আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

মহেশপুরে যুবলীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০১ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০১ আগস্ট ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
Image

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

ঝিনাইদহের মহেশপুরে যুবলীগ নেতা আবু হানিফ হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী।

সে সময় তারা হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানান। কর্মসূচীতে নিহতের পিতা রফিকুল ইসলাম, চাচাতো ভাই মতিয়ার রহমানসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

পরে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বরে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। সেসময় ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে নিহতের স্বজন, এলাকাবাসীসহ জনপ্রতিনিরা অংশ নেয়।

গত ২১ জুলাই বিকেলে আলামপুর গ্রামে কৃষক বনাম ব্যাবসায়ীদের প্রীতি ফুটবল খেলার সময় সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা আবু হানিফসহ ৫ জন আহত হয়। সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করে কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আবু হানিফকে মৃত ঘোষণা করে।


আরও খবর



রমজান ও ফেব্রুয়ারির টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পবিত্র রমজান ও ফেব্রুয়ারি মাসের জন্য টিসিবির পণ্য বিক্রি কার্যক্রম শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি)। রমজানের প্রথম পর্বে সারাদেশে এক কোটি ফ্যামেলি কার্ডধারী নিম্নআয়ের পরিবারের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে চালসহ টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হবে।

এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম (টিটু)। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে এ উদ্বোধন অনুষ্ঠান হবে। টিসিবি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

টিসিবি এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, নিম্নআয়ের এক কোটি উপকারভোগী কার্ডধারী পরিবারের মাঝে চালসহ টিসিবির পণ্যাদি (ভোজ্য তেল ও ডাল) সাশ্রয়ী দামে বিক্রির কার্যক্রম চলমান রয়েছে। পবিত্র রমজান উপলক্ষে প্রথম পর্বের বিক্রয় কার্যক্রম ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে শুরু হবে।

সেখানে আরও বলা হয়, এ বিক্রয় কার্যক্রম ডিলারদের দোকান/নির্ধারিত স্থায়ী স্থাপনা থেকে সিটি করপোরেশন, জেলা-উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় ও তাদের নির্ধারিত তারিখ ও সময় পরিকল্পনা অনুযায়ী পরিচালনা করা হবে।

কার্ডধারী ভোক্তা সাধারণ নির্ধারিত ডিলারদের কাছ থেকে প্রতি লিটার ভোজ্যতেল ১০০ টাকা, মসুর ডাল ৬০ টাকা ও চাল ৩০ টাকা কেজি দরে কিনতে পারবেন। এছাড়া রমজান উপলক্ষে ছোলা বিক্রি কার্যক্রমও শুরু হবে। প্রতি কেজি ছোলা ৫৫ টাকা কেজি দরে দেবে টিসিবি।


আরও খবর



ইতিহাসের এই দিনে যা ঘটেছিল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

কালের গহ্বরে হারিয়ে যায় সময়। আর এই সময়ে ঘটে চলে নানা ঘটনা। প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম ইতিহাস চিন্তা, চেতনা ও প্রেরণার উৎস। ইতিহাসই আমাদের পথ দেখায় নতুন নতুন দিগন্তের। ইতিহাসের দিকে তাকালে দেখা যায়, পৃথিবীকে আলোকিত করেছেন অনেক জ্ঞানী-গুণী। বিশ্বজুড়ে ঘটেছে গুরুত্বপূর্ণ অনেক ঘটনা। তবে সব ঘটনা ইতিহাসে ঠাঁই হয় না। ১৩ ফেব্রুয়ারি গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে বছরের ৪৪তম দিন। বছর শেষ হতে আরো ৩২১ (অধিবর্ষে ৩২২) দিন বাকি রয়েছে।

ঘটনাবলি:

১২৫৭ - হালাকু খানের মোঙ্গল বাহিনীর হাতে আব্বাসীয় খলিফাদের রাজধানী বাগদাদের পতন ঘটে।

১৬০১ - ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সমুদ্র পথে ভারত আগমন।

১৬৩৩ - ইনকুইজিশনের পূর্বে বিচারের জন্য গ্যালিলিও গ্যালিলি রোম ফিরে আসেন।

১৭৩৯ - কারণালের যুদ্ধ: ইরানি শাসক নাদির শাহর বাহিনী মুঘল সম্রাট মুহাম্মদ শাহর বাহিনীকে পরাজিত করে।

