আজঃ রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

‘খালেদার জন্য বিদেশ থেকে ডাক্তার আনার সুযোগ রয়েছে’

প্রকাশিত:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় বিএনপি যদি বিদেশ থেকে বড় বড় ডাক্তার আনতে চায়, আনতে পারে। সে ক্ষেত্রে সরকার কোনো বাধা দেবে না বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

শনিবার (২০ নভেম্বর) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভা মিলনায়তনে ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় ভিডিও কনফারেন্সে তিনি এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর মানবিকতার দৃষ্টান্ত হিসেবে আইনে যা করা সম্ভব খালেদা জিয়ার জন্য তা করা হয়েছে। ভুলে গেলে চলবে না দেশের আদালত দ্বারা তিনি সাজাপ্রাপ্ত। একজন সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে আইন দ্বারা যে সুবিধা দেওয়া দরকার তা দেওয়া হয়েছে। বিএনপিকে এটাও মনে রাখতে হবে দেশের আইনে যা আছে, তার বাইরে গিয়ে সরকার কিছু করবে না।

বর্ধিত সভায় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী আরও বলেন, ইউপি নির্বাচনে আখাউড়ায় কাউকে দলীয় প্রতীক নৌকা দেওয়া হবে না। যার যে পদে ইচ্ছা নির্বাচন করতে পারবে। তবে জনসমর্থনের ভিত্তিতে নির্বাচন করবেন। মনে রাখবেন ব্যক্তির চেয়ে দল বড়, দল থেকে দেশ বড়। জনগণ যাতে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারে তাই দলীয় প্রতীক ছাড়া নির্বাচন দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনে কারচুপির কোনো সুযোগ দেওয়া হবে না। নির্বাচনকে কেন্দ্র কোনো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ (অব.) মো. জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, পৌর মেয়র তাকজিল খলিজা কাজল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. মনির হোসেন, সেলিম ভূইয়া, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ ভূইয়া বাদল, যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মমিন বাবুল, ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন বেগ শাপলু, সাধারণ সম্পাদ সাখাওয়াত হোসেন নয়ন প্রমুখ।


আরও খবর



সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলা ৯০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের অভিযোগ সংক্রান্ত সব মামলা ৯০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। বুধবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সব অধস্তন ফৌজদারি আদালত এবং ট্রাইব্যুনালে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলার অভিযোগপত্র বিচারিক আদালতে প্রাপ্তির ৯০ কার্যদিবসের মধ্যে আবশ্যিকভাবে মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশনা প্রদান করা হলো।

নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি করতে ব্যর্থ হলে তার কারণ উল্লেখপূর্বক ব্যাখ্যা বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।


আরও খবর



জিকে শামীমের মায়ের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় যুবলীগের কথিত সমবায় বিষয়ক সম্পাদক, ঠিকাদার এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জিকে শামীমের মা আয়েশা আক্তারের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন।

এ দিন জিকে শামীম ও তার মা আয়েশা আক্তারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দেওয়া চার্জশিট আমলে নেন আদালত। শুনানিকালে জিকে শামীমকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

তবে পলাতক থাকায় আয়েশা আক্তারের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। আগামী ১৫ ডিসেম্বর গ্রেফতার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য করেছেন আদালত।

দুদকের কোর্ট ইন্সপেক্টর আমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

২০১৯ সালের ২১ অক্টোবর জিকে শামীম ও তার মা আয়েশা আক্তারের বিরুদ্ধে ২৯৭ কোটি ৮ লাখ ৯৯ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ মামলা দায়ের করেন দুদকের উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন। চলতি বছরের শুরুর দিকে তাদের দুজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করা হয়।


