আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

মৌলভীবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মৌলভীবাজার বড়লেখায় শ্যামলী পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস চাপায় ফখরুল ইসলাম (২৮) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (৯ মে) রাত ৮ টায় কুলাউড়া-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের বড়লেখার কাঠালতলী ব্র্যাক অফিসের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে। এদিকে চালকসহ যাত্রীবাহী বাসকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ফখরুল উপজেলার উত্তর গাংকুল গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ফখরুল ইসলাম বড়লেখা থেকে মোটরসাইকেলে করে রতুলি বাজারে ফিরছিলেন। কাঠালতলী ব্র্যাক অফিসের সামনের রাস্তায় আসা মাত্র বিপরীত দিক ঢাকা থেকে বিয়ানীবাজারগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গুরুতর অবস্থায় আহত ফখরুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, শ্যামলী পরিবহনের বাস ও চালককে আটক করা হয়েছে।


আরও খবর



আজকের রাশিফল!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৃহস্পতিবার ১৯ মে চাঁদ ধনু রাশিতে গমন করবে। চাকরিতে অতিরিক্ত কাজের চাপের কারণে ক্লান্তি থাকবে মেষ রাশির জাতকদের। বিশেষ কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ স্মরণীয় হয়ে থাকবে বৃষ রাশির জাতকদের। পেট সংক্রান্ত সমস্যা থাকবে, খাবার-দাবারে একটু খেয়াল রাখুন মিথুনের জাতকরা। দেখে নেওয়া যাক বিভিন্ন রাশির জাতকদের আজকের দিনটা কার কেমন কাটবে।

যেখানে আজ পূর্বাষাধা নক্ষত্র সারাদিন কার্যকর থাকবে। এই পরিস্থিতিতে তুলা রাশির জন্য আজকের দিনটি অনেক দিক দিয়েই সুখকর হবে। অন্য সব রাশির জাতক জাতিকাদের দিনটি কেমন যাবে, দেখুন আপনার রাশিরা কী বলে।

মেষ রাশি: গণেশ বলেছেন যে কিছু সময়ের জন্য মেষ রাশির জাতকদের সমস্যা দূর হবে এবং বাড়ির রক্ষণাবেক্ষণ সংক্রান্ত কাজের যত্ন নেওয়া হবে। কাছের মানুষদের সাথে দেখা করার সুযোগ পাবেন। আপনার রাগ এবং আবেগ নিয়ন্ত্রণ করুন। কর্মক্ষেত্রে অমীমাংসিত পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য এটি একটি অনুকূল সময়। চাকরিতে অতিরিক্ত কাজের চাপের কারণে ক্লান্তি থাকবে। এর সাথে সাথে আপনার পদোন্নতির সম্ভাবনাও বাড়বে। পরিবারে সুখকর সম্প্রীতি থাকবে, ভালোবাসায় ভরা সম্পর্ক থাকবে। প্রেমের সম্পর্কে একে অপরের অনুভূতিকে সম্মান করা গুরুত্বপূর্ণ।

ভাগ্য আজ আপনাকে ৮০ শতাংশ সমর্থন করবে। শিবলিঙ্গে জল নিবেদন করুন।

বৃষ রাশি: গণেশ বলেছেন যে বৃষ রাশির জাতকরা অর্থ ও অর্থের দিক থেকে সঠিক বাজেট রাখবেন। আপনার করা কাজ সমাজ বা সামাজিক মানুষের কাছে সমাদৃত হবে। গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরিবর্তে, আপনার শক্তি শুধুমাত্র বর্তমান কার্যকলাপের উপর ফোকাস করুন। ঘরের পরিবেশ হবে সুখ শান্তিতে ভরপুর। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেও যথাযথ সমন্বয় থাকবে। প্রেমের সম্পর্কে টানাপোড়েন হতে পারে। ছোটখাটো স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেবে। আপনার নিয়মিত রুটিন মেনে চললে আপনি সুস্থ থাকতে পারেন।

