আজঃ রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

নতুন সুবিধা ব্যবহারের জন্য ৫০ হাজার ডলার দেবে ফেসবুক

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ৫৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফেসবুকের লাইভ অডিও রুমস ব্যবহারের জন্য কনটেন্ট নির্মাতাদের ৫০ হাজার ডলার পর্যন্ত দেবে মেটা। পাশাপাশি ইনস্টাগ্রামে রিল (খুদে ভিডিও) তৈরির জন্যও নির্মাতাদের ৩৫ হাজার ডলার পর্যন্ত দেওয়া হবে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সংগীতশিল্পী ও অন্যান্য কনটেন্ট নির্মাতাকে অডিও রুমস ব্যবহারের জন্য প্রতি সেশনে ১০ থেকে ৫০ হাজার ডলার পর্যন্ত দেওয়া হবে। সঙ্গে অতিথির জন্য অন্তত ১০ হাজার ডলারের ব্যবস্থাও থাকবে।

সেই অর্থের বিনিময়ে ফেসবুকের কনটেন্ট নির্মাতাদের অন্তত ৩০ মিনিটের ৪ থেকে ৬টি অধিবেশন পরিচালনা করতে হবে।

লাইভ অডিও রুমসের সঙ্গে কোনো অলাভজনক সংস্থাকে তহবিল গঠনের জন্য যুক্ত করার সুবিধাও আছে। শ্রোতা ও বক্তারা চাইলে সেখানে সরাসরি অর্থ দিতে পারেন। অডিও রুমসে ৫০ জন পর্যন্ত বক্তা যুক্ত করার সুযোগ পাবেন হোস্ট। তবে শ্রোতার পরিমাণের কোনো সীমা নেই।

গত জুনে লাইভ অডিও রুমস ও পডকাস্ট সুবিধা দুটি চালু করে ফেসবুক। অডিও রুমস সুবিধার মাধ্যমে অনুসারীদের সঙ্গে সরাসরি কথোপকথন চালানো যায়।

ফেসবুকের আগে এমন সুবিধা এনেছিল ক্লাবহাউস নামের অ্যাপ। সেটি তুমুল জনপ্রিয় হওয়ায় ফেসবুকেও একই সুবিধা যুক্ত করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: ফেসবুক

আরও খবর
বিজয়ের মাসেই ফাইভ-জি

বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১




ফের দেখা হচ্ছে লাতিন আমেরিকার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাড়ে তিন মাস আগে যখন দেখা হয়েছিল দুই প্রতিপক্ষের, শেষ হাসি ছিল লিয়োনেল মেসির মুখে। কোপা আমেরিকা ফাইনালে ব্রাজিলকে হারিয়েই অধিনায়ক হিসেবে আর্জেন্টিনাকে প্রথমবার ট্রফি উপহার দিয়েছিলেন প্যারিস তারকা।

বুধবার ভারতীয় সময় ভোর পাঁচটায় ফের দেখা হচ্ছে লাতিন আমেরিকার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর। এ বার লড়াই ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ যোগ্যতা অর্জন পর্বের দ্বৈরথে। যে দৌড়ে ইতিমধ্যে মূল পর্বে ওঠার ছাড়পত্র আদায় করে নিয়েছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। মূলপর্বে যাওয়া কার্যত নিশ্চিত করে ফেলা আর্জেন্টিনার প্রয়োজন আর একটি জয়ের। তা হলেই স্বস্তি। লিয়োনেল স্কালোনির দল ঘরের মাঠে সেই ম্যাচে ব্রাজিলকে হারিয়েই স্মরণীয় করে রাখতে চায় মূলপর্বে ওঠার মূহূর্তকে।

গত তিন দিন ধরে যে প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে মরিয়া ছিলেন আর্জেন্টিনার ভক্তেরা, সোমবার সেই ধাঁধার সমাধান করে দিয়েছেন কোচ স্কালোনি। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেছেন, স্পষ্ট করে বলে দেওয়াই ভাল যে, ব্রাজিলের বিরুদ্ধে শুরু থেকেই লিয়ো মেসি খেলবে। চোটের জন্য ওকে উরুগুয়ে ম্যাচে আমরা ব্যবহার করতে চাইনি। লিয়ো নিজেই জানিয়েছে সম্পূর্ণ চোটমুক্ত। ফলে ওকে সামনে রেখেই এই মর্যাদার ম্যাচ জিতে মাথা উঁচু করে মাঠ ছাড়তে চাই।