আরও খবর



ইকুয়েডরে কারাগারে ভয়াবহ দাঙ্গায় নিহত ৬৮

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইকুয়েডরের একটি কারাগারে ভয়াবহ দাঙ্গায় কমপক্ষে ৬৮ জন বন্দি নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় (১২ নভেম্বর) গোয়াকিল শহরের লিটোরাল পেনিটেনশিয়ারিতে এ দাঙ্গা ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পুলিশের কৌশলগত ইউনিট, যারা কারাগার ভবনে প্রবেশ করে, তারা বন্দুক ও বিস্ফোরক খুঁজে পেয়েছে। দাঙ্গায় কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছেন।

এর আগে এ মাসের শুরুর দিকে একটি ছোট সশস্ত্র সংঘর্ষে তিনজন বন্দিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছিল।

বিবিসি জানিয়েছে, সেপ্টেম্বর মাসের শেষে দেশটির ওই কারাগারে পৃথক একটি দাঙ্গায় কমপক্ষে ১১৬ জন বন্দি নিহত হয়েছিলেন। এ নিয়ে চলতি বছর দেশটির বিভিন্ন কারাগারে প্রায় ৩০০ বন্দির সংঘর্ষে মৃত্যু হয়েছে। তবে সেপ্টেম্বরের ওই সহিংসতা সবচেয়ে ভয়াবহ ছিল।

বন্দিদের প্রতিদ্বন্দ্বী সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্বের জের ধরে প্রাণঘাতী ওই দাঙ্গা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

কারাগারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সেখানে সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর ভেতরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।


আরও খবর
করোনায় আরও ৭ হাজারের বেশি মৃত্যু

শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১




এসএসসি পরীক্ষায় মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৬১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ১৪ নভেম্বর শুরু হচ্ছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা। রোববার (৭ নভেম্বর) পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

নির্দেশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে-

১. পরীক্ষাকেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সঙ্গে একজনের বেশি অভিভাবক কেন্দ্রে আসতে পারবেন না।

২. যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে পরীক্ষার্থীদের।

৩. কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলকে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পরীক্ষা অনুষ্ঠান নিশ্চিত করতে হবে।

৪. শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে পরীক্ষা পরিচালনায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে ৫ সেপ্টেম্বর জারি করা গাইড লাইনের নির্দেশনা পালন করতে হবে।

৫. পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ত্রিশ মিনিট আগে সব পরীক্ষার্থীকে অবশ্যই পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করে আসন গ্রহণ করতে হবে। অনিবার্য কারণে কোনো পরীক্ষার্থী নির্ধারিত সময়ের পর পরীক্ষা কেন্দ্রে আসলে রেজিস্টারে নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময় ও বিলম্বের কারণ উল্লেখ করতে হবে।

৬. বিলম্বে আসা পরীক্ষার্থীদের তালিকা প্রতিদিন কেন্দ্র সচিব সংশ্লিষ্ট বোর্ডকে জানাবে।

৭. কেন্দ্র সচিব ছাড়া পরীক্ষা কেন্দ্রে অন্য কেউ মোবাইল ফোন বা মোবাইল ফোনের সুবিধাসহ ঘড়ি, কলম বা অননুমোদিত ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করতে পারবেন না।

৮. কেন্দ্র সচিব ছবি তোলা ও ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধাবিহীন একটি সাধারণ (ফিচার) ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। অননুমোদিত ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহারকারীগণের বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৯. প্রত্যেক কেন্দ্রের জন্য একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বা ট্যাগ অফিসার নিয়োগ দিতে হবে। ট্রেজারি বা থানা বা নিরাপত্তা হেফাজত থেকে কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বা তার মনোনীত উপযুক্ত প্রতিনিধি ট্যাগ অফিসারসহ প্রশ্নপত্র গ্রহণ করে পুলিশ প্রহরায় কেন্দ্রে নিয়ে যাবেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বা ট্যাগ অফিসারের উপস্থিতি ছাড়া প্রশ্ন বের করা যাবে না বা বহন করা যাবে না।

১০. ট্রেজারি বা থানা বা নিরাপত্তা হেফাজত থেকে পরীক্ষার কেন্দ্রে বহুমুখী নির্বাচনী প্রশ্নসহ রচনামূলক বা সৃজনশীলের সকল সেট প্রশ্নই নিতে হবে।

