আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

নাটোরে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নাটোরের নলডাঙ্গায় বজ্রপাতে মো. শাজাহান আলী (৪৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ জুন) বিকেল পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার শেখপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আলী ওই গ্রামের মৃত আজিমুদ্দিনের ছেলে। 

নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম সরদার এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, বাড়ির পাশে বিলে ধানের বীজতলা প্রস্তুত করছিলেন আলী। এ সময় বৃষ্টি শুরু হলে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।  


আরও খবর



আসামে প্রবল বন্যায় ৭১ জনের প্রাণহানি

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ জুন ২০22 | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণে আকস্মিক বন্যায় দুর্দশার শেষ নেই ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের জনজীবনে। রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭১ জনে। এখনও চারজন নিখোঁজ। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪২ লাখ। ৩৩ জেলায় ৫ হাজার ১৩৭টির বেশি গ্রাম প্লাবিত। সবশেষ ব্রিফিং এমনটাই জানিয়েছে আসামের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ এসডিএমএ।

আসামের ৩৩ জেলার নিম্নাঞ্চলগুলোয় শুধু থৈ থৈ পানি। রাস্তা, জলাশয় আর নদীর পানি মিলে মিশে একাকার। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত বারপেতা জেলা। এখানকার ১২ লাখ ৭৬ হাজার মানুষ পানিবন্দি।

যাদের গবাদি পশু আছে তারা পড়েছেন আরও বিপাকে। পানির কারণে নিরাপদ স্থানে নেওয়াটা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। কিছু কিছু স্থানে দেখা দিয়েছে ভূমিধস। এতে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বন্যায় এক লাখ ৭৩ হাজারের বেশি ফসলি জমি প্লাবিত। এমন পরিস্থিতিতে সামনে খাদ্য সংকট দেখা দেওয়ার শঙ্কা রয়েছে আসামে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, কপিলি নদীর পানি বেড়ে হোজাই জেলায় দুর্ভোগ আরও বাড়িয়েছে। প্রতিবেশি দেশ ভুটানের বেশ কয়েকটি বাঁধ থেকে অতিরিক্ত পানি ছাড়ায় আসামের নিম্ন জেলাগুলোয় মারাত্মক প্রভাব পড়েছে।

এদিকে সিসিএফ -প্রধান বন সংরক্ষক এবং কেএনপির (কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যান) পরিচালক যতীন্দ্র সরমার বলেন, জাতীয় উদ্যানের ১৫-২০ শতাংশ এলাকা পানি নিচে। দেখা দিয়েছে পশু-পাখিদের স্থান সংকট। পানি বাড়তে থাকলে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া ছাড়া উপায় থাকবে না।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় ১ হাজার ১৪৭টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। যেখানে এখন পর্যন্ত আশ্রয় নিয়েছেন ১ লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষ। এদিকে ভারতের মেঘালয় এবং ত্রিপুরায় বন্যা পরিস্থিতিরও উন্নতির খবর পাওয়া যায়নি।


আরও খবর



সবাইকে বুস্টার ডোজ নেওয়ার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ জুন ২০২২ | ২৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যারা এখনও বুস্টার ডোজ নেননি, তাদের সবাইকে বুস্টার ডোজ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, বুস্টার ডোজ হচ্ছে কোভিডের জন্য মানুষের সুরক্ষা। এ পর্যন্ত দেশের প্রায় দেড় কোটি মানুষকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে। চলমান বুস্টার ডোজ ক্যাম্পেইন সপ্তাহে আরও এক কোটি মানুষকে বুস্টার ডোজ দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

শনিবার (৪ জুন) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে মানিকগঞ্জে কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে বুস্টার সপ্তাহ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বুস্টার ডোজ কার্যক্রম সপ্তাহে ১৬ হাজার ৬৫০টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৮৫ হাজার সেবক বুস্টার ডোজ প্রদানে কাজ করছেন। টিকা নিয়ে দেশের মানুষ ভালো আছেন। আমাদের দেশের অর্থনীতি ভালো আছে। যারা বুস্টার ডোজ নেবেন তাদের শারীরিক সুরক্ষা আরও ভালো থাকবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক আব্দুল লতিফ, জেলা পরিষদের প্রশাসক অ্যাডভোকেট গোলাম মহিউদ্দিন, কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজের মহাপরিচালক আশ্বাদ উল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হাফিজুর রহমান প্রমুখ।


আরও খবর



মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের বিষয়ে জানতে চেয়েছেন কলকাতা হাইকোর্ট

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে বিজেপির নেতাদের কটূক্তির জের ধরে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। তার জেরে পুলিশ ওই অঞ্চলে সাধারণ মানুষকে হেনস্তা করছে বলে একটি পাবলিক ইন্টারেস্ট লিটিগেশন কলকাতা হাইকোর্টে দাখিল করা হয়েছিল। আইনজীবীদের বক্তব্য ছিল, সব স্তরের সাধারণ মানুষ নয়, বেছে বেছে মুসলমান সমাজের যুবকদের হেনস্তা করা হচ্ছিল। সেই আবেদনের ভিত্তিতে কলকাতা হাইকোর্ট রাজ্য সরকারকে তাদের বক্তব্য জানাতে বলেছেন। বুধবার মামলাটির আবার শুনানি হবে।

