আজঃ শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

কারাগার থেকে বেরিয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৩৮৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে দা দিয়ে কুপিয়ে মাকে খুন করার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে পশ্চিম বড়ালী দেওয়ান বাড়িতে মা মনোয়ারা বেগমকে (৬৫) তার ছেলে মমিন দেওয়ান (৪২) দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান। পরে মিরপুর এলাকার বাসিন্দারা তাকে আটক করে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, মা ও ছেলে একই ঘরে বসবাস করতেন। ঘটনার রাতে হঠাৎ মাকে দা দিয়ে কুপিয়ে খুন করে পালিয়ে যান মমিন।

নিহতের ভাই রুহুল আমিন ও একই বাড়ির আ. রহিম জানান, মমিন দীর্ঘ দিন জেলে ছিলেন। সম্প্রতি দুমাস আগে জেল থেকে জামিনে আসেন। তিনি ইতিপূর্বে রুপবান নামে এক নারীকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করার দায়ে বেশ কয়েক বছর জেলে ছিলেন। গতকাল রাতে মাকে কুপিয়ে রাতেই তিনি পালিয়ে যান।

অভিযুক্ত মমিন বলেন, আমার মাকে দা দিয়ে ১০-১২টি কোপ দিয়ে হত্যা করি। এ ছাড়া আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর কারণে ১৮ বছর আগে এক মহিলাকে তিন দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে ছোরা তৈরি করে জবাই করে হত্যা করি।

এদিকে নিহত মনোয়ারা বেগমের মৃত্যুর ঘটনায় মমিনের মামা রুহুল আমিন বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদ হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে লাশ সুরতহাল করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের সর্তক দৃষ্টির ফলে স্থানীয় মিরপুর এলাকা থেকে অভিযুক্ত মমিনকে আটক করা সম্ভব হয়েছে। তবে মমিনের বিষয়ে এলাকাবাসী মানসিক সমস্যা রয়েছে বলে জানিয়েছে। তা ছাড়া মমিনের কথায়ও অসংলগ্নতা বোঝা যাচ্ছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



নাঈমের হত্যাকারীর ফাঁসি চাইলেন মেয়র তাপস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৬৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নটর ডেম কলেজের ছাত্র নাঈম হাসানের হত্যাকারীর বিচারের দাবিসহ ছাত্রদের অন্যান্য দাবির সঙ্গে শুধু একমত পোষণই না, ঘাতক সেই খুনির ফাঁসিও দাবি করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। বৃহস্পতিবার নগর ভবনের সামনে নিহত শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের সমাবেশে এসে তিনি এ কথা বলেন।

মেয়র তাপস বলেন, আমি জানি এই কষ্ট কী। একজন মেধাবী ছাত্র নাঈম আমার এই সিটি করপোরেশন এলাকার সড়কে আমার করপোরেশনের গাড়ি দ্বারা দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে নিহত হবে- সেজন্য আমি রাজনীতিতে আসি নাই। আমার কাছে আমার সন্তানের সুখ, সন্তানের হাসি, সন্তানের ভালোবাসা অনেক অনেক মূল্যবান। আপনারা যে দাবি দিয়েছেন, সেই দাবির সঙ্গে আমি শুধু একমত পোষণই না, শুধু সম্মতিই না- আমি আরও দাবি করি, যেন সেই খুনির ফাঁসি হয়। আমি দাবি করি, এ শহরের সড়কে আর যেন কোনো নাঈমের প্রাণহানি না ঘটে।

তিনি বলেন, আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা করছি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সব জঞ্জাল মুক্ত করব ইনশাআল্লাহ। আমাদের তারপরও আইনের আওতায় থাকতে হয়। আমাদের সরকারি নীতিমালা-নিয়মকানুন মানতে হয়। মেনে চলতে হয়। সেই নিয়মকানুন মেনেই গাড়িচালকের গাড়ি চালানোর দায়িত্ব ছিল। সে সেই দায়িত্ব পালন করেনি। আরেকজন ভাড়াটিয়া গাড়িচালককে দিয়ে গাড়ি চালিয়েছে। সুতরাং সবাইকে শাস্তি ভোগ করতে হবে। যার দায়িত্ব ছিল তাকে আমরা সাময়িক বরখাস্ত করেছি এবং ইনশাআল্লাহ চাকরি থেকে অপসারণ করব। যে চালক গাড়ি চালানো অবস্থায় ছিল সে খুনি। তার সর্বোচ্চ শাস্তি ইনশাআল্লাহ আমরা নিশ্চিত করব। আপনাদের সঙ্গে কণ্ঠে কণ্ঠ লাগিয়ে আমি বলি- সেই খুনির ফাঁসি চাই আমি।

