আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

নাঃগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে ব্যবসায়ীর মস্তকবিহিন লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২০ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এস,এম মনির হোসেন,সোনারগাঁও


নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের কলতাপাড়া এলাকায় বিল্লাল হোসেন (৫০) নামের এক মুদি ব্যবসায়ীর মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত বিল্লাল হোসেন কলতাপাড়া এলাকার মৃত রেহাজউদ্দীনের ছেলে।

নিহতের ছোট ভাই মোঃ আহম্মদ জানান, গতকাল রাত আনুমানিক ৮টার দিকে ওয়াজে যাবে বলে দোকান বন্ধ করে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। পরবর্তীতে বিভিন্ন জায়গায় খুঁজে আজ সোমবার সকাল ১০টায় বাড়ির পাশে ঝোপঝাড়ে তার মাথা বিহীন রক্তাক্ত লাশ পরে থাকতে দেখেন তার ছেলে ফয়সাল।

নিহতের স্ত্রী রুমা বেগম জানান, প্রায় ৪বছর ধরে স্থানীয় বুলবুল মার্কেটে দোকান নির্মাণ নিয়ে প্রতিপক্ষ বুলবুলের ছেলে স্বপন গংদের সাথে মামলা চলমান আছে। হয়তো প্রতিপক্ষের লোকেরা তাকে হত্যা করেছে বলে দাবী নিহতের পরিবারের। 

খবর পেয়ে সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রফিকুল ইসলাম সহ তালতলা ফাঁড়ির ইনচার্জ আহসান উল্লাহ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন।

সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন,মস্তকহীন এক ব্যবসায়ীর লাশ পাওয়ার খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের লাশের মাথা বিচ্ছিন্ন থাকায় মাথা উদ্ধারে আমাদের অভিযান চলমান রয়েছে। ঘটনার সাথে যারা জড়িত তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর



পহেলা ফাল্গুন আজ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শীতের রিক্ততা ভুলিয়ে আবহমান বাংলার প্রকৃতিতে এসেছে ফাগুনের ছোঁয়া, আগুনরাঙা বসন্তের সুর। গাছে গাছে ফুটছে লাল পলাশ ফুল। দূর থেকে দেখলে মনে হয়, গাছের ডালে ডালে যেন লেগেছে আগুন। দখিনা বাতাস আর নাতিশীতোষ্ণ আবহাওয়ার মধ্যে ঋতুরাজ বসন্তের আগমন ঘটল আজ বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)।

বসন্তকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বসন্ত বরণের বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। ২২৫ জন নৃত্যশিল্পীর পরিবেশনার মধ্য দিয়ে বসন্ত বরণের আয়োজন করেছে সংস্থাটি।

রাজধানীর রমনায় এদিন বিকেল সাড়ে ৩টায় শতায়ু অঙ্গনের পাশে মঞ্চে পরিবেশিত হবে শিশু-নৃত্যদল এবং শিশু সঙ্গীত দলের এই পরিবেশনা। অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে বিকেল সাড়ে ৪টায় বসন্তের রঙিন শোভাযাত্রা শুরু হবে। শোভাযাত্রাটি রমনা পার্ক থেকে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে সমবেত হবে। বিকেল সাড়ে ৫টায় একাডেমির উন্মুক্ত মঞ্চে আয়োজন করা হচ্ছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শিল্পকলার বসন্তবরণের এই আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন সংস্কৃতি সচিব খলিল আহমদ। স্বাগত বক্তৃতা করবেন একাডেমির সচিব সালাহউদ্দিন আহাম্মদ।

উন্মুক্ত মঞ্চের এ আয়োজনে শুরুতেই পরিবেশিত হবে দলীয় ঢাক নৃত্য। পরিবেশন করবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির নৃত্যদল। পরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি নৃত্যদল পরিবেশন করবে দলীয় নৃত্য শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা। এরপর দলীয় সংগীত আনন্দ লোকে পরিবেশন করবে শিল্পকলা একাডেমি শিশু সংগীত দল। দ্বৈত আবৃত্তি রুমঝুম কে বাজায় পরিবেশন করবেন ডালিয়া আহমেদ ও জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়। একক সংগীত যেথা রামধনু উঠে হেসে পরিবেশন করবেন মেহরিন মাহমুদ।