আজ ৭৫ শতাংশ ভাগ্য আপনার সঙ্গে থাকবে। গণেশের পুজো করুন।

মিথুন রাশি: গণেশ বলেছেন যে মিথুন রাশির জাতকদের সময়টা মানসিক প্রশান্তি নিয়ে কাটবে। বিশেষ বন্ধুর সাহায্যে স্বস্তি পাবেন। ব্যবসায় বিনিয়োগের জন্য সময় প্রতিকূল। সরকারি চাকরিতে কর্মকর্তাদের সঙ্গে আরও সৌজন্য বজায় রাখুন। পরিবারে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশ থাকবে। সুসম্পর্ক আসার কারণে বিবাহযোগ্যদের জন্য সুখের পরিবেশ থাকবে। স্বাস্থ্যের প্রতি অসতর্ক হওয়া ঠিক নয়।

ভাগ্য আজ ৭৯ শতাংশ পর্যন্ত আপনার সঙ্গে আছে। ভগবান বিষ্ণুর পুজো কর।

কর্কট রাশি: গণেশ বলেছেন যে কর্কট রাশির জাতকদের বেশিরভাগ কাজ সময়মতো মিটে যাবে। আজ আপনি একজন অভিজ্ঞ এবং প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের সাথে দেখা করবেন, কোনও উন্নতির পথও খুলে যাবে। নতুন ব্যবসায়িক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য সময় অনুকূল। আপনি এই সময়ে একটি বড় অর্ডার পেতে পারেন। চাকরিতে অফিসারদের সঙ্গে বিবাদে জড়াবেন না। প্রেমের সঙ্গীর সঙ্গে ডেটিংয়ে যাওয়ার সুযোগ আসবে। জলবায়ু পরিবর্তন স্বাস্থ্যের উপরও প্রভাব ফেলবে।

আজ আপনার ভাগ্য ৮৫ শতাংশ হবে। সূর্যদেবকে জল নিবেদন করুন।

সিংহ রাশি: গণেশ বলেছেন যে সিংহ রাশির ব্যক্তিরা যদি তাঁদের কাজকে পরিকল্পিতভাবে সংগঠিত রাখেন তবে আরও ভাল ফলাফল পাওয়া যাবে। জমি বা যানবাহন কেনার পরিকল্পনা করা হবে। ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সম্পর্কিত যে কোনও কাজে কর্মকর্তার সাথে সাক্ষাত লাভজনক হতে পারে। পারিবারিক পরিবেশ মনোরম থাকবে। প্রেমের ক্ষেত্রে প্রতারণা বা বিশ্বাসঘাতকতা হতে পারে। এই সময়ে, স্বাস্থ্য সম্পর্কিত কোনও ধরণের অসাবধানতা করা ভুল প্রমাণিত হবে।

আজ ভাগ্য ৯৫ শতাংশ আপনার পক্ষে থাকবে। যোগব্যায়াম প্রাণায়াম অনুশীলন করুন।

কন্যা রাশি: গণেশ বলেছেন যে কন্যা রাশির ব্যক্তিত্ব এবং সঠিক কাজের কারণে আপনি সমাজে একটি ভালো পরিচয় পাবেন। আপনার বেশিরভাগ সময় ধর্মীয় ও আধ্যাত্মিক কাজে ব্যয় হবে। ব্যবসায় বাধা আসবে, তবে আপনি আপনার বুদ্ধিমত্তা এবং চতুরতার সঙ্গে সমস্যার সমাধানও করবেন। বাড়িতে একটি সুখী এবং শান্তির পরিবেশ থাকবে। কিন্তু প্রেমের সম্পর্কের ক্ষেত্রে মর্যাদা ও সংযম থাকা খুবই জরুরি। নিয়মিত যোগব্যায়াম এবং ব্যায়াম করা প্রয়োজন।

ভাগ্য আজ আপনাকে ৮২ শতাংশ সমর্থন করবে। অসহায় মানুষকে সাহায্য করুন।

তুলা রাশি: গণেশ বলেছেন যে তুলা রাশির জাতকদের উচিত তাদের কাজে মনোনিবেশ করা এবং তাদের বাড়ি এবং পরিবারের প্রতি মনোযোগ দেওয়া। অপরিচিত কারও সঙ্গে দেখা হওয়ার ফলে আপনার কোনও সমস্যার সমাধান হতে পারে। বিচক্ষণতা এবং ধৈর্যের সঙ্গে কাজ করুন। ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতায় আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। তবে আয় বাড়বে। চাকরিতে আপনার একটি লক্ষ্য সহজেই সমাধান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ঘরের পরিবেশ থাকবে সুশৃঙ্খল ও মনোরম। এটি আপনাকে শক্তি এবং শক্তিতে পূর্ণ অনুভব করবে।

