আজঃ শনিবার ২১ মে ২০২২
শিরোনাম

মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে ব্যবসায়ীকে নির্যাতন (ভিডিও)

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | ৩০১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে আল-আমীন (৩১) নামে এক কাঠ ব্যবায়ীকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে স্থানীয় বখাটেরা। ঘটনাটি ঘটেছে পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী থানার পত্তাশী গ্রামে। নির্যাতনের পরও খ্যান্ত হননি তারা। এ ঘটনা জানজানি হলে উপয়ন্ত না দেখে, ঘটনা ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করার জন্য ওই ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটা মামলা দায়ের করে।

অভিযোগ রয়েছে, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদর চেয়ারম্যান এর সাথে পূর্ব শত্রুতা এবং চলমান ইউপি নির্বাচনে তার বিরোধীতা করায় পরিকল্পিত ভাবে ব্যবসায়ীকে নির্যাতন করা হয়। রবিবার রাতে এ বর্বরাচিত হামলার ঘটনায় ব্যবসায়ী মামলা করার কথা জানালে ইন্দুরকানী থানা পুলিশ তা আমলে নেয়নি।

বর্তমান পুলিশ প্রহরায় হ্যান্ডকাফ পরা অবস্থায় পিরাজপুর জেলা হাসপাতাল নির্যাতিত আল আমীনর চিকিৎসা চলছে। নির্যাতিত আল আমীন ওই গ্রামর মাঃ আলী আকবার এর ছেলে।

হাসপাতাল চিকিৎসাধীন আলী আমীন জানায়, রবিবার রাত স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় মাহফিল শুনে স্থানীয় এক যুবকের সাথ বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় পত্তাশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জম হোসেন হাওলাদারর সমর্থিত ১০-১২ জন যুবক তার উপর অতর্কিত হামলা করে। এরপর তাদের সাথে আরও ১৫-২০ জন যোগ দেয় । এসময় সন্ত্রাসীরা তাক মাটিতে ফেলে হাত পা পিঠমোড়া দিয়ে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে। এ সময় ওই ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় গ্রাম পুলিশ মাঃ রিয়াজ উপস্থিত থাকলেও, সবাই নিরব ভূমিকা পালন করে।

আল আমীনর অভিযাগ ইউপি চেয়ারম্যান মায়াজ্জম এর সমর্থক থাকলেও, বর্তমান তার সাথে দূরত্ব রয়েছে । এজন্যই তার উপর ক্ষিপ্ত এই ইউপি চেয়ারম্যান। তার নির্দেশে বর্বরাচিত নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনর এক পর্যায় অজ্ঞান হয় পড়ে। খবর পেয়ে ইদুরকানী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয় যায়। এরপর সেখান থেকে তাকে পুলিশ প্রহরায় পিরাজপুর জলা হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। আল-আমীন অভিযোগ করেন, মারধারর ঘটনা ধামাচাপা দেওয়া এবং তাকে ফাঁসানার জন্য এ মামলা দেয়া হয়।

গ্রামপুলিশ রিয়াজ জানান, আল আমীনকে ব্যাপকভাবে মারধার করা হয় ।

এ বিষয় ইউপি চয়ারম্যান মোয়াজ্জেম জানান,আল আমীনক মারধারর খবর শুনে স্থানীয় চকিদার রিয়াজকে ঘটনাস্থেল পাঠিয়ে উদ্ধার করে। এরপর বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাব ইদুরকানী থানায় জানানা হয়। তবে এ ঘটনায় নিজেকে জড়িত থাকার কথা অম্বীকার করে বলেন, যারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপার ইদুরকানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাঃ হুমায়ুন কবির জানান, একটি মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযাগে আল আমীনক আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ইদুরকানী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এরআগে তাকে মারধার করা হয়। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। অপরাধিদের আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লখ্য, এর আগ গত বছরর ৪ নভম্বর একটি কর্মী সভায় ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন হাওলাদার এর সমালাচনা করায় রঞ্জন কুমার মজুমদার নাম ওয়ার্ড আওয়ামী লীগর এক সাধারণ সম্পাদকক পিটিয় পা ভেংগে দেয় তার সমর্থকরা। আসন ইউপি নির্বাচনক কেদ্র করে প্রতিদ্বন্ধীদের দমনের জন্য বিভিন্ন ভাবে নির্যাতনের অভিযাগ রয়েছে এই ইউপি চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে।


আরও খবর



রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাসের চাপ কম থাকবে

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গ্যাস ট্রান্সমিশনস কোম্পানি লিমিটেড (জিটিসিএল) বর্তমানে উচ্চচাপ সম্পন্ন দুটি পাইপলাইনের সংস্কার কাজ করছে। এর ফলে ঈদের দিন রাত থেকে রাজধানী ঢাকার গাবতলী, মাজার রোড, মিরপুর, কল্যাণপুর, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডিসহ কিছু এলাকায় গ্যাসের চাপ কিছুটা কম রয়েছে।

এক বিজ্ঞপ্তিতে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড জানিয়েছে, ঈদের দিন মঙ্গলবার (৩ মে) রাত ১০টা থেকে শুরু হয়ে এ অবস্থা আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৫ মে) রাত ১০টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। তবে ঈদে প্রচুর মানুষ রাজধানী ছেড়ে গ্রামে যাওয়ায় সেসব এলাকায় গ্যাসের অভাব সেভাবে টের পাওয়া যাচ্ছে না।


আরও খবর



যে কারণে ২ শিক্ষার্থীর পড়া লেখার দায়িত্ব নিলেন এমপি

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী নিয়ে প্রশ্নের সঠিক উত্তর দেওয়ায় নোয়াখালীতে রুবীরহাট বঙ্গবন্ধু সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই গরিব শিক্ষার্থীর লেখাপড়ার আজীবন দায়িত্ব নিলেন সংসদ সদস্য এ এইচ এম ইব্রাহিম।

রোববার (৮ মে) দুপুরে সোনাইমুড়ির রুবীরহাট বঙ্গবন্ধু সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়টি জাতীয়করণের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ি) আসনের সংসদ সদস্য এ এইচ এম ইব্রাহিম কে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী নিয়ে ২ শিক্ষার্থী প্রশ্নের সঠিক উত্তর দেওয়ায় তিনি সন্তুষ্ট হয়ে তাদের লেখাপড়ার দায়িত্ব নেন।

শিক্ষার্থীরা হলেন সোনাইমুড়ির নদনা ইউনিয়নের পাঁচ বাড়িয়া গ্রামের মৃত ছালেহ আহম্মেদের মেয়ে দশম শ্রেণি ছাত্রী নুসরাত জাহান ও হাটগাঁও গ্রামের জিয়া উদ্দিন তানসেলের ছেলে মিনহাজ উদ্দিন শিখর। তারা দুইজনই বিজ্ঞানের শিক্ষার্থী।

এ সময় অনুষ্ঠানে সোনাইমুড়ি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামীম কুদ্দুস ভূইয়া, সোনাইমুড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশিদ, সোনাইমুড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুমিনুল ইসলাম বাকের, সাধারণ সম্পাদক আফম বাবুল ও স্কুল প্রতিষ্ঠাতার ছেলে আশরাফুল হক চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য দেশের একমাত্র বঙ্গবন্ধুর নামে স্কুলটি জাতীয়করণ করা হয়।


আরও খবর



ঈদে ভক্তদের জন্য কর্নিয়ার ‘শাকালাকা মন’

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এই সময়ের জনপ্রিয় গায়িকাদের একজন জাকিয়া সুলতানা কর্নিয়া। ২০১২ সালে পাওয়ার ভয়েস প্রতিযোগিতা থেকে তার উঠে আসা। এরইমধ্যে একাধিক শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন তিনি। এবার ঈদে তিনটি গান নিয়ে আসছেন এই গায়িকা। তারমধ্যে সবচেয়ে বেশি আগ্রহের তালিকায় রয়েছে শাকালাকা মন। গানটির কথা লিখেছেন অর্জিন। সুর ও সংগীতায়োজনে নাভেদ পারভেজ। ভিডিও নির্মাণ করেছেন উজ্জ্বল রহমান। এতে নেচে গেয়ে পারফর্ম করেছেন গায়িকা নিজেই।


গানটি নিয়ে কর্নিয়া বলেন, রাস্তা দিয়ে একটা মেয়ে যখন হাই হিল পরে হেঁটে যায় তখন আশপাশে থাকা ছেলেরা অবাক হয়ে থাকিয়ে থাকে। খুশিতে তাদের নাচতে ইচ্ছে করে এমনই গল্প নিয়ে এই গান-ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে। ভিডিওতে আমি হাই হিল পরেছি, নেচেছি। সব মিলিয়ে খুব এন্টারটেইনিং একটা কাজ হয়েছে। গানটি দর্শক-শ্রোতাদের এবারের ঈদ আনন্দে বাড়তি মাত্রা যোগ করবে বলে আমার বিশ্বাস

উল্লেখ্য, ঈদে কর্নিয়ার শাকালাকা মন গানচিত্রটি উন্মুক্ত করা হবে ইউটিউবে আরটিভি মিউজিকের চ্যানেলে।


আরও খবর



ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন চালু হচ্ছে ২২ মে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ২৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আম পরিবহনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে চালু হচ্ছে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন। রহনপুর-চাঁপাইনবাবগঞ্জ-রাজশাহী হয়ে ঢাকা পর্যন্ত আবার ঢাকা থেকে রাজশাহী হয়ে রহনপুর পর্যন্ত দুই ট্রিপে ট্রেনটি চলাচল করবে। ট্রেনটি চালু হবে আগামী ২২ থেকে ২৫ মে তারিখের মধ্যে।

বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) অসীম কুমার তালুকদার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, প্রতি বছরের মতো এবারও কম খরচে আম পরিবহনের জন্য ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালু করা হবে। আগামী ২২ থেকে ২৫ মের মধ্যে ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালু করার কথা রয়েছে। আমরা একটা সভা করে চাষিদের চাহিদা অনুযায়ী সময় নির্ধারণ করবো।

তিনি আরও বলেন, গুটি জাতের আম যেহেতু ঢাকায় তেমন চাহিদা নেই তাই ২০ তারিখের পর গোপালভোগসহ মিষ্টি জাতের আম পাড়া শুরু হলে তখন ট্রেন চালু হবে। আনুমানিক ২২ থেকে ২৫ তারিখের মধ্যে সময়টা হবে।

প্রতিকেজি আমে ভাড়া কী পরিমান হবে তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাধারণত ভাড়া এবং ট্রেনের সময় পরিবর্তন হবে না। গতবারের যা ছিল তাই হবে। তবে, সভা করে সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যদি পরিবর্তন হয় তাহলে জানিয়ে দেওয়া হবে।


আরও খবর



আওয়ামী লীগ কোথায় ব্যর্থ, প্রশ্ন শেখ হাসিনার

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, তারা আওয়ামী লীগ সরকার উৎখাত করতে চায়। আওয়ামী লীগের অপরাধটা কী? আওয়ামী লীগ কোথায় ব্যর্থ হয়েছে?

শনিবার (৭ মে) নিজের সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বিকেল সাড়ে ৫টায় এ বৈঠক শুরু হয়। করোনাকালের দীর্ঘ আড়াই বছর পর অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের পূর্ণাঙ্গ এই বৈঠকে প্রায় সব কেন্দ্রীয় নেতা উপস্থিত রয়েছেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ কখনও ভোটে পেছনে ছিল না। ভোটপ্রাপ্তির পারসেন্টেজও বেশি ছিল। কিন্তু নানা ষড়যন্ত্র করে ভোটে পিছিয়ে রাখা হয়েছে। নানা ষড়যন্ত্রের মধ্যেও আওয়ামী লীগ এগিয়েছে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানই এ দেশের নির্বাচনে প্রহসন ও ভোট কারচুপির কালচার শুরু করেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ভোটের মাধ্যমেই ক্ষমতায় এসেছে। কখনও পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসেনি। বারবার ভোট দিয়ে ক্ষমতায় আনার জন্য দেশের জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জনগণ আওয়ামী লীগকে বারবার ভোট দিয়েছে। ভোট দিয়ে টানা তিনবার ক্ষমতায় রেখেছে। এই কারণে এই সরকারের সময় দেশের অনেক উন্নয়ন হয়েছে, মানুষের জীবনযাত্রার মান বেড়েছে।

তিনি বলেন, আমরা চাই দেশের গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকুক। অনেকেই আছেন, যারা অতিজ্ঞানী হলেও কম বোঝেন। তারা তাকিয়ে থাকেন কখন তারা ক্ষমতায় যেতে পারবেন, বসে থাকেন কখন সিগন্যাল আসবে। তারা বিদেশে গিয়ে দেশের বিরুদ্ধে বদনাম করেন। যেন বিদেশ থেকে এসে তাদের ক্ষমতায় বসাবে। কিন্তু এখনকার বাংলাদেশ সেটা নয়।

এবারের ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন হওয়ায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীসহ সংশ্নিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ এবার ঈদে নির্বিঘ্নে বাড়ি গেছে ও ফিরছে। মানুষ গ্রামের বাড়িতে গিয়ে ঈদ করে, উৎসব করে। এতে গ্রামে অর্থ সরবরাহ বাড়ে।

তিনি বলেন, আমার সরকারের সময় গ্রামের যাতায়াত ব্যবস্থা ভালো হচ্ছে। সরকার তৃণমূল থেকে উন্নয়ন করছে। গ্রামের অর্থনীতি শক্তিশালী করছে। পঁচাত্তর পরবর্তী সামরিক স্বৈরশাসকদের সমালোচনা করে সরকারপ্রধান বলেন, জিয়া-এরশাদ-খালেদা-তারেক সবাই মানুষ হত্যা করেছেন। জীবন্ত মানুষ পুড়িয়ে মেরেছেন। জিয়া-এরশাদ-খালেদা জিয়ার সময় ক্ষমতা ছিল ক্যান্টনমেন্টে। পাকিস্তানি স্টাইলে মিলিটারি ডিকটেটটরশিপ চালু করেছিলেন তারা।

নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে তিনি বলেন, বিএনপির নেতৃত্ব কোথায়? এই দলের দুজন নেতাই দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত। আর এদের সঙ্গে ডান বাম ও অতিবাম এসে যুক্ত হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আওয়ামী লীগ এ দেশের মাটি ও মানুষের দল। আওয়ামী লীগ গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় দল পরিচালনা করে। এই দলের নিয়মিত সম্মেলন হয়। ঘোষণাপত্রের অনেক কিছু বাস্তবায়ন করেছে। আগামী জাতীয় নির্বাচনের সময় এগিয়ে এসেছে জানিয়ে এখন থেকেই নির্বাচনী প্রস্তুতি শুরু করতে নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনের আগেই কিছু কাজ করতে হবে। দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। বিএনপি-জামায়াতের কুকর্ম মানুষকে মনে করিয়ে দিতে হবে।

টানা তিন মেয়াদে নিজের সরকার আমলে দেশ ও মানুষের কল্যাণে গৃহীত পদক্ষেপগুলো তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই বাংলাদেশে একটা মানুষও ভূমিহীন থাকবে না, গৃহহীন থাকবে না। সেভাবেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ঈদের আগে ৩৩ হাজার ঘর দিয়েছি, জুলাই মাসে আরও ৩৪ হাজার দেব। বাকি থাকবে আরও ৪৫ হাজার গৃহহীন পরিবার। এদেরও ঘর দিয়ে দিলে দেশে ভূমিহীন কেউ থাকবে না। দৃঢ়কণ্ঠে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, আমরা পরাধীনদের অনুসরণ করব না। নিজস্বভাবে দেশের উন্নয়ন করব। মাথা উঁচু করে চলব। প্রধানমন্ত্রীর সূচনা বক্তব্যের পর কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক শুরু হয়। শুরুতে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়।

শনিবারের বৈঠকে সমসাময়িক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ের পাশাপাশি সাংগঠনিক বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা রয়েছে। দলের জাতীয় কাউন্সিল, জেলা-উপজেলাসহ তৃণমূল সম্মেলন এবং মেয়াদোত্তীর্ণ সহযোগী-ভাতৃপ্রতীম সংগঠনের সম্মেলনের বিষয়েও আলোচনার কথা রয়েছে। এছাড়া আগামী ১৭ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, ২৫ মে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী, ৭ জুন ঐতিহাসিক ৬ দফ দিবস, ১১ জুন শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস, ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, ৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী, ৮ আগস্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী এবং ১৫ আগস্ট জাতির পিতার শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে দলের কর্মসূচি চূড়ান্ত করার কথাও রয়েছে।

এর আগে ২০২০ সালের মার্চে দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হয়ে রাজনীতিতে স্থবিরতা নেমে আসার পর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের দু-একটি বৈঠক করেছে। তবে করোনার স্বাস্থ্যবিধির কারণে সেগুলোতে নির্দিষ্ট ও কমসংখ্যক নেতার অংশগ্রহণের অনুমতি ছিল। এবারই প্রথম বৈঠকে পূর্ণাঙ্গ কার্যনির্বাহী সংসদের সব নেতারই অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।


আরও খবর