আজঃ রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

কত কোটি টাকা বোনাস পাচ্ছেন সাকিবরা?

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ মার্চ ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। তাদের কিনা টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ করেই ছাড়লো বাংলাদেশ! টাইগারদের এই সাফল্য তো আসলে স্বপ্নের মতোই। স্বপ্নকে বাস্তব রূপ দেওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেটার এবং কোচিং স্টাফদের জন্য এবার বড় অংকের পুরস্কার ঘোষণা করলো বিসিবি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ঘোষণা দিয়েছেন এই পুরস্কারের।

পাপন অবশ্য পুরস্কারের অংকটা পরিষ্কার করে বলেননি। বিসিবির শীর্ষ কর্তারাও কেউ তাৎক্ষণিকভাবে তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ৩ থেকে ৫ কোটি বাড়তি বোনাস পাচ্ছেন সাকিবরা। জিতলে এমনতেই বোনাস পান টাইগাররা। তারও রকম ফের আছে। বড় ও সুপ্রতিষ্ঠিত দলের বিপক্ষে একরকম আর জিম্বাবুয়ে, আফগানিস্তান, আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের বোনাস আরেক রকম।

একইভাবে শুধু সিরিজ জয়ের জন্য একরকম বোনাস আর কোনো বড় দলকে হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে পুরস্কারের অংকটা যায় অনেক বেড়ে। এবার জস বাটলারের ইংলিশ বাহিনীকে বাংলাওয়াশ করে সেই বড় অংকের অর্থ বোনাস পাবেন সাকিব-লিটন-শান্ত-মোস্তাফিজরা। আজ মঙ্গলবার খেলা শেষে শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে দাঁড়িয়ে সে বোনাসের ঘোষণা দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।

পাপন জানান, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-০তে সিরিজ বিজয় ও হোয়াইটওয়াশের জন্য বিসিবির বাঁধাধরা নিয়মের বোনাস মানির বাইরেও ক্রিকেট দলকে বাড়তি বোনাস দেওয়া হবে। ভেতরের খবর, সেই বোনাসের অংক অন্তত ৩ কোটি টাকা, ৫ কোটিও হতে পারে। খুব শিগগিরই এই অর্থ বুঝিয়ে দেওয়া হবে সাকিবদের।

নিউজ ট্যাগ: টি-টোয়েন্টি

আরও খবর



তথ্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সংসদে কিছু আইন আসবে: আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, কিছু আইন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ সংসদে আসবে। এর মাধ্যমে তথ্য ও সম্প্রচার নিয়ন্ত্রণ নয়, মিথ্যা তথ্য এবং মিথ্যা খবর দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা যাতে বন্ধ করা যায় সে ব্যবস্থা নেবে সরকার।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য রুহুল আমিন হাওলাদারের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন আইনমন্ত্রী। তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাতের অনুপস্থিতিতে তার পক্ষে সংসদে প্রশ্নের জবাব দেন তিনি।

রুহুল আমিন হাওলাদার তার প্রশ্নে বলেন, অনেক অনলাইন সংবাদমাধ্যম মিথ্যা সংবাদ করে অস্থিরতা সৃষ্টি করে। অপপ্রচার করে। এগুলো বন্ধে আইন করা হবে কি না। 

আরও পড়ুন>> ‘সরকারি মাল দরিয়ামে ঢাল’ বললে হবে না : প্রধানমন্ত্রী

জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, আমাদের সংবিধানে বলা আছে যে মৌলিক অধিকারের মধ্যে বাকস্বাধীনতা এবং সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা। সেই নিরিখে এবং সেটাকে যথাযথ মর্যাদা দিয়ে আইন প্রণয়ন করতে হয়। আইন অলরেডি একটা আছে যেটা হচ্ছে সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট।

আমি সংসদ সদস্যকে জানাতে চাই, সাইবার সিকিউরিটি অ্যাক্ট এবং আরও কিছু আইন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ সংসদে আসবে। এর মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ নয়, মিথ্যা তথ্য এবং মিথ্যা খবর দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা যাতে বন্ধ করা যায় সে ব্যবস্থা সরকার নেবে। এর পাশাপাশি আমি বলে রাখত চাই, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা কোনোভাবে খর্ব করবে না সরকার।


আরও খবর



আমেরিকার রপ্তানি করা চালে মিলল ক্যানসারের উপাদান!

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চাল রপ্তানি করে আমেরিকা। এর মধ্যে রয়েছে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের দেশ হাইতি। দেশটির আমদানিকৃত চালের বেশির ভাগই আসে আমেরিকা থেকে। এবার সেই চালে অতিরিক্ত মাত্রায় আর্সেনিক ও ক্যাডমিয়ামসহ বিভিন্ন ভারী ধাতু পাওয়া গেছে। এসব উপাদান ক্যানসার ও হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, আমেরিকার মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক সম্প্রতি এসব চাল পরীক্ষা করে এই তথ্য জানান। গবেষণা থেকে তাঁরা জানতে পারেন, হাইতির মাটিতে উৎপাদিত চালের তুলনায় আমেরিকা থেকে আমদানি করা চালে আর্সেনিক ও ক্যাডমিয়ামের ঘনত্ব গড়ে প্রায় দ্বিগুণ। কিছু আমদানি করা চালে এসব উপাদানের উপস্থিতি আন্তর্জাতিক মাত্রাও অতিক্রম করেছে।

গবেষণার বরাতে রয়টার্স বলছে, আমদানি করা প্রায় সব চালেই পাওয়া এসব উপাদান শিশুদের জন্য মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) সুপারিশ করা মাত্রাকেও ছাড়িয়ে গেছে। গবেষণায় অন্যান্য আমদানিকারক দেশে বিষাক্ত পদার্থের মাত্রা মূল্যায়ন করা হয়নি। এ ব্যাপারে এফডিএর কাছে জানতে চায় রয়টার্স। কিন্তু কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

আমেরিকার মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা বলছেন, আর্সেনিক ও ক্যাডমিয়ামসহ বিভিন্ন ভারী ধাতু মানুষের দেহে প্রবেশ করতে পারে। এ ছাড়া এগুলো খাবার ও পানিতে মিশে যায়। এ কারণে এসব উপাদান ক্যানসার ও বিভিন্ন হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

মেক্সিকো ও জাপানের পাশাপাশি হাইতিও আমেরিকার চালের শীর্ষ ক্রেতাদের মধ্যে একটি। পশ্চিম গোলার্ধের সবচেয়ে দরিদ্র ক্যারিবীয় দেশটিতে চালের স্থানীয় দামের চেয়ে আমদানি করা চালের দাম কম। এ কারণে তারা বেশি আমদানি করে থাকে।

গবেষণায় বলা হয়, কম দামের কারণে আশির দশকে আমেরিকা থেকে চাল আমদানি শুরু করে হাইতি। দেশটি বাইরে থেকে ৯০ শতাংশ চাল আমদানি করে। এর বেশির ভাগই আসে আমেরিকা থেকে। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন এই উদ্যোগে ভর্তুকি দিয়েছিলেন। যদিও পরে তিনি বলেন, এই সিদ্ধান্ত ভুল ছিল।


আরও খবর



প্রবাল দ্বীপে নিখোঁজ বনবিভাগের নারী কর্মকর্তা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার প্রতিনিধি

Image

প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন ভ্রমণে গিয়ে মাহমুদা আক্তার হ্যাপী (৩১) নামে এক নারী বন কর্মকর্তা নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোঁজ মাহমুদা আক্তার হ্যাপী ৪১তম বিসিএস ক্যাডার। তিনি ঢাকা বনবিভাগে কর্মরত আছেন। রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) থেকে তার খোঁজ মিলছে না। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাসুকুর রহমান।

তিনি জানান, ‌গত ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা থেকে ৭১ জনের একটি টিম সেন্টমার্টিন দ্বীপ ভ্রমণে যায়। সে টিমে মাহমুদা আক্তার হ্যাপীও ছিলেন। তারা হোটেলে এবং কয়েকটি রিসোর্টে উঠেন। রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে তিনি বন্ধুর সাথে দেখা করার কথা বলে রিসোর্ট থেকে বের হন। বিকাল পর্যন্ত তিনি ফিরে না আসায় তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বন্ধুর সাথে আছেন বলে জানান। কিন্তু এর এক ঘণ্টা পর তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ উসমান গনি বলেন, গত ৩ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাতে মাহমুদা আক্তার হ্যাপী সহ তিন বান্ধবী একসাথে সেন্টমার্টিন দ্বীপের একটি হোটেলের কক্ষে ছিলেন। সেদিন রাতে হ্যাপী সবার আগে ঘুমিয়ে গেলেও অন্য দুই বান্ধবীর ঘুমাতে দেরি হয়। আর ওই দুই বান্ধবী সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখে রুমে হ্যাপী নেই। তার কাপড় চোপড় ও ব্যাগ গোছানো। পরে সাড়ে ৯টার দিকে এক বান্ধবীর ফোনে হ্যাপীর নাম্বার থেকে একটি ম্যাসেজ আসে, আমি গোসল করে রুমে ফিরব। এরপর থেকেই হ্যাপীর আর কোনো হদীস নেই।

তিনি আরও বলেন, হ্যাপীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের নম্বরটি ট্র্যাকিং করে দেখা গেছে তার সর্বশেষ অবস্থান কক্সবাজার শহরের সুগন্ধা পয়েন্ট। আমরা তার অবস্থান নিশ্চিত করে তাকে উদ্ধারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আদনান চৌধুরী বলেন, বিষয়টি জানার পর টেকনাফ থানায় একটি ডায়েরি করা হয়। এরই সূত্র ধরে কাজ করছে পুলিশ।


আরও খবর



সকালে খালি পেটে ঘি খেলে কী হয়?

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

রান্নায় স্বাদ বাড়াতে ঘিয়ের জুড়ি নেই। অনেকে গরম ভাতে এক চামচ ঘি খেতে পছন্দ করেন।  কিন্তু কখনও খালি পেটে ঘি খাওয়ার কথা ভেবেছেন?অনেকের হয়তো জানা নেই, সকালে খালি পেটে এক চামচ ঘি খেলে মিলবে নানা উপকারিতা। প্রতিদিন এক চামচ ঘি খেলে হৃৎপিণ্ড থেকে ত্বক সব সুস্থ ও সুন্দর থাকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ঘিয়ের উপকারিতা পেতে গেলে এটি সকালে খালি পেটেই খাওয়া উচিত।

পুষ্টিবিদরা বলছেন, ঘিয়ের মধ্যে স্যাচুরেটেড ফ্যাট নেই। তাই এটি সকালে খেলে সারাদিন শক্তিতে ভরপুর থাকা যায়। তাছাড়া ঘি সহজপাচ্য এবং দ্রুত বিপাক হয়। তাই খালি পেটে ঘি খেলে হজমের গোলমাল হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই।

ঘিয়ের মধ্যে এ, ই এবং ডি-এর মতো ভিটামিন রয়েছে। এসব পুষ্টি সামগ্রিকভাবে স্বাস্থ্য উন্নত করতে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে। এতে যেমন রোগের ঝুঁকি কমে, তেমনই হাড় শক্তিশালী হয় এবং ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো থাকে।

সকালবেলা খালি পেটে ঘি খেলে, এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডনেট দেহের অক্সিডেটিভ চাপ কমায় এবং ফ্রি র‍্যাডিকেলের সঙ্গে লড়াই করে শরীরকে সুস্থ রাখে। শুধু তাই নয়, এভাবে ঘি খেলে শারীরিক প্রদাহ এবং দীর্ঘস্থায়ী রোগের ঝুঁকি কমে।

ঘিয়ের গ্লাইসেমিক সূচক কম। তাই সকালে খালি পেটে ঘি খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং, সারাদিন এনার্জিতে ভরপুর থাকতে পারবেন। পাশাপাশি এটি অন্ত্রের স্বাস্থ্যকে ভাল রাখে। এতে হজমজনিত সমস্যা দূর হয়।

ঘিয়ের মধ্যে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে, যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। তাছাড়া এক চামচ করে ঘি খেলে কোলেস্টেরলের মাত্রাও বাড়ে না। কিন্তু এতে ক্যালোরির পরিমাণ বেশি। তাই ১ চামচের বেশি না খাওয়াই ভাল।

সকালবেলা খালি পেটে ঘি খেলে এর পুষ্টিগুণ সবচেয়ে ভাল মাত্রায় পাওয়া যায়। আপনি টোস্টে মাখন বা জ্যামের বদলে ঘি ব্যবহার করতে পারেন। এমনকি ওটমিলেও ঘি মিশিয়ে খেতে পারেন। 

নিউজ ট্যাগ: খালি পেটে ঘি

আরও খবর



আট বিভাগেই ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শীত কাটিয়ে ক্রমেই বাড়ছে তাপমাত্রা। পাশাপাশি বাড়ছে বৃষ্টির প্রবণতা। এমন অবস্থায় দেশের আট বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় দেয়া আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়, পূবালী লঘুচাপের বর্ধিতাংশ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

এ অবস্থায় রাতে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে ভোর পর্যন্ত সারাদেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়বে।

সারাদেশে রাত এবং দিনের তাপমাত্রা দুই ডিগ্রির মতো বাড়তে পারে।

তবে মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ছয় বিভাগে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চলসহ ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দুয়েক জায়গায় দমকা হাওয়া ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

বুধবারও (২১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুয়েক জায়গায় দমকা ও ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি এবং বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।


আরও খবর
সারা দেশে কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