আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

কোক স্টুডিও বাংলায় মিতুর কণ্ঠে ‘সব লোকে কয়’

প্রকাশিত:বুধবার ২২ জুন 20২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ জুন 20২২ | ২৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

একজন নবীন চারপাশ থেকে শেখে। এরপর নিজে নিজের অস্তিত্ব জানান দেয়। তেমনই একজন তরুণ কণ্ঠশিল্পী কানিজ খন্দকার মিতু। টাংগাইল থেকে উঠে এসে যে এখন নিজের জাত চেনালেন কোক স্টুডিও বাংলার মঞ্চে।  মিতুর স্বপ্ন পূরণের প্রথম ধাপটি শুরু হয় সংগীতবিষয়ক রিয়েলিটি শো মেঘে ঢাকা তারায় অংশ নিয়ে। ২০১১ সালে আয়োজিত এটিএন বাংলায় প্রচারিত এই আয়োজনে প্রথম স্থান অর্জন করেছিলেন তিনি। এবার বিশ্ব সংগীত দিবসে কোক স্টুডিও বাংলায় গাইলেন লালনের সব লোকে কয় গানটি। গানটি সংগীতায়োজন করেছেন শায়ান চৌধুরী অর্ণব। গানটি ইউটিউবে প্রকাশের পর দারুণ প্রশংসা পাচ্ছেন মিতু ও সংশ্লিষ্টরা।

মিতু বলেন, এত বড় প্ল্যাটফর্মে লালন সাঁইজির গান করতে পেরেছি এটি আমার কাছে অনেক বড় পাওয়া। এ জন্য প্রথমেই কৃতজ্ঞতা জানাই অর্ণবদার প্রতি। তিনি না থাকলে এই সুযোগটি পাওয়া হতো না। পাশাপাশি বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা জানাই আমার ওস্তাদ গোলাম রাব্বানী রতনের প্রতি। তিনি আমার পাশে ছায়ার মতো না থাকলে হয়তো এতদূর আসা সম্ভব হতো না।

কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সংগীত বিভাগ থেকে  স্নাতক সম্পন্ন করেছেন মিতু। একই বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন তিনি লোক বিভাগে মাস্টার্সে অধ্যয়নরত।  গানের আকাশে মিতুর নব যে পথচলা শুরু হলো, এই যাত্রায় কণ্ঠ, সুর, তাল আর লয়কে মুঠোবন্দি কর মেঘের ভেলায় পাড়ি দিয়ে চলতে চান অসীম দূরত্বে। তিনি বলেন, ছোট থেকেই গান নিয়ে থাকলেও কোক স্টুডিওর এই গানের মাধ্যমে আমার পুনর্জন্ম হলো। এই ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। পাশাপাশি গান দিয়ে মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিতে চাই। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, আমি যেন আপনাদের ভালো কিছু গান উপহার দিতে পারি।

এদিকে মিতুর গাওয়া সব লোকে কয় গানের সঙ্গে ভারতীয় ফোকের মিশ্রণে ফিউশন তৈরি করা হয়েছে। এই অংশের শিরোনাম কবিরা কুয়া এক হ্যায়। এতে কণ্ঠ দিয়েছেন ভারতের গায়ক মুর্শিদাবাদী। এটি পনেরো শতকের ভারতীয় রহস্যবাদী কবি এবং সাধক কবীর দাশের লেখা।


আরও খবর



১২৮ জনের করোনা শনাক্ত, নেই মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | ৩২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশে ১২ জুন সকাল ৮টা থেকে ১৩ জুন সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনাভাইরাসে কারও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। ফলে, করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২৯ হাজার ১৩১ অপরিবর্তিত আছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১২৮ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে মোট ১৯ লাখ ৫৪ হাজার ২৪৩ জন।

সোমবার (১৩ জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

উল্লিখিত সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৭১ জন করোনা রোগী। এ পর্যন্ত করোনামুক্ত হয়েছেন ১৯ লাখ ৫ হাজার ৩৩৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় করোনা শনাক্তের হার ১ দশমিক ৯১ শতাংশ। এ পর্যন্ত করোনা শনাক্তের গড় হার ১৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ। সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫০ শতাংশ। করোনায় মৃত‌্যুর হার ১ দশমিক ৪৯ শতাংশ।