ভাগ্য আজ ৯০ শতাংশ আপনার সঙ্গে থাকবে। গণেশের পুজো করুন।

বৃশ্চিক রাশি: গণেশ বলেছেন যে বৃশ্চিক রাশির জাতকদের আর্থিক অবস্থা কিছুটা ভালো হবে। ধর্মীয় ও সামাজিক কাজে ব্যস্ততা থাকবে। আটকে থাকা ব্যবসায়িক কাজগুলো নিষ্পত্তির এখনই উপযুক্ত সময়। কোনও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ভালো করে ভেবে দেখুন। অভিজ্ঞ ব্যক্তির পরামর্শ আপনার জন্য উপকারী হবে। দাম্পত্য জীবনে পারস্পরিক সম্প্রীতির কিছুটা অভাব দেখা দেবে। বাড়ির বড়দের সম্মানের দিকে খেয়াল রাখবেন।

ভাগ্য আজ ৭৬ শতাংশ পর্যন্ত আপনার সঙ্গে আছে। একটি হলুদ জিনিস দান করুন।

ধনু রাশি: গণেশ বলেছেন যে ধনু রাশির জাতকদের মনোযোগ শুধুমাত্র তাদের লক্ষ্যের দিকে নিবদ্ধ থাকবে এবং আপনার অতীতের কিছু ভুল সংশোধন করে আপনি একটি সুন্দর ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাবেন। সঠিক বিনিয়োগ করতে সক্ষম হবে। ব্যবসায়িক ভ্রমণ সংক্রান্ত কর্মসূচী তৈরি হবে যা লাভজনক হবে। চাকরিতে পদোন্নতির উপযুক্ত সুযোগ থাকবে বা ভালো নিয়োগেরও সম্ভাবনা রয়েছে। স্ত্রী এবং পরিবারের সদস্যদের পূর্ণ সমর্থন থাকবে। অতিরিক্ত পরিশ্রম এবং অতিরিক্ত কাজের চাপ আপনার স্বাস্থ্যের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে, মনে রাখবেন।

আজ আপনার ভাগ্য ৭৫ শতাংশ হবে। হনুমানজির পুজো করুন।

মকর রাশি: গণেশ বলেছেন যে মকর রাশির লোকেরা তাদের সম্পর্ককে আরও মধুর করতে বিশেষ প্রচেষ্টা করবে। আজ, আপনি প্রতিদিনের রুটিন বাদ দিয়ে আপনার আকর্ষণীয় কাজে সময় ব্যয় করবেন। অসাবধান হলে আপনিও সমস্যায় পড়তে পারেন। কর্তা এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট করবেন না। ব্যস্ততার কারণে পরিবারকে সঠিক সময় না দেওয়ায় পরিবারের সদস্যদের বিরক্তি দেখা দেবে। স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। শারীরিক সম্পদ সংগঠিত সময় নিতে পারে।

আজ ভাগ্য ৯০ শতাংশ আপনার পক্ষে থাকবে। অশ্বথ গাছের নীচে প্রদীপ জ্বালান।

কুম্ভ রাশি: গণেশ বলেছেন যে কুম্ভ রাশির বিরোধীরাও আপনার সঙ্গে বন্ধুত্ব করার চেষ্টা করবে। অর্থ সংক্রান্ত কাজ সুশৃঙ্খল ভাবে সম্পন্ন করা হবে। অংশীদারিত্ব সম্পর্কিত ব্যবসায় সাফল্যের কৃতিত্ব আপনি পেতে চলেছেন। ব্যবসায় নতুন পরিকল্পনার রূপ দেওয়ার এখনই উপযুক্ত সময়। আর্থিক দিক কিছুটা দুর্বল থাকবে। প্রেমের সম্পর্ক আরও নিবিড় হবে। স্বাস্থ্য নিয়ে কোনো ধরনের অসাবধানতা অবলম্বন করবেন না।

