আজঃ রবিবার ০১ অক্টোবর ২০২৩
শিরোনাম

লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বশিকপুরে আলাউদ্দিন (৪৫) নামে এক যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।  শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে বশিকপুরের পোদ্দার পুকুর পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আলাউদ্দিন ওই এলাকার রশিদপুর গ্রামের সাদেক পাটওয়ারীর ছেলে। তিনি বশিকপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। ওই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান ও এক সময়ের আলোচিত সন্ত্রাসী বাহিনীর প্রধান আবুল কাশেম জেহাদীর চাচাতো ভাই এবং সহযোগী ছিলেন তিনি। গুলিতে আলাউদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন জেলা সদর হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক কমলশীষ রায়। 

তিনি বলেন, রাত প্রায় ১১টার দিকে আলাউদ্দিনকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। এ সময় তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। পথেই তার মৃত্যু হয়েছে। মৃতদেহের বুকে গুলির চিহ্ন রয়েছে। 

স্থানীয়রা জানায়, আলাউদ্দিন মোটরসাইকেল যোগে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। পথে পোদ্দার দিঘির পাড়ে পৌঁছালে সেখানে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে। গুলির শব্দ শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। সেখানে পাশের একটি পুকুর পাড়ে পড়ে মুমূর্ষু অবস্থায় পড়ে থাকা আলাউদ্দিনকে উদ্ধার করে পোদ্দার বাজারের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। 

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মাহফুজ্জামান আশরাফ বলেন, আলাউদ্দিনের মৃত্যুর খবর শুনে হাসপাতালে এসেছি। পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলি। আমি ঘটনাস্থলে যাব। সেখান থেকে ফিরে বিস্তারিত বলতে পারব। 

আলাউদ্দিনের মৃত্যুর ঘটনায় হাসপাতালে ছুটে আসেন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সালাহউদ্দিন টিপুসহ দলীয় নেতাকর্মী। এ সময় নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন ঘটনার সঙ্গে বিএনপি লোকজন জড়িত বলে গণমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: গুলি করে হত্যা

আরও খবর



সুন্দর হস্তাক্ষর প্রতিযোগিতায় শেরপুরে পঞ্চম নুঝাত

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
মো. নাজমুল হোসাইন, শেরপুর

Image

শেরপুরের নকলা উপজেলার ছোট্ট বন্ধু মোশফিরাত তানিম নুঝাত সুন্দর হস্তাক্ষর প্রতিযোগিতায় জেলার মধ্যে পঞ্চম স্থান অধিকার করেছে।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা স্কাউট এর ব্যবস্থাপনায় ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সুন্দর হস্তাক্ষর প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে জেলার সব কয়টি উপজেলা থেকে ৪০ জন প্রতিযোগী অংশ গ্রহণ করে।

সুন্দর হস্তাক্ষর প্রতিযোগিতা শেষে বিচারকগণের রায়ে জেলার নকলা উপজেলার পৌরশহরের নকলা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মোশফিরাত তাসনিম নুঝাত জেলার মধ্যে পঞ্চম স্থান অধিকারী হিসেবে নির্বাচিত হয়।

পরে বিজয়ী বন্ধুদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ স্কাউট শেরপুর জেলার ব্যবস্থাপনায় এ পুরস্কার ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আব্দুল্লাহ আল খায়রুম।

এসময় জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, শিক্ষা কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত স্থানীয় সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।

এবিষয়ে মোশফিরাত তানিম নুঝাত এর বাবা মো. মোশারফ হোসাইন তার মেয়েকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন- আমার ছোট্ট মা মণি এভাবেই আস্তে আস্তে সামনের দিকে এগিয়ে চলবে এমনটাই কামনা করি। তাদের মতো আজকের শিশুরা হবে আগামী দিনের দেশের কান্ডারী। মোশফিরাত তাসনিম নুঝাতের মতো সকল শিশুদের উজ্জল ভবিষ্যৎ কামনায় নুঝাতের পরিবারের পক্ষ থেকে সকলের কাছে দোয়া কামনা করছি।