আরও খবর



রংপুর বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রংপুর বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ দফতরের পরিচালক ওয়ালিউর রহমান আকন্দের (৫৫) গলায় গামছা পেঁচানো ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২১ জুন) দুপুরে নগরীর ষ্টেশন রোডের অফিস সংলগ্ন জেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের তৃতীয় তলার বাথরুম থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

পরিচালক ওয়ালিউর রহমান আকন্দের বাড়ি গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলায়। তার স্ত্রী ও দুই সন্তান বগুড়ায় থাকেন। চাকরির কারণে তিনি তার দফতরের পাশে জেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের তৃতীয় তলার একটি রুমে থাকতেন।

বিভাগীয় প্রাণিসম্পদ দফতরের অফিস সহায়ক বদিউজ্জামান জানান, মঙ্গলবার (২১ জুন) সকালে স্যারের দেরি দেখে তাকে ডাকতে যাই। এ সময় দরজা খোলা অবস্থায় ভেতরে ঢুকে বাথ রুমে ঝর্ণার সঙ্গে গামছা পেঁচানো ঝুলন্ত লাশ দেখে চিৎকার করলে অন্যরা ছুটে এসে পুলিশে খবর দেন।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপপুলিশ কমিশনার (অপরাধ) আবু মারুফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। তার মৃত্যুর কারণ উত্ঘাটনে পুলিশ কাজ করছে।


আরও খবর



সাবেক পরিচালকসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | ৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাবনা মানসিক হাসপাতালের (পামাহা) সাবেক পরিচালক ও চিকিৎসক তন্ময় প্রকাশ বিশ্বাসসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ৬টি মামলা হয়েছে।

বুধবার (১৫ জুন) বিকেলে পাবনা দুদক কার্যালয়ে মামলাগুলো নথিভুক্ত করা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সমন্বিত পাবনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শহীদুল আলম সরকার বাদী হয়ে ৮৮ লাখ ৩ হাজার ৭৬২ টাকা টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে এসব মামলা করেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- জেলার সাবেক বিপণন কর্মকর্তা (বর্তমানে কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের দিনাজপুর কার্যালয়ে কর্মরত) হুমায়ুন কবীর, হাসপাতালের খাদ্য সরবরাহ ঠিকাদার এইচ এম ফয়সাল, এইচ এম রেজাউল ও এইচ এম আরফিন। এ তিন ঠিকাদার সম্পর্কে ভাই। তাদের বাড়ি পাবনা জেলা শহরে।

দুদকের পাবনা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ঠিকাদারেরা ২০১৭-১৮, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে যোগসাজশ করে হাসপাতালের পথ্য খাতে প্রকৃত বাজার মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্য দেখিয়ে সরকারের আর্থিক ক্ষতিসাধন করে ৮৮ লাখ ৩ হাজার ৭৬২ টাকা আত্মসাৎ করেন। এ বিষয়ে দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে মামলা করা হয়েছে।

জানতে চাইলে মামলার বাদী ও দুদকের পাবনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শহীদুল আলম সরকার বলেন, ২০১৯ সালের শেষের দিকে অভিযোগ পাওয়া যায়। দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে প্রাথমিকভাবে অভিযোগের সত্যতা মেলায় মামলাগুলো করা হয়েছে। মামলার তদন্ত করবে দুদক নিজেই করবে।

এ বিষয়ে পাবনা মানসিক হাসপাতালের সাবেক পরিচালক চিকিৎসক তন্ময় প্রকাশ বিশ্বাসের সাথে কথা বলার জন্য তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও বন্ধ পাওয়া গেছে।


আরও খবর



খুলনায় এনইউবির ছাত্রের আত্মহত্যা, প্রেমিকার নামে মামলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ জুন ২০২২ | ২৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুলনায় নর্দার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের (এনইউবি) সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের ছাত্র প্রমিজ নাগের আত্মহত্যার ঘটনায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে তার প্রেমিকা সুরাইয়া ইসলাম মিমের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) মামলাটি করেন প্রমিজ নাগের ভাই প্রীতিশ কুমার নাগ।