সোমবারই ছিল আর্জেন্টিনা দলের আর এক তারকা পাওলো দিবালার জন্মদিন। মাঠে নামার সতীর্থদের নিয়ে ড্রেসিংরুমে কেক কাটেন ২৮ বছরে পা দেওয়া দিবালা। ১২ ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে কনমেবল গ্রুপের শীর্ষে থাকা ব্রাজিল শিবিরও পাল্টা জবাব দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: লিয়োনেল মেসি

আরও খবর



ডিজেলসহ নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিকে যৌক্তিক বললেন অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডিজেলের দাম বাড়ানোর পর গণপরিবহনের ভাড়া বেড়েছে। গণপরিবহনের ভাড়া বেড়ে যাওয়ায় এর প্রভাব পড়েছে বাজারে। জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহে হিমশিম খাচ্ছে মানুষ। তবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এসব বিষয়কে যৌক্তিক বলেই মনে করছেন।

আজ বুধবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সিদ্ধান্ত জানানোর সময় জ্বালানির দাম বৃদ্ধি নিয়ে এক সাংবাদিকের করা প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, পুরোটাই যৌক্তিক। সরকার কোত্থেকে টাকা পাবে? রাজস্ব অর্জন করেই সরকারকে কাজ করতে হচ্ছে। তারপরও সরকার যতটুকু সম্ভব এটা সামঞ্জস্য করে দেয়। ভালো দিক দেখবেন না? তেলের দাম কি আমরা বাড়িয়েছি? আমাদের সরকার বাড়িয়ে দিয়েছে? কোনো জাহাজে যদি করোনা আক্রান্ত কাউকে পাওয়া যায়, তাহলে সেই জাহাজ কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়া হয়। জাহাজ চলতে না পেরে মাসের পর মাস সাগরে আটকে আছে, সেই চার্জ শিপিং কোম্পানিকে করা হয়। চার্জগুলো সব একত্র হয়ে পুরো চার্জটা আমরা পাই।

ডিজেলের দাম বাড়ানোয় মানুষের জীবনযাত্রার ওপর চাপ পড়ছে, এর কোনো বিকল্প ছিল কিনা, এ প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা এটা স্বীকার করি। যখন দাম কমে আমরা দাম কমাই, যখন দাম বাড়ে বাড়াই। আগামী মিটিংয়ে আমরা আপনাদের জানাব গত দুই বছর কি পরিমাণ ডিজেলের দাম বেড়েছে, আমরা কতটা বাড়িয়েছি। আপনারা তাহলে বুঝতে পারবেন সরকার কতটা বহন করতে পারে। এর সঙ্গে ভোক্তাদেরও কিছুটা বহন করতে হবে।

বিপিসি ৪৩ হাজার কোটি টাকা লাভ করলেও জ্বালানির দাম কমেনি কেন, সেই প্রশ্নে মুস্তফা কামাল বলেন, এই যে সেফটিনেট প্রকল্পগুলো আছে এগুলো তো সরকার টাকা প্রিন্ট করে চালাচ্ছে না। সরকারকে টাকা আয় করে চালাতে হয়। এগুলো তো শেয়ার করতে হয়। তারপরও সরকার যতটুকু পারে শেয়ারিং করে। সামান্য যেটা না হলে না সেটা ভোক্তাদের ওপর দেয়।

ডিজেলের দাম বাড়ার পর গণপরিবহনের ভাড়া যেভাবে বাড়ানো হয়েছে তা পুনর্বিবেচনার সুযোগ আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, আগে আমাকে জানতে হবে দাম বৃদ্ধির কারণ। এ বিষয়ে আমি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলব। আমি যদি দেখি কোনো ভিত্তি ছাড়া দাম বাড়ানো হয়েছে, সেটা বিবেচনা করার অবশ্যই সুযোগ রয়েছে। জ্বালানির দাম যখন আন্তর্জাতিক বাজারে কম ছিল, সেই বেনিফিট কি আমরা সবাই পাইনি? সব ভোক্তা বেনিফিট পেয়েছে। এখন দাম বেড়েছে, আমরা উৎপাদনকারী নয়, আমরা ভোক্তা। আমরা গ্রহণ করি, আমাদের এখানে হাত দেওয়া সম্ভব নয়। তারপরও চেষ্টা করব যে পরিমাণ বাড়বে সে পরিমাণ যেন আমাদের ভোক্তারা সহ্য করতে পারে সেদিকে অবশ্যই খেয়াল রাখা হবে।