এরপর দ্বৈত সংগীত পরিবেশন করবেন নওশিন তাবাসসুম স্মরণ ও মোমিন বিশ্বাস। ধারাবাহিক পরিবেশনায় দলীয় নৃত্য সুন্দরের অতন্দ্র প্রহরী পরিবেশন করবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি শিশু নৃত্য দল। এরপর দ্বৈত নৃত্য আজি দক্ষিণ পবনে পরিবেশন করবে আবু নাইম ও আনন্দিতা খান। দ্বৈত সংগীত পরিবেশন করবেন শারমিন সাথী ইসলাম ও বুলবুল ইসলাম। এরপর আবার দলীয় সংগীত মন শুধু মন ছুয়েছে পরিবেশন করবে ঢাকা সাংস্কৃতিক দল। দ্বৈত আবৃত্তি করবেন তামান্না তিথি ও মাহিদূল ইসলাম। দলীয় নৃত্য বসন্ত মুখর আজিনীল দিগন্তে পরিবেশন করবে রেওয়াজ পারফর্মার্স স্কুল। নৃত্য পরিচালনা করেছেন মুনমুন আহমেদ। দ্বৈত নৃত্য বিশ্ববীণা রবে ও আজ সখি পরিবেশন করবেন সামিনা হোসেন ও মাহতাব মেহেদী। এরপর একক সংগীত চেনা চেনা লাগে পরিবেশন করবেন মো. ইউসুফ আহমেদ খান। দ্বৈত সংগীত পরিবেশন করবেন কিরণ চন্দ্র রায় ও চন্দনা মজুমদার। দ্বৈত নৃত্য ফাগুন লেগেছে শাখে শাখে পরিবেশন করবেন জুয়েইরিয়াহ মৌলি ও মারিয়া ফারিহ উপমা। এরপর দলীয় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী নৃত্য পরিবেশন করবে তপস্যা নৃত্যদল। পরিচালনা করেছেন নৃত্য পরিচালক ফিফা চাকমা। এরপর দ্বৈত আবৃত্তি করবেন শিমুল মোস্তফা ও রূপা চক্রবর্তী। দ্বৈত নৃত্য একটুকু ছোঁয়া লাগে পরিবেশন করবেন অনিক বোস ও কস্তুরী মুখার্জী। এরপর দলীয় নৃত্য অবাক চোখে পরিবেশন করবে কত্থক নৃত্য সম্প্রদায়। নৃত্য পরিচালনা করেছেন নৃত্য পরিচালক সাজু আহমেদ। পরে, পরিবেশিত হবে দ্বৈত নৃত্য বাগিচায় বুলবুলি, পরিবেশন করবেন আরোহী ইসলাম (আরিফুল ইসলাম অর্ণব) ও হেনা হোসেন। সবশেষে শিল্পকলা একাডেমির নৃত্যদলের অংশগ্রহণে পরিবেশিত হবে ফ্যাশন ডান্স প্যারেড।

ঢাকা রির্পোটার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) এ বছর বসন্তবরণ উৎসব ও ভালোবাসা দিবস উদযাপন উপলক্ষে ভালোবাসার দিনে বসন্ত উৎসব শিরোনামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। দুপুর ১২টায় ডিআরইউ বাগানে বাউল গানের আসর অনুষ্ঠিত হবে। ফকির লালন সাঁই, বাউলসাধক শাহ আব্দুল করিমসহ বাংলার লোককবিদের বাউল গান শোনাবেন শিল্পকলা একাডেমির বাউলদল।


আরও খবর



ইইউর নতুন নিষেধাজ্ঞা, তালিকায় ১৯৩ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

রাশিয়াসহ তিন দেশের ১৯৩ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ইইউর সদস্যরা রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার অনুমোদন দিয়েছে। এর আওতায় প্রায় ২০০ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবে। তাদের বিরুদ্ধে মস্কোর অস্ত্র ক্রয়-বিক্রি ও ইউক্রেনের শিশুদের অপহরণের অভিযোগ তোলা হয়েছে। তালিকায় রয়েছে উত্তর কোরিয়া ও বেলারুশের একটি করে প্রতিষ্ঠানও।

ইইউর কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, তাদের দূতরা ১৩তম নিষেধাজ্ঞার মূলনীতির বিষয়ে সম্মত হয়েছে। নতুন নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্টরা ইউরোপে ভ্রমণ বা ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে না। এর আগে গত বছরের মার্চে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) প্রধান কৌসুলি বলেন, ইউক্রেনের অধিকৃত অঞ্চল থেকে রাশিয়া কয়েকশ এতিম শিশুকে অনথালয় এবং কেয়ার হোম থেকে সরিয়ে নিয়েছে। এছাড়া অনেককে দত্তকও দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আইসিসি ইউক্রেনীয় শিশুদের অপহরণের জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে অভিযুক্ত করে আসছে। এটিকে তারা যুদ্ধাপরাধ বলেও উল্লেখ করেছে। তবে এ অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে আসছে মস্কো। তাদের দাবি, যুদ্ধক্ষেত্র থেকে নিরাপদ রাখতে শিশুদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে ইউক্রেনের অভিযোগ, রাশিয়া চার হাজারের বেশি শিশুকে সরিয়ে নিয়েছে।