ঘটনার পর থেকেই পলাতক সুরাইয়া ইসলাম মিম। তিনি নড়াইলের কালিপুর উপজেলার বাবুপুর গ্রামের মো. আবুল কালাম আজাদের মেয়ে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সোনাডাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হরসিৎ মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, মিম খুলনা নর্দার্ন ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের ষষ্ঠ বর্ষের ছাত্রী। আর প্রমিজ নাগ পঞ্চম বর্ষের ছাত্র ছিলেন। একই বিভাগে পড়ার কারণে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তাদের এ সম্পর্ক দীর্ঘদিনের।

মিম প্রায়ই প্রমিজ নাগের ভাড়াবাড়িতে এসে দীর্ঘক্ষণ অবস্থান করার পর ওই বাসা থেকে বের হয়ে যেতেন। ২০ জুন তাদের সম্পর্কে ফাটল ধরে। ওইদিন তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ভারী একটি বস্তু দিয়ে প্রমিজের মাথায় আঘাত করেন মিম। তবে কী নিয়ে তাদের এ সম্পর্কের অবনতি হয় তা জানা যায়নি।

পুলিশ আরও জানায়, ১২৩ নম্বর গোবরচাকা এলাকার নুর ইসলামের বাড়ির ভাড়াটিয়া মিম। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক। যোগাযোগের মাধ্যমও বন্ধ রেখেছেন। এ ঘটনায় মিমকে আসামি করে বৃহস্পতিবার মামলা করেন প্রমিজের ভাই প্রীতিশ কুমার নাগ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই হরসিৎ মন্ডল বলেন, মামলার পর থেকে মিম গা ঢাকা দিয়েছেন। তাকে খুঁজে পেলে আত্মহত্যার কারণ জানা যাবে। প্রমিজের বন্ধুরা অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। তবে তদন্তের স্বার্থে তা প্রকাশ করা যাচ্ছে না।

বুধবার (২২ জুন) নগরের সোনাডাঙ্গা থানার সিটি ইন হোটেলের পেছনের একটি বাড়ি থেকে নর্দার্ন ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের ছাত্র প্রমিজ নাগের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এনিয়ে ওই এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

প্রমিজ নাগ পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার সাচিয়া গ্রামের জোতিন্ময় নাগের ছেলে। আত্মহত্যার সময় তার পকেটে একটি চিঠি পায় পুলিশ। তবে তাতে কী লেখা আছে তা জানানো হয়নি।

 


আরও খবর



বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে বাংলাদেশে আসবেন ক্রিস্টিয়ান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ মে ২০২২ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলতি বছর নভেম্বরে মাঠে গড়াবে বিশ্বকাপ ফুটবল। সময়ের হিসেবে এখনো প্রায় পাঁচ মাস বাকি। তবে বিশ্বকাপের বছর বলে কথা। টুর্নামেন্ট শুরু হতে দেরি হলেও,এখনই ফুটবলের বৈশ্বিক আসরের রোমাঞ্চে মজেছেন ফুটবল অনুরাগীরা।

শুরু হয়ে গেছে বিশ্বকাপের ট্রফি ট্যুরও। সেই ট্যুরের অংশ হিসেবে বাংলাদেশেও আসছে বিশ্বকাপ ট্রফি। আর সেটা নিয়ে আসবেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক তারকা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ান কারেম্বু। আগামী ৮ জুন সকালে বিশ্বকাপ নিয়ে বাংলাদেশে আসবেন কারেম্বু। বাংলাদেশ সফরে মোট ৩৬ ঘণ্টা থাকবে বিশ্বকাপ ট্রফি।

বিশ্বকাপের অন্যতম অফিশিয়াল পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান কোকাকোলা। মূলত তাদের পৃষ্ঠপোষকতাতেই বাংলাদেশে আসছে বিশ্বকাপ ট্রফি। কোকাকোলার সঙ্গে এই উদ্যোগে কাজ করছে বাংলাদেশের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন।

বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ এ ব্যাপারে বলেছেন,৮ জুন সকালে ট্রফি ঢাকায় আসবে। সেদিন বঙ্গভবনে নিয়ে যাওয়া হবে ট্রফি। এরপর নেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে। এর পর দিন আর্মি স্টেডিয়ামে সীমিতসংখ্যক ফুটবলপ্রেমীর জন্য ট্রফি প্রদর্শন করা হবে।

এর আগে ২০১৩ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপের আগে বিশ্বকাপ ট্রফি সবশেষ বাংলাদেশে আনা হয়েছিল। এর পরের আসরে রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে ট্রফি বাংলাদেশে আসেনি।


আরও খবর