ভাগ্য আজ আপনাকে ৮১ শতাংশ সমর্থন করবে। ভগবান শ্রীকৃষ্ণের পুজো করুন।

মীন রাশি: গণেশ বলেছেন যে মীন রাশির জাতকরা সম্পত্তি সংক্রান্ত কাজে সাফল্য পাবেন। বিনিয়োগ সংক্রান্ত কাজেও লাভের সম্ভাবনা রয়েছে। ব্যবসা সম্প্রসারণের পরিকল্পনা করা হবে এবং সমস্ত কাজ সময়মতো সম্পন্ন হবে। চাকরিতে গুরুত্বপূর্ণ কর্তৃত্ব পেয়ে আপনার দায়িত্ব বাড়বে। দাম্পত্য জীবন সুখকর হবে এবং ঘরে শান্তি ও সুখ থাকবে। পড়ে যাওয়া বা আঘাত পাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।


আরও খবর
আজকের রাশিফল!

বুধবার ২৫ মে ২০২২




মোংলায় আর্থিক সহায়তা ও ত্রাণ বিতরণ করলেন পরিবেশ উপমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৭৯০জন দেখেছেন
আব্দুল্লাহ আল মামুন

Image

মোঃ নূর আলম, মোংলা প্রতিনিধি:

বাগেরহাটের মোংলায় দরিদ্র পরিবার, মসজিদ, মন্দিরসহ কয়েকটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে টিআর ও ঢেউটিন বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধীনে এসব ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ১১ টায় মোংলা উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মোংলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, উপজলো প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জাফর রানা, উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ইস্রাফিল হাওলাদার, ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা তারকিুল ইসলামসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



আল আকসায় ফের ইসরায়েলের অভিযান, ৪২ ফিলিস্তিনি আহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জেরুজালেমের পবিত্র আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে আবারও সংঘর্ষের ঘটনায় কমপক্ষে ৪২ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্টের বরাতে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি এ তথ্য জানিয়েছে। এর আগে ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট সংঘর্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছিল।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আহতদের অধিকাংশের শরীরের উপরের অংশে আঘাত লেগেছে। পবিত্র রমজান মাসের শেষ জুমার নামাজকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ইসরায়েলি পুলিশ এক বিবৃতিতে দাবি করেছে, দাঙ্গাকারীরা পাথর ও পটকা নিক্ষেপের পরই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে প্রবেশ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ দাঙ্গাবিরোধী ব্যবস্থা প্রয়োগ করেছে বলেও উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এএফপির প্রতিবেদকেরা জানিয়েছেন, পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়েছে। ফজরের নামাজের পর সংঘর্ষের মাত্রা কমে আসে বলেও জানান তারা। তবে ঘটনাস্থলে এখনও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মসজিদুল আকসা বা বায়তুল মুকাদ্দাস সারা বিশ্বের মুসলিমদের কাছে তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। আর ইহুদিদের কাছে এটি টেম্পল মাউন্ট নামে খ্যাত। তারাও এটিকে তাদের অন্যতম পবিত্র স্থান হিসেবে বিবেচনা করে থাকে।

সম্প্রতি সেখানে প্রায়ই সংঘর্ষ হচ্ছে। গত দুই সপ্তাহে পবিত্র আলআকসা প্রাঙ্গণে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৫০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। আশঙ্কা করা হচ্ছে, গত বছর আলআকসার অস্থিরতাকে কেন্দ্র করে ইসরায়েলি বাহিনী ও হামাসের মধ্যে ১১ দিনব্যাপী যে যুদ্ধ হয়েছিল, একই রকমের একটি যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে।


