আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

কুলাউড়ায় আরও জঙ্গি আস্তানার সন্ধান মিলেছে: সিটিটিসি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৫ আগস্ট ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৫ আগস্ট ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

Image

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার পাহাড়ে আরও জ‌ঙ্গি আস্তানার সন্ধান মিলেছে। আগামীকাল সেখানে অভিযান চালাবে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। সোমবার (১৪ আগস্ট) রাতে উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নে প্রেস বিফিংয়ে এ তথ্য জানান সিটিটিসির প্রধান মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান।

এর আগে সকালে উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নে জঙ্গি সন্দেহে আরও ১৭ জনকে আটক করেন স্থানীয়রা। তাদেরকে কর্মদা ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয়ে রাখা হয়। সেখানে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন তাদের ঘিরে রাখে। সন্ধ্যায় সিটিটিসির সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসেন।

সিটিটিসির প্রধান মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, সকালে কর্মধা ইউনিয়নের আছকরাবাদ বাজার থেকে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে আটক করে। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটও খবর পেয়ে আসে।

তিনি বলেন, আটককৃতরা জঙ্গি সংগঠন ইমাম মাহমুদ কাফেলার সদস্য বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। আমরা আগেই বলেছিলাম যে তাদের আরও আস্তানা এখানে আছে। এরই ধারাবাহিকতা থেকে আজ তারা আস্তানা থেকে পালানোর চেষ্টা করছিল। তারপর আজ তাদের আটক করা হয়। যেহেতু এখানে অনেক ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার আছে তাদেরকে আরও গভীর জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন। যার কারণে আমরা আগামীকাল সকালে ওই এলাকায় আবার অভিযান চালাবো। এখন পর্যন্ত অভিযানের স্বার্থে তাদের পরিচয় কিংবা অন্য কিছু নিশ্চিতভাবে বলা যাবে না।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (১২ আগস্ট) ভোরে কুলাউড়ার কর্মধা ইউনিয়নে বাইশালী নামক ওই পাহাড়ি টিলায় সিটিটিসি, সোয়াট, জেলা পুলিশ ও কুলাউড়া থানা পুলিশ অভিযান চালায়। শুক্রবার রাত ৮টা থেকে ওই বাড়ি ঘিরে রাখে সিটিটিসি ও স্থানীয় পুলিশ। অভিযানের নাম দেওয়া হয় অপারেশন হিলসাইড 

এ সময় ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই নব্য জঙ্গি সংগঠন ইমাম মাহমুদের কাফেলার সদস্য। তাদের আস্তানা থেকে প্রায় তিন কেজি বিস্ফোরক, ৫০টির মতো ডেটোনেটর, তিন লাখ ৬১ হাজার টাকা, প্রশিক্ষণ সামগ্রী, কমব্যাট বুট এবং কয়েক বস্তা জিহাদি বই জব্দ করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সিরাজগঞ্জের কাজীপুর থানার রাফিউল ইসলাম (২২), কিশোরগঞ্জের ইটনা থানার হাফিজ উল্লাহ (২৫), নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার খায়রুল ইসলাম (২২), তার স্ত্রী মেঘনা (১৭), সাতক্ষীরার শরিফুল ইসলাম (৪০), পাবনার আটঘরিয়া থানার আব্দুছ ছত্তারের স্ত্রী শাপলা বেগম (২২), সিরাজগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সোহেল তানজিমের স্ত্রী মায়েশা ইসলাম (২০), বগুড়ার সারিয়াকান্দি থানার সুমন মিয়ার স্ত্রী সানজিদা খাতুন (১৮), সাতক্ষীরার তালা থানার শফিকুল ইসলামের স্ত্রী আমিনা বেগম (৪০) এবং তার মেয়ে হাবিবা (২০)। এ ছাড়াও অভিযানে তিন শিশুকেও হেফাজতে নেয় সিটিটিসি।


আরও খবর



বাবা হারালেন চিত্রনায়িকা পপি

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ঢাকাই সিনেমার এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভিন পপির বাবা আমির হোসেন আর নেই। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তথ্যটি নিশ্চিত করেছে পপির পারিবারিক একাধিক ঘনিষ্টজন।

তারা জানান, আজ সকাল সাড়ে ৬টায় পপির বাবা শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মরদেহ ঢাকা থেকে খুলনায় নিয়ে যাওয়া হবে। জানাজা শেষে সেখানেই পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

পপির বাবা আমির হোসেন দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। বেশ কয়েক মাস ধরে তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে ছিলেন।

এদিকে, একাধিক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনায়িকা পপি দীর্ঘ তিন বছর ধরে আড়ালে আছেন। হঠাৎ করেই শোবিজ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন এই অভিনেত্রী। প্রথম দিকে পপির এ অনুপস্থিতিকে স্বাভাবিক মনে করেছিলেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু সময় যতই এগোতে থাকে ততই তাকে ঘিরে ধোঁয়াশা তৈরি হয়।

জানা যায়, গোপনে সংসার পেতেছেন পপি। সেই সংসারে রয়েছে একটি সন্তানও। ২০২১ সালের অক্টোবরে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে পুত্র সন্তানের জন্ম দেন এই চিত্রনায়িকা। বর্তমানে স্বামী-সন্তান নিয়ে ধানমন্ডি বসবাস করছেন পপি।


আরও খবর



মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আট ভারতীয় গুপ্তচরকে ছেড়ে দিলো কাতার

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

কাতারে ইসরায়েলের হয়ে গুপ্তচরগিরির দায়ে গত বছরের অক্টোবরে ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক আট কর্মকর্তাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি। গত বছরের শেষ দিকে তাদের সাজার মেয়াদ কমানো হয়। তবে ব্যাপক কূটনৈতিক তৎপরতায় অবশেষে ছাড়া পেয়েছেন তারা। খবর এনডিটিভির।

ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক আট কর্মকর্তার মধ্যে সাতজন ইতিমধ্যে দেশে ফিরে এসেছেন। তারা দীর্ঘ ১৮ মাস কাতারের কারাগারে বন্দি ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, কাতারে বন্দি আট ভারতীয়র ফিরে আসার বিষয়টিকে স্বাগত জানাচ্ছে ভারত সরকার। তারা দাহরা গ্লোবাল কোম্পানির হয়ে কাজ করতেন। আটজনের মধ্যে সাতজন ইতিমধ্যে ফিরে এসেছেন। এই ভারতীয়দের মুক্তি দেওয়ার যে সিদ্ধান্ত কাতারের আমির নিয়েছেন। আমরা সেটিকে স্বাগত জানাই।

অভিযোগ রয়েছে, দাহরা গ্লোবালের হয়ে কাজ করার সময় ভারতীয় নৌবাহিনীর এই কর্মকর্তারা ইসরায়েলের কাছে গোপন তথ্য পাচার করেছিলেন। এরপর তাদের মৃত্যুদণ্ড দেয় কাতার সরকার। ২০২২ সালের আগস্টে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তখন থেকেই কারাগারে বন্দি ছিলেন তারা।

মুক্তি পাওয়া নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তারা হলেন ক্যাপ্টেন নভতেজ সিং গিল, ক্যাপ্টেন সৌরভ বশিষ্ট, কমান্ডার পূর্ণেন্দু তিওয়ারি, ক্যাপ্টেন বীরেন্দ্র কুমার ভার্মা, কমান্ডার সুগুনাকর পাকালা, কমান্ডার সঞ্জীব গুপ্ত, কমান্ডার অমিত নাগপাল এবং নাবিক রাগেশ।

২০২৩ সালের অক্টোবরে কাতারের আদালত তাদের মৃত্যুদণ্ড দেন। এরপর মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের ছাড়িয়ে নিতে কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করে ভারত। এরই প্রেক্ষিতে গত বছরের ডিসেম্বরে মৃত্যুদণ্ডের সাজা স্থগিত করে তাদের অন্য সাজা দেওয়া হয়।


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪




মোহাম্মদপুরে বহুতল ভবন থেকে পড়ে গৃহকর্মীর মৃত্যু, আটক ৬

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের শাহজাহান রোডে নয়তলা থেকে পড়ে প্রীতি (১৫) নামে এক গৃহকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহকর্তা-গৃহকর্ত্রীসহ ছয়জনকে থানা হাজতে রেখেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে আটটায় এই ঘটনা ঘটে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

আটকরা হলেন- গৃহকর্তা সৈয়দ আশফাকুল হক, তার স্ত্রী তানিয়া খন্দকার, মেয়ে আফরিন হক, ছেলে সৈয়দ আনাফ মাহমুদ, ভায়রা আল রাজি মাহবুব ও তার শ্যালিকা রাজিয়া খন্দকার।

এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহফুজুল হক ভূঞা বলেন, সকাল সাড়ে আটটার দিকে প্রীতি নামের এক গৃহকর্মী নয়তলা থেকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ওই বাসার গৃহকর্তা-গৃহকর্ত্রী, তার দুই সন্তান ও বেড়াতে আসা গৃহকর্তার দুই আত্মীয়কে আটক করা হয়েছে। নিহত ওই গৃহকর্মীর পরিবার মৌলভীবাজার থাকেন। তার বাবার নাম লোকেশ উড়ান। তাদেরকে খবর দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



আদানি থেকে বছরে ১ বিলিয়ন ডলারের বিদ্যুৎ কিনবে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রতিবছর ভারতের আদানি থেকে ১ বিলিয়ন ডলারের বেশি মূল্যের বিদ্যুৎ কেনার চুক্তি করেছে বাংলাদেশ। আদানি ভারতীয় ব্যবসায়ী গৌতম আদানির মালিকানাধীন।