১৭৮৮ - ওয়েস্ট মিনিস্ট্রিতে ওয়ারেন হেস্টিংসের বিচার শুরু।

১৮৩২ - লন্ডনে প্রথম কলেরার প্রাদুর্ভাব।

১৮৮০ - টমাস আলভা এডিসন এডিসন ইফেক্ট পর্যবেক্ষণ করেন।

১৮৮২ - কলকাতায় প্রথম পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত।

১৮৮৩ - জার্মানীর বিখ্যাত সুরস্রষ্টা এবং সংগীতবিদ রিচার্ড ওয়েগনার পরলোকগমন করেন।

১৮৯০ - বোটানিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৩১ - ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী কলকাতা থেকে নয়া দিল্লিতে স্থানান্তর সম্পন্ন।

১৯৩৪ - সোভিয়েত বাষ্পীয় জাহাজ এসএস চেলয়ুসকিন আর্কটিক মহাসাগরে ডুবে যায়।

১৯৪৫ - দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ: লাল ফৌজের কাছে নাৎসি জার্মানি ও হাঙ্গেরি বাহিনীর নিঃশর্ত আত্মসমর্পণের মাধ্যমে বুদাপেস্ট অবরোধের সমাপ্তি।

১৯৫৫ - ইসরায়েল সাতটি ডেড সী স্ক্রলের মধ্যে চারটি লাভ করে।

১৯৬০ - ফ্রান্সে প্রথম পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরণ।

১৯৭২ - বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ প্রতিষ্ঠা।

১৯৭২ - ঢাকা-মস্কো সরাসরি টেলিযোগাযোগ স্থাপন।

১৯৮২ - গুয়েতেমালায় রিও নিগ্রো গণহত্যা সংঘটিত।

১৯৮৫ - ছাত্রনেতা রাউফুন বসুনিয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আততায়ীদের গুলিতে নিহত হন।

১৯৯০ - জার্মান পুনঃএকত্রীকরণ: জার্মানিকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য দুইস্তর বিশিষ্ট পরিকল্পনার বিষয়ে সমঝোতা হয়।

১৯৯১ - উপসাগরীয় যুদ্ধ: দুইটি লেজার নিয়ন্ত্রিত বোমার আঘাতে বাগদাদের আমিরিয়া বাংকার ধ্বংস হয়। এতে ৪০০ জনেরও বেশি ইরাকি বেসামরিক লোক নিহত হলেও মিত্রবাহিনী দাবি করে যে বাংকারটি সামরিক যোগাযোগের জন্য ব্যবহৃত হচ্ছিল।

২০০৭ - সংশোধিত জরুরি ক্ষমতাবিধি জারি করে সরকার।

জন্ম

১৫৯৯ - পোপ সপ্তম আলেক্সান্ডার।

১৮৭৯ - সরোজিনী নাইডু, ভারতীয় বাঙালি স্বাধীনতা সংগ্রামী।

১৮৮৫ - বেস ট্রুমান, যুক্তরাষ্ট্রের ৩৫তম ফার্স্টলেডি।

১৮৯১ - গ্রান্ট উড, আমেরিকান চিত্রশিল্পী ও অ্যাকাডেমিক।

১৮৯২ - রবার্ট এইচ. জ্যাকসন, আমেরিকান আইনজীবী, বিচারক ও রাজনীতিবিদ, যুক্তরাষ্ট্রের ৫৭তম অ্যাটর্নি জেনারেল।

১৯১১ - ফয়েজ আহমেদ ফয়েজ, পাকিস্তানি কবি ও সাংবাদিক।

১৯১৩ - খালিদ বিন আবদুল আজিজ, সৌদি আরবের বাদশাহ।

১৯১৫ - অং সান, মায়ানমারের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রধান নেতা ও সমরনায়ক।

১৯১৯ - মনিরউদ্দীন ইউসুফ, কবি ও প্রাবন্ধিক।

১৯২১ - আহমদ শরীফ, বাংলাদেশি ভাষাবিদ, খ্যাতনামা মনীষী।

১৯২৮ - গেরাল্ড রিগান, কানাডীয় আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ, নোভা স্কটিয়ার ১৯তম প্রিমিয়ার।

১৯২৯ - গাজীউল হক, বাংলাদেশের প্রখ্যাত গীতিকার, সাহিত্যিক ও ভাষা সৈনিক।

১৯৪৮ - নীলুফার ইয়াসমিন, কণ্ঠশিল্পী।

মৃত্যু

৮৫৮ - কেনেথ ম্যাকআলপিন, স্কটিশ রাজা।

৯০৪ - ইয়ায়িয়া ইবনে জিকরাওয়াহ,কারমাতি নেতা।

৯৪২ - মুহাম্মদ ইবনে রাইক, মুসলিম সামরিক কর্মকর্তা।

১১৩০ - পোপ দ্বিতীয় হনোরিয়াস।

১৫৮৫ - অলফনসো সালমেরন, স্প্যানিশ যাজক ও পণ্ডিত।

১৭২৭ - উইলিয়াম উটন, ইংরেজ ভাষাবিদ ও পণ্ডিত।

১৮৮৩ - জার্মানীর বিখ্যাত সুরস্রষ্টা এবং সংগীতবিদ রিচার্ড ওয়েগনার পরলোকগমন করেন।

১৯৫০ - রাফায়েল সাবাতিনি, ইতালীয়-সুইস লেখক।

১৯৬৪ - অসিতকুমার হালদার বাংলার নবজাগরণের প্রথম দিকের প্রধান চিত্রশিল্পী।

১৯৬৯ - পরেশচন্দ্র ভট্টাচার্য ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের প্রথম বাঙালি গভর্নর ও ভারতীয় স্টেট ব্যাংকের চেয়ারম্যান।

১৯৭৪ - উচ্চাঙ্গসংগীত শিল্পী ওস্তাদ আমির খাঁ।

১৯৭৭ - সাংবাদিক আবদুস সালাম মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৮৬ - বৃটিশবিরোধী সক্রিয় কর্মী, কবি ও সমাজকর্মী আশালতা সেন।

১৯৯৬ - মার্টি‌ন বেলসাম, আমেরিকান অভিনেতা।

২০১২ - হুমায়ুন ফরীদি, বাংলাদেশি অভিনেতা।

২০১৫ - কেশব রেড্ডি, ভারতীয় চিকিৎসক ও লেখক।


আরও খবর
মজাদার ফুলকপির বিরিয়ানি

সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪




এবার অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করে নিষেধাজ্ঞার মুখে রোনালদো

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

সৌদি প্রো লিগে রিয়াদ ডার্বিতে আল শাবাবকে ৩-২ গোলে হারিছে আল নাসর। এই ম্যাচে গোল পেয়েছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে ৭৫০তম গোলের মাইলফলকও স্পর্শ করেছেন তিনি। ফুটবল ইতিহাসে আর কোনো ফুটবলারেরই এমন নজির নেই। তবে মাইলফলকের ম্যাচে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করে বিতর্কেও জড়িয়েছেন পাঁচবারের ব্যালন ডিঅর জয়ী এই ফুটবলার। কেবল বিতর্ক নয় এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন যাতে তার ওপর নিষেধাজ্ঞার খড়গও নামতে পারে।

সৌদি প্রো লিগে পরশু রাতে আল শাবাবের বিপক্ষে ২১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন পর্তুগিজ তারকা। ক্লাব ফুটবল ক্যারিয়ারে এটি তার ৭৫০তম গোল।

এই ম্যাচের শেষেই আল শাবাবের সমর্থকরা মেসি, মেসি স্লোগান দেয়। আর এতেই ক্ষেপে যান রোনালদো। প্রথমে কানের পেছনে হাত দেন। যাতে বোঝা যায় তিনি সেই স্লোগান শুনছেন। তারপরেই ঘটান অদ্ভুত সেই কাণ্ড। প্রতিপক্ষের সমর্থকদের উদ্দেশ্যে করেন বাজে অঙ্গভঙ্গি। এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

এবার জানা গেছে, এই অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির কারণে সৌদি ফুটবল ফেডারেশনের শাস্তির মুখে পড়তে যাচ্ছেন রোনালদো। সৌদি সংবাদমাধ্যমের বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেইল অনলাইন জানিয়েছে, দুই ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি জরিমানাও গুনতে হতে পারে রোনালদোকে।


আরও খবর



১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে রাজধানীতে চার দিনব্যাপী পার্বত্য মেলা

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Image

পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের জীবন-কৃষ্টি, সংস্কৃতি, পোশাক-পরিচ্ছদ, ইতিহাস-ঐতিহ্য বিষয়ক তথ্যাদি সমতলের মানুষের মাঝে পরিচয় করিয়ে দেয়া এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর  উৎপাদিত পণ্যসামগ্রী প্রচার ও বিপণনের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে রাজধানীর বেইলি রোডস্থ শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রে আগামি ১৪-১৭ ফেব্রুয়ারি চারদিনব্যাপী পার্বত্য মেলার বিশেষ আয়োজন করা হয়েছে।

মেলা প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। প্রতি সন্ধ্যা ৬ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত পার্বত্য বিশেষ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন রয়েছে।

১৪ ফেব্রুয়ারি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলার উদ্বোধন করবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী পদমর্যাদা) আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, এমপি। আগামি ১৭ ফেব্রুয়ারি বেলা ৩ টায় পার্বত্য মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গৃহায়ণ ও গর্ণপূর্ত মন্ত্রী জনাব র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, এমপি। উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি।

পার্বত্য তিন জেলার ২৭৫ জন শিল্পীর ঐতিহ্যবাহী পরিবেশনায় প্রতিদিন বিকাল ৬ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়েছে। চারদিনব্যাপী এ পার্বত্য মেলায় ৯৭টি স্টল বরাদ্দ থাকবে। মেলার স্টলে তিন পার্বত্য জেলায় উৎপাদিত কৃষি পণ্য সামগ্রী, হস্তশিল্প, ঐতিহ্যবাহী কোমর তাঁতে বোনা পণ্য, ঐতিহ্যবাহী পার্বত্য খাবার দ্রব্য প্রদর্শন ও বিক্রয় করা হবে। সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় অংশ নেবেন।

নিউজ ট্যাগ: পার্বত্য মেলা

আরও খবর



মৃত্যুর খবর দেখে অভিনেত্রী আঁচল বললেন, ‘আমি বেঁচে আছি’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ভোজপুরি গায়িকা আঁচল তিওয়ারি ও গায়ক ছোটু পান্ডেসহ ৯ জন। রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভারতের বিহারের কাইমুরে মর্মান্তিক গাড়ি দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন তারা।

ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে খরব প্রকাশ পায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন জনপ্রিয় ভোজপুরি অভিনেত্রী আঁচল তিওয়ারি। আর এভাবেই নিজের মৃত্যুর খবরটি দেখেন আঁচল। খবর দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী নিজেই একটি পোস্ট করেন। পোস্টে তিনি লেখেন, ‘‘আমি বেঁচে আছি।

মূলত দুর্ঘটনার পরে আঁচল তিওয়ারি নামটি নিয়ে বিভ্রান্তি শুরু হয়। যে আঁচল মারা গেছেন তিনি একজন গায়িকা। তবে ভুলবশত সবাই পঞ্চায়েত খ্যাত অভিনেত্রী আঁচল তিওয়ারির ছবি ব্যবহার করছেন। দুজনের নামের মিল থাকায় তাৎক্ষণিক এ ভুল হয়।

এর আগে মডেল-অভিনেত্রী পুণম পান্ডের মৃত্যু নিয়েও হয়েছিল একইরকম ঘটনা। তবে সেক্ষেত্রে পাবলিসিটির জন্য তিনি নিজেই বিষয়টি শেয়ার করেছিলেন। তবে আঁচলের ক্ষেত্রে এ ঘটনা একেবারেই ভিন্ন।

পুলিশ জানিয়েছে, বিহারের কাইমুর জেলায় একটি এসইউভি এবং মোটরবাইকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে ভোজপুরি আঁচল তিওয়ারি, সঙ্গীতশিল্পী ছোটু পান্ডেসহ ৯ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

মোহনিয়ার ডিএসপি দিলীপ কুমার জানিয়েছেন, সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) মৃতদের শনাক্ত করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ভোজপুরি শিল্পী বিমলেশ পান্ডে ওরফে ছোটু পান্ডে। অন্যদের মধ্যে ছিলেন আঁচল তিওয়ারি, সিমরন শ্রীবাস্তব, প্রকাশ রাম, দধিবল সিং, অনু পান্ডে, শশী পান্ডে, সত্য প্রকাশ মিশ্র এবং বাগিশ পান্ডে।

ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, সংগীতশিল্পী ছোটু পান্ডে পুরো টিম নিয়ে ইউপি যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। কাইমুরে জাতীয় সড়কের এ দুর্ঘটনা এতটাই ভয়ংকর ছিল যে, ঘটনাস্থলেই ৯ জনের মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ভোজপুরি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। একইসঙ্গে তারকাদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিহারের মুখমন্ত্রী নীতীশ কুমার।

এক্স অ্যাকাউন্টে লেখেন, কাইমুর জেলার মোহানিয়া থানা এলাকায় এনএইচ২-এ দেবকালীর কাছে একটি ভয়ংকর সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ জনের মৃত্যুতে আমি মর্মাহত। নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা রইল। আহতদের যথাযথ চিকিৎসার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।

নিউজ ট্যাগ: আঁচল তিওয়ারি

আরও খবর