আরও খবর



খালেদাকে পদ্মায় ফেলতে আর ইউনূসকে চুবিয়ে তুলতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৮০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পদ্মা সেতুকে জোড়াতালির বলায় বিএনপি চেয়ারপারসন  খালেদা জিয়াকে সেতুর ওপর থেকে পদ্মা নদীতে ফেলে দেওয়ার কথা, আর টাকা বন্ধের চেষ্টা করা ড. মুহম্মদ ইউনূসকে পদ্মা নদীতে চুবানোর কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘খালেদা জিয়া বলেছিল, জোড়াতালি দিয়ে পদ্মা সেতু বানাচ্ছে, ওখানে চড়া যাবে না, চড়লে ভেঙে পড়বে।’’ পদ্মা সেতুতে নিয়ে গিয়ে ওখান থেকে (খালেদা জিয়াকে) টুস করে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত। আর যিনি আমাদের একটা এমডি পদের জন্য পদ্মা সেতুর মতো সেতুর টাকা বন্ধ করেছেন, তাকেও আবার পদ্মা নদীতে নিয়ে দু’টা চুবানি দিয়ে উঠিয়ে নেওয়া উচিত। মরে যাতে না যায়। একটু পদ্মা নদীতে দু’টা চুবানি দিয়ে সেতুতে তুলে দেওয়া উচিত। তাহলে যদি এদের শিক্ষা হয়।’

বুধবার (১৮ মে) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। দলের  সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কানফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন।

শেখ হাসিনা বলেন, পদ্মা সেতুর অর্থ বন্ধ করালো ড. ইউনূস। কেন? গ্রামীণ ব্যাংকের একটা এমডির পদে তাকে থাকতে হবে। তাকে আমরা প্রস্তাব দিয়েছিলাম গ্রামীণ ব্যাংকের উপদেষ্টা হতে। একটা উপদেষ্টা হিসেবে থাকা আরও উচ্চ মানের। সেটা সে ছাড়বে না, তার এমডিই থাকতে হবে। কিন্তু তার বয়সে কুলায় না। ড. ইউনুস কিন্তু আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে মামলাও করেছিল। কিন্তু কোর্ট আর যাই পারুক, তার বয়স তো কমিয়ে দিতে পারে না, ১০ বছর। কারণ, গ্রামীণ ব্যাংকের আইনে আছে ৬০ বছর পর্যন্ত থাকতে পারে। তখন তার বয়স ৭১ বছর। এই বয়সটা কমাবে কীভাবে? সেই মামলায় সে হেরে যায়। কিন্তু প্রতিহিংসা নেয়।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ড. ইউনূস এবং যেটা আমরা শুনেছি মাহফুজ আনাম, তারা আমেরিকায় চলে যায়। স্টেট ডিপার্টমেন্টে যায়। হিলারির কাছে ইমেইল পাঠায়। ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের মি. জোলি যিনি প্রেসিডেন্ট ছিলেন, তার শেষ কর্মদিবসে কোনও বোর্ড সভায় না, পদ্মা সেতুর টাকা বন্ধ করে দেয়। যাক, একদিকে শাপেবর হয়েছে। কেন হয়েছে? বাংলাদেশ যে নিজের অর্থায়নে পদ্মা সেতু করতে পারে, সেটা আজকে আমরা প্রমাণ করেছি। কিন্তু আমাদের এখানের একজন জ্ঞানী লোক বলে ফেললেন যে, পদ্মা সেতুতে যে রেল লাইন হচ্ছে— ৪০ হাজার কোটি টাকার খরচ হচ্ছে। ৪০ হাজার কোটি টাকা তো ঋণ নিয়ে করা হচ্ছে। এই ঋণ শোধ হবে কীভাবে? দক্ষিণবঙ্গের কোনও মানুষ তো রেলে চড়বে না। তারা তো লঞ্চে যাতায়াত করে। তারা রেলে চড়তে যাবে কেন? এই রেল ভায়াবল হবে না।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘‘সেতুর কাজ হয়ে গেছে, এখন সেতু নিয়ে কথা বলে পারছে না। এখন রেলের কাজ চলছে, এখন রেলের কাজ নিয়ে তারা প্রশ্ন তুলেছেন। আমার মনে হয়, আমাদের সবার উনাকে চিনে রাখা উচিত। রেল গাড়ি যখন চালু হবে, তখন উনাকে নিয়ে রেলে চড়ানো উচিত। আর খালেদা জিয়া বলেছিল, জোড়াতালি দিয়ে পদ্মা সেতু বানাচ্ছে।’ কারণ, বিভিন্ন স্প্যানগুলো যে বসাচ্ছে, ওটা ছিল তার কাছে জোড়াতালি দেওয়া। তো বলেছিল, জোড়াতালি দিয়ে পদ্মা সেতু বানাচ্ছে, ওখানে চড়া যাবে না, চড়লে ভেঙে পড়বে।’ তার সঙ্গে তার কিছু দোসররাও। এখন তাদেরকে কী করা উচিত?’’