আরও খবর
আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




এবার ১৭ প্রদেশে নতুন গভর্নর নিয়োগ দিল তালেবান

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার কিছুদিন পর আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের সবকটির নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এরপর ঘোষণা করে নতুন সরকার। এবার ১৭ প্রদেশে নতুন গভর্নর নিয়োগ দিল তালেবান।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ এ তথ্য জানান। খবরে বলা হয়, ইসলামিক আমিরাত বিভিন্ন প্রদেশে ৪৩ জন নতুন গভর্নর, ডেপুটি গভর্নর এবং পুলিশ প্রধান নিয়োগ দিয়েছে।

নতুন নিয়োগ পাওয়াদের মধ্যে ১৭ জন বিভিন্ন প্রদেশের গভর্নর।  ১৫ জন নিয়োগ পেয়েছেন বিভিন্ন প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর হিসেবে। এ ছাড়া বাকি ১০ জন নিয়োগ পেয়েছেন বিভিন্ন প্রদেশের পুলিশ প্রধান হিসেবে।  অপর একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে হেরাতের শিন্দন্দ অঞ্চলের পাঁচটি জেলার নিরাপত্তা প্রধান হিসেবে।

ইসলামিক আমিরাতের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা মোল্লা হেবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার ডিক্রির ওপর ভিত্তি করে এ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার এক বিবৃতিতে বলা হয় বাদাখশান, পাকতিয়া, কাবুল, বাঘলান, কুন্দুজ, লোঘার, পাকতিকা, বামইয়ান, উরুজগান, ফারাহ, সারইপুল, জাওজান, ফারইয়াব, ময়দান ওয়ারদাক, জাবুল, নিমরোজ ও গজনিতে নতুন গভর্নর নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

ডেপুটি গভর্নর নিয়োগ দেওয়া হয়েছে কাবুল, বাঘলান, কুন্দুজ, লোঘার, লাঘমান, বালখ, ফারাহ, সারইপুল, জাওজান, ময়দান ওয়ারদাক, জাবুল, সামানগান, গজনি, কুনার ও দায়কুন্দিতে।

এ ছাড়া কাবুল, কুন্দুজ, বাঘলান, লোঘার, বালখ, তাখার, ফারাহ, ফারইয়াব, ঘোর ও কুনার প্রদেশে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে পুলিশ প্রধান এবং একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে হেরাতের শিন্দন্দ অঞ্চলের পাঁচটি জেলার নিরাপত্তা প্রধান হিসেবে।

নিউজ ট্যাগ: তালেবান

আরও খবর
করোনায় আরও ৭ হাজারের বেশি মৃত্যু

শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১




বুড়িরহাট সীমান্তে ২ বাংলাদেশি নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার বুড়িরহাট সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে দুই বাংলাদেশি গরুর রাখাল নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (১২ নভেম্বর) ভোরে কালীগঞ্জ উপজেলার বুড়িরহাট সীমান্তের ৯১৭ নম্বর মেইন পিলারের ৫ নম্বর সাব পিলারের কাছে ভারতের অভ্যন্তরে এ হত্যার ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কালীগঞ্জ উপজেলার গোড়ল ইউনিয়নের লোহাকুচি মালগড়া গ্রামের আলতাব মিয়ার ছেলে আসাদুজ্জামান ভাষানি (৪০) ও একই এলাকার ইদরিস আলীর ছেলে মোসলেম উদ্দিন (৪২)। 