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪




মোদিকে ‘ফ্যাসিবাদী’ বলছে গুগলের এআই, সরকারের প্রতিবাদ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক

Image

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের নীতিগুলোকে ফ্যাসিবাদী বলে বর্ণনা করেছে গুগলের এআই প্ল্যাটফর্ম জেমিনি। এ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে ভারত সরকার। একজন মন্ত্রী অভিযোগ করেছেন, গুগল তাঁর দেশের প্রযুক্তি আইনের লঙ্ঘন করছে।

সাংবাদিক অর্ণব রায় গত সপ্তাহে জেমিনির কাছে প্রশ্ন রেখেছিলেন যে, মোদি ফ্যাসিবাদী কি না। তিনি উত্তর পেয়েছিলেন, মোদি এমন কিছু নীতি বাস্তবায়ন করেছেন যেগুলোকে কিছু বিশেষজ্ঞ ফ্যাসিবাদী হিসেবে চিহ্নিত করেছেন।

জেমিনি বলেছে, এভাবে চরিত্রায়ণের কারণ হলো-ক্ষমতাসীন বিজেপির হিন্দু জাতীয়তাবাদী আদর্শ, ভিন্নমত দমন এবং ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে সহিংসতার ব্যবহার।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির বিষয়ে জানতে চাইলে গুগলের জেমিনি তাঁদের বিষয়ে অনেক সদয় উত্তর পেয়েছেন সাংবাদিক অর্ণব।

ট্রাম্পের ক্ষেত্রে জবাবটি ছিল-দ্রুত পরিবর্তনশীল তথ্যের এই সময়ে নির্বাচন একটি জটিল বিষয়। সবচেয়ে সঠিক তথ্য পেতে গুগলে অনুসন্ধান করুন। আর জেলেনস্কির ক্ষেত্রে বলেছে-এটি অত্যন্ত জটিল এবং বিতর্কের বিষয়। এর কোনো সহজ উত্তর নেই। এই বিষয়ে সঠিকভাবে জানতে হলে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে এটি বিবেচনা করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

সাংবাদিক অর্ণব যখন এক্স প্ল্যাটফর্মে এই জবাবের স্ক্রিনশটগুলো পোস্ট করেন, তখন মিডিয়ার সংশ্লিষ্ট এক ব্যক্তি মোদিকে নিয়ে জেমিনির এমন জবাবে এতটাই বিরক্ত হয়েছিলেন যে তিনি এটি রিপোস্ট করে ভারতের কেন্দ্রীয় জুনিয়র তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখরকে নজরে নেওয়ার অনুরোধ জানান।

মন্ত্রী চন্দ্রশেখর তাৎক্ষণিক গুগলকে ভারতের তথ্যপ্রযুক্তি আইন লঙ্ঘনের জন্য অভিযুক্ত করেন। তিনি এক্স প্ল্যাটফর্মে লেখেন, এআই প্ল্যাটফর্মগুলোর অনির্ভরযোগ্যতাকে ভারতীয় আইন থেকে অব্যাহতি পেতে অজুহাত হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না।

তিনি লেখেন, সরকার আগেও এটি বলেছে-গুগল ইন্ডিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য আমি আবারও বলছি ... অনির্ভরযোগ্য প্ল্যাটফর্ম/অ্যালগরিদম/মডেল নিয়ে আমাদের ডিজিটাল নাগরিকদের (নাগরিকদের) ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যাবে না ...দুঃখিত অনির্ভরযোগ্যতা আইন থেকে রেহাই পাওয়ার অজুহাত হতে পারে না।

এর জবাবে গুগল একটি বিবৃতি দিয়েছেন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তারা এই সমস্যার সমাধান করেছে এবং সিস্টেমের উন্নয়নে কাজ করছে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে,  জেমিনি একটি সৃজনশীলতা এবং উৎপাদনশীলতার হাতিয়ার হিসেবে তৈরি করা হয়েছে। এটি সব সময় নির্ভরযোগ্য নাও হতে পারে, বিশেষ করে যখন এটি বর্তমান ঘটনা, রাজনৈতিক বিষয় বা পরিবর্তনশীল সংবাদ সম্পর্কে কিছু প্রম্পটের প্রতিক্রিয়া জানাতে আসে।

গত সপ্তাহে এক্স প্ল্যাটফর্ম থেকে বলা হয়েছে, সরকার উত্তর ভারতের কৃষকদের আন্দোলনে সমর্থনে করা পোস্টগুলো সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। এক্স বলেছে, সরকারের আদেশ তারা মেনে নিয়েছে। কিন্তু এমন নির্দেশ মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করে, তাই তারা ভারত সরকারের সঙ্গে একমত নয়।


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি দম্পতি নিহত

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। দেশটির স্থানীয় সময় শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিন হ্যাম্পটন থেকে ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন হাফিজ ও সাকি আহমেদ। গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তাদের দুই ছেলে-মেয়ে।

নিউইয়র্ক স্টেট পুলিশ জানিয়েছে, নিউইয়র্কের অরেঞ্জ কাউন্টিতে একটি অপরাধীর গাড়ির ধাওয়া করছিল পুলিশ। এ সময় দুষ্কৃতকারীদের গাড়ির সঙ্গে হাফিজ দম্পতির গাড়ির ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন দুজন।

ময়নাতদন্ত শেষে তাদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।


আরও খবর



ভোটগ্রহণের দুদিনের মাথায় নতুন সিদ্ধান্ত পাকিস্তান নির্বাচন কমিশনের

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানে নির্বাচনের পর এখনও সরকার গঠন নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি রাজনৈতিক দলগুলো। এমনকি কোনো রকম সহিংসতা ছাড়াও নির্বাচনের প্রক্রিয়া শেষ করতে পারেনি দেশটির নির্বাচন কমিশন। ফলাফলে এমন বিলম্বকে অস্বাভাবিক বলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজনৈতিক এমন অচলাবস্থার মধ্যে ভোটগ্রহণ নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশটিতে বেশ কয়েকটি আসনে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে কমিশন। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি এসব আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ইসিপি জানিয়েছে, বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকার বেশ কয়েকটি ভোটকেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এসব কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম হয় ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে অথবা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ইলেক্টোরাল বডির তথ্যানুসারে, সংসদীয় আসন এনএ-৮৮, পিএস-১৮ এবং পিকে ৯০-এর কয়েকটি কেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি এ ভোটের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রিটার্নিং কর্মকর্তার অফিসে এনএ-৮৮ আসনের ২৬টি ভোটকেন্দ্রের নির্বাচনী সামগ্রীতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার পর ইসিপি এমন সিদ্ধান্তে এসেছে। অন্যদিকে পিএস-১৮ আসনে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা দুই কেন্দ্রের সামগ্রী ছিনিয়ে নিয়েছে। এ ছাড়া পিকে-৯০ আসনে সন্ত্রাসীরা অন্তত ১৫ কেন্দ্রের সরঞ্জাম নষ্ট করে দিয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, নির্বাচনী পর্যবেক্ষকরা আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশনারকে এনএ-২৪২ আসনে ভাঙচুরের বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের হিসাব মতে, এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ১৭ হাজার ৮১৬ জন প্রতিনিধি। এদের মধ্যে ১৬ হাজার ৯৩০ জন পুরুষ, নারী ৮৮২ এবং চারজন ট্রান্সজেন্ডার। প্রায় ২৫ কোটি জনসংখ্যার দেশ পাকিস্তানে এবার ১২ কোটি ৮০ লাখের মতো ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। বিপুল সংখ্যক জনগণের ভোটগ্রহণে পাকিস্তানজুড়ে ৯০ হাজার ৬৭৫টি ভোটকেন্দ্র স্থাপিত হয়েছে। এর মধ্যে সাড়ে ২৭ হাজারের বেশি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ এবং প্রায় সাড়ে ১৮ হাজারকে অতিঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত করা হয়েছে।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২৬৫টি আসনের ফল ঘোষণা করেছে ইসিপি। এতে সর্বোচ্চ ১০৪টি আসন পেয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। তাদের মধ্যে ইমরান সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পেয়েছেন ৯৫টি। নওয়াজ শরিফের পিএমএমএল-এন ৭৪টি আসন নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টোর দল পিপিপি। তারা পেয়েছে ৫৪টি আসন। বাকি আসনগুলো অন্যরা পেয়েছেন। এ ছাড়া একটি আসনের প্রার্থী গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ায় ওই আসনে ভোট স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