তিনি বলেন, পদ্মা সেতুতে নিয়ে গিয়ে ওখান থেকে টুস করে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত। আর যিনি আমাদের একটা এমডি পদের জন্য পদ্মা সেতুর মতো সেতুর টাকা বন্ধ করেছে, তাকেও আবার পদ্মা নদীতে নিয়ে দু’টা চুবানি দিয়ে উঠিয়ে নেওয়া উচিত। মরে যাতে না যায়। একটু পদ্মা নদীতে দু’টা চুবানি দিয়ে সেতুতে তুলে দেওয়া উচিত। তাহলে যদি এদের শিক্ষা হয়। বড় বড় অর্থনীতিবিদ, জ্ঞানী-গুণী এই ধরনের অর্বাচিনের মতো কথা বলে কীভাবে? সেটাই আমার প্রশ্ন। মেগা প্রজেক্টগুলো করে নাকি  খুব ভুল করছি। তারা আয়েশে বসে থাকে, আর আমার তৈরি করা সব টেলিভিশনে গিয়ে কথা বলে। বিদ্যুৎ সরবরাহ করি। সেই বিদ্যুৎ ব্যবহার করছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, আজকে যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করেছি, সেটা নিয়েও এত টাকা দিয়ে স্যাটেলাইট করে কী হবে? এই প্রশ্নও কিন্তু তুলেছে তারা। অর্থাৎ বাংলাদেশের জন্য ভালো কিছু করলে তাদের গায়ে লাগে। কেন? তাহলে তারা কি এখনও সেই পাকিস্তানি সামরিক জান্তাদের পদলেহনকারী, খোশামদি, তোষামদির দল? গালিটালি দিই না, দেওয়ার রুচিও নাই। তবে একটু না বলে পারি না, যে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী যেভাবে বাংলাদেশের মেয়েদের ওপর অত্যাচার করেছে, গণহত্যা চালিয়েছে, অগ্নিসংযোগ করেছে, পোড়ামাটি নীতি নিয়ে বাংলাদেশকে ধ্বংস করতে চেয়েছিল, সেই পাকিস্তানিদের পদলেহনকারীর দল এখনও বাংলাদেশে জীবিত— এটা হচ্ছে সব থেকে দুঃখজনক। এখনও তারা বাংলাদেশের ভালো কিছু হলে ভালো দেখে না। বাংলাদেশ এগিয়ে গেলে তাদের ভালো লাগে না।’

সরকার প্রধান বলেন, আজকের বাংলাদেশে আমরা ২০০৯-এর পরে যে সরকার গঠন করেছি, তার পরেও আমাদের কম ঝামেলা পোহাতে হয়নি। অগ্নি সন্ত্রাস করে বিএনপি জীবন্ত মানুষগুলোকে পুড়িয়ে পুড়িয়ে মারে। পেট্রোল বোমা মারে। আমরা রাস্তাঘাট বানাই, তারা রাস্তাঘাট কাটে। আমরা বৃক্ষরোপণ করি তারা গাছ কাটে। এ ভাবে দেশকে তারা বার বার ধ্বংসের দিকে নেওয়ার চেষ্টা করেছে। সরকার উৎখাত করার তারা উদ্যোগ নিয়েছে। আমরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত। তাদের ডাকে তো জনগণ সাড়া দেয়নি।’

তিনি বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করেছে। ওই ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলায় এবং একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি তারেক জিয়া। ২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কাছে মুচলেকা দিয়েছিল জীবনে কোনও দিন রাজনীতি করবে না। এই মুচলেকা দিয়েই কিন্তু দেশ ছেড়ে চলে যায়। কিন্তু এই মামলায় বিচারের রায়ে সে সাজাপ্রাপ্ত। এতিমের অর্থ আত্মসাতের মামলায় সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া।’