 আবেদনকারী আইনজীবী মাসুম আলী সর্দারের পক্ষে তাঁর আইনজীবী ঝুমা সেন আদালতকে জানান, সম্পূর্ণ খেয়ালখুশিমতো দেশের নাগরিকদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, আটক করা হচ্ছে। যে কারণে ওই অঞ্চলে (হাওড়ার পাঁচলা ও উলুবেড়িয়া অঞ্চলে) আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশ বেছে বেছে মুসলমানপ্রধান অঞ্চলে ঢুকে যুবকদের বেধড়ক পেটাচ্ছে ও গ্রেপ্তার করছে—আইনজীবীরা বিচারপতিদের সেটিও জানান।

তবে ইতিমধ্যে হাইকোর্টের দুই বিচারপতির বেঞ্চ এই বিশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের জন্য রাজ্য সরকারকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে। রাজ্য সরকার উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে না পারলে, প্রয়োজনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সাহায্য নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

রাজ্য সরকারের অ্যাডভোকেট জেনারেলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য। বলা হয়েছে, ভিডিও চিত্র দেখে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। আবেদনকারীরা তাঁদের পিটিশনে বলেছিলেন, ১০ জুন ইসলাম ধর্মীয় কিছু সংগঠন একটি শান্তি মিছিল বের করেছিল। কিন্তু সেই মিছিলে ঢুকে কিছু মানুষ জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে শুরু করে। এর উদ্দেশ্য ছিল, মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের প্ররোচিত করা। এমন দাবি আবেদনকারীদের।

হাইকোর্টের একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতিকে দিয়ে এই ঘটনা তদন্ত করানোর আবেদন জানানো হয়। পাশাপাশি আইনজীবী ঝুমা সেন তাঁর আবেদনে ইন্টারনেট বন্ধ থাকা ও এলাকায় ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৪ ধারা (জমায়েত করার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক আদেশ) জারির কারণে সাধারণ মানুষের সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

এদিকে কলকাতা পুলিশের তরফে সোমবার একটি প্রশাসনিক আদেশ মহানবীর (সা.) নামে কটূক্তি করার জন্য বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মাকে সমন জারি করে উত্তর কলকাতার একটি থানায় ২০ জুন ডেকে পাঠানো হয়েছে। আবেদনকারীরাও ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় নূপুর শর্মার নামে মামলা করার অনুমতি চেয়েছেন।

মামলাটি শুনানির জন্য কলকাতা হাইকোর্টে গৃহীত হওয়াকে রাজ্যের শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখতে একটি বড় পদক্ষেপ হিসেবে বর্ণনা করছেন আইনজীবীরা।


আরও খবর



হাতিরঝিলে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নিহত ২

প্রকাশিত:সোমবার ৩০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ৩০ মে ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর হাতিরঝিলে মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুই এক যুবক নিহত হয়েছেন। সোমবার (৩০ মে) সকাল ১০টার দিকে হাতিরঝিলের মোড়ল গলির সামনে মধুবাগ ব্রিজের ঢালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হাতিরঝিলে দায়িত্বপ্রাপ্ত সার্জেন্ট অভিজিৎ জানান, হাতিরঝিলের মধুবাগ ব্রিজ থেকে নামতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। সম্ভবত অতিরিক্ত গতির কারণে মোটরসাইকেলটির নিয়ন্ত্রণ হারান চালক। এতে রোড ডিভাইডারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই শাহিন (২০) নামে একজনের মৃত্যু হয়। এ সময় গুরুতর আহত হন মোটরসাইকেলে থাকা অপর এক যাত্রী।

আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনিও মারা যান। তবে তার নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি বলে জানান তিনি।


আরও খবর



এবার ভারতীয় ক্রিকেটের দিকে আঙ্গুল তুললেন আফ্রিদি

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ জুন 20২২ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বের সবচেয়ে দামি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সম্ভবত আইপিএল। শুধু টাকার দিক থেকেই নয়, প্রভাবের দিক থেকেও আইপিএল অনেক এগিয়ে। আইপিএল অনুষ্ঠিত হয় দুই থেকে আড়াই মাস সময় নিয়ে। এই সময়ে খুব বেশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হয় না।

বিশেষ করে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দল, যাদের প্রচুর ক্রিকেটার আইপিএলে খেলেন, এই দলগুলো আইপিএল চলাকালে কোনো সিরিজ সাধারণত রাখতেই চান না। যা ক্রিকেটের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে বলে মনে করেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

তার মতে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বড় প্রভাব বিস্তার করছে ভারত। তিনি বলেন, এটা আসলে বাজার আর অর্থনীতির ব্যাপার। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট বাজার হচ্ছে ভারত। তারা যেটাই বলে, সেটাই হবে।

এদিকে, আইপিএলের কারণে যাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রভাব না পড়ে তা গুরুত্ব সহকারেই দেখছে আয়োজক কমিটি। আইপিএলের এই দীর্ঘ সূচির কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের কোনো ক্ষতি হবে না বলেই মনে করেন জয় শাহ। সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে শক্তিশালী করতে ভারত নিয়মিত ছোটো দলগুলোর বিপক্ষে খেলবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এর উদাহরণ স্বরূপ আসন্ন আয়ারল্যান্ড সিরিজের কথা তুলে ধরেছেন তিনি।

নিউজ ট্যাগ: শহীদ আফ্রিদি

আরও খবর