১১. সেট কোড পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে জানানো হবে। সে অনুযায়ী নির্ধারিত সেট কোডে পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

১২. কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ট্যাগ অফিসার), কেন্দ্র সচিব এবং পুলিশ কর্মকর্তার উপস্থিতি ও স্বাক্ষরে বিধি অনুযায়ী প্রশ্নপত্রের প্যাকেট খুলতে হবে।

১৩. পরীক্ষা চলাকালীন এবং পরীক্ষা অনুষ্ঠানের আগে বা পরে পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ও পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিরা ছাড়া অন্যদের প্রবেশ সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ থাকবে। এ সময়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশকারী অননুমোদিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

১৪. অনিবার্য কারণবশত কোন পরীক্ষা বিলম্বে শুরু করতে হলে যত মিনিট পরে পরীক্ষা শুরু হবে পরীক্ষার্থীদের সে সময় থেকে যথারীতি প্রশ্নপত্রে উল্লেখিত নির্ধারিত সময় দিতে হবে।

১৫. পরীক্ষা কেন্দ্রে ও প্রশ্ন পরিবহনে দায়িত্বপ্রাপ্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্কতার সাথে দায়িত্ব পালন করবে। প্রশ্নপত্র ফাঁস কিংবা পরীক্ষার্থীদের কাছে উত্তর সরবরাহে জড়িত ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও জেলা প্রশাসন কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

১৬. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত গুজব কিংবা এ কাজে তৎপর চক্রগুলোর কার্যক্রমের বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগ নজরদারি জোরদার করবে।


আরও খবর



২৫ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে শোকজ

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অস্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করায় ২৫ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়কে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে (শোকজ) বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশিন (ইউজিসি)।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, কেউ কেউ স্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করলেও কোনোটির বিরুদ্ধে অননুমোদিত প্রোগ্রাম পরিচালনা, কোনোটির বিরুদ্ধে সনদ বাণিজ্যের অভিযোগ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির আগে এগুলো যাচাই করে ভর্তি হতে বলেছে ইউজিসি।এ সংক্রান্ত তথ্য ইউজিসি ওয়েবসাইটে www.ugc.gov.bd  প্রকাশ করেছে।

গত ২০১০ সাল থেকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে স্থায়ী ক্যাম্পাসে পাঠদানের তাগাদা দিয়ে আসছে সরকার। তবে সরকারের সেই নির্দেশনা অমান্য করে দেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় বছরের পর বছর ভাড়া করা ভবনে ক্লাস-পরীক্ষা নিচ্ছে। এর কারণে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে নোটিশ পাঠিয়েছে ইউজিসি।

ইউজিসি সূত্রে জানা গেছে, দেশে বর্তমানে ১০৮টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ২০১০ সালের আগে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করেছে ৫২টি। এই ৫২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে স্থায়ী ক্যাম্পাসে পাঠদান শুরু করেছে ২৬টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। ২৫টি বিশ্ববিদ্যালয় এখনও ভাড়া করা ভবনে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। আর একটি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

রোববার (২১ নভেম্বর) ইউজিসি সদস্য (বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়) অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ বলেন, প্রতিষ্ঠানগুলোকে দীর্ঘদিন ধরে স্থায়ী ক্যাম্পাসে আইন মেনে কার্যক্রম পরিচালনার তাগাদা দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু তারা এতদিন পরও কেন আদেশ অনুযায়ী স্থায়ী ক্যাম্পাসে ফিরে যাচ্ছে না সেটা জানতে চাওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ইউজিসির নিয়মানুযায়ী স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য একটি বিশ্ববিদ্যালয় ১২ বছর সময় পায়। এর মধ্যে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়কে স্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। কিন্তু তারা সেটা ফলো করেনি। তাই শোকজ করা হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



আরও খবর