বাংলাদেশ ব্যাংক ইতিমধ্যেই আদানি পাওয়ার (ঝাড়খন্ড) লিমিটেড (এপিজেএল) কে পরিশোধের জন্য ১ দশমিক ১২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি বিল অনুমোদন করেছে। খবর অ্যাপারেল রিসোর্সের।

আদানিকে অর্থ প্রদানের জন্য ক্রেডিট লেটার (এলসি) খোলে সোনালী ব্যাংক। এটি বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে আরও মার্কিন ডলার চেয়েছে।

আদানি গ্রুপ বর্তমানে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ঝাড়খন্ডের গোড্ডা পাওয়ার প্ল্যান্ট থেকে ১ হাজার ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রপ্তানি করছে। আগামী ২৫ বছরের জন্য বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে আদানির।

প্রাথমিকভাবে, আদানি পরীক্ষামূলক ভিত্তিতে ২০২৩ সালের মার্চ মাসে বাংলাদেশে তার বিদ্যুৎ রপ্তানি শুরু করে।

সরকারি সূত্র অনুসারে, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বিপিডিবির একজন সুপারিনটেনডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার (এনার্জি অডিট) এর নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি কারিগরি দলের পরিদর্শনের পরে বাণিজ্যিক অপারেশন তারিখ (সিওডি) অনুমোদন করা হয়েছে।

২০১৭ সালে বাংলাদেশ সরকার আদানির সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। ২০২০ সালে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের গোড্ডায় পাওয়ার প্ল্যান্ট নির্মাণ শুরু হয়।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দেবেন আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ২১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির হাতে একুশে পদক ২০২৪ তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় সরকারপ্রধান রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক দেবেন।

একুশে পদক প্রদান উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। পৃথক বাণীতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী উভয়েই অনুষ্ঠানের সাফল্য কামনা করেন।

১৯৫২ সালের এই দিনে মাতৃভাষার জন্য সর্বোচ্চ আত্মত্যাগকারী ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাতে জাতি ২১ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করবে। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে পুরস্কারপ্রাপ্তদের দেওয়া টাকার পরিমাণ কয়েকগুণ বাড়ানো হয়েছে। সর্বশেষ গত ২০২০ সালে তা বাড়িয়ে চার লাখ টাকা করা হয়েছে।

এর আগে ১৩ ফেব্রুয়ারি সরকার নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য একুশে পদক-২০২৩র জন্য ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিকের নাম ঘোষণা করে। এ বছর ভাষা আন্দোলন ক্যাটাগরিতে দুজন, শিল্পকলায় ১২ জন, সমাজসেবায় দুজন, ভাষা ও সাহিত্যে চারজন এবং শিক্ষায় একজন বিশিষ্ট নাগরিক এ পুরস্কার পাচ্ছেন।

ভাষা আন্দোলন বিভাগে পুরস্কারের জন্য মৌ. আশরাফুদ্দীন আহমদ (মরণোত্তর), বীর মুক্তিযোদ্ধা হাতেম আলী মিয়ার (মরণোত্তর) নাম ঘোষণা করা হয়েছে। শিল্পকলা বিভাগে সংগীত ক্যাটাগরিতে জালাল উদ্দীন খা (মরণোত্তর), বীর মুক্তিযোদ্ধা কল্যানী ঘোষ (মরণোত্তর), বিদিত লাল দাস (মরণোত্তর), এন্ড্রু কিশোর (মরণোত্তর), শুভ্রদেব, নৃত্যকলা ক্যাটাগরিতে শিবলী মোহাম্মদ, অভিনয় ক্যাটাগরিতে ডলি জহুর ও এম এ আলমগীর, আবৃত্তি ক্যাটাগরিতে খান মো. মুস্তাফা ওয়ালিদ (শিমুল মুস্তাফা) ও রূপা চক্রবর্তী, চিত্রকলা ক্যাটাগরিতে শাহজাহান আহমেদ বিকাশ, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ ও আর্কাইভিং ক্যাটাগরিতে কাওসার চৌধুরী, সমাজসেবা বিভাগে মো. জিয়াউল হক, রফিক আহামদ, ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে মুহাম্মদ সামাদ, লুৎফর রহমান রিটন, মিনার মনসুর, রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ (মরণোত্তর) এবং শিক্ষা বিভাগে প্রফেসর ড. জিনবোধি ভিক্ষু এ পুরস্কার পাচ্ছেন।

১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে একুশে পদক প্রবর্তন করা হয়। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় স্বর্ণপদক, সম্মাননা সনদ ও নগদ অর্থ দিয়ে পুরস্কার প্রদান করে। ২০২৩ সালে ১৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি ও দুই প্রতিষ্ঠানকে মর্যাদাপূর্ণ একুশে পদক দেওয়া হয়।


আরও খবর