সীমান্তবাসী জানান, কয়েকজন গরুর রাখাল বুড়িরহাট সীমান্তের ৯১৭ নম্বর মেইন পিলারের ৫ নম্বর সাব পিলারের কাছ দিয়ে ভারতের গরু ব্যবসায়ীদের সহায়তায় গরু আনতে সে দেশে অনুপ্রবেশ করেন। তারা গরু নিয়ে ফেরার সময় ভারতের কোচবিহার জেলার ৭৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়ন সাতভান্ডারিয়া ক্যাম্পের টহল দলের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে আসাদুজ্জামান ভাষানি ও মোসলেম উদ্দিন গুলিবিদ্ধ হয়ে এক/দেড়শ গজ ভারতের অভ্যন্তরে মারা যান। এসময় আহত হন কয়েকজন। আহতরা পালিয়ে দেশে ফিরে গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

ভারতীয় সীমান্তবাসী মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে ছবি তুলে বাংলাদেশি সীমান্তবাসীকে পাঠালে তাদের পরিচয় শনাক্ত হয়। এ রিপোর্ট লেখার সময় মরদেহ দুটি সীমান্তের প্রায় এক/দেড়শ গজ ভারতের অভ্যন্তরে পড়ে থাকতে দেখা যায়। 

গোড়ল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহামুদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিএসএফের গুলিতে নিহত দুজনের মরদেহ সীমান্তের এক/দেড়শ গজ ভারতের অভ্যন্তরে পড়ে রয়েছে। আহতরা গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

মৃত্যু সংখ্যা বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন তিনি। 

লালমনিরহাট ১৫ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ব্যাটালিয়নের স্থানীয় ক্যাম্পের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বিষয়টি জানেন না এবং এ নিয়ে কেউ লিখিতভাবে জানাননি বলে দাবি করেন।

নিউজ ট্যাগ: বাংলাদেশি নিহত

আরও খবর



প্রবাসীদের যথাযথভাবে সেবা দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৫৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রবাসী বাংলাদেশিদের যথাযথভাবে সেবা দিতে কূটনৈতিকদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (০৭ নভেম্বর) স্থানীয় সময় সকালে লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনার ভবনের সম্প্রসারিত অংশ এবং বঙ্গবন্ধু লাউঞ্জের উদ্বোধনকালে এ নির্দেশ দেন তিনি।

সফরকালীন আবাসস্থল হোটেল ক্ল্যারিজ থেকে ভার্চ্যুয়ালি এ দুই উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

কূটনৈতিকদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, কাজেই প্রবাসীদের যথাযথ সেবা দেওয়া, তাদের সমস্যাগুলো দেখা, তাদের দিকে নজর দেওয়া এটাও দরকার।

প্রবাসীদের অবদানের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের জনগণ যারা প্রবাসে রয়েছেন তারা সব সময় আমাদের দেশের জন্য অবদান রেখে যাচ্ছেন। যেই দেশে থাকেন সেই দেশের এবং আমাদের বাংলাদেশ উভয় দেশেই আর্ত-সামাজিক উন্নয়নে বিরাট অবদান প্রবাসীরা রেখে যান।

অর্থনৈতিক কূটনীতির দিকে মনোযোগ দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান যুগে আসলে কূটনীতিটা শুধু রাজনৈতিক কূটনীতি না, এটা অর্থনৈতিক কূটনীতিতে পরিণত হয়েছে।

রপ্তানি, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য, বিনিয়োগ সম্প্রসারণে কাজ করার নির্দেশনা দিয়ে সরকার প্রধান বলেন, একদিকে যেমন বাংলাদেশকে তুলে ধরা, বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্যকে তুলে ধরার পাশাপাশি আর্ত-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে আমরা আমাদের রপ্তানি কীভাবে বাড়াতে পারি, বিনিয়োগ কীভাবে বাড়াতে পারি, দেশের আর্ত-সামাজিক উন্নতি কীভাবে হতে পারে, দেশের মানুষ কীভাবে ভালো থাকতে পারে সে বিষয়েও ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান বিশ্বে এককভাবে কেউ এগিয়ে গিয়ে উন্নতি করতে পারে না। এখন সম্মিলিত একটা প্রচেষ্টাও দরকার। সেদিকে লক্ষ্য রেখে প্রত্যেকটা কূটনৈতিক মিশনের বিরাট দায়িত্ব রয়েছে।

লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাস প্রান্তে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান।


আরও খবর