এ সময় আন্দোলনরত ছাত্রদের দাবির পক্ষে সরকারের উচ্চপর্যায়ে অ্যাডভোকেসি করবেন জানিয়ে মেয়র তাপস বলেন, কোনো বহিরাগত যেন ডিএসসিসির কোনো গাড়ি চালাতে না পারে, সেই কঠোর ব্যবস্থা নেব। আপনাদের যে দাবি এসেছে আমি আপনাদের হয়ে সরকারের উচ্চপর্যায় পর্যন্ত আপনাদের পক্ষে অ্যাডভোকেসি করব। সরকারের কাছ থেকে সব দাবি আদায়ের ব্যবস্থা করব। ঢাকা নিরাপদ শহর হবে আমাদের নির্বাচনী ইশতেহার ছিল। নিরাপদ সড়ক করতে আপনাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধে মিলিয়ে কাজ করব।

নাঈমকে নিজের সন্তানতুল্য উল্লেখ করে মেয়র তাপস বলেন, সম্প্রতি আমি আমার সন্তানের সঙ্গে ছুটি কাটিয়ে এসেছি। কিন্তু আসার দিনেই আমি নাঈমকে হারাব সেটা আমি কল্পনাও করতে পারিনি। নাঈম শুধু আপনাদের ভাই না, আপনাদের বন্ধু না- একটি সতেরো বছরের আমার সন্তান।

এ সময় ছাত্রদের দাবি মেনে নাঈমের নামে এ বছরের মধ্যে দক্ষিণ সিটির নিজস্ব অর্থায়নে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের ঘোষণা দেন মেয়র তাপস।

নিউজ ট্যাগ: মেয়র তাপস

আরও খবর



কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যা: দুই আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুমিল্লার পাথুরিয়াপাড়ায় প্রকাশ্যে গুলি করে প্যানেল মেয়র সৈয়দ মো. সোহেল ও ১৭নং ওয়ার্ড শ্রমিক লীগ সভাপতি হরিপদ সাহা হত্যা মামলায় এজহারনামীয় ৩নং আসামি মো. সাব্বির হোসেন ও ৫নং আসামি সাজন পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনওয়ারুল আজিম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, গতকাল সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাত দেড়টায় নগরীর সংরাইশ গোমতী নদীর বেড়িবাঁধ এলাকায় পুলিশের সঙ্গে একদল সন্ত্রাসীর গুলিবিনিময় হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ দুজনকে আহত অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ সময় পুলিশের তিনজন সদস্য আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি ৭ দশমিক ৬৫ পিস্তল, একটি পাইপ গান, পিস্তলের অব্যবহৃত গুলি, গুলির খোসা এবং কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়।

উল্লেখ্য, ২২ নভেম্বর বিকেলে কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেল ও হরিপদ সাহাকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় নিহত কাউন্সিলর সোহেলের ভাই সৈয়দ রুমন কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় পার্শ্ববর্তী ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের শাহালমকে প্রধান আসামি করে ১১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এ ছাড়া অজ্ঞাত আরও ৮-১০ জনকে আসামি করা হয়েছে।


আরও খবর
বগি লাইনচ্যুত, ট্রেন চলাচল বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




বেনাপোলে বিদেশি পিস্তলসহ ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার দুর্গাপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ওয়ান শুর্টারগান ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৬ যশোরের সদস্যরা। শনিবার রাত ২টার দিকে এসব অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করলেও সোমবার (২৯ নভেম্বর) রাত ১টা ৪৮ মিনিটে প্রেস নোটের মাধ্যমে বিষয়টি সংবাদকর্মীদের জানান।