আরও খবর



চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনে দ্বিতল আধুনিক ভবনের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

Image

চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনের দ্বিতল আধুনিক ভবন কার পার্কিং, প্লাটফর্ম ও শেড  নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় চুয়াডাঙ্গা রেলস্টেশন চত্বরে এ উদ্বোধন করা হয়।

এসময় শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক ছেলুন (এমপি)।

এসময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল ইসলাম, বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক অসীম কুমার, রেলওয়ে পশ্চিমের প্রধান প্রকৌশলী আসাদুল হক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাফুজুর রহমান মনজু, ঠিকাদার আরেফিন আলম রঞ্জু, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলাউদ্দিন হেলা, প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে জানা যায়, ১০ কোটি ১৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ধরা হয়েছে। এ কাজ শেষ হতে সময় লাগবে ৫৪০ দিন।


আরও খবর



ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন এবং ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) জাকার্তার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। জাকার্তা থেকে ৮ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুরে যাবেন তিনি। গতকাল শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন।

তিনি জানিয়েছেন যে রাষ্ট্রপতি, তার স্ত্রী অধ্যাপক ড. রেবেকা সুলতানা এবং অন্য সফরসঙ্গীদের নিয়ে বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি (বিজি ১৯১০) ফ্লাইটে সোমবার দুপুরে হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (এইচএসআইএ) ত্যাগ করার কথা রয়েছে। বিমানটি সেদিনই সোয়া ৬টায় জাকার্তার সোয়েকার্নো-হাত্তা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে।

তিনি আরও জানান, অটিজম ও নিউরোডেভেলপমেন্ট ডিসঅর্ডার বিষয়ক জাতীয় উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপারসন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনও সফরে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে থাকবেন।

বঙ্গভবনের এই মুখপাত্র বলেন, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং ২০২৩ সালের আসিয়ান চেয়ার জোকো উইডোডোর (যিনি জোকোই নামে পরিচিত) আমন্ত্রণে রাষ্ট্রপতি জাকার্তা কনভেনশন সেন্টারে (জেসিসি) ৫ থেকে ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ৪৩তম আসিয়ান (দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর সংস্থা) শীর্ষ সম্মেলনে এবং ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন। রাষ্ট্রপতি জাকার্তার হোটেল লে মেরিডিয়ানে প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে অবস্থান করবেন।

এদিকে প্রবৃদ্ধির কেন্দ্রবিন্দু প্রেক্ষিত-আসিয়ান থিমকে সামনে রেখে জাকার্তায় ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন তিন দিনব্যাপী ব্যস্ত কর্মসূচির মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনের পাশাপাশি ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনেও যোগ দেবেন। গেস্ট অব চেয়ার হিসেবে আঞ্চলিক স্থাপত্যকে শক্তিশালী করার বিষয়ে সমাপনী ভাষণ দেবেন।

এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোডো এবং থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া এবং তিমুর-লেস্টের আরও কয়েকজন রাষ্ট্রীয় নেতার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন।

৬ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপতি হুতান কোটা গেলোরা বুং কার্নোতে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকোই কর্তৃক আয়োজিত গালা নৈশভোজে যোগ দেবেন। ৪৩তম আসিয়ান সম্মেলনের সময় ১২টি সভায় সভাপতিত্ব করবেন ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডো ।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেন, রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের সফরে বাংলাদেশ-ইন্দোনেশিয়ার মধ্যে জ্বালানি ও স্বাস্থ্য সহযোগিতা নিয়ে বিভিন্ন খাতে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা ছাড়াও দুটি সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন এবং ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলন শেষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও তার স্ত্রী অধ্যাপক ড. রেবেকা সুলতানা স্বাস্থ্যের পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে জাকার্তা ত্যাগ করবেন। সূচি অনুযায়ী ১৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে (বিজি-৫৮৫) সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরবেন রাষ্ট্রপতি। 

আরও পড়ুন>> এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে চালু হওয়ায় খুশি উত্তরাবাসী

প্রসঙ্গত, আসিয়ান হচ্ছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ১১টি দেশের একটি আন্তঃসরকারি সংস্থা, যার মধ্যে ব্রুনাই দারুসসালাম, কম্বোডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, লাও পিডিআর, মালয়েশিয়া, মায়ানমার, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম এবং তিমুর লেস্টে বা পূর্ব তিমুর দেশসমূহ রয়েছে।

আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, নিরাপত্তা এবং সামাজিক-সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সম্পর্কিত সদস্যদেও একটি দ্বিবার্ষিক সভা। এ ছাড়া এটি একটি বিশিষ্ট আঞ্চলিক (এশিয়া) এবং আন্তর্জাতিক (বিশ্বব্যাপী) সম্মেলন হিসেবে কাজ করে, যাতে বিশ্বনেতারা বিভিন্ন সমস্যা ও বৈশ্বিক সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে, সহযোগিতা জোরদার করতে এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য এ সম্পর্কিত শীর্ষ সম্মেলন এবং বৈঠকে যোগদান করেন।

আসিয়ান সচিবালয়ের তথ্য অনুযায়ী, পরে ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনের (ইএএস) সভাপতিত্ব করবেন, যা ১০টি আসিয়ান দেশ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ফেডারেশন, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া এবং ভারতসহ ১৮ সদস্য নিয়ে গঠিত।

ওয়েবসাইটে সংবাদ বিজ্ঞিপ্তিতে বলা হয়, প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ ফোরামের নেতারা, কানাডার প্রধানমন্ত্রী, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) নির্বাহী পরিচালক এবং বিশ্বব্যাংকও জাকার্তায় ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন। 

আরও পড়ুন>> নোবেল পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে রাশিয়াসহ তিন দেশের আমন্ত্রণ বাতিল

৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে দক্ষিণ চীন সাগর, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া পারমাণবিক অস্ত্র মুক্ত অঞ্চল (এসইএএনডব্লিউএফজেড), আসিয়ান মেরিটাইম আউটলুক, ইন্দো প্যাসিফিকের আসিয়ান আউটলুক (এওআইপি) সম্পর্কিত আচরণবিধি এবং মিয়ানমারের বিষয়সহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে।

জাকার্তায় ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ চুক্তিও প্রণয়ন করবে, যেমন আসিয়ান অবকাঠামো শক্তিশালীকরণ, খাদ্য নিরাপত্তা, সুনীল অর্থনীতি এবং সবুজ অর্থনীতি। সেই সঙ্গে ডিজিটাল অর্থনীতি এবং পেমেন্ট ইকোসিস্টেম সম্পর্কিত চুক্তির বিষয় রয়েছে।


আরও খবর



অভিনয় না করেও যেভাবে কোটি টাকা আয় করেন মালাইকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বয়স বাড়লেই যে মানুষের গ্ল্যামার চলে যাবে তা কিন্তু নয়। অনেকের বয়স বাড়লেও সেটা বুঝতে পারা যায় না। বয়স যে নিজের হাতে তা বুঝিয়ে দিয়েছেন ছাইয়া ছাইয়া গার্ল মালাইকা অরোরা। এখনো সঠিকভাবে নিজের গ্ল্যামার সঠিকভাবেই ধরে রেখেছেন তিনি। কালেভদ্রে আইটেম গানে কোমর দোলালেও অভিনয়ে তাকে সেভাবে পাওয়া যায়নি। তবুও মাসে মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করেন তিনি। এখন প্রশ্ন হলো, তার আয়ের উৎস কী?

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মালাইকা একটা আইটেম ড্যান্স করতে যা টাকা নেন, তা একজন নায়িকা গোটা ছবির জন্য পান না। এ জন্য দুই কোটি টাকা নেন তিনি। মডেলিং ও ফ্যাশন শোয়ের জন্য নেন তিন থেকে সাত লাখ টাকা। আর রিয়েলিটি শোয়ের জন্য এপিসোডপ্রতি লাখ টাকার বেশি নেন। এসব রোজগারের মাধ্যমে ২০২২ সালে মালাইকার সম্পত্তির পরিমাণ ১০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। 

আরও পড়ুন>> প্রতারণার অভিযোগে জেরিন খানের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বরাবরই আলোচনায় থাকেন মালাইকা অরোরা। আরবাজ খানের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর হাঁটুর বয়সী অর্জুন কাপুরের সঙ্গে লিভ-ইন করছেন তিনি। যদিও ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর মানলে, আজকাল তাদের সম্পর্কটা ভালো যাচ্ছে না। শোনা যাচ্ছে, প্রেমের সম্পর্কে ইতি টানতে চলেছেন তারা।

মালাইকা এখনো যেভাবে নিজেকে গ্ল্যামারাস রেখেছেন তাতে অনেকেই তাকে ঈর্ষার চোখে দেখে থাকেন। বেশির ভাগ মানুষ যেটা বলেন যে নারীর ৩৬-২৪-৩৬ মাপ হলো সেক্সি মাপ। আর মালাইকা এই বয়সে এসেও ৩৬-২৪-৩৬ মাপ ঠিক ধরে রেখেছেন। আর প্রতিদিন নিয়ম করে জগিং বা অন্যান্য এক্সারসাইজ তাকে এখনো ঠিক আগের মতোই সুন্দর রেখেছে।


আরও খবর



গণমাধ্যমের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা

পিটার হাসের সঙ্গে ভিন্নমত মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

দুই দিন আগে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নীতিতে বাংলাদেশি গণমাধ্যমকর্মীদেরও অন্তর্ভুক্ত করা হতে পারে। তবে তার এ বক্তব্যের সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বা ডিপার্টমেন্ট অব স্টেট।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) পররাষ্ট্র দপ্তরের নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব নয়, বরং বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, ক্ষমতাসীন দল ও বিরোধী দলের সদস্যদের ওপরই ভিসা নীতি কার্যকর হয়েছে।

এদিন সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি উত্থাপন করেন বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের ওয়াশিংটন প্রতিনিধি। এ সময় পিটার হাস যা বলেছেন, তার সঙ্গে দ্বিমত প্রকাশ করেন মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার। বলেন, যারা ভিসা নীতির আওতায় পড়েছেন, তাদের নাম নির্দিষ্ট করে প্রকাশ করা হয়নি। তবে এ তালিকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, ক্ষমতাসীন দল ও বিরোধী দলের সদস্যরা রয়েছেন। 

আরও পড়ুন>> এবার বিশ্বের ২৮ প্রতিষ্ঠানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

বাংলাদেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্যই এ ভিসা নীতি ঘোষণা করা হয়েছে বলেও জানান মিলার। তিনি বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচনে কোনো পক্ষ নেওয়ার জন্য ভিসা নীতি ঘোষণা করা হয়নি। বরং একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করতেই এমন পদক্ষেপ।

এদিন ভিসা নীতি ছাড়াও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা ইস্যুতে দলটি ৪৮ ঘণ্টার যে আলটিমেটাম দিয়েছে, তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান জানতে চান খালেদা জিয়ার সাবেক সহকারী প্রেস সচিব মুশফিকুল ফজল আনসারী। তবে, সে প্রশ্নের কোনো উত্তর দেননি মিলার। 

আরও পড়ুন>> ভিসানীতিতে পোশাক রপ্তানিতে প্রভাব পড়বে না: বিজিএমইএ

বাংলাদেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনে নজরদারির কথা বলে গত মে মাসে নতুন ভিসা নীতি ঘোষণা করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশে এই ভিসা নীতির প্রয়োগ শুরু হয়েছে। তবে এ নীতির আওতায় পড়া ব্যক্তিদের নামের তালিকা এখনো প্রকাশ করেনি হোয়াইট হাউজ।


আরও খবর