে এখন খাদ্য শস্যে উদ্বৃত্ত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রী সারের দাম কমিয়েছেন। তিনি কৃষক বান্ধব নীতি গ্রহণ করেছেন।

বাংলাদেশ পৃথিবীর অন্যতম জনবহুল দেশ। যেখানে প্রতিনিয়ত জনসংখ্যা বাড়ছে। নগরায়ন হচ্ছে, শিল্পায়ণ হচ্ছে, কৃষি জমি কমছে। এর সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তন জনিত প্রভাবও রয়েছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে খাদ্য সংকট হওয়া স্বাভাবিক। এটা মোকাবেলা করা আপনাদের জন্য একটা বড় চ্যালেঞ্জ। আমি বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রীর দেখানো গবেষণা আপনারা চালিয়ে যাবেন। আপনাদের গবেষণার জন্য যে অর্থ প্রয়োজন হবে, সেই অর্থ সরকার সব সময় দেবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য এমন একটি বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাই ,যার জন্য মানুষ গর্ব করবে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মোঃ লিয়াকত আলী জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, শের-ই- বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শহীদুর রশীদ ভুঁইয়া, কেআইবি'র মহাসচিব মো. খায়রুল আলম (প্রিন্স), আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ড. মো. তাসদিকুর রহমান সনেট প্রমুখ বক্তৃতা করেন।



আরও খবর
দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1

এএসপি হলেন ২২ পুলিশ কর্মকর্তা

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




আজ আপনার জন্মদিন হলে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ আপনার জন্মদিন হলে পাশ্চাত্য জ্যোতিষে আপনি ধনু রাশির জাতক/ জাতিকা। আপনার জন্মসংখ্যা : ৫। আপনার ওপর প্রভাবকারী গ্রহ : বুধ ও বৃহস্পতি। আপনার শুভ সংখ্যা : ৫ ও ৩। শুভ বার : বুধ ও বৃহস্পতি। শুভ রত্ন : পোখরাজ ও পান্না।

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে। ব্যক্তিগত যোগাযোগ ফলপ্রসূ হতে পারে। প্রাপ্ত তথ্য ভালোভাবে যাচাই করে নিন। কাজকর্মে ভাগ্যের আনুকূল্য পেতে পারন। কারও সঙ্গে নতুন বন্ধুত্ব হতে পারে।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২০ মে)

অধীনদের কাজে লাগাতে পারবেন। মূল্যবোধ সমুন্নত থাকতে পারে। পড়াশোনা আনন্দ পাবেন। আর্থিক দিক ভালো যাবে। আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে হঠাৎ দেখা হতে পারে।

মিথুন (২১ মে-২০ জুন)

যে কোনও পরিবেশে নিজেকে মানিয়ে চলার চেষ্টা করুন। শরীর ভালো থাকতে পারে। আত্মপ্রতিষ্ঠার চেষ্টা জোরদার করুন। সে ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। ব্যক্তিত্ব দিয়ে অন্যকে প্রভাবিত করতে পারবেন।

কর্কট (২১ জুন-২০ জুলাই)

কোনও গুরুত্বপূর্ণ কাজ শেষ করতে পারবেন। ভ্রমণের সুযোগ পেতে পারেন। সম্ভাব্যক্ষেত্রে বিদেশযাত্রা হতে পারে। ব্যয় কমানোর চেষ্টা করুন। গোপন শত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন।

সিংহ (২১ জুলাই-২১ আগস্ট)

বন্ধুদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকতে পারে। প্রয়োজনে তাদের সহযোগিতা পেতে পারেন। কোনও আশা পূরণ হতে পারে। আর্থিক দিক ভালো যাবে। পেশাগত যোগাযোগ ফলপ্রসূ হতে পারে।

কন্যা (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর)

সামাজিক অবস্থান সুদৃঢ় হতে পারে। পাবলিক ইমেজ বৃদ্ধি পাবে। কোনও উচ্চাশা পূরণ হতে পারে। বেকারদের কারও কারও চাকরি হতে পারে। কর্মস্থলে পদস্থদের আনুকূল্য পেতে পারেন।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর)

সামাজিক অগ্রগতি অব্যাহত থাকতে পারে। পেশাগত দিক ভালো যাবে। কোনও আশা পূরণ হতে পারে। মন ভালো থাকবে। ভ্রমণ ফলপ্রসূ হতে পারে।

বৃশ্চিক (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। শারীরিক অসুস্থতাকে অবহেলা করবেন না। ব্যবসায়িক দিক খুব একটা ভালো না-ও থাকতে পারে। জৈবিক কামনা-বাসনাকে সংযত রাখুন।

ধনু (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর)

ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে। বিক্রয়-বাণিজ্যে লাভযোগ আছে। যৌথ ব্যবসায় নিজের কর্তৃত্ব বজায় রাখতে পারবেন। দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো থাকবে। কোনও ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সহযোগিতা পেতে পারেন।

মকর (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি)

কর্মপরিবেশ অনুকূল না-ও থাকতে পারে। কর্মস্থলে ঝামেলা এড়িয়ে চলুন। শত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। সীমা লঙ্ঘন করবেন না। পরিমিত আহার করুন।

কুম্ভ (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

মনের মানুষকে মনের কথা স্পষ্ট করে বলুন। রোমান্টিক প্রস্তাবে সাড়া পেতে পারেন। বিদ্যার্থীদের জন্য দিনটি শুভ। পড়াশোনায় মন বসাতে পারবেন। সন্তানের কোনও সাফল্য আনন্দদায়ক হতে পারে।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

মাতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। মন ভালো থাকবে। কোনও প্রত্যাশা পূরণ হতে পারে। আত্মীয়দের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকতে পারে। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে।

 

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর