আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে আ.লীগের প্রার্থী রিফাত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৫২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত।

শুক্রবার (১৩ মে) গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় ১৪ জনের মধ্যে রিফাতকে বেছে নেওয়া হয়।

আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

কুমিল্লা সিটিতে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হওয়ার জন্য মনোনয়ন সংগ্রহ করেছিলেনসংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আঞ্জুম সুলতানা সীমা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও আওয়ামী লীগের দপ্তর উপ-কমিটির সদস্য মোহাম্মদ শাহজাহান, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরকানুল হক রিফাত, কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মাসুদ পারভেজ খান, কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মাহাবুবুর রহমান, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ওমর ফারুক, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য জাকির হোসেন, অধুনালুপ্ত কুমিল্লা পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা শ্যামল চন্দ্র ভট্টাচার্য, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কাজী ফারুক আহমেদ, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক নূর উর রহমান তানিম, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষা সম্পাদক কবিরুল ইসলাম শিকদার, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আনিসুর রহমান প্রমুখ।

গত ২৫ এপ্রিল নির্বাচন কমিশন কুসিকের পাশাপাশি তিনটি উপজেলা পরিষদ, ছয়টি পৌরসভা এবং অষ্টম ধাপে ১৩৫টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে।


আরও খবর



করলার ক্ষতিকর পোকা দমন পদ্ধতি জেনে নিন

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৩ মে ২০২২ | ২০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আমাদের দেশে করলা একটি জনপ্রিয় সবজি। এই সবজি এখন সারা বছরই চাষ করা হয়। করলা চাষ করতে গেলে বেশ কিছু রোগ-বালাইয়ের সমস্যায় পড়তে হয়। যেমন,- মাছি পোকা ও পামকিন বিটল পোকা করলার চাষিদের ক্ষতি করে। এসব পোকা করলা ছিদ্র করে। এতে করলা খাওয়ার অনুপযোগী হয় এবং পচে যায়। ফলে লোকসান গুনতে হয় চাষিদের। মাছি পোকা করলার অন্যতম শত্রু। এতে আক্রান্ত হওয়া হলে স্ত্রী মাছি কচি ফলের নিচের দিকে ওভিপজিটর ঢুকিয়ে ডিম পাড়ে। ডিম পাড়ার স্থান থেকে পানির মতো তরল পদার্থ বেড়িয়ে আসে যা শুকিয়ে বাদামি রং ধারণ করে। ডিম থেকে কীড়া বের হয়ে ফলের শাস খেতে শুরু করে এবং ফল হলুদ হয়ে পচে ঝরে যায়।

মাছি পোকায় আক্রান্ত হলে করলা বা ফুল সংগ্রহ করে ধ্বংস বা পুড়ে ফেলতে হবে। উত্তমরূপে জমি চাষ দিয়ে পোকার পুত্তলি পাখিদের খাবার সুযোগ করে দিতে হবে। ক্ষেতের মাঝে মাঝে কাঁঠালের (কাঁঠালের মৌসুমে) মোথা দেয়া, এতে করলার পরিবর্তে স্ত্রী মাছি কাঁঠালের মোথায় ডিম পাড়বে এবং ক্ষতির পরিমাণ কমে আসবে। প্রথম ফুল আসা মাত্র ফেরোমন ফাঁদ স্থাপন করতে হবে। প্রতি ১০ শতাংশের জন্য ৩টি করে এই ফাঁদ স্থাপন করতে হবে। আম বা খেজুরের রসের মৌসুমে এতে সামান্য বিষ মিশিয়ে তা বোতলে রেখে বোতলের গায়ে জানালার মতো কেটে দিয়ে ক্ষেতের মাঝে মাঝে স্থাপন করতে হবে। এতে পোকা ঢুকলে মারা যাবে। এছাড়া পাকা মিষ্টি কুমড়া বা কুমড়া জাতীয় সবজি ১০০ গ্রাম কুচি কুচি করে কেটে তাতে সামান্য বিষ (যেমন,- সপসিন ০.২৫ গ্রাম) মিশিয়ে তা দিয়ে বিষটোপ তৈরি করে মাটির পাত্রে করে ক্ষেতের মাঝে মাঝে স্থাপন করতে হবে। সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক ১ মি.লি. হারে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে। স্প্রে করার পর ১৫ দিনের মধ্যে সেই সবজি খাওয়া বা বিক্রি করা যাবে না।

সাদা মাছি পোকাও করলাকে আক্রণ করে। সাদা স্ত্রী মাছি কচি ফলে ডিম পাড়ে। ডিম ফুটে কীড়াগুলো ফলের শাস খায়, ফল পচে যায় এবং অকালে ঝরে পড়ে। সাদা মাছিতে আক্রমণ করলে দ্রুত দমনের ব্যবস্থা নিতে হবে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন চাষাবাদ, আক্রান্ত অংশ সংগ্রহ করে ধ্বংস করতে হবে। সেক্স ফেরোমন ও বিষটোপ ফাঁদের যৌথ ব্যবহার করতে হবে। বিষটোপের জন্য থেতলানো ১০০ গ্রাম পাকা মিষ্টি কুমড়ার সাথে ০.২৫ গ্রাম সেভিন ৮৫ পাউডার মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে। বিষটোপ ৩-৪ দিন পরপর পরিবর্তন করতে হবে। পামকিন বিটল পোকাও করলার ভীষণ ক্ষতি করে। এই পোকা চারা গাছের পাতা ফুটো করে খায়। গাছের শিকড়ের ক্ষতি করে এবং বড় গাছ মেরে ফেলতে পারে। এই পোকা দমন করার উপায় জেনে নিন। আক্রান্ত গাছ থেকে পূর্ণাঙ্গ পোকা হাতে ধরে মেরে ফেলতে হবে।

চারা অবস্থায় ২০-২৫ দিন চারা মশারির জাল দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। প্রতি লিটার পানিতে ২ গ্রাম সেভিন বা কার্বারিন-৮৫ মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে। কীড়া দমনের জন্য প্রতিটি গাছের গোড়ায় ২-৫ গ্রাম বাসুডিনবা ডায়াজিনন ১০ জি মিশিয়ে সেচ দিতে হবে। স্প্রে করার পর ১৫ দিনের মধ্যে সেই সবজি খাওয়া বা বিক্রি করা যাবে না। করলার ভাইরাসজনিত মোজাইক রোগও বেশ ক্ষতিকর। এ রোগে আক্রান্ত হলে গাছে হলুদ ও গাঢ় সবুজ ছোপ ছোপ মোজাইক করা পাতা দেখা দেয়।

এ ভাইরাসে আক্রান্তের হাত থেকে রক্ষা পেতে হলে রোগমুক্ত বীজ বপন করতে হবে। ক্ষেতে সুষম সার ব্যবহার এবং ক্ষেত থেকে আক্রান্ত গাছ তুলে ফেলতে হবে। জাব পোকা ও সাদা মাছি এ রোগের বাহক, তাই এদের দমনের জন্য ইমিডাক্লোরোপ্রিড গ্রুপের কীটনাশক। যেমন,- এডমায়ার ১ মি.লি. হারে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে। স্প্রে করার পর ১৫ দিনের মধ্যে সেই সবজি খাওয়া বা বিক্রি করা যাবে না।

তথ্যসূত্র: কৃষি বাতায়ন


আরও খবর



নিউমার্কেটে সংঘর্ষ: ঢাকা কলেজের ৫ শিক্ষার্থী গ্রেফতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর নিউমার্কেটে ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের সময় কুরিয়ার সার্ভিসকর্মী নাহিদকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ঢাকা কলেজের পাঁচ শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের গোয়ন্দো শাখা (ডিবি)।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, আমরা সংঘর্ষে ঘটে যাওয়া দুইটি হত্যা মামলার তদন্ত করছিলাম। এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাঁচ জনকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি।

গ্রেপ্তাররা হলেন- ঢাকা কলেজের হিসাব বিজ্ঞানের ছাত্র আব্দুল কাইয়ূম ও পলাশ, সমাজ বিজ্ঞানের ছাত্র ইরফান, বাংলা বিভাগের ছাত্র ফয়সাল ও ইতিহাস বিভাগের জুনায়েদ ইসলাম। গ্রেপ্তাররা নাহিদ হত্যায় প্রত্যক্ষভাবে অংশ নেয় বলে জানান ডিবি প্রধান।

উল্লেখ্য, গত ১৮ এপ্রিল রাতে ও ১৯ এপ্রিল দুপুরে নিউমার্কেটের দোকান-মালিক ও কর্মচারীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষ হয়। এতে নাহিদ ও মোরসালিন নামে দুজনের প্রাণহানি এবং অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হন। এ ঘটনায় অন্তত তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে।

এরপর গত ২৪ এপ্রিল বিকেল পাঁচটায় ঢাকা কলেজের আন্তর্জাতিক ছাত্রাবাসের ১০১ নম্বর কক্ষে অভিযান পরিচালনা করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও ডিবির সদস্যরা।


আরও খবর



কলকাতার আরেক পরিচালকের সঙ্গে মিথিলার প্রেমের গুঞ্জন!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ | ২৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তার ক্যারিয়ারজুড়েই ছিল বিভিন্ন গুঞ্জন। নানা সময়ে নানা গুঞ্জন ডালাপালা মেলেছে তাকে ঘিরে। তিনি বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াত রশীদ মিথিলা। বর্তমানে ওপার বাংলার পরিচালক সৃজিত মুখার্জির ঘরণী তিনি। গায়ক তাহসানের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর সৃজিত মুখার্জির প্রেমে পড়েন মিথিলা। পরে তাকে বিয়েও করেন। দুই বছরের বেশি সময় ধরে সংসারও করছেন।

বেশ সুখেই আছেন দুজন। এমনটাই জানা যায় তাদের নানা পোস্ট ও ছবির বদৌলতে। এরই মধ্যে কলকাতার বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছড়িয়েছে আবারও নাকি প্রেম করছেন মিথিলা।

জানা গেছে, কলকাতার পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্যের সঙ্গে নাকি বিশেষ বন্ধুত্ব তৈরি হয়েছে মিথিলার। সহজভাবে বলা যায়, এই পরিচালকের সঙ্গে গোপনে প্রেম করছেন সৃজিতের ঘরনী স্ত্রী। টালিউড অন্দরমহলে কান পাতলে এমনটাই শোনা যাচ্ছে।

তবে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে দেবালয় এ নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন। তিনি জানান, তারা শুধুই বন্ধু। এর বাইরে মিথিলার সঙ্গে তার কোনো বিশেষ সম্পর্ক নেই। তার ভাষায়, মিথিলার সঙ্গে আগে আলাপ ছিল না। শুটিং সেটেই আলাপ হয়েছে। আর হ্যাঁ, মিথিলার সঙ্গে বন্ধুত্বটা খুব ভালো। তিনি অসম্ভব ইন্টারেস্টিং, শিক্ষিত ও বুদ্ধিমতী নারী। তার সঙ্গে গল্প করতে খুব ভালো লাগে। গানের সেন্স খুব ভালো। যদিও কাজ শেষ হয়ে গেছে। এখন খুব একটা কথা হয় না। আবার দেখা হলে আড্ডা হবে অবশ্যই।

দেবালয় আরও বলেন, এসব বিষয় কানে আসে, খুব মজাই লাগে। সারাক্ষণই চলে এগুলো। আর মিথিলার মতো বন্ধু পেলে ভালোই লাগবে। ও কলকাতায় থাকলে একসঙ্গে চা-কফি খেতাম, আড্ডা হতো। আর মিথিলার বন্ধুর পরিধিটাও বিরাট। ভালোই লাগবে সেক্ষেত্রে।

সম্প্রতি দেবালয়ের মন্টু পাইলট-টু সিরিজে বহ্নি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিথিলা। এতে মিথিলার অভিনয় ভালো লাগেনি অনেকের। সমালোচকরা বলছেন, তিনি খুব দুর্বল অভিনয় করেছেন। যদিও পরিচালক সেটা মানতে নারাজ।


আরও খবর



দেবরকে মাংস খাওয়ানোর কথা বলে হত্যা করল ভাবি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার সাতনা গ্রামে মুরগীর মাংস খায়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে গিয়ে শিশু দেবর লাবিব হোসেনকে (৪) শ্বাসরোধ করে হত্যার করেছে আপন বড় ভাইয়ের স্ত্রী রিমা আক্তার (১৮)।

মঙ্গলবার দুপুরে নিজ বাড়ি থেকে শিশু দেবরকে হত্যার ঘটনায় রিমা আক্তারকে আটক করা হয়। পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিহত শিশু-পাঁচবিবি উপজেলার সাতানা গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৯ মাস আগে সাতানা গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে মেফতাউল হাসানের সঙ্গে রিমা আক্তারের বিবাহ হয়। বিবাহের কিছুদিন পর থেকে পুত্রবধু ও শ্বশুর-শাশুড়ির ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। মঙ্গলবার সকালে মুরগীর মাংস খাওয়ানোর কথা বলে শ্বাশুড়ির কাছ থেকে শিশু লাবিবকে ডেকে নিয়ে গিয়ে ঘরের মধ্যে  শ্বাসরোধের পর হত্যা করে বিছানায় শুয়ে রাখেন ভাবি। বাড়িতে শিশু লাবিবকে দেখতে না পেয়ে পুত্রবধুর ঘরে ঢুকে শিশুটির মরদেহ দেখতে পান শিশুটির মা। বিষয়টি জানাজানি হলে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে দুপুরে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং এঘটনায় ভাবি রিমা আক্তার গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যার দায় স্বীকার করেছে। পারিবারিক কলহের জেরে শিশুটিকে তার ভাবী হত্যা করে থাকতে পারেন বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ধারণা করেছে।


আরও খবর



শিগগিরই ‘সুখবর’ আসছে আফগান নারী শিক্ষার্থীদের জন্য

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৩১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের নারী শিক্ষার্থীদের জন্য শিগগিরই সুখবর আসছে। দেশটিতে ক্ষমতাসীন তালেবান সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিরাজউদ্দিন হাক্কানি মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন।

সাক্ষাৎকারে হাক্কানি বলেন, আফগান মেয়েদের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা ব্যবস্থায় কিছু সংস্কারের প্রয়োজন ছিল, সেসব এখন শেষ পর্যায়ে। খুব শিগগিরই আপনারা এ বিষয়ে সুখবর পাবেন।

তালেবান গোষ্ঠীর অন্যতম জ্যেষ্ঠ নেতা সিরাজুদ্দিন হাক্কানি একই সঙ্গে এ গোষ্ঠীর সহযোগী বাহিনী হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রধান। গত ২০ বছরে আফগানিস্তানে সবচেয়ে ভয়াবহ যেসব হামলার ঘটনা ঘটেছে, সেসবের কয়েকটির জন্য দায়ী এই হাক্কানি নেটওয়ার্ক। এসব হামলার জন্য কয়েক বছর আগে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের মোস্ট ওয়ান্টেড আসামির তালিকায় তার নাম উঠেছে। তাকে গ্রেপ্তার বা গ্রেপ্তারে সহায়ক হতে পারে, এমন তথ্যের জন্য ১ কোটি ডলার পুরস্কারও ঘোষণা করেছে এফবিআই।

যেসব তালেবান নেতা নিজেদের আড়ালে রাখতে ভালবাসেন, তাদের মধ্যেও অন্যতম সিরাজুদ্দিন হাক্কানি। এ কারণে সিএনএনকে দেওয়া তার সম্প্রতিক এই সাক্ষাৎকারটিকে বিরল হিসেবেই বিবেচনা করেছে এএফপিসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম। ২০২১ সালের মার্চে আফগানিস্তানে ২০ বছর ধরে চলা যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ওই বছর আগস্টের মধ্যে দেশটি থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি।

তার সেই প্রতিশ্রুতির মাত্র চার মাসের মধ্যে ত্বরিৎ গতিতে দেশের ক্ষমতা দখল করে তালেবান, যারা ২০০১ সালে এই মার্কিন বাহিনীর অভিযানেই ক্ষমতা হারিয়েছিল।

এদিকে, কট্টর ইসলামপন্থী তালেবান বাহিনী ক্ষমতা দখলের পর থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয় আফগানিস্তানের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক মেয়েস্কুলগুলো। ব্যাপক আন্তর্জাতিক চাপের মুখে চলতি বছর মার্চের শেষ দিকে মেয়ে স্কুলগুলো খুলে দেওয়া হলেও কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ফের সেসব বন্ধ করে দেওয়া হয়।

তালেবান বাহিনীর শীর্ষ নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার নির্দেশই এর মূল কারণ। তবে স্কুল খুলেও বন্ধ করে দেওয়ার এই পদক্ষেপে ব্যাপক ক্ষুব্ধ হন সাধারণ আফগান জনগণ ও আন্তর্জাতিক বিশ্ব। তবে সিএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হাক্কানি দাবি করেন, তালেবান গোষ্ঠী নারী শিক্ষার বিরোধী নয়। তিনি বলেন, আমি পরিষ্কারভাবে বলতে চাই আফগানিস্তানে কেউই নারী শিক্ষার বিরোধী নয়।

সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক বিশ্বের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে আগ্রহী তালেবান সরকার। ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যে চুক্তি হয়েছিল, সেটির প্রতিও তালেবান শ্রদ্ধাশীল বলে উল্লেখ করেছেন হাক্কানি। গত ২০ বছরের যুদ্ধ শেষ হয়ে গেছে। আমরা যুক্তরাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক বিশ্বের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপন করতে চাই; কাউকে শত্রু মনে করি না আমরা।

নিউজ ট্যাগ: তালেবান

আরও খবর