আজঃ শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত:বুধবার ১০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ মার্চ ২০২১ | ২৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক


চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের এক শিশু শিক্ষার্থীকে শিক্ষকের নির্মম নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। মায়ের কাছে ছুটে যাওয়ায় মো. ইয়াসিন ফরহাদ (৮) নামে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে অমানবিকভাবে পিটিয়েছেন ওই শিক্ষক। এই ঘটনায় সমালোচনার ঝড় বইছে। এদিকে এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে হাটহাজারী পৌরসভার ফটিকা গ্রামের মারকাজুল কোরআন ইসলামিক একাডেমিতে অভিযান চালিয়ে ওই মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মো. ইয়াহইয়াকে আটক করে পুলিশ। তবে ওই শিক্ষার্থীর বাবা-মা অভিযুক্ত ওই মাদ্রাসাশিক্ষককে ক্ষমা করে দিয়েছেন মর্মে একটি লিখিত বক্তব্য দেয়ায় প্রশাসন এ ঘটনায় দোষী শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি।

এর আগে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে মায়ের পেছনে ছুটে যাওয়ার কারণে ওই শিক্ষক অমানুষিকভাবে হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী ইয়াসিন ফরহাদকে প্রহার করে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও শিক্ষার্থীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে শিক্ষার্থী ইয়াসিন ফরহাদকে দেখতে যায় তার মা পারভিন আক্তার। দেখা শেষে ফিরে আসার সময় ইয়াসিন ফরহাদ তার মায়ের পেছন পেছন ছুটে আসে। এ সময় হেফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মো. ইয়াহইয়া তাকে ধরে এনে বেদম প্রহার করে। এদিকে ওই শিক্ষার্থীর ওপর শিক্ষকের অমানুষিকভাবে বেদম প্রহারের একটি ৩৩ সেকেন্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, তাকে নির্মমভাবে প্রহার করা হচ্ছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অনেকেই। তবে এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিষয়ে একাডেমিপ্রধানের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।


আরও খবর
সাজেকে আগুন, ৩ রিসোর্ট পুড়ে ছাই

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




নিউজিল্যান্ড দলে দুঃসংবাদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | ৫৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুবাইয়ে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপার লড়াইয়ে নামবে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। আর এমন মহারণের আগেই এক বড় দুঃসংবাদ ভেসে এলো নিউজিল্যান্ড শিবিরে।

ডান হাতের চোটে পড়ে ফাইনাল থেকে ছিটকে গেছেন কিউইদের অন্যতম সেরা ব্যাটার ও উইকেটকিপার ডেভন কনওয়ে। শুধু বিশ্বকাপ ফাইনালই নয়, ভারতের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজ থেকেও খেলতে পারছেন না তিনি।

নিউজিল্যান্ডের হেড কোচ গ্যারি স্টিডের বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডে (এনজেডসি)।

এক বিবৃতিতে এনজেডসি জানিয়েছে, ডান হাতের চোটের কারণে ফাইনাল ও আসন্ন ভারত সিরিজে খেলবেন না ডেভন কনওয়ে। এই মুহূর্তে তার (কনওয়ে) বাদ পড়াটা আসলেই হতাশাজনক। সে দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ। সে নিজেই সবচেয়ে বেশি হতাশ হয়েছে।

বাড়তি হতাশায় ভুগতেই পারেন কনওয়ে। কারণ ইচ্ছে করেই চোটে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি।

গত বুধবার আবুধাবিতে প্রথম সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৮ বলে ৪৬ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন কনওয়ে। হাফসেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৪ রান দূরে আউট হয়ে হতাশায় ব্যাটে সজোরে আঘাত করেন। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। ডান হাতের কবজিতে টান লাগে তার।

পরে এক্স-রে করানোর পর রিপোর্ট দেখে চোখ কপালে কনওয়ে ও নিউজিল্যান্ড টিম ম্যানেজমেন্টের। দেখা যায়, এ বাঁহাতি কিউই ব্যাটারের ডানহাতের পঞ্চম মেটাকার্পাল ভেঙে গেছে। কনওয়ের এমন কাণ্ডকে নির্বুদ্ধিতা বলে মন্তব্য করে হতাশা প্রকাশ করেছেন কিউই কোচ স্টিড।


আরও খবর



ঢাকা মেডিকেলের রান্নাঘরের পাশে মিলল যুবকের লাশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নতুন ভবনের রান্নাঘরের পাশ থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সকালে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

তাৎক্ষণিকভাবে ওই যুবকের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। বয়স আনুমানিক ৩৫ বছর। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফারুক আলম মণ্ডল জানান, মৃতদেহে বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। মৃত্যুর বিষয়ে এখনই বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পর্যবেক্ষণ করার পর মৃতদেহ মর্গে পাঠানো হবে।


আরও খবর



বিজয়ের মাসেই ফাইভ-জি

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিজয়ের মাসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা ফাইভ-জি যুগে প্রবেশ করবে। আগামী ১২ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় দেশে ৫জি প্রযুক্তির সেবা পরীক্ষামূলকভাবে শুভ উদ্বোধন করবেন।

বুধবার আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটি আয়োজিত ফাইভজি: দ্য ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি শীর্ষক সেমিনারে নিজ বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ কথা জানান।

তিনি বলেন, সরকারি মোবাইল অপারেটর টেলিটকের মাধ্যমে প্রাথমিক পর্যায়ে অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে ৫জি চালুর কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে। আগামী ১২ ডিসেম্বর সজীব ওয়াজেদ জয় দেশে ৫ জি প্রযুক্তির সেবা পরীক্ষামূলকভাবে শুভ উদ্বোধন করবেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রথমে ঢাকা শহরের গুরুত্বপূর্ণ কিছু সরকারি কার্যালয় ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানসমূহে সীমিত পরিসরে ৫জি সেবা চালু হবে। ২০২৩ সালের মধ্যে পর্যায়ক্রমে এই সেবা দেশের অন্যান্য বিভাগীয় শহর ও শিল্প প্রতিষ্ঠান-নির্ভর এলাকাসমূহে বিস্তারের পরিকল্পনা রয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ৫জি প্রযুক্তি সেবা কেবল গ্রাহকের মোবাইল ব্রডব্যান্ড ও ভয়েস কলের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়।

এ প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে শিল্প প্রতিষ্ঠান, সরকার ও এন্টারপ্রাইজ এবং ইউটিলিটি সার্ভিস প্রোভাইডাররা আইওটি, হিউম্যান টু মেশিন, মেশিন টু মেশিন ডিভাইস ব্যবহার করে ক্রিটিক্যাল মিশন সার্ভিস, স্মার্ট গ্রিড, স্মার্ট সিটি, স্মার্ট ফ্যাক্টরি সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে। মুজিব বর্ষে এটি একটি বিশাল উদ্যোগ। ৫জি প্রযুক্তির মাধ্যমে মোবাইল গ্রাহকরা অধিকতর উন্নত গুণগত মানের ভয়েস কল ও ৪জি হতে ২০ গুন দ্রুত মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারে সক্ষম হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ৫জির মাধ্যমে চালক বিহীন গাড়ি চলবে রাস্তায়। ফাইভ জি চালু হলে কল ড্রপের সংখ্যা কমে যাবে বলে আমরা আশা করছি। মানুষ ও ডিভাইসের মধ্যে তৈরি হবে জিরো ডিসটেন্স কানেক্টিভিটি। বিগডাটা, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার উন্নয়নে ৫জি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। ৫জি চালু হলে আমূল পরিবর্তন আসবে চিকিৎসা ও শিক্ষা খাতে। ভার্চুয়াল রিয়েলিটি কিংবা অগমেন্টেড রিয়েলিটির এক্সপেরিয়েন্স নেয়া ৫জির কল্যাণে আরো সহজ হয়ে যাবে।


নিউজ ট্যাগ: ফাইভ-জি

আরও খবর



স্কুলে অগ্নিকাণ্ডে ২৬ শিশু নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | ৫৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ নাইজারের একটি স্কুলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কমপক্ষে ২৬ শিশু নিহত হয়েছে। এদের বয়স পাঁচ থেকে ছয় বছরের মধ্যে। স্থানীয় সময় সোমবার দক্ষিণাঞ্চলীয় নাইজারে খড় ও কাঠ দিয়ে তৈরি স্কুলটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

মাত্র সাত মাস আগেই দেশটির রাজধানী নিয়ামেতে একই ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছিল। মারাদি শহরের মেয়র চাইবো আবু বকর বলেন, দুর্ঘটনায় ২৬ জন প্রাণ হারিয়েছে এবং ১৩ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে চারজনের অবস্থা বেশ গুরুতর। খবর এএফপির।

বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র দেশ নাইজার। নানা রকম প্রতিকূলতা স্বত্বেও দেশটি খড় ও কাঠের শেড নির্মাণ করে স্কুল ভবনের ঘাটতি মেটানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে। অনেক সময় শিশুদের মাটিতে বসেই পড়ালেখা করতে দেখা যায়।

প্রায়ই বিভিন্ন স্কুলের শ্রেণিকক্ষ পুড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে। সোমবারের ওই অগ্নিকাণ্ডের পর মঙ্গলবার থেকে তিন দিনের শোক ঘোষণা করেছে মারাদি অঞ্চল।

এর আগে রাজধানী নিয়ামেতে গত এপ্রিলে একটি স্কুলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ২০ শিশু নিহত হয়।

এক বিবৃতিতে নাইজার সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই দুঃখজনক ঘটনা নাইজারের মানুষকে আবারও শোকের মধ্যে ফেলেছে। খড় এবং কাঠের তৈরি ক্লাসরুম দেশে নিষিদ্ধ করা হবে বলেও জানানো হয়েছে।

নাইজারের টিচার্স ইউনিয়নের মহাসচিব ইসৌফৌ আরজিকা এএফপিকে বলেন, নিয়ামেতে দুর্ঘটনার পরই কাঠ ও খড়ের তৈরির স্কুল কতটা বিপজ্জনক সে বিষয়ে কর্মকর্তাদের সতর্ক করেছিলেন তারা।

তিনি বলেন, এর চেয়ে গাছের নিচেও ক্লাস নেওয়া ভালো। প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বাজুম সম্প্রতি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, এ ধরনের স্কুল বদলে দেওয়া হবে।

 


আরও খবর
ভারতে ধরা পড়ল ওমিক্রন

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




টিভি নাটকে নারীদের উপস্থিতি নিষিদ্ধ

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানে টিভি নাটকে নারীদের উপস্থিতি নিষিদ্ধ করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন তালেবান সরকার। নতুন আইন করে টিভি নাটকে নারীদের উপস্থিতি নিষিদ্ধ করল কট্টরপন্থি এই গোষ্ঠীটি। সোমবার (২২ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

এছাড়া নারী সাংবাদিক ও টেলিভিশনে কর্মরত উপস্থাপিকাদেরও হিজাব পরার নির্দেশনা দিয়েছে আফগান সরকার। যদিও তাদেরকে কোন ধরনের হিজাব পরতে হবে সেটি নতুন ওই গাইডলাইনে উল্লেখ নেই। আফগান সাংবাদিকরা বলছেন, আফগান সরকারের কিছু নিয়ম অস্পষ্ট এবং সেগুলোর ব্যাখ্যা প্রয়োজন।

গত আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময়ে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করে তালেবান। এরপর আশঙ্কা বাড়ছে যে, তালেবান কার্যত কট্টরপন্থার দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে এবং নারীদের ওপর কঠোর নিয়মকানুন আরোপ করছে।

বিবিসি বলছে, তালেবানের সর্বশেষ গাইডলাইনগুলো মূলত আফগান টেলিভিশন চ্যানোলগুলোকে লক্ষ্য করেই সামনে আনা হয়েছে। এই গাইডলাইনে ৮টি নতুন নিয়ম রয়েছে।

নতুন নিয়মে ইসলাম বা শরীয়াহ পরিপন্থি এবং আফগান মূল্যবোধের বিরুদ্ধে কোনো সিনেমা তৈরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া সিনেমার দৃশ্যে পুরুষের অনাবৃত শরীর দেখানোও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কৌতুক ও বিনোদনের অনুষ্ঠানগুলোতে ধর্মকে অসম্মান করে এমন এবং আফগানদের জন্য আক্রমণাত্মক হিসেবে মনে হতে পারে এমন অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একইসঙ্গে বিদেশি সংস্কৃতিকে ছড়িয়ে দিতে পারে এমন বিদেশি সিনেমা প্রদর্শনের ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

বিবিসি বলছে, আফগান টেলিভিশন চ্যানেলগুলো প্রধানত বিদেশি নাটকই প্রচার করে থাকে এবং সেসব নাটকের প্রধান চরিত্রেও থাকেন নারীরা।

আফগানিস্তানের গণমাধ্যম বিষয়ক একটি সংগঠনের সদস্য হুজাতুল্লাহ মুজাদ্দেদি তালেবানের নতুন এই বিধিনিষেধকে অপ্রত্যাশিত বলে আখ্যায়িত করেছেন। বিবিসিকে তিনি বলেছেন, তালেবানের আরোপিত নতুন নিয়মের কয়েকটি বাস্তবসম্মত নয় এবং এই নিয়ম কার্যকর হলে সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হয়ে যাবে।

তালেবানের নিষ্ঠুর শাসনের ভয় বিরাজ করছে আফগানিস্তানজুড়ে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত তালেবানের শাসনামলে নারীদের শিক্ষা ও চাকরির অধিকার ছিল না। তারা পুরুষসঙ্গী ছাড়া একা বাড়ি থেকে বের হতে পারতেন না।

এ কারণেই গত ১৫ আগস্ট তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের দখলে নেওয়ার পর থেকেই ব্যাপকভাবে এই উদ্বেগ জারি রয়েছে যে, আবারও হয়তো আফগানিস্তানের নারী ও মেয়েরা অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।


আরও খবর
ভারতে ধরা পড়ল ওমিক্রন

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1