আরও খবর



বিয়ে করে স্ত্রীকে ভারতে বিক্রি, পাচারদলের ৩ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন

Image

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

ফেসবুক থেকে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার সোহেলের সাথে প্রেমের সম্পর্কে নুর নাহার (ছদ্মনাম)। এরপর তাকেই কৌশলেই ভারতীয় পাচারকারীর হাতে তুলে দেন সোহেল। ভারতে নিয়ে যাওয়ার পথেই তাকে একাধিকবার পাচারদলের সদস্যরা ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন সেই নারী।

এ ঘটনায় পাটগ্রাম থানা পুলিশ শনিবার দিনভর অভিযান চালিয়ে পাচারদলের সদস্য আশরাফুল ইসলাম, মোকছেদুল হক, চম্পা বেগম নামে তিনজনকে গ্রেফতার করেছেন। রোববার (২২ মে) বিষয়টি নিশ্চিত করেন পাটগ্রাম থানার ওসি ওমর ফারুক। তিনি বলেন, এ ঘটনার মুল হোতা সোহেল মিয়া হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বেতাপুর গ্রামের কিবরিয়ার পুত্র। তাকে গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।

পাটগ্রাম থানা সূত্রে জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ৩ বছরে পূর্বে টিকটক করতে গিয়ে পরিচয় ও প্রেম। তারপর প্রেমিক হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বেতাপুর গ্রামের কিবরিয়ার পুত্র সোহেল-প্রেমিকা নুর নাহার (ছদ্মনাম) অবৈধ ভাবে সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশ করে। সেখানে প্রেমিকা নুর নাহারকে দিয়ে জোর পূর্বক দেহ ব্যবসা করানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু নুর নাহার বিষয়টি বুঝতে পেয়ে সোহেলের সাথে ঝগড়া করেন। পরে ৮/৯ মাস পর ভারতের কলকাতা থেকে কৌশলে একই পথে দেশে পালিয়ে আসে প্রেমিকা নুর নাহার (ছদ্মনাম)। কিছু দিন পর দেশে আসেন সোহেলও। অনেক বুঝিয়ে তাকে চলতি বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জ আদালতে সোহেল-প্রেমিকা নুর নাহার (ছদ্মনাম) বিয়ে করেন। কিছুদিন পর  নুর নাহার গর্ভবতী হন। কিন্তু সোহেল তারপর আবারও প্রতারণার আশ্রয় গ্রহণ করেন প্রেমিক থেকে স্বামী হওয়া সোহেল। নুর নাহারকে পাচারের জন্য আবারও পাচারকারীদের সাথে যোগাযোগ করে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে পাঠিয়ে দেয় স্বামী সোহেল। গত ১৩ মে ভোরে পাচারকারীরা তাকে ওই উপজেলার দহগ্রাম সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচার করে দেয়। এ সময়  নুর নাহারকে ধর্ষণ করেন ওই পাচার দলের সদস্য মোকছেদুল। নুর নাহার ভারতে প্রবেশের পর বুঝতে পারেন তার স্বামী তাকে পাচারকারীদের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন। (১৫ মে) রাতে আবারও  নুর নাহার কৌশলে দেশে দহগ্রাম সীমান্ত দিয়ে ফিরে আসেন। দেশে ফেরার পর এবার আশরাফুল ইসলাম নামে অপর এক পাচারকারী দলের সদস্য তাকে ধর্ষণ করেন। টাকার জন্য নুর নাহার (১৫ মে) থেকে আটকিয়ে রাখেন পাচার দলের সদস্যরা। সেখান থেকেও কৌশলে পালিয়ে পাটগ্রাম থানায় আশ্রয় গ্রহণ করে নুর নাহার।

পাটগ্রাম থানার ওসি ওমর ফারুক এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ ইতোমধ্যে ৩ জনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। ঘটনার মুল হোতা প্রেমিক থেকে স্বামী হওয়া সোহেলকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর