আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

নোয়াখালীতে চুলার আগুনে পুড়ে ভাই-বোনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৫৩০জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় মাটির চুলার আগুনে পুড়ে দুই শিশু ছাই হয়ে গেছে। তারা সম্পর্কে আপন ভাই বোন।

মৃত নোমান (৭) ও মাহি (৩)উপজেলার ৮নং বীজবাগ ইউনিয়নের বীর নারায়ণপুর গ্রামের আহম্মদ আলী বেপারী বাড়ির ইকবাল হোসেনের ছেলে মেয়ে।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়নের ২নম্বর ওয়ার্ডের বীর নারায়ণপুর গ্রামের আহম্মদ আলী বেপারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন বীজবাগ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেলিম উদ্দিন।

তিনি আরো জানান, বীর নারায়ণপুর গ্রামের ইকবাল একজন হোটেল মেসিয়ার হিসেবে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। তাঁর স্ত্রী গোলাপী বেলা ১১টার দিকে রান্না ঘরের মাটির চুলায় দুপুরের খাবারের রান্না শুরু করে। রান্না ঘরের সাথে লাগোয়া হচ্ছে তাদের বসত ঘর। রান্না শুরু করে গোলাপী পুকুরে যান এবং পরিবারের অন্যান্য কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। চুলার পাশে রাখা ছিল শুকনো গাছের পাতা। একপর্যায়ে চুলার আগুন ওই পাতায় ছড়িয়ে পড়লে রান্না ঘর ও বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ওই সময় বসত ঘরের চৌকিতে থাকা দুই শিশু বাচ্চাও পুড়ে ছাই হয়ে যায়। রান্না ঘরে গ্যাসের একটি সিলিন্ডার থাকায় তা বিস্ফোরণে আগুনের লেলিহান শিখা আরো দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত জানানো হবে।


আরও খবর



রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযান, গ্রেপ্তার ৭২

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ২৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৭২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)-এর বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার (২১ মে) সকালে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস শাখা গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ডিএমপির নিয়মিত মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে শক্রবার (২০ মে) ভোর ৬টা থেকে আজ শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ২৪২৫৫ পিস ইয়াবা, ২১ কেজি ৭২৫ গ্রাম ৩০ পুরিয়া গাঁজা, ৩৭ গ্রাম ১৭ পুরিয়া হেরোইন, ১৩ বোতল ফেন্সিডিল ও ১৫টি নেশাজাতীয় ইনজেকশন জব্দ করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫৬টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আরও খবর



১৯৭১ সালে ফরাসি যুবকের বিমান ছিনতাই নিয়ে সিনেমা

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে ফ্রান্সের প্যারিসের অর্লি বিমানবন্দরে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি বিমান ছিনতাই করেন জ্যঁ কুয়ে

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের মানুষকে সহায়তার জন্য পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নানাজন নানাভাবে প্রচেষ্টা চালিয়েছেন। যার অনেক ঘটনাই রয়েছে আমাদের অজানা। ঠিক তেমনি এক ঘটনা ফরাসি এক যুবক জ্যঁ কুয়ের বিমান ছিনতাইয়ের।

১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে ফ্রান্সের প্যারিসের অর্লি বিমানবন্দরে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি বিমান ছিনতাই করেন জ্যঁ কুয়ে।

তার দাবি ছিল, বাংলাদেশের স্বাধীনতাকামী মানুষের জন্য ২০ টন ওষুধ ও চিকিৎসাসামগ্রী ওই বিমানে তুলে দিতে হবে এবং তাহলেই কেবল মুক্তি পাবে বিমানের সব যাত্রী।এই ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ওপর নির্মিত প্রথম আন্তর্জাতিক সিনেমা জেকে ১৯৭১

ছবিটি নির্মাণ করেছেন ফাখরুল আরেফীন খান। সম্প্রতি সিনেমাটির দৃশ্যধারণ, সম্পাদনা, ডাবিং, কালার কারেকশন, ভিএফএক্সের কাজ শেষ হয়েছে।

পরিচালক বলেন, আমরা প্রথম বিশ্বযুদ্ধের, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের, আফগান যুদ্ধ এমনকি সোমালিয়ার যুদ্ধ নিয়ে নির্মিত সিনেমা দেখি। কিন্তু আন্তর্জাতিক দর্শকদের দেখানোর জন্য ইংরেজিতে আমাদের দেশের মুক্তিযুদ্ধের কোনো সিনেমা নেই। তাই আমরা এই সিনেমাটি বানানোর সিদ্ধান্ত নিলাম। এরই মধ্যে আমরা ছবির সব কাজ শেষ করেছি। আশা করছি খুব শিগগির ছবিটি মুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারব।

গড়াই ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিত ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন পশ্চিমবঙ্গের সৌরভ শুভ্র দাশ। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভিনেতা ফ্রান্সিসকো রেমন্ড এবং রাশিয়ান অভিনেত্রী ডেরিয়া গভ্রুসেনকো ও অভিনেতা নিকোলাই নভোমিনাস্কি, পশ্চিমবঙ্গের সব্যসাচী চক্রবর্তী, ইন্দ্রনীলসহ আরো ৩৬ জন অভিনয়শিল্পী।


আরও খবর



দাম বেশি হওয়ায় ঈদ ঘনিয়ে এলেও ক্রেতা কম

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার কারণে গত দুই বছর বাজারে ঈদের ছোঁয়া খুব একটা লাগেনি। কিন্তু এবার পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ায় সরকার সব কিছু খুলে দিয়েছে। তাই ব্যবসায়ীরাও আশায় বুক বাঁধে। সাধ্য অনুযায়ী ফুটপাত থেকে শুরু করে দেশীদশ, আড়ং, জেন্টেলপার্ক, চৈতি, মনেরেখ শাড়িজসহ নামীদামি বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান নিত্য নতুন মালামাল উঠিয়েছে। রমজানের প্রথম থেকে মোটামুটি বিক্রিও শুরু হয়েছে। তবে গত দুই দিন থেকে তা একেবারেই কমে গেছে।

বিক্রেতারা বলছেন, দুপুর গড়িয়ে গেলেও ক্রেতা নেই। অথচ আগে এই সময়ে কথা বলার মতো সময় থাকত না। এভাবে চলতে থাকলে যে মাল উঠানো হয়েছে তা গোডাউনে তালাবদ্ধ করে রাখতে হবে। ক্রেতারা বলছেন, কোনো কোনো জিনিসের দাম এতবেশি যে মাথা ঘুরার মতো। তাদের অভিযোগকে স্বীকার করে বিক্রেতারাও বলছেন, সব জিনিসের দাম অনেক বেড়েছে। তাই ঈদের পোশাক থেকে জুতা স্যান্ডেল, পাঞ্জাবি, শাড়িসহ প্রায় সব পণ্যের দাম বেড়েছে।

সরেজমিনে রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি, নিউমার্কেট, মোহাম্মদপুরের টোকিও স্কোয়ার, মিরপুরের ফুটপাত থেকে ছোট মার্কেট, নামীদামি বড় মার্কেটে এই চিত্র দেখা গেছে। ঈদ ঘনিয়ে আসছে। আর মাত্র চার বা পাঁচ দিন বাকি রয়েছে। বৃহস্পতিবার শেষ কর্ম দিবস। তাই অনেকেই সুযোগ মতো একটু শপিং করে নিচ্ছেন। শাড়ি, পাঞ্জাবি থেকে শুরু করে থ্রিপিস, বাচ্চাদের পোশাক, জুতা, স্যান্ডেলের মতো কসমেটিক্স প্রণ্যের ব্যাপাক চাহিদা থাকে। বিক্রেতারাও সেভাবে তৈরি করে এসব পণ্য বিক্রির জন্য।

কেমন জমেছে ঈদের বাজার-জানতে চাইলে বসুন্ধরা সিটির জেন্টেলপার্কের সেলসম্যান শাহাদত বলেন, গত দুই বছর বাদই দিলাম। অর্থাৎ ২০২০-২১ সাল বাদ দিলাম করোনায় সব বন্ধ থাকায়। কিন্তু ২০১৯ সালে যেভাবে বিক্রি হতো তার চেয়ে অনেক কম এবার। একেবারে খারাপ অবস্থা। প্রথম দিকে একটু বেচাবিক্রি হলেও কয়েক দিন থেকে একেবারে কমে গেছে। বসুন্ধরায় চারটা শো-রুম আছে। সবগুলোর খারাপ অবস্থা।

দামের ব্যাপারে জানতে চাইলে প্রথমবারের মতো আসা রেজা নামে একজন ক্রেতা বলেন, তুলনামুলক সব পণ্যের বেশি দাম। এটা স্বীকার করে বিক্রেতা শাহাদত হোসেন, হ্যাঁ ডিজাউন ঠিক করতে গিয়ে কিছু কিছু পণ্যের দাম বেড়েছে।

ঈদ তো সামনে চলে এসেছে। ক্রেতা কেমন জানতে চাইলে ওই মার্কেটের বেবিস গ্যালারির বিক্রেতা রুবিন জানান, দুই বছর বন্ধ থাকার পর এবার আশা করে বেশি মালামাল উঠানো হয়েছে। তবে যেভাবে বিক্রি হওয়ার কথা ছিল, যে আশা করেছিলাম সেভাবে হচ্ছে না। দেখেন আজ ২৫ রমজান, সামনে মাত্র চার বা পাঁচটা রোজা বাকি আছে। অনেকে শহর থেকে গ্রামে চলে যাচ্ছেন। তারপরও আগে যা হতো তা থেকে বিক্রি কমে গেছে। এভাবে বিক্রি হতে থাকলে গোডাউনেই মাল থেকে যাবে। মালিকরা বিভিন্নভাবে এবার অর্থ সংগ্রহ করে মালপত্র উঠিয়েছেন।

একই চিত্র দেখা গেছে বসুন্ধরা সিটির চৈতি, মনেরেখ শাড়ীজ শোরুমে। বিক্রেতারা বলছেন, দুপুর গড়িয়ে গেলেও দর্শনার্থী ক্রেতা নেই। শুধু অভিজাত ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে নয়, ফুটপাতেও দর্শনার্থী ও ক্রেতা কম। পান্থপথের জিহাদ, আলমসহ অনেকেই বলছেন, বেচা বিক্রি অর্ধেকের অর্ধেক, খুব খারাপ অবস্থা। যা আশা করা হয়েছে, তার ধারে কাছে নেই বিক্রি। অথচ তারা ভালো করে শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্চাবি, গেঞ্জি থরে থরে সাজিয়ে ক্রেতাদের ডাকছেন। পাইকারি বাজারেও কমে গেছে বিক্রি। তারাও বলছেন, এবার আশা করা হয়েছিল বেশি বিক্রি হবে। কিন্তু তা হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আহসান মঞ্জিল মার্কেটের মদিনাতুল টেক্সটাইলের রিফাত বলেন, গত দুই বছর তো করোনার লকডাউনে সব কিছু বন্ধ ছিল। এবার সরকার সবকিছু খুলে দিয়েছে। আমরাও আশা করে মালামাল উঠিয়েছি। সারা দেশে যাবে মাল। কিন্তু বেচা কেনা একটু কম। আগের মতো এখনো জমে উঠেনি। অন্যবছর এই সময়ে ঘুরে তাকার সময় থাকত না। কিন্তু দেখতে পাচ্ছেন, একজন আসছেন। অনেক পর আরেক জন আসছেন। একই কথা জানান এসএন ট্রেডার্সের নুরুল ইসলাম। তিনি বলেন, বর্তমানে মোটামুটি হচ্ছে বেচাবিক্রি। তা আগের মতো না। কারণ করোনার আগে এই সময়ে ক্রেতাদের ধুম লেগে থাকত। সারাদেশের পাইকাররা অনেক মালামাল কিনত। কিন্তু এবার সেই চিত্র নেই।

এদিকে মোহাম্মদপুরের আল্লাহ করিম মার্কেট, টোকিও স্কোয়ার, পল্লবী প্লাজা, বেনারসি পল্লী, মিরপুর নিউমার্কেট, মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট ও মিরপুর শপিং সেন্টারেরও একই চিত্র। অন্য সময়ে ছুটির দিনে বেচাকেনা হলেও রমজানে প্রতিদিন বেশি বেচাকেনা হয়। কিন্তু সেই চিত্র নেই এসব মার্কেটে। তবে শেষ সময়ে বেচাকেনার আশায় তারা বুক বেঁধে আছেন।

নিউজ ট্যাগ: ঈদুল ফিতর

আরও খবর



ইউক্রেনের একাধিক এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করল রাশিয়া

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাপোরিঝিয়া পরমাণু কেন্দ্রের দখল নিয়ে ইউক্রেনের বিভিন্ন জায়গা জুড়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দিল রাশিয়া। ওই পরমাণু কেন্দ্রের দখল নেওয়ার পর আন্দ্রেই ভ্লাদিমির শেফচিককে তার দায়িত্ব দিয়েছে ক্রেমলিন। আন্দ্রেই বলেছেন, এই পরমাণু কেন্দ্র থেকে ইউক্রেনের বেশ কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। তবে পূর্ব ইউক্রেনের সমস্ত রাশিয়া অধিকৃত অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রয়েছে।

জাপোরিঝিয়া পরমাণু কেন্দ্রের অবস্থান দক্ষিণ-পূর্ব ইউক্রেনের এনেরহোদার শহরে ডিনিপার নদীর কাছে কাখোভকা জলাধারের তীরে। ডনবাস অঞ্চল থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার এবং রাজধানী কিভের ৫৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে এই পরমাণু কেন্দ্র ইউক্রেনের অন্যতম বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্র।

জাপোরিঝিয়া পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রে মোট ছটি চুল্লি রয়েছে। সাধারণত এটি ইউক্রেনের এক-পঞ্চমাংশ অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে। এ ছাড়াও এই পরমাণু কেন্দ্র থেকে দেশের মোট পারমাণবিক শক্তির অর্ধেকই উত্পাদিত হয়। তাই এই পরমাণু কেন্দ্র হাতছাড়া হওয়ার পর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ইউক্রেনের সরকারি কর্মকর্তারাও। গত মার্চ মাসে ইউক্রেনের কয়েকটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, কিভ-মস্কো সঙ্ঘাতে ব্যাপক রুশ গোলাবর্ষণের কারণে জাপোরিঝিয়া পারমাণু কেন্দ্র ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রাশিয়ার একনায়ক প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বারবার দাবি জানিয়েছেন, তিনি ইউক্রেনে যুদ্ধ নয়, সামরিক অভিযান চালাচ্ছেন। কিন্তু তিনি যে কোনও মুহূর্তে যুদ্ধ ঘোষণা করতে পারেন বলে নিশ্চিত পশ্চিমী দুনিয়া। পুতিনের সামরিক অভিযানের ঠেলায় ইতিমধ্যেই বিপর্যস্ত ইউক্রেনে হাজারো মানুষ বলি হয়েছেন।

এর পর আবার সরাসরি যুদ্ধ ঘোষণা করলে ইউক্রেনকে আরও ভয়াবহতার মুখোমুখি হতে হবে বলেও মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল। ইউক্রেনের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক ভাবে যুদ্ধ ঘোষণার জন্য পুতিন আগামী ৯ মে দিনটিকে বেছে নিতে পারেন বলেও একটি সূত্রের দাবি।


আরও খবর



বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ কাল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৯৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এ বছরে দুটি সূর্যগ্রহণ রয়েছে। একটি এ মাসেই, অন্যটি অক্টোবরে। এ বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণটি ঘটতে চলেছে ৩০ এপ্রিলে। এটি অবশ্য পূর্ণগ্রাস নয়, আংশিক সূর্যগ্রহণ। এটি বাংলাদেশ থেকে দেখা যাবে না।

গ্রহণ সব সময়ই খুব বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে দেখা যাবে এটি। এবারের প্রথম এ গ্রহণের সঙ্গে ঘটছে আরও এক বিরল মহাজাগতিক ঘটনা। সেটি হল 'ব্ল্যাক মুন'। নাসা বলেছে, এ ব্ল্যাক মুনই এবারে সূর্যকে ঢাকবে।  

'ব্ল্যাক মুন' খুব বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। ২০২১ সালে এ ঘটনার মুখোমুখি আমরা হইনি। এর নানা ব্যাখ্যা মহাকাশবিদেরা দেন। কেউ একে বলেন, নিউ মুন, কেউ বলেন কোনো এক অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সিজনের থার্ড মুন, একই ক্যালেন্ডার মান্থে এটিকে সেকেন্ড নিউ মুনও কেউ কেউ বলেন।

৩০ এপ্রিল রাত ১২টা ১৫ মিনিটে গ্রহণ শুরু হয়ে মধ্যরাত পর্যন্ত চলতে থাকবে। এবারের এ সূর্যগ্রহণ বাংলাদেশসহ এশিয়া থেকে দেখা যাবে না। গ্রহণ দেখা যাবে আর্জেন্টিনা, পেরু, বলিভিয়া, উরুগুয়ে, ব্রাজিলের একাংশ, আন্টার্কটিকা, ফকল্যান্ড থেকে।


আরও খবর