র‌্যাব জানান, গোপন সংবাদের জানা যায়, বেনাপোল পোর্ট থানার দূর্গাপুর গ্রামের বাদশা মল্লিকের ৫তলা বাড়ির নিচতলায় কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী ও অস্ত্রধারী চাঁদাবাজ সন্ত্রাসী মাদকদ্রব্য বেচাকেনার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। এমন সংবাদে শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাতে র‌্যাব-৬ (যশোর ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল সেখানে অভিযান পরিচালনা করলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে বাড়ির মালিক দুর্গাপুর গ্রামের কেরামত আলীর ছেলে বাদশা মল্লিক (৫০) কৌশলে পালিয়ে যায়। এ সময় সেখান থেকে কালো রংয়ের পলিথিনে মোড়ানো একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটারগানসহ তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব আরও জানায়, পলাতক আসামী বাদশা মল্লিক এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারধীন আছে।

র‌্যাব-৬, সিপিসি-৩, যশোর এর কোম্পানী কমান্ডার লে, কমান্ডার এম নাজিউর রহমান ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গুলি বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়ছে। পলাতক আসামীর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। 


আরও খবর
বগি লাইনচ্যুত, ট্রেন চলাচল বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




চলতি মাসে ৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি চলতি মাসে আসতে পারে। আগামী দু-একদিনের মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে শূন্যপদে চাহিদা বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনে (বিপিএসসি) পাঠানোর কথা রয়েছে। রোববার (২১ নভেম্বর) বিপিএসসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নতুন এ বিসিএস পরীক্ষায় বয়সের কোনো শিথিলতা থাকছে না। স্বাভাবিক নিয়ম অনুসরণ করে আগ্রহী প্রার্থীদের কাছে বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন চাওয়া হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিপিএসসির চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেছেন, আমাদের সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। আগামী দুই একদিনের মধ্যে চাহিদা পাওয়ার কথা। চাহিদা পাওয়ার পর পরবর্তী কার্যক্রম শুরু করা হবে। তবে এবার বয়সসীমা শীতলতার বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে কোনো নির্দেশনা এখনও আমরা পাইনি।


আরও খবর
এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু আজ

বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1




ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে বগুড়ায় সবজি বিক্রেতা নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৫৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বগুড়ার শাজাহানপুর ইউনিয়নে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আজিজুল হক আজহার (৫২) নামে এক সবজি বিক্রেতা নিহত হয়েছেন।

সোমবার মধ্যরাতে উপজেলার হেলেঞ্চপাড়া দ্বিতীয় বাইপাস মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

সবজি বিক্রেতা আজিজুল হক আজাহার শাজাহানপুর উপজেলার মাদলা ইউনিয়নের নন্দগ্রামের মৃত আবদুল কাদেরের ছেলে।

পুলিশ ও স্বজনরা জানান, আজিজুল হক বগুড়া পৌরসভার বনানী এলাকায় সুলতানগঞ্জ হাটে সবজি বিক্রি করে সোমবার মধ্য রাতে অটোভ্যানে বাড়ি ফিরছিলেন।

তিনি হেলেঞ্চাপাড়া এলাকায় দ্বিতীয় বাইপাস মহাসড়কে পৌঁছালে একটি মোটরসাইকেলে আসা তিন ছিনতাইকারী পথরোধ করে। চালক আবদুর রহমান ভ্যান থামাতে বাধ্য হন। তারা ধারালো অস্ত্রের মুখে কাছে থাকা সব কিছু দিতে বলে। ভ্যানচালক আবদুর রহমান কাছে থাকা দুই হাজার টাকা ছিনতাইকারীদের দেন। কিন্তু আজাহার ছিনতাইকারীদের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু করেন।

এ সময় ছিনতাইকারীরা তার বুকসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা সবজি বিক্রেতা আজাহারকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শাজাহানপুর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে সবজি বিক্রেতা আজিজুল হক ওরফে আজাহার খুন হয়েছেন। তার মরদেহ উদ্ধার করে বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। পুলিশের একাধিক টিম মাঠে রয়েছে। হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আরও খবর
বগুড়ায় শক্তিশালী ৭ বিস্ফোরক উদ্ধার

শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১