আজঃ রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

‘অতীত ভুলে’ তুরস্কের সঙ্গে সম্পর্ক গড়তে চায় আরব আমিরাত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ শেখ মুহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান (এমবিজেড) বর্তমানে তুরস্ক সফর করছেন। তার এ সফরে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও তুরস্ক দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক মেরামত ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বাড়াতে আলোচনা করবে বলে জানা গেছে। তুরস্কের সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ এ তথ্য জানায়। খবরে বলা হয়, তাকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

২০১২ সালের পর থেকে এই প্রথম সরকারি সফরে তুরস্ক এলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ। যাকে আমিরাতের ডি ফ্যাক্টো নেতা ও দেশটির পররাষ্ট্র নীতির নির্ধারক মনে করা হয়।

আঞ্চলিক পর্যায়ে দেশ দুটি নিজেদের আধিপত্য বিস্তারের সংঘাতে বিভিন্ন গোষ্ঠীকে সমর্থন দিয়ে সৃষ্ট উত্তেজনার পর এটিই প্রথম আমিরাতের সর্বোচ্চ পর্যায়ের কোনো কর্মকর্তার আঙ্কারা সফর।

এর আগে যুবরাজের ভাই, সংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা তাহনুন বিন জায়েদ আল নাহিয়ান আগস্টে তুরস্কে সফর করেন। সেটি ছিল সম্পর্ক পুনরুদ্ধারে প্রথম কোনো উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ।

তুরস্কের প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা বাড়াতে দুই নেতা দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করবেন। আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পরিস্থিতিও তাদের আলোচনায় গুরুত্ব পাবে।

তুরস্কের কর্মকর্তারা এমবিজেডের সফরকে নতুন যুগের শুরু হিসেবে অভিহিত করেছেন। লিবিয়ায় আঙ্কারার স্বার্থ ক্ষুণ্ন করা এবং ২০১৬ সালে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানে অর্থায়নের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতকে দায়ী করে তুরস্ক। এর পর থেকে দুই দেশের সম্পর্কে চিড় ধরে। এ ছাড়া সিরিয়া ও কাতার নিয়ে দেশ দুটির মধ্যে মতপার্থক্য বিদ্যমান।

সম্প্রতি তুরস্কের প্রতিরক্ষা খাত যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা নজর কেড়েছে আমিরাতের। বিশেষ করে দেশীয় প্রযুক্তিতে তুরস্ক ড্রোন, ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, যুদ্ধাজাহাজ ও মনুষ্যবিহীন সামরিক যান তৈরি করেছে। দেশটির তৈরি করা বিভিন্ন অস্ত্র ইতোমধ্যে সাফল্য দেখিয়েছে। এসব কারণে আরব আমিরাত চাইছে তুরস্কের সঙ্গে দূরত্ব কমিয়ে আনতে। এমন পরিস্থিতিতে এমবিজেডের এ সফরকে ঘিরে আবারও সম্পর্কোন্নয়নের স্বপ্ন দেখছে আঙ্কারা ও আবুধাবি।


আরও খবর
করোনায় আরও ৭ হাজারের বেশি মৃত্যু

শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১




অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকার সাভারে দ্রুতগতির ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাতেমা আক্তার দীনা (১৮) নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। সোমবার (২২ নভেম্বর) দুপুর ১টার দিকে সাভারের সিটি সেন্টারের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ফাতেমা সাভারের ভাকুর্তা ইউনিয়নের চরতোলাতুলি গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে। তিনি শেরে-বাংলা কৃষিবিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষি ডিপ্লোমার দ্বিতীয় বছরের শিক্ষার্থী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দীনা সাভারের ভাকুর্তা থেকে কোনো এক বন্ধুর বাসার উদ্দেশে সাভারের রেডিও কলোনির দিকে যাচ্ছিলেন। সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ড থেকে একটি অটোরিকশা নিয়ে রেডিও কলোনি যাওয়ার পথে সিটি সেন্টারের সামনে গেলে ওড়না চাকার সঙ্গে পেঁচিয়ে যায়। এ সময় রিকশা থেকে পড়ে গুরুতর আহত হন তিনি। পরে সাভারের সুপার ক্লিনিকে নিলে তার অবস্থার আরও অবনতি হয়। পরে এনাম মেডিকেলে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


আরও খবর



সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলা ৯০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের অভিযোগ সংক্রান্ত সব মামলা ৯০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সব অধস্তন ফৌজদারি আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলার অভিযোগপত্র বিচারিক আদালতে প্রাপ্তির ৯০ কার্যদিবসের মধ্যে আবশ্যিকভাবে মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশনা প্রদান করা হলো।

নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি করতে ব্যর্থ হলে তার কারণ উল্লেখপূর্বক ব্যাখ্যা বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।


আরও খবর



মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে আটক ৫০

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৫০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত সময়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। 

এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩ হাজার ৩৯৩ পিস ইয়াবা, ৩৫২ গ্রাম হেরোইন ও ২২ কেজি ৮৫০ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪০টি মামলা হয়েছে।


আরও খবর



ধর্মঘটের মধ্যেও বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষায় রেকর্ড উপস্থিতি

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | ৫৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পরিবহন ধর্মঘটের মধ্যেও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) স্নাতক ভর্তি (চূড়ান্ত) পরীক্ষায় ৯০ শতাংশের বেশি শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিল।

শনিবার (৬ নভেম্বর) বুয়েট ক্যাস্পাসে সকালে-বিকেলে দুই ধাপে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বুয়েট কর্তৃপক্ষ জানায়, মডিউল- এবং মডিউল-বি দুই শিফটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মডিউল সকাল ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এবং মডিউল-বি দুপুর ২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। সারাদেশে পরিবহন ধর্মঘট থাকলেও রেকর্ডসংখ্যক শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

সকালে মডিউল- এর উপস্থিতির হার ছিল ৯৯ দশমিক ৪৫ শতাংশ এবং দুপুরে মডিউল-বি এর উপস্থিতির হার ছিল প্রায় ৯০ শতাংশ।

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত বৈশ্বিক মহামারির কারণে এ বছর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রাক-নির্বাচনী ও মূল ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে দুই ধাপে অনুষ্ঠিত হয়।


আরও খবর



মহিপুরে ৩০ মন জাটকা জব্দ

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কলাপাড়ার মহিপুরে ৩০ মন জাটকা জব্দ করেছে নিজামপুর কোস্টগার্ড। শনিবার রাত দশটায় শেখ জামাল সেতুর টোল পয়েন্টে অভিযান চালিয়ে এসব জাটকা জব্দ করা হয়। তবে এ সময় কোনো জাটকা ব্যবসায়ীকে আটক করতে পারেনি কোস্টগার্ড।

কোস্টগার্ড জানায়, রাত নয়টার দিকে ইলিশ ভর্তি একটি ট্রাক মহিপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ট্রাক থেকে ৩০ মন জাটকা উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা মাছ উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা অপু সাহার নির্দেশে রাতেই বিভিন্ন এতিমখানা, মাদ্রাসার ছাত্র ও অসহায় গরিবদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য ইলিশের উৎপাদন বাড়াতে গত ১ নভেম্বর থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত জাটকা ধরা নিষিদ্ধ করেছে মৎস্য বিভাগ। এ সময় কেউ জাটকা ধরা, বিক্রি, মজুত ও পরিবহন করলে সর্বোচ্চ দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড অথবা ৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারেন।

নিজামপুর কোস্টগার্ডের কন্টিজেন্ট কমান্ডার এম জমির হোসেন জানান, কোস্টগার্ডের জাটকা বিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ ছাড়া পরবর্তীতে অবৈধ জাটকা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

নিউজ ট্যাগ: জাটকা জব্দ